তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৪ August ২০১৯

তথ্যবিবরণী - 24/8/2019

তথ্যবিবরণী                                                                                       নম্বর : ৩১৭২

 

বাঙালির প্রতি বঙ্গবন্ধুর ছিল অগাধ আস্থা

                                                           -- ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :

 

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব এডভোকেট শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেছেন, বাঙালির প্রতি বঙ্গবন্ধুর ছিল অগাধ আস্থা। শেখ ফজলুল হক মনি, আব্দুর রাজ্জাক, শেখ মনসুর আলী-সহ গোয়েন্দা সংস্থার অনেকে যখন বঙ্গবন্ধুকে ষড়যন্ত্র থেকে সাবধান করলেন, তখন বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, ‘বাঙালিরা আমার বিরুদ্ধে কেনো ষড়যন্ত্র করছে তোমরা বিশ্বাস করলেও আমি বিশ্বাস করি না।’

 

প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ঢাকা প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ও পুনর্বাসন সমিতি আয়োজিত শোকসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন।

 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা দেশকে একক নেতৃত্বে যখন বিশ্বের বুকে এগিয়ে নিচ্ছেন, তখনি আবার চক্রান্ত আর ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে যে কেনো ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় প্রয়োজনে দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধের জন্য সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানান তিনি।

 

ঢাকা প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ও পুনর্বাসন সমিতির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম খানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের সদস্য বীর প্রতীক মেজর (অব.) ওয়াকার হাসান এবং বাংলাদেশ পোস্টের সম্পাদক শরীফ সাহাবউদ্দীন।

 

উল্লেখ্য, কোরআন তেলাওয়াত, ১৫ আগস্ট, ২১ আগস্ট এর শহীদ ও ৭১ এর বীর শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়ার মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়।

 

#

 

নাজমুল/ইসরাত/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/২১৫০ ঘণ্টাতথ্যবিবরণী                          নম্বর :  ৩১৭১
 
উন্নত দেশ প্রতিষ্ঠিত করলেই বঙ্গবন্ধুকে যথাযথভাবে সম্মান করা হবে
                    -- পররাষ্ট্রমন্ত্রী
 
ঢাকা, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :
 
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশকে পৃথিবীর অন্যতম শ্রেষ্ঠ উন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে পারলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে যথাযথভাবে সম্মান করা হবে। শেখ হাসিনার সরকার দেশ পরিচালনা করলে আমরা আমাদের লক্ষ্য অর্জন করতে পারব। বাংলাদেশের উন্নয়ন হলো মানবিক উন্নয়ন। বঙ্গবন্ধুর অর্থনৈতিক নীতির লক্ষ্য ছিল গরিবের সেবা, যা তাঁর কন্যা শেখ হাসিনা অনুসরণ করছে।
 
মন্ত্রী আজ ঢাকায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ফেডারেশন অভ্ বাংলাদেশ চেম্বার অভ্ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই)-এর আয়োজিত আলোচনা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
 
মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশকে উন্নত দেশে রূপান্তর করতে হলে আমাদের জনবলকে উপযুক্ত করে গড়ে তুলতে হবে। আমাদের বাণিজ্য বাড়াতে হবে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় উন্নয়নের লক্ষ্য অর্জনে ‘অর্থনৈতিক কূটনীতি’র ওপর জোর দিয়েছে।  এ বিষয়কে ওয়ার্কশপ, সেমিনার-সহ বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে এগিয়ে নেওয়ার জন্য প্রবাসী বাংলাদেশিসহ সকলের প্রতি আহ্বান জানান ড. মোমেন।
 
ড. মোমেন বলেন, বঙ্গবন্ধু সুশাসনের মৌলিক কাঠামোগুলো তৈরি করেছিলেন। তিনি চেয়েছিলেন হয়রানিমুক্ত প্রশাসনিক ব্যবস্থা। অতি অল্প সময়ের মধ্যে একটি শাসনতন্ত্র প্রণয়ন করেছিলেন।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর নীতি অনুসরণ করায় দারিদ্র্য দূরীকরণ, কৃষি, শিক্ষা-সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে  এ দেশের উন্নয়নে অভাবনীয় সাফল্য এসেছে। বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র সজিব ওয়াজেদ জয় ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে জনগণের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছে দিচ্ছেন। 
 
এফবিসিআইয়ের সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন এফবিসিসিআইয়ের প্রাক্তন সভাপতি  এম এ কাশেম, মাহবুবুর রহমান, কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ, মীর নাসির হোসেন এবং এ কে আজাদ ।
 
#
 
তৌহিদুল/ইসরাত/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/২২১০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ৩১৭০

 

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছে

-- স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

 

হবিগঞ্জ, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :

         

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেছেন, ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সরকার-সহ সকল প্রতিষ্ঠান আন্তরিকভাবে কাজ করছে। আশা করি, ডেঙ্গু মোকাবিলায় আমরা সফল হবো। তিনি বলেন, ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে বিশেষ অবদানের জন্য কোনো পুরস্কার বা স্মারক গ্রহণ করিনি। একটি সংগঠন তাদের প্রথাগতভাবে আমাকে সম্মাননা জানিয়েছে। একটি বিতর্ক অনুষ্ঠানে অন্য সবার সাথে আমাকেও একটি স্মারক তুলে দেয় আয়োজকরা। কিন্তু এটি ভুলভাবে ব্যাখ্যা করা হচ্ছে। কোনো বিষয়কে আংশিক বা ভুলভাবে পরিবেশন করা দুঃখজনক।

 

মন্ত্রী আজ হবিগঞ্জ সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

 

পরে মন্ত্রী হবিগঞ্জ পৌরসভা আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করেন। মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শিক্ষা ও কৃষিকে অগ্রাধিকার দিয়ে যখন তিনি কাজ শুরু করেছিলেন তখন ষড়যন্ত্রকারীরা তাঁকে নির্মমভাবে হত্যা করে এ দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে থামিয়ে দেয়।

 

মেয়র মিজানুর রহমান মিজানের সভাপতিত্বে শোকসভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সংসদ সদস্য এডভোকেট মোঃ আবু জাহির, সংসদ সদস্য এডভোকেট আবদুল মজিদ খান, সংসদ সদস্য গাজী শাহনেওয়াজ মিলাদ প্রমুখ।

 

এর আগে তিনি ২ কোটি ৮৫ লাখ টাকা ব্যয়ে হবিগঞ্জ পৌরসভার কিচেন মার্কেটের উদ্বোধন করেন। পরে হবিগঞ্জ সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নাধীন চলমান কার্যক্রমের ওপর মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করেন।

 

#

 

হাসান/নাইচ/ইসরাত/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/২০৩০ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ৩১৬৯ 

বঙ্গবন্ধুর কৃষি দর্শন ধারণ করতে হবে

                        ---কৃষিমন্ত্রী

 

সিলেট, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :


          কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কৃষির যে দর্শন সে দর্শনকে ধারণ করে কৃষকের কাছে গিয়ে তার পাশে থেকে সেবা দিতে হবে। আপনারা একটি গর্বিত মহান পেশায় আছেন, মানুষ যেন আপনাদের নিয়ে গর্ব করে এমন কাজ করে যাবেন। তিনি আরো বলেন, নিরাপদ ও পুষ্টিমান সম্পন্ন খাদ্য এবং কৃষির আধুনিকায়নে সবাইকে নিষ্ঠার সাথে কাজ করতে হবে।


          মন্ত্রী আজ সিলেট সার্কিট হাউজে সিলেট অঞ্চলের সকল কৃষি দপ্তরের কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন।


          মন্ত্রী বলেন, মাঠ পর্যায় থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ওপর মন্ত্রণালয় কাজ করে। সে ক্ষেত্রে যত দ্রুত ও সঠিক তথ্য পাওয়া যাবে ততই মঙ্গল। কৃষির যান্ত্রিকীকরণে খুব নিবিড়ভাবে তথ্য উপাত্ত দিতে হবে। অনাবাদি জমি চাষের আওতায় আনতে হবে।


          অনুষ্ঠানে সিলেট জেলার জেলা প্রশাসক এম কাজী এমাদুল হাসান-সহ অঞ্চলের সকল কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

 

#

গিয়াস/নাইচ/ইসরাত/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/২১১৬ ঘন্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                      নম্বর : ৩১৬৮

 

প্রবীণ নাগরিকদের জন্য শান্তি নিবাস চালু করা হবে

-- সমাজকল্যাণ মন্ত্রী

 

ঢাকা, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :

 

সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ বলেছেন, বর্তমান সরকার প্রবীণ জনগোষ্ঠীর নিরাপদ জীবন নিশ্চিতে বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। অসহায় প্রবীণদের নিরাপদ জীবনের জন্য ৬৪ জেলায় শান্তি নিবাস চালু করা হবে।

 

মন্ত্রী আজ রাজধানীর আগারগাঁওস্থ সমাজসেবা অধিদপ্তরের মিলনায়তনে প্রবীণ হিতৌষি সংঘ ও জরা বিজ্ঞান প্রতিষ্ঠান আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪ তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব  কথা বলেন।

 

মন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে স্বাধীনতার চেতনাকে নস্যাৎ করতে চেয়েছিল। জাতির সামনে তাদের মুখোশ উন্মোচিত হয়ে গেছে। ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় আসার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রবীণদের কল্যাণে কর্মসূচি হাতে নিয়েছিলেন, তিনি ৪ লাখ ৩ হাজার বয়ষ্ক ব্যক্তিকে মাসিক ১০০ টাকা করে ভাতা প্রদান শুরু করেছিলেন। বর্তমানে এ সংখ্যা ৪৪ লাখে উন্নীত করা হয়েছে।

 

মন্ত্রী জানান, অসহায় প্রবীণদের নিরাপদ জীবনের জন্য দেশের ৬৪ জেলায় সরকারি শিশু পরিবারে শান্তি নিবাস চালু করা হবে। সেখানে বিনোদন-সহ নিরাপদে বসবাসের সকল সুবিধা রাখা হবে। পাশাপাশি যারা উৎপাদনশীল কাজে সম্পৃক্ত হতে চান তাদের জন্য প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রাখা হবে। উৎপাদিত পণ্য বিক্রয়ের জন্য আউটলেট রাখা হবে।

 

মন্ত্রী প্রবীণ নাগরিকদের উদ্দেশে বলেন, বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার পরপরই অবহেলিত, পশ্চাদপদ ও বঞ্চিত মানুষের কল্যাণে সংবিধানে তাদের অধিকারের কথা সন্নিবেশিত  করেছেন। বঙ্গবন্ধুই স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সালে প্রবীণ হিতৌষি সংঘকে সুসংসগঠিত করার নির্দেশনা দিয়েছিলেন। প্রবীণদের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে দেশ পরিচালনায় নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য বঙ্গবন্ধু চিন্তা করেছিলেন।

 

       প্রবীণ হিতৌষি সংঘ ও জরা বিজ্ঞান প্রতিষ্ঠানের সভাপতি ক্যাপ্টেন (অবঃ) এ কে এম শামসুল হকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রবীণ হিতৌষি সংঘের মহাসচিব অধ্যাপক ড. এ এস এম আতীকুর রহমান, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ইসমাইল হোসেন ও সমাজসেবা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক গাজী মোহাম্মদ নুরুল কবির প্রমুখ।

 

#

 

জাকির/ইসরাত/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/২১৪০ ঘণ্টা

তথ্যববিরণী                                       নম্বর :  ৩১৬৭
 
শুল্কহার কমানোর মাধ্যমে উরুগুয়ে ও বাংলাদশেরে বাণজ্যি বৃদ্ধরি সম্ভাবনা
---বাণজ্যিমন্ত্রী
 
 
ঢাকা, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :
 
বাণজ্যিমন্ত্রী টপিু মুনশি বলছেনে, বাংলাদশে বশ্বি বাণজ্যিে দ্রুত এগয়িে যাচ্ছ।ে বাংলাদশে, উরুগুয়সেহ  র্মাকােসারভুক্ত দশেগুলোর সাথে বাণজ্যি বৃদ্ধি করতে আগ্রহী। দক্ষণি আমরেকিার বাণজ্যিকি জোট র্মাকােসার ( ব্রাজলি, র্আজন্টেনিা, প্যারাগুয়ে ও উরুগুয়রে সমন্বয়ে গঠতি) ভুক্ত দশেগুলোতে বাংলাদশেরে তরৈি পোশাকরে বপিুল চাহদিা রয়ছে।ে বাংলাদশে উচ্চ আমদানি শুল্ক হাররে কারণে পণ্য রপ্তানি করতে পাচ্ছে না। এ আমদানি শুল্কহার কমানোর বষিয়ে উরুগুয়ে সরকার পদক্ষপে গ্রহণ করলে উভয় দশেরে মধ্যে বাণজ্যি বৃদ্ধি করা সম্ভব।
 
বাণজ্যিমন্ত্রী বলনে, বাংলাদশে ও উরুগুয়রে মধ্যে বাণজ্যিরে পরমিাণ খুবই সামান্য। উভয় দশে উদ্যোগ গ্রহণ করলে এ বাণজ্যিরে পরমিাণ উল্লখেযোগ্য হারে বৃদ্ধি করা সম্ভব। গত র্অথবছরে বাংলাদশে উরুগুয়তেে 
১১ দশমকি ৬৭ মলিয়িন র্মাকনি ডলার মূল্যরে পণ্য রপ্তানি করছে,ে একই সময়ে বাংলাদশে আমদানি করছেে 
১৩ দশমকি ৩০ মলিয়িন র্মাকনি ডলার মূল্যরে পণ্য। বাংলাদশেরে প্রধানমন্ত্রী শখে হাসনিা দশেরে বভিন্নি অঞ্চলে ১০০টি স্পশোল ইকোনমকি জোন গড়ে তুলছনে। 
 
উরুগুয়ে সফররত বাণজ্যিমন্ত্রী টপিু মুনশি গতকাল (২৩ আগস্ট) মনটভিডিওিতে উরুগুয়রে পররাষ্ট্র ও বাণজ্যিমন্ত্রী রোডালফো ননি নোভোয়ার এর সাথে আনুষ্ঠানকি বঠৈকে এ সব কথা বলনে।  
 
উরুগুয়রে পররাষ্ট্র ও বাণজ্যিমন্ত্রী রোডালফো ননি নোভোয়ার সাম্প্রতকিকালে বাংলাদশেরে র্অথনতৈকি উন্নয়নরে প্রশংসা করনে এবং বাংলাদশেরে সাথে বাণজ্যিসহ অন্যান্য বষিয়ে সর্ম্পক জোরদাররে ইচ্ছা প্রকাশ করনে। বাংলাদশেরে প্রস্তাবতি মুক্ত বাণজ্যি চুক্তরি বষিয়টি র্মাকােসাররে আগামী র্শীষ সম্মলেনে আলোচনার জন্য উত্থাপন করার ঘোষণা দনে। আমদানি শুল্ক হ্রাস বা এফটএি স্বাক্ষর করা হলে উভয় দশে উপকৃত হব।ে পারস্পরকি সর্ম্পক ও যোগাযোগ বৃদ্ধরি জন্য সুবধিাজনক সময়ে তনিি বাংলাদশে সফর করার ইচ্ছা প্রকাশ করনে। 
 
বাণজ্যিমন্ত্রী টপিু মুনশরি এ সফররে ফলে ব্যবসায়ী র্পযায়ে সফর বনিমিয়, কৃষ,ি মৎস্য ও পশুপালন খাতে সহায়তা প্রদান ও সাংস্কৃতকি দলরে সফর শুরু হবে বলে আশা করা হচ্ছ।ে উরুগুয়ে সফররে জন্য ব্যবসায়ীদরে ভসিা প্রক্রয়িা সহজ করা এবং কূটনতৈকি ও সরকারি র্কমর্কতাদরে ভসিা অব্যাহতরি বষিয়ে ইতবিাচক আলোচনা হয়ছে।ে 
 
এরপর বাণজ্যিমন্ত্রী উরুগুয়রে র্অথমন্ত্রী ডানলিো আস্টোররি সাথে বঠৈক করনে। উক্ত বঠৈকে বাণজ্যিমন্ত্রী বাংলাদশে থকেে অধকি পরমিাণে তরৈি পোশাক, ঔষধ, পাট, জুতা, প্লাস্টকি সামগ্রী আমদানরি জন্য উরুগুয়কেে অনুরোধ জানান। বাংলাদশেরে চমৎকার বনিয়িোগ পরবিশে এবং বভিন্নি প্রণোদনাকে কাজে লাগয়িে বাংলাদশেে বনিয়িোগরে জন্য তনিি উরুগুয়কেে অনুরোধ করনে। উরুগুয়রে র্অথমন্ত্রী বাংলাদশেরে সাথে অধকি বাণজ্যিরে ওপর জোর দনে। এছাড়া বাংলাদশেরে প্রস্তাবতি মুক্ত বাণজ্যি চুক্তরি বষিয়টি যনে র্মাকােসাররে আগামী র্শীষ সম্মলেনে উত্থাপতি হয়, সে বষিয়ে উরুগুয়ে র্সবাত্মক সহযোগতিা করবে র্মমে বাণজ্যিমন্ত্রীকে অবহতি করনে।
#
বকসী/নাইচ/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/১৯৫৪ ঘণ্টা
তথ্যববিরণী                            নম্বর : ৩১৬৬
  
বাংলাদশে একটি অসাম্প্রদায়কি চতেনার দশে
 
ঢাকা, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :
খাদ্যমন্ত্রী  সাধন চন্দ্র মজুমদার বলছেনে, র্ধম পালনরে সঠকি পরবিশে না থাকলে র্ধম পালন বাধাগ্রস্ত হয়। প্রধানমন্ত্রীর সঠকি দকিনর্দিশেনায় দশে আজ অসাম্প্রদায়কিতার দশেে পরণিত হয়ছে।ে আজ স্বামীবাগ ইস্কন মন্দরিে শ্রীকৃষ্ণর জন্মাষ্টমী মহোৎসব ২০১৯ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তনিি এসব কথা বলনে।
  
অনুষ্ঠানরে শুরুতে প্রদীপ প্রজ্বলনরে মাধ্যমে অনুষ্ঠানটরি উদ্বোধন করনে খাদ্যমন্ত্রী। তনিি বলনে, ইস্কন মন্দরিরে র্কাযক্রম সারা দশেইে বরিাজমান। অন্যান্য সব র্ধমরে ন্যায় হন্দিু র্ধমওে ন্যায় নীতি ও অহংিসার কথা বলা হয়ছে।ে তনিি বলনে, র্ধম যার যার উৎসব সবার। 
 
প্রধান অতথিরি বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলনে, সব র্ধমইে অহংিসার কথা বলা হয়ছে,ে  মানবতার কথা বলা হয়ছে।ে  তনিি বলনে, বাংলাদশে একটি অসাম্প্রদায়কি চতেনার দশে।  
 
শ্রী যশোদানন্দন আর্চাযরে সভাপতত্বিে আয়োজতি অনুষ্ঠানে অন্যান্যরে মধ্যে উপস্থতি ছলিনে ইস্কন মন্দরিরে যুগ্মপরচিালক সুখী সুশীল দাস, র্কীতন দাস ব্রহ্মচারী-সহ হন্দিু র্ধমাবলম্বী র্সবস্তররে জনগণ।
 
#
সুমন/নাইচ/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/২০১২ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ৩১৬৫  

দেশের ডেঙ্গু পরিস্থিতি

ঢাকা, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :  

          স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী গত জানুয়ারি থেকে আজ পর্যন্ত হাসপাতালগুলোতে সর্বমোট ডেঙ্গু আক্রান্ত ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৬২ হাজার ২১৭ জন। তার মধ্যে চিকিৎসা শেষে ছাড়পত্র নিয়ে চলে গেছেন ৫৫ হাজার ৮৮১ জন। আর এ যাবত ডেঙ্গু রোগে মারা গেছেন ৪৭ জন।  

          বর্তমানে সারা দেশের হাসপাতালগুলোতে ভর্তিকৃত ডেঙ্গুরোগী আছেন ৬ হাজার ২৮৯ জন, যার মধ্যে ঢাকার ৪১টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৩ হাজার ৫১৮ জন।

          গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে নতুন ১ হাজার ১৭৯ জন ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন, যার মধ্যে ঢাকা শহরে ৫৭০ জন।

#

 

আয়শা আক্তার/নাইচ/মোশারফ/রেজাউল/২০১৯/২০০৫ ঘণ্টা   

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ৩১৬৪  

নদী বন্দরের জন্য ১ নম্বর সতর্ক সংকেত বহাল

ঢাকা, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :      

          রাজশাহী, রংপুর, দিনাজপুর, পাবনা, বগুড়া, টাংগাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চল সমূহের উপর দিয়ে দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘন্টায় ৪৫-৬০ কি.মি. বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দর সমূহকে ১ নম্বর (পুনঃ) ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

          দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স কো-অর্ডিনেশন সেন্টারের বিকাল

৩ টার প্রতিবেদন অনুযায়ী আজ এ তথ্য পাওয়া গেছে। 

          আজ সকাল ৯টা থেকে ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাস অনুযায়ী ঢাকা, রাজশাহী, রংপুর, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ময়মনসিংহ বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারী ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। 

 

          সব নদ-নদীর পানি বিপদসীমার নীচে রয়েছে।

#

কাদের/নাইচ/ইসরাত/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/১৮৫৫ ঘণ্টা                        

 

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                        নম্বর : ৩১৬৩

 

স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিবের মায়ের মৃত্যুতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর শোক

 

ঢাকা, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :

 

          স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব ও বাংলাদেশ এ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস এসোসিয়েশনের সভাপতি হেলালুদ্দীন আহমদের মা মোসলেমা খাতুনের মৃত্যুতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

 

          আজ এক শোকবার্তায় মন্ত্রী মরহুমার রুহের মাগফেরাত কামনা করেন ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

 

 

#

 

মাহমুদুল/নাইচ/মোশারফ/রেজাউল/২০১৯/১৮২৬ ঘন্টা


তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩১৬২

   বিএনপি খুনির দল

---তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :

 

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, 'বিএনপি খুনির দল। জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যার প্ররোচক, ষোলশ' সেনাসদস্য হত্যা করেছেন, তার স্ত্রীর কারণে শত মানুষ আগুনে পুড়ে মারা গেছে আর ফখরুল- রিজভীরা সেই খুনিদের দোসর। অন্য দেশে হলে, এদের শুধু বিচারই হতো, তা নয়, রাজনীতি করার অধিকারও থাকতো না।'

 

শনিবার ঢাকার তেজগাঁওয়ে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএফডিসি) এর জহির রায়হান হলে 'জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে' চলচ্চিত্র লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান আলোচকের বক্তব্যে পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট ও ২০০৪ সালের ২১ আগস্টের মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ড স্মরণে তিনি একথা বলেন। 

 

'বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করেন এবং ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্যও হত্যাকাণ্ড ঘটান' উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, 'জিয়া বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের পুরস্কৃত করেন ও তাদের অপরাধের বিচার বন্ধ করতে সংসদে 'ইন্ডেমনিটি বিল' পাস করান। আর বেগম জিয়া ঐ খুনিদের মন্ত্রী-এমপি বানিয়ে তাদের হাতে জাতীয় পতাকা তুলে দেন।'

 

মন্ত্রী বলেন, 'শুধু তাই নয়, জাতির পিতার হত্যাকাণ্ডকে উপহাস করার জন্যই বেগম জিয়া নিজের জন্ম তারিখ পরিবর্তন করে ১৫ আগস্ট বানিয়ে কেককাটা উৎসব করেছেন। এখন জনগণের ঘৃণার কারণে জন্মদিন ১৫ আগস্ট রেখে পরদিন কেক কাটেন। অন্য দেশে এমন জন্মতারিখ পরিবর্তনকারীকে হয় মস্তিস্কবিকৃত আখ্যা দিতো, নয়তো জালিয়াতির দায়ে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করাতো।' 

 

১৯৫৭ সালে প্রাদেশিক পরিষদে বঙ্গবন্ধুর উত্থাপিত বিলের মাধ্যমে ঢাকায় চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনের প্রতিষ্ঠার ইতিহাস ও চলচ্চিত্র শিল্পের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের আন্তরিকতার উদাহরণ তুলে ধরে ড. হাছান বলেন, 'বঙ্গবন্ধুর হাত ধরেই বাংলাদেশে চলচ্চিত্রের সূচনা হয়েছে এবং শেখ হাসিনার সরকার তাকে পুনরুজ্জীবিত করছে। সমাজের বিত্তবানদের এ শিল্পে বিনিয়োগে এগিয়ে আসা প্রয়োজন।' 

 

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র লীগের সভাপতি মিয়া আলাউদ্দিনের সভাপতিত্বে চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু, চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, চিত্রনায়ক আলমগীর, স্বেচ্ছাসেবক  লীগের সভাপতি মোল্লা মোঃ আবু কাউছার ও ঢাকা দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান টিটো, চলচ্চিত্র অভিনয় শিল্পী মৌসুমী, ফেরদৌস প্রমুখ সভায় অংশ নেন ।

 

#

আকরাম/নাইচ/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/১৮০২ ঘণ্টা       

তথ্যবিবরণী                                                                                                                            নম্বর : ৩১৬১


বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন করে বাঙালি জাতিকে শ্রেষ্ঠ জাতিতে পরিণত করতে হবে

     ----মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

ঢাকা, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :

 

            মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন,  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আজীবন মানুষের কল্যাণে কাজ করেছেন । বঙ্গবন্ধুর  কাছে সকল মানুষ ছিল সমান । রাজনৈতিক স্বাধীনতার সাথে সাথে মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নয়নই ছিল তাঁর মূল লক্ষ্য । মানুষের ক্ষুধা, দারিদ্র্য-সহ সকল প্রকার বৈষম্য দূর করতে তিনি  সারাজীবন পরিশ্রম করেছেন । বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন করে বাঙালি জাতিকে বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ জাতিতে পরিণত করতে হবে । জাতির পিতার  স্বপ্ন ও আদর্শ বাস্তবায়নে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে ।

            মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী জাতীয় প্রেসক্লাবের আব্দুস সালাম অডিটোরিয়ামে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত 'বঙ্গবন্ধু থেকে বিশ্ববন্ধু' শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। 

            মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু পাকিস্তানি শাসক গোষ্ঠীর বাঙালিদের প্রতি শোষণ ও বঞ্চনার বিষয়টি উপলব্ধি করলে তাদের বিরুদ্ধে আপোসহীন  সংগ্রাম শুরু করেন । যার সফল পরিণতিতে আমরা পাই একটি স্বাধীন সার্বভৌম দেশ ।

­         মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতাকে হত্যা করে ঘাতকচক্র তাঁর আদর্শকে মুছে ফেলতে চেয়েছিলো, কিন্তু তাদের উদ্দেশ্য সফল হয়নি। তিনি বলেন,  বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার হয়েছে, কিন্তু ঘৃণ্য এ হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনাকারীদের বিচার হয়নি। মূল পরিকল্পনাকারীদের বিচার করে জাতিকে পরিপূর্ণরূপে কলঙ্কমুক্ত করতে হবে । 

            বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ এর সভাপতি লায়ন গনি মিয়া বাবুল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু ।  অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মুহম্মদ শফিকুর রহমান, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম শামসুন্নাহার ভুঁইয়া, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইসমাইল, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক সহসভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা ইসমত কাদির গামা, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি বাহাদুর ব্যাপারী ।

 

#

দীপংকর/নাইচ/আব্বাস/2019/২০১৯/১৭০৯ঘণ্টা   

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩১৬০


ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির মৃত্যুতে আইনমন্ত্রীর শোক

ঢাকা, ৯ ভাদ্র (২৪ আগস্ট) :

 

ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী বিজেপি নেতা অরুণ জেটলির মৃত্যুতে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

মন্ত্রী আজ এক শোকবার্তায় অরুণ জেটলির বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

#

রেজাউল/নাইচ/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/১৭২৪ ঘণ্টা        

Todays handout (16).docx Todays handout (16).docx

Share with :

Facebook Facebook