তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২nd জুন ২০২০

তথ্যবিবরণী - ২ জুন ২০২০

তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর :  ২০১০

 

১২৫৬ জনকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট প্রকাশ

 

ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) :   

 

          আরো ১২৫৬  জনকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট প্রকাশ  করেছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়। 

 

          জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল আইন ২০০২ এর ৭ (ঝ) ধারা অনুযায়ী জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের ৬৬তম সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক আজ এ গেজেট প্রকাশ করা হয়।

 

          মুক্তিযোদ্ধাদের এ গেজেট বাংলাদেশ সরকারি মুদ্রণালয় (বিজি প্রেস) এর ওয়েবসাইট (www.bgpress.gov.bd) পাওয়া যাবে। প্রায় দেড় লাখ আবেদন হতে তিন ধাপে দীর্ঘ প্রক্রিয়ায় যাচাই-বাছাই  শেষে এ গেজেট প্রকাশ করা হলো। উপজেলা যাচাই-বাছাই কমিটি ও বিভাগীয় কমিটির যাচাই-বাছাই শেষে  জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের সভায়  এ তালিকা অনুমোদন হয়।

 

          নতুন তালিকাভুক্ত মুক্তিযোদ্ধাগণ মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে রাষ্ট্রের প্রদত্ত সকল সুযোগ-সুবিধা প্রাপ্য হবেন।

 

#

মারুফ/ফারহানা/সঞ্জীব/সেলিম/২০২০/১৯৩০ ঘন্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ২০০৯

কর্মস্থলে অনুপস্থিতি, প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে নগদ অর্থ সহায়তা ও ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম

বরখাস্ত আরো ১১ জনপ্রতিনিধি

ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) :

          কর্মস্থলে অনুপস্থিতি, প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে নগদ অর্থ সহায়তা ও ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম ইত্যাদি অভিযোগে আরো ১১ জনপ্রতিনিধিকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়। এদের মধ্যে ৪ জন ইউপি চেয়ারম্যান ও ৬ জন ইউপি সদস্য এবং ১ জন পৌর কাউন্সিলর। স্থানীয় সরকার বিভাগ হতে আজ এ সংক্রান্ত পৃথক প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

          করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হবার পর এ নিয়ে মোট ৮৫ জন জনপ্রতিনিধিকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো। এদের মধ্যে ২৮ জন ইউপি চেয়ারম্যান, ৫১ জন ইউপি সদস্য, ১ জন জেলা পরিষদ সদস্য, ৪ জন পৌর কাউন্সিলর এবং ১ জন উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান।

          আজ সাময়িকভাবে বরখাস্তকৃত ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানগণ হলেন কিশোরগঞ্জ জেলার নিকলী উপজেলার সিংপুর ইউপির মোঃ আনোয়ারুল হক, বাজিতপুর উপজেলার হালিমপুর ইউপির হাজী মোঃ কাজল ভূইয়া, বরগুনা জেলার সদর উপজেলাধীন এম বালিয়াতলী ইউপির মোঃ শাহনেওয়াজ এবং নলটোনা ইউপির হুমায়ুন কবীর।

          আজ সাময়িকভাবে বরখাস্তকৃত ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যগণ হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সদর উপজেলাধীন মজলিশপুর ইউপির ২নং ওয়ার্ডের সদস্য হারিছ মিয়া এবং ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য হাছান মিয়া, বরগুনা জেলার সদর উপজেলাধীন নলটোনা ইউপির ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য মোঃ হারুন মিয়া, ৮নং ওয়ার্ডের সদস্য মোঃ হানিফ, ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য মোসাঃ রানী এবং ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য মোসাঃ ছাবিনা ইয়াসমিন (পলি)।

          আজ সাময়িকভাবে বরখাস্তকৃত পৌরসভার কাউন্সিলর হলেন চট্টগ্রামের জেলার বোয়ালখালী পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ সোলাইমান বাবুল।

          প্রজ্ঞাপনগুলোতে উল্লেখ করা হয়, কিশোরগঞ্জ জেলার নিকলী উপজেলার সিংপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ারুল হক করোনো ভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবের সময় ত্রাণ কাজে সহায়তা না করে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে কর্মস্থলে অনুপস্থিত আছেন। একই জেলার বাজিতপুর উপজেলার হালিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মোঃ কাজল ভূইয়া স্থানীয় সরকার বিভাগের নির্দেশনা অমান্য করে দীর্ঘদিন যাবত কর্মস্থলে অনুপস্থিত, করোনো ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকার গৃহীত বিভিন্ন পদেক্ষেপ বাস্তবায়নে বিঘ্ন সৃষ্টি, এপ্রিল/২০২০ মাসের ভিজিডি খাদ্যশস্য বিতরণ না করা, প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে নগদ অর্থ সহায়তা কর্মসূচির সুবিধাভোগীদের তালিকা প্রণয়নে ব্যর্থ এবং কারণ দর্শানোর প্রেক্ষিতে নিজে জবাব প্রদান না করে অন্যের মাধ্যমে জবাব প্রদান করেছেন।

          প্রজ্ঞাপনগুলোতে আরো উল্লেখ করা হয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সদর উপজেলাধীন মজলিশপুর ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য হারিছ মিয়া এবং ৭নং ওয়ার্ডের হাছান মিয়া এর বিরুদ্ধে সরকারি নিয়মনীতির ব্যতয় ঘটিয়ে প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে নগদ অর্থ সহায়তা কর্মসূচির সুবিধাভোগীদের তালিকা প্রণয়নে ব্যাপক অনিয়মের মাধ্যমে নিজেদের নাম অন্তর্ভুক্ত করার অভিযোগ স্থানীয় তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে।

          বরগুনা জেলার সদর উপজেলাধীন এম বালিয়াতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ শাহনেওয়াজের বিরুদ্ধে নিয়ম বহির্ভূতভাবে মৎস্য ভিজিএফ এর চাল ৮০ কেজির স্থলে ৬০ কেজি প্রদান, তালিকার বাইরেও অন্যদের চাল প্রদানসহ দুই জন গ্রামপুলিশকে চাল প্রদানের অভিযোগ স্থানীয় তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে। একই উপজেলার নলটোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর ও একই ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য মোঃ হারুন মিয়া, ৮নং ওয়ার্ডের সদস্য মোঃ হানিফ, ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য মোসাঃ রানী এবং ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য মোসাঃ ছাবিনা ইয়াসমিন (পলি) এর বিরুদ্ধে জেলেদের তালিকা প্রনয়ণে অনিয়ম, ভূয়া টিপসইয়ের মাধ্যমে চাল উত্তোলনপূর্বক আত্মসাৎ এবং চাল ওজনে কম দেয়ার অভিযোগ স্থানীয় তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে।

          উল্লিখিত চেয়ারম্যান ও সদস্য কর্তৃক সংঘটিত অপরাধমূলক কার্যক্রমের প্রেক্ষিতে তাদের স্বীয় পদ হতে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

          পৃথক আরেকটি প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, চট্টগ্রাম জেলার বোয়ালখালী পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ সোলাইমান বাবুল এর বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা কার্যক্রমে অনিয়মের অভিযোগ জেলা প্রশাসক কর্তৃক তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় আজ সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

#

হাসান/ফারহানা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২০/১৮৫৫ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ২০০৮

 

শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল কেপিজে

হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার পিসিআর ল্যাব স্থাপন

 

গাজীপুর, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) :

          গাজীপুরে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল কেপিজে বিশেষায়িত হাসপাতাল ও নার্সিং কলেজে করোনা পরীক্ষার নতুন পিসিআর ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে ।

          আজ ল্যাবটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

          উদ্বোধন শেষে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেন, পোশাক শ্রমিক অধ্যুষিত গাজীপুরে করোনা পরীক্ষার পিসিআর ল্যাব স্থাপন অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। ল্যাবটিতে প্রতিদিন ৩ শতাধিক নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা করা যাবে। যার ফলাফল ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দেয়া যাবে। এতে করোনা রোগীদের চিকিৎসার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা দ্রুত নেয়া সম্ভব হবে। ল্যাবটি স্থাপনের ফলে করোনা প্রতিরোধে সরকারের সক্ষমতা বৃদ্ধি পেল।

          হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানান, অন্যান্য বেসরকারি হাসপাতালে সরকার নির্ধারিত ফি ৪ হাজার টাকা হলেও প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এ হাসপাতালে মাত্র ৫ শত টাকায় করোনা পরীক্ষা করা হবে।

          এসময় বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের নির্বাহী সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুল হাফিজ মল্লিক, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র এডভোকেট মোঃ জাহাঙ্গীর আলম এবং গাজীপুরের জেলা প্রশাসক তরিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

#

মারুফ/ফারহানা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২০/১৮৩০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                              নম্বর :  ২০০৭

 

কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

 

ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) :  

 

          ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স কো-অর্ডিনেশন সেন্টার (এনডিআরসিসি) থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য ৬৪ জেলায় ইতোমধ্যে ১ লাখ ৯১ হাজার ৮ শত ১৭ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ করা হয়েছে। এছাড়া শিশু খাদ্য-সহ অন্যান্য সামগ্রী ক্রয়ের জন্য ১১০ কোটি ৩৭ লাখ ৭২ হাজার ২৬৪ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বরাদ্দকৃত এ সাহায্য দেশের সকল জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে বিতরণ করা হচ্ছে । ‌

 

          স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী আজ দেশে নতুন করে আরো ২ হাজার ৯১১ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫২ হাজার ৪৪৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ জন-সহ এ পর্যন্ত ৭০৯ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১২ হাজার ৭০৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

 

          এখন পর্যন্ত সর্বমোট ২৪ লাখ ৮৯ হাজার ১৬২টি পিপিই সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে মোট বিতরণ করা হয়েছে ২১ লাখ ৪০ হাজার ২৯৩টি এবং মজুত আছে ৩ লাখ ৪৮ হাজার ৮৬৯টি।

 

          সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে ৬২৯টি প্রতিষ্ঠান এবং এর মাধ্যমে তাৎক্ষণিকভাবে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের সেবা প্রদান করা যাবে ৩১ হাজার ৯৯১ জনকে।

 

#

 

তাসমীন/ফারহানা/সঞ্জীব/সেলিম/২০২০/১৮০০ ঘন্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ২০০৬

 

চিকিৎসার সুযোগ থাকা সত্তে¦ও হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ

                                                                                            -তথ্যমন্ত্রী

 

ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) :

          ‘চিকিৎসার সুযোগ থাকা সত্ত্বেও হাসপাতাল থেকে রোগী ফিরিয়ে দেয়া শাস্তিযোগ্য অপরাধ’, বলেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ।

          আজ রাজধানীতে বাংলাদেশ সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয় সভাকক্ষে সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী একথা বলেন।

          ‘বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে স্বাস্থ্যসেবা পাওয়া দুরূহ হয়ে পড়েছে’ এমন বিষয়ে সাংবাদিকেরা মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মন্ত্রী বলেন, ‘যারা এই সময়ে রোগীদেরকে স্বাস্থ্যসেবা দেয়ার ক্ষেত্রে পিছপা হচ্ছে এবং তাদের অবহেলার কারণে রোগীরা মৃত্যুবরণ করছে, তারা আসলে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করছে। আমি আশা করবো যে, বেসরকারি হাসপাতালগুলো-সহ কোন হাসপাতালই এ ধরণের আচরণ করবে না। এখনই সময় আর্তমানবতার সেবায় হাতকে প্রসারিত করা।’

          ‘তবে অনেক ডাক্তার, নার্স-সহ স্বাস্থ্যকর্মীরা এই পরিস্থিতির মধ্যেও নিজের জীবনকে বিপন্ন করে মানুষকে স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছেন, তাদেরকে আমি ধন্যবাদ জানাই, অভিনন্দন জানাই, তারা সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে কাজ করছে’, বলেন তথ্যমন্ত্রী।

          হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করা হয় মানুষকে সেবা দেয়ার জন্য, মানুষকে সেবা না দিয়ে হাসপাতাল যদি হাত গুটিয়ে নেয়, সেটিকে তখন আর হাসপাতাল বলা যায় না উল্লেখ করে ড. হাছান বলেন, ‘আমি নিজেও ব্যথিত যে, প্রায়ই আমরা কাগজে ও অন্যান্য সংবাদ মাধ্যমে দেখতে পাচ্ছি- বিভিন্ন রোগীরা একটার পর আরেকটা হাসপাতালে যাচ্ছে, কিন্তু হাসপাতাল ভর্তি নিচ্ছে না। আজকেও কাগজে দেখলাম, সিলেটে একে একে ছয়টি প্রাইভেট হাসপাতালে একজন রোগী গেছেন, তাকে কোন হাসপাতালে ভর্তি নেয়নি। সেই রোগী শেষ পর্যন্ত এম্বুলেন্সের মধ্যেই মৃত্যুবরণ করেছেন। এগুলো অত্যন্ত দুঃখজনক এবং প্রাইভেট বা যেকোন হাসপাতালের এ ধরণের আচরণ অগ্রহণযোগ্য।’

          এ বিষয়ে সতর্কবার্তা দিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘সরকার এগুলো পর্যবেক্ষণ করছে, ইতোমধ্যেই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, কেউ রোগীদেরকে স্বাস্থ্যসেবা দিতে অবহেলা করলে তাদের ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এখনও পর্যন্ত হুঁশিয়ারির মাধ্যমে তাদেরকে সেবামুখী করার চেষ্টা করা হলেও অবহেলার ঘটনা ক্রমাগত ঘটতে থাকলে অতি শিগগিরই কঠোর ব্যবস্থা নেবে সরকার।’

          এ সময় সম্প্রতি রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের ঘটনা নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, ‘এ ঘটনায় ফায়ার সার্ভিস প্রাথমিক তদন্তে বলেছে, এখানে ইউনাইটেড হাসপাতালের গাফলতি ছিল। সুতরাং যে পাঁচজন মারা গেছেন, তাদের মৃত্যুর দায় কোনভাবেই ইউনাইটেড হাসপাতাল এড়াতে পারে না বলে আমি মনে করি ।’

 

জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ড চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের মানবাধিকারের করুণ পরিস্থিতি

 

          উপস্থিত সাংবাদিকেরা এ সময় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ডের পর চলমান স্মরণকালের সবচেয়ে বড় বিক্ষোভের বিষয়ে তথ্যমন্ত্রীকে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, ‘আমি এ বিষয়ে মন্তব্য করতে চাই না, কারণ এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ বিষয়।’

          ‘আমি এ বিষয়ে বলতে চাইনি, কিন্তু যেহেতু আপনারা প্রশ্ন করেছেন এবং যেহেতু বাংলাদেশে পান থেকে চুন খসলেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিবৃতি দেয়, মানবাধিকার নিয়ে নানা প্রশ্ন তোলে, এমনকি বিশ্বের অন্যান্য দেশের মানবাধিকার নিয়েও তারা প্রতিবছর রিপোর্ট পেশ করে, সেজন্য বলছি’ উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান বলেন, ‘সেখানে গত ২৫ মে পুলিশ যেভাবে একজন আফ্রিকান-আমেরিকানকে গলার ওপর চেপে ধরে তাকে হত্যা করলো, এটি সেখানকার মানবাধিকারের কী পরিস্থিতি, তা চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে।’

          যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গদের সংখ্যা অনেক কম হলেও পুলিশের হাতে মৃত্যুবরণকারী কৃষ্ণাঙ্গদের সংখ্যা শ্বেতাঙ্গদের তিনগুণ, উল্লেখ করেন মন্ত্রী। তিনি আরো বলেন, ‘এছাড়া আপনারা জানেন যে, সেখানে যারা অভিবাসী হতে অবৈধভাবে প্রবেশ করে, তাদের সন্তানদের বাবা-মার কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করে বাবা-মাকে তাদের দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয়া হয়। আর মাসের পর মাস, বছরের পর বছর শিশুদেরকে আটকে রাখার পর দেখা যায়, তারা তাদের বাবা-মাকে চেনে না। এসব অমানবিক কাজই সেখানকার মানবাধিকারের পরিস্থিতির প্রকৃত চিত্র আমাদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়।’

#

আকরাম/ফারহানা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২০/১৮১০ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                 নম্বর :  ২০০৫

 

চট্টগ্রামের তিন বিশিষ্ট ব্যক্তির মৃত্যুতে তথ্যমন্ত্রীর শোক

 

ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) :  

 

          চট্টগ্রামের প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন আল্লামা কাযী নুরুল ইসলাম হাশেমী; বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক সদস্য ও চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি মোঃ কবির চৌধুরী এবং রাঙ্গুনিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম চৌধুরী লেদুর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে পরিবারগুলোর প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ।

 

          আজ ভোর ৫টার দিকে চট্টগ্রাম নগরীর আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় চট্টগ্রামের আহছানুল উলুম কামিল মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা আল্লামা কাযী নুরুল ইসলাম হাশেমীর। উপমহাদেশের শীর্ষস্থানীয় ও সর্বজন শ্রদ্ধেয় ইসলামী ব্যক্তিত্ব ও পবিত্র ধর্ম ইসলামের প্রচার এবং প্রসারে আল্লামা হাশেমীর অবদানের কথা শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। 

 

          এদিকে আজ সকাল ১১টার দিকে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক সদস্য এবং চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি মোঃ কবির চৌধুরী। বরেণ্য এই আইনজীবীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি মরহুম মোঃ কবির চৌধুরীর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বলেন, মরহুম কবির চৌধুরী একজন বিজ্ঞ আইনজ্ঞ ছিলেন, তাঁর মৃত্যুতে আইন পেশার অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে।  

 

          আজ দুপুরে মারা যান চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি ও স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আমীরুল ইসলাম চৌধুরী লেদু। প্রবীণ এই আওয়ামী লীগ নেতার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বলেন, রাঙ্গুনিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ একজন নিবেদিতপ্রাণ ব্যক্তিকে হারিয়েছে। দলের দুঃসময়ে তার সাহসী পদক্ষেপ আজীবন স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

 

#

আকরাম/ফারহানা/সঞ্জীব/সেলিম/২০২০/১৭৩০ ঘন্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                      নম্বর : ২০০৪

বিনা ভাড়ায় রাজশাহীর আম পরিবহন উদ্বোধন করেন টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

সাড়া দেশ থেকে বিনা মাশুলে প্রান্তিক কৃষকের উৎপাদিত মৌসুমী ফল পরিবহন করবে ডাক বিভাগ

পুঠিয়া (রাজশাহী), ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) :

          দেশব্যাপী ডাক বিভাগের বিশাল পরিবহন নেটওয়ার্ক কাজে লাগিয়ে বিনা ভাড়ায় প্রান্তিক কৃষকের উৎপাদিত আম-লিচু ঢাকার পাইকারি বাজারে পৌঁছে দিচ্ছে ডাক অধিদপ্তর। কর্মসূচির আওতায় রাজশাহী অঞ্চলের প্রান্তিক কৃষকের উৎপাদিত আম পরিবহন কার্যক্রম আজ থেকে শুরু হয়েছে। ডিজিটাল প্লাটফর্মের মাধ্যমে এই সব মৌসুমী ফল রাজধানীর বিভিন্ন মেগাসপ ও পাইকারি বাজারে বিপণন করা হবে। বিক্রয়লব্ধ টাকা কোন মধ্যস্বত্বভোগী ছাড়াই সংশ্লিষ্ট কৃষকের হাতে পৌঁছে যাবে। দেশব্যাপী ডাক পরিবহনে নিয়োজিত ঢাকা ফেরৎ গাড়ী সমূহে বিনা মাশুলে প্রান্তিক কৃষকের পণ্য পরিবহনে সরকারের বাড়তি কোন খরচেরও প্রয়োজন হবে না।

          ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার আজ মঙ্গলবার সকালে ঢাকার বেইলী রোডস্থ
তাঁর সরকারি বাসভবন থেকে রাজশাহী জেলার পুঠিয়ায়, পুঠিয়া উপজেলা সম্মেল কক্ষে অনুষ্ঠানটি টেলিকনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে উদ্বোধন করেন। রাজশাহীর জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব নূর-উর-রহমান এবং ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এসএস ভদ্র রাজশাহীতে অনলাইনে সংযুক্ত ছিলেন।

          মন্ত্রী বলেন, পর্যায়ক্রমে মধুপুর থেকে আনারস পরিবহনসহ চাহিদা ও গুরুত্ব বিবেচনায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে এই কার্যক্রম চালু করা হবে। কৃষক মাথার ঘাম পায়ে ফেলে ফসল উৎপাদন করে তা পানির দামে বিক্রি করে। উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্য মূল্য পাওয়া তাদের অধিকার। কৃষকদের জন্য আগামী বাজেটে প্রণোদনা হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা‘র ৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ প্রদানসহ সরকার ঘোষিত বিভিন্ন পদক্ষেপের উল্লেখ করেন।

          মন্ত্রী আরো বলেন, কৃষকের স্বার্থ রক্ষায় সরকার বদ্ধপরিকর। এসবেরই ধারাবাহিকতায় কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্য দাম পাওয় নিশ্চিত করতে আমাদের এই উদ্যোগ। সরকারের এই উদ্যোগ প্রান্তিক কৃষকের স্বার্থ রক্ষায় অবদান রাখবে বলে আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি।

          গত ৩১ মে থেকে পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়ি থেকে বিনা ভাড়ায় লিচু পরিবহন চালু করা হয়। করোনার বৈশ্বিক ক্রান্তিকালে প্রান্তিক কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী’র নির্দেশে গত ৯ মে মানিকগঞ্জের হরিরামপুর এর ঝিটকা থেকে কৃষকবন্ধু নামে এই কর্মসূচিটি চালু করা হয়।

#

শেফায়েত/গিয়াস/আসমা/২০২০/১৫৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                       নম্বর : ২০০৩

একনেকে ১০টি প্রকল্প অনুমোদন

ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) :  

          জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহি কমিটি (একনেক) প্রায় ১৬ হাজার ২৭৬ কোটি ৩ লাখ টাকা ব্যয় সম্বলিত  ১০টি প্রকল্প অনুমোদন করেছে।

প্রধানমন্ত্রী এবং একনেক-এর চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আজ গণভবনের সাথে সংযুক্ত হয়ে ভিডিও কনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে শেরে বাংলা নগরস্থ এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত একনেক-এর সভায় এ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

          অনুমোদিত প্রকল্পসমূহ হলো: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের দুইটি প্রকল্প যথাক্রমে “COVID-19 Emergency Response and Pandemic Preparedness” প্রকল্প ও “COVID-19 Response Emergency Assistance” প্রকল্প; প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের “প্রাথমিক শিক্ষার জন্য উপবৃত্তি প্রকল্প-৩য় পর্যায়” প্রকল্প; ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের “মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম-৭ম পর্যায়” প্রকল্প; বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের দু’টি প্রকল্প যথাক্রমে “শতভাগ পল্লী বিদ্যুতায়নের জন্য বিতরণ নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ (রাজশাহী, রংপুর, খুলনা ও বরিশাল বিভাগ) (১ম সংশোধিত প্রকল্প)” প্রকল্প এবং “শতভাগ পল্লী বিদ্যুতায়নের জন্য বিতরণ নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ (ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগ) (১ম সংশোধিত প্রকল্প)” প্রকল্প; কৃষি মন্ত্রণালয়ের দু’টি প্রকল্প যথাক্রমে “কৃষি যন্ত্রপাতি ও লাগসই প্রযুক্তি উদ্ভাবনের মাধ্যমে ফসল উৎপাদন ব্যবস্থাকে অধিকতর লাভজনক করা” প্রকল্প এবং “মানসম্পন্ন মসলা বীজ উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও বিতরণ” প্রকল্প; পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের “সাতক্ষীরা জেলার পোল্ডার ১, ২, ৬-৮ এবং ৬-৮ (এক্সটেনশন) এর নিস্কাশন ব্যবস্থার উন্নয়ন” প্রকল্প এবং স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের “দাশেরকান্দি পয়ঃ শোধনাগার (১ম সংশোধিত প্রকল্প)” প্রকল্প।

        অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল; পরিকল্পনা মন্ত্রী এম. এ. মান্নান; কৃষিমন্ত্রী মোঃ আব্দুর রাজ্জাক; তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ; স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম; শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি; শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন; স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক; বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি; মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম; পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন; ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীবর্গ সভার কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন।

সভায় মন্ত্রিপরিষদ সচিব, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব, এসডিজি’র মুখ্য সমন্বয়ক, পরিকল্পনা কমিশনের সদস্যবৃন্দ, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়সমূহের সচিব এবং ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

#

শাহেদুর/গিয়াস/মাসুম/২০২০/১৩০০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ২০০২  

নিজ নিজ গৃহ এবং কর্মস্থলে সচেতনতার প্রাচীর নির্মাণ করতে হবে

ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) :   

          করোনার সংক্রমণরোধে সকলকে দৃঢ় মনোবল নিয়ে নিজ নিজ গৃহ এবং কর্মস্থলে সচেতনতার প্রাচীর নির্মাণের আহ্বান জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

          মন্ত্রী আজ সকালে সংসদভবন এলাকাস্থ বাসভবন থেকে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশন-বিআরটিসি’র কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সে এ আহ্বান জানান।

          এ সময় মন্ত্রী বলেন, গতকাল থেকে শর্তসাপেক্ষে সারাদেশে গণপরিবহন চলছে। প্রথমদিনে অধিকাংশক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি মানা হয়েছে। আবার কোথাও কোথাও স্বাস্থ্যবিধি না মানার অভিযোগও পাওয়া গেছে। তিনি এ সংকটে পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দুরত্ব মেনে গণপরিবহন পরিচালনার জন্য আবারও অনুরোধ জানান।

          যাত্রী সাধারণকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, সচেতনতা বোধ ও সামাজিক দুরত্ব যথাযথ প্রতিপালনের মধ্য দিয়ে আমরা এ সংক্রমণ রোধ করতে পারি। নিজেদের অবহেলা ও শৈথিল্য দুর্যোগ আরো ঘণিভূত করতে পারে বলে তিনি আশংকা প্রকাশ করেন।

          ভিডিও কনফারেন্সে মন্ত্রী কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, বিআরটিসি’র বাসগুলোকে সংক্রমণ রোধ এবং স্বাস্থ্যসচেতনতার মডেল হিসেবে রূপান্তরের পাশাপাশি জনগণের আস্থার বাহনে রূপদান করতে হবে।

          মন্ত্রী এসময় অনিয়ম ও দুর্নীতির বৃত্ত থেকে বেরিয়ে এসে বিআরটিসিকে লাভের ধারায় ফিরিয়ে আনার আহ্বান জানান। তিনি বিআরটিসির বাসে ট্রাকিং ডিভাইস স্থাপন ও ডিজিটাল টেকিটিং চালুর উদ্যোগ গ্রহণের নির্দেশনা দেন।

          এ সময় বিআরটিসির চেয়ারম্যান মোঃ এহছানে এলাহীসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

#

নাছের/গিয়াস/জুলফিকার/আসমা/২০২০/১৪৩০ ঘন্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ২০০১

অসামরিক নাগরিকদের সুরক্ষা বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) :  

অসামরিক নাগরিকদের সুরক্ষা নিশ্চিতকল্পে কার্যকর প্রশিক্ষণ হতে হবে স্থানীয় বাস্তবতা ও উদ্দেশ্যের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ। এসকল প্রশিক্ষণে অবশ্যই পরিবর্তিত পরিস্থিতির সাথে সহজে খাপ খাওয়ানোর মতো সক্ষমতা থাকতে হবে। সোমবার ‘অসামরিক নাগরিকদের সুরক্ষার জন্য প্রশিক্ষণ: জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা প্রশিক্ষণের চ্যালেঞ্জ এবং সর্বোত্তম অনুশীলনসমূহ নির্ণয় শীর্ষক এক ভার্চুয়াল আলোচনায় প্রদত্ত সমাপনী বক্তব্যে জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা এসব কথা বলেন।

অসামরিক নাগরিকদের সুরক্ষা প্রদানের বিষয়টি শান্তিরক্ষীদের প্রাক-মোতায়েন প্রশিক্ষণের অবিচ্ছেদ্য অংশ হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের যে অঙ্গীকার রয়েছে তা পুনর্ব্যক্ত করেন রাষ্ট্রদূত । এ প্রসঙ্গে তিনি চাহিদা মাফিক প্রশিক্ষণ, যৌথ অনুশীলন এবং কারিগরি সহযোগিতা প্রদানের ক্ষেত্রে ‘বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেনিং (বিপসট)’ এর সাথে জাতিসংঘসহ অন্যান্য সৈন্য/পুলিশ প্রেরণকারী দেশসমূহের ক্রমবর্ধমান অংশীদারিত্বের কথা উল্লেখ করে বলেন।

কোভিড-১৯ জনিত সঙ্কটের কারণে সৃষ্ট সুনির্দিষ্ট কিছু চ্যালেঞ্জের প্রেক্ষাপটে বাড়তি সক্ষমতা, প্রশিক্ষণ সুবিধা, পর্যাপ্ত সরঞ্জামাদিসহ প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সুবিধা এবং শান্তিরক্ষীদের সুরক্ষার মতো বিষয়গুলো নিশ্চিত করার উপরও জোর দেন বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি।

জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রের শতাধিক প্রতিনিধি অংশ

2020-06-02-20-03-017b50ada8a2f1da3b908c445014121c.docx 2020-06-02-20-03-017b50ada8a2f1da3b908c445014121c.docx

Share with :

Facebook Facebook