তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৯ মার্চ ২০২০

তথ্যবিবরণী ১৯ মার্চ ২০২০

তথ্যবিবরণী                                                                                                             নম্বর : ১০৩৭

ঢাকা-১০ উপনির্বাচন

যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ) :

            জাতীয় সংসদের ১৮৩ ঢাকা-১০ শূন্য আসনের নির্বাচন আগামী ২১ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। সে লক্ষ্যে উক্ত নির্বাচনী এলাকায় ভোট গ্রহণের জন্য নির্ধারিত দিবসের পূর্ববর্তী মধ্যরাত অর্থাৎ ২০ মার্চ ২০২০ তারিখ দিবাগত মধ্যরাত ১২টা থেকে ২১ মার্চ ২০২০ তারিখ দিবাগত মধ্যরাত ১২টা পর্যন্ত ট্রাক ও পিকআপ চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

            এছাড়া ১৯ মার্চ ২০২০ তারিখ দিবাগত মধ্যরাত ১২টা থেকে ২২ মার্চ ২০২০ তারিখ মধ্যরাত পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

#

আবু ছালহ/মাহমুদ/মোশারফ/জয়নুল/২০২০/২১২০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                            নম্বর : ১০৩৬

বিদেশ ফেরত, করোনার লক্ষণযুক্ত এবং জ্বর-হাঁচি-কাশিতে

আক্রান্ত ব্যক্তিদের মসজিদে না যাওয়ার পরামর্শ

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ) :

            ইসলামিক ফাউন্ডেশন আজ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ থেকে ধর্মপ্রাণ মুসল্লি-সহ সমগ্র মানবজাতিকে সুরক্ষা, নিরাপদ ও সতর্ক করার লক্ষ্যে বিদেশ ফেরত ব্যক্তি, করোনার লক্ষণযুক্ত ব্যক্তি এবং জ্বর-হাঁচি-কাশিতে আক্রান্ত ও অসুস্থ ব্যক্তিদের মসজিদে গমন-সহ জনসমাগম পরিহারের জন্য পরামর্শ প্রদান করেছে।

            এছাড়া যারা ইতোমধ্যে বিদেশ থেকে এসেছেন তারা, তাদের পরিবারের সদস্য এবং তাদের সংস্পর্শে এসেছেন এমন সকলকেই কোয়ারেন্টিন সময় শেষ না হওয়া পর্যন্ত মসজিদে বা জনসমাগমে যাওয়া থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। বর্তমান অবস্থায় কোনো ধর্মীয় সমাবেশ আয়োজন না করার জন্যও সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ করা হয়েছে।

#

আনিস/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০২০/২০৩০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                           নম্বর : ১০৩৫

শ্রমিক কল্যাণ তহবিলে ৭৪ লাখ টাকা জমা দিল বাটা সু কোম্পানি

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ) :

            শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিলে বাটা সু কোম্পানি গত এক বছরের লভ্যাংশের নির্দিষ্ট অংশ প্রায় ৭৪ লাখ টাকা প্রদান করেছে।

            আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এর নিকট বাটা সু কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক চিটপান কানহাসিরি কোম্পানির লভ্যাংশের নির্দিষ্ট অংশ ৭৩ লাখ ৯৯ হাজার ২৬৬ টাকার চেক হস্তান্তর করেন।

            বাটা সু কোম্পানি বাংলাদেশ লিমিটেড এ পর্যন্ত ৩ কোটি ৩৬ লাখ ২৭ হাজার টাকা তহবিলে প্রদান করেছে। বাটা সু কোম্পানি-সহ দেশি, বিদেশি এবং বহুজাতিক মিলে ১৬৪ টি কোম্পানি এ তহবিলে লভ্যাংশের নির্দিষ্ট অংশ নিয়মিত প্রদান করে আসছে। আজ পর্যন্ত এ তহবিলে মোট জমার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে চার’শ ১০ কোটি টাকারও বেশি। বাংলাদেশ শ্রম আইন অনুযায়ী গঠিত বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিলে কোনো কোম্পানি যাদের নিট মূলধন ২ কোটি টাকার বেশি সে সকল কোম্পানি বছর শেষে লাভের ৫ শতাংশের এক দশমাংশ এ তহবিলে জমা দেয়ার বিধান রয়েছে।

            শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের এ তহবিল হতে প্রাতিষ্ঠানিক অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের শ্রমিকদের কল্যাণে ব্যয় করা হয়। এ তহবিল হতে শ্রমিকদের দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যু, আহতদের চিকিৎসা, দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত শ্রমিক এবং শ্রমিকের সন্তানদের উচ্চ শিক্ষায় সহায়তা প্রদান করা হয়।

            চেক প্রদান অনুষ্ঠানে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এবং এ ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক ড. মোঃ রেজাউল হক, কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের মহাপরিদর্শক শিবনাথ রায়, শ্রম অধিদপ্তরের মহাপরিচালক একেএম মিজানুর রহমান, বাটা সু কোম্পানির রিটেইল ডিরেক্টর অমিতাভ নন্দি, জেনারেল ম্যানেজার এইচআর মালিক মেহেদী কবির এবং হেড অভ্ লিগ্যাল অ্যাফেয়ার্স রকিবুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

#

আকতারুল/মাহমুদ/মোশারফ/জয়নুল/২০২০/১৯৩০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর :  ১০৩৪

ফেব্রুয়ারি মাসে মাদকবিরোধী জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম গৃহীত

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ):

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের তথ্যমতে গত  ফেব্রুয়ারি মাসে মাদকবিরোধী অভিযান, প্রচার কার্যক্রম ও মাঠ পর্যায়ে প্রচারিত ফিলারগুলোর তথ্য নিম্নরূপ :

ঢাকা বিভাগে মাদকবিরোধী সভা ৫৭টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক মাদকবিরোধী আলোচনা সভা ১০৫টি ও মাদকবিরোধী ফিলার প্রচারের স্থানের সংখ্যা ৩টি; ময়মনসিংহে মাদকবিরোধী সভা ১৫টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ১৯টি ও মাদকবিরোধী ফিলার প্রচারের স্থানের সংখ্যা ৩টি; চট্টগ্রামে মাদকবিরোধী সভা ৪৩টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ৭৬টি, মাদকবিরোধী ফিলার প্রচারের স্থানের সংখ্যা ৯টি; রাজশাহীতে মাদকবিরোধী সভা ৪১টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ৩৪টি, মাদকবিরোধী ফিলার প্রচারের স্থানের সংখ্যা ২৫টি; রংপুরে মাদকবিরোধী সভা ৩২টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ২৩টি, মাদকবিরোধী ফিলার প্রচারের স্থানের সংখ্যা ১টি; খুলনায় মাদকবিরোধী সভা ৩৯টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ৬০টি, মাদকবিরোধী ফিলার প্রচারের স্থানের সংখ্যা ২টি; বরিশালে মাদকবিরোধী সভা ৬টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ২৫টি, মাদকবিরোধী ফিলার প্রচারের স্থানের সংখ্যা ১টি এবং সিলেটে মাদকবিরোধী সভা ৯টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ২১টি, মাদকবিরোধী ফিলার প্রচারের স্থানের সংখ্যা ১টি।

ফেব্রুয়ারি মাসে আটটি বিভাগে মাদকবিরোধী সভা হয়েছে ২৪২টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা হয়েছে ৩৬৩টি, ফিলার প্রচার হয়েছে ৪৫টি এবং মাদক বিরোধী অভিযান হয়েছে ৬ হাজার ৩শ’ ৬৩টি। অভিযানকালে ইয়াবা ট্যাবলেট ও ቏ঁড়া, গাজা, ফেনসিডিল, হেরোইন, দেশি-বিদেশি মদ, বিয়ার, শিশা, জাওয়া, ওয়াশ, নগদ অর্থ, যানবাহন ও মোবাইল সেট জব্দ করা হয়।

#

শরীফ/মাহমুদ/রফিকুল/সেলিম/২০২০/১৯২০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                  নম্বর : ১০৩৩

 

কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ) :

 

            ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স কো-অর্ডিনেশন সেন্টার (NDRCC) এর আজ বিকাল ৫টা পর্যন্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুযায়ী করোনা ভাইরাস শনাক্তকরণের জন্য এ পর্যন্ত দেশে ৬ লাখ ৩১ হাজার ৫ শত ৩৮ জনকে স্ক্রিনিং করা হয়েছে। তন্মধ্যে ৩টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৩ লাখ ১১ হাজার ৮ শত ২৩ জন,  দু’টি সমুদ্রবন্দরে ৮ হাজার ২ শত ৮৫ জন, ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট ও বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশনে ৭ হাজার ২৯ জন এবং অন্যান্য চালু স্থলবন্দরসমূহে ৩ লাখ ৪ হাজার ৪ শত ১ জনকে স্ক্রিনিং করা হয়েছে। 

            দেশে আজ ১৯ মার্চ পর্যন্ত হাসপাতালে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে ভর্তিকৃত রোগীর সংখ্যা ৬৫ জন, এর মধ্যে ছাড়পত্র পেয়েছেন ৩৫ জন। বর্তমানে বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ৩০ জন ভর্তি আছেন। এর মধ্যে ঢাকায় ২৬ জন ও অন্যান্য বিভাগে ৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় ৭ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছে। ঢাকার বাইরে এ সংখ্যা শূন্য। রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) এখন পর্যন্ত COVID-19 আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৭ জন  এবং ১ জনের মৃত্যু নিশ্চিত করেছে।  

            আজ সকাল ৮টার পূর্বের ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ২ হাজার ৬৯৮ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইন করা হয়। এর মধ্যে ছাড়পত্র পেয়েছেন ১৬৫ জন। এছাড়া দেশে হাসপাতালগুলোতে কোয়ারেন্টাইন অবস্থানরত রোগীর সংখ্যা ১৫ জন। 

            করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে ইতোমধ্যে সরকার নিম্নরূপ পদক্ষেপ নিয়েছে :          

  • বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক কোভিড-১৯ মোকাবিলায় জনস্বার্থে আইনের প্রয়োগ বিষয়ে একটি গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন ২০১৮ এর বিভিন্ন ধারা, উপধারা প্রয়োজনে প্রয়োগ করা হতে পারে বলে গণবিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ রয়েছে। 
  • স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালনায় আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরসমূহ, সমুদ্রবন্দরসমূহ ও স্থলবন্দরসমূহে বিদেশ থেকে আগত সকল যাত্রীর তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হচ্ছে; 
  • সিঙ্গাপুর, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ইতালিতে ও সৌদি আরবে কয়েকজন প্রবাসী বাংলাদেশি কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন। সিঙ্গাপুরে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন বাংলাদেশি রোগীর অবস্থার উন্নতি হয়নি;
  • ইতালি-সহ ইউরোপের অন্যান্য আক্রান্ত দেশ হতে আগত প্রবাসী বাংলাদেশিদের হযরত শাহ্‌জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের পর তাদের আশকোনা হজ ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং ডকুমেন্টেশন শেষে তাদের গৃহ কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে এবং গৃহ কোয়ারেন্টাইনে করণীয় নির্দেশনা প্রদান করে তাদের নিজ নিজ বাড়িতে পাঠানো হয়েছে;  
  • সার্কভুক্ত দেশের সরকার প্রধানগণ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার প্রয়াসে ভিডিও কনফারেন্স করেছেন; 
  • অন এরাইভেল ভিসায় বাংলাদেশে আগত দুইজনকে বিমানবন্দর থেকে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

#

তাসমীন/মাহমুদ/রাহাত/রফিকুল/আব্বাস/২০২০/১৯০৮ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ১০৩২

গুজব ছড়াবেন না

    -- তথ্যমন্ত্রী                      

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ):

‘করোনা ভাইরাস’ নিয়ে কোনো ধরনের গুজব না ছড়ানোর অনুরোধ জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। 

আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে দেশের নাট্যাঙ্গনের প্রতিনিধিদের সাথে ‘করোনা পরিস্থিতি বিষয়ে’ মতবিনিময় শেষে দেয়া বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী এ আহ্বান জানান। নাট্যকার মামুনুর রশীদের নেতৃত্বে ডিরেক্টরস গিল্ড, নাট্যকার সংঘ, প্রযোজক সমিতি ও অভিনয় শিল্পী সংঘের প্রতিনিধিবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি দেশবাসীকে অনুরোধ জানাবো, কেউ দয়া করে গুজব ছড়াবেন না। যেমন একটি গুজব ছড়ানো হয়েছে যে, ইউনাইটেড হাসপাতালে চারজন ডাক্তার করোনায় আক্রান্ত, যেটি পুরোপুরি গুজব। এ ধরনের গুজব ছড়িয়ে জনগণের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করলে সরকার আইন অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বদ্ধপরিকর। সাংবাদিক ভাইদের অনুরোধ জানাবো কেউ এ ধরনের গুজব ছড়ানোর চেষ্টা করলে আপনারাও তা প্রতিহত করবেন।’ 

‘আমাদের দেশে সরকারের পক্ষ থেকে সমস্ত প্রস্তুতি ও পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে’ জানিয়ে ড. হাছান বলেন, ‘এতদসত্ত্বেও আপনারা জানেন বাংলাদেশের এক কোটি মানুষ বিদেশে থাকে। কয়েক লাখ মানুষ ইতালি এবং স্পেনে থাকে। ইউরোপের অন্য দেশগুলোতেও লাখ লাখ বাঙালি বসবাস করে। ইউরোপে যখন এই করোনা ভাইরাস ব্যাপকতা পায়, তখন আমাদের প্রবাসী বাঙালিরা অনেকেই দেশে চলে এসেছেন। মূলত তাদের মাধ্যমেই আমাদের দেশে করোনা ভাইরাস এসেছে।’ 

করোনা ভাইরাস থেকে দেশকে মুক্ত রাখার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে নানা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, সে মোতাবেক অনেক নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে, কিন্তু অনেক প্রবাসী ভাই সেটি অনেকক্ষেত্রে মানেননি, যে কারণে অনেকের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপও নিতে সরকার বাধ্য হয়েছে, বলেন তথ্যমন্ত্রী। 

ড. হাছান বলেন, ‘প্রবাসীরা যখনই আসেন, তাদেরকে সেলফ কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে নির্দেশনা দেওয়া আছে। কিন্তু অনেকে মানছেন না। যেহেতু অনেকে মানছেন না, আমি প্রবাসী ভাই-বোনদেরকে অনুরোধ জানাবো, আমি নিজে প্রবাসে ছিলাম বহুদিন, নিজেকে ও নিজের পরিবারকে রক্ষা করার জন্য, নিজের আত্মীয়-স্বজনকে রক্ষা করার জন্য, দেশকে রক্ষা করার জন্য, প্রত্যেকের সতর্কতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন। সরকার যে নির্দেশনা দিয়েছে, ১৫ দিন সেলফ কোয়ারেন্টাইনে থাকার, নিজের স্বার্থে, নিজের পরিবারের স্বার্থে এবং দেশের স্বার্থে এটি সবার মেনে চলার প্রয়োজন।’ 

নাট্যকার মামুনুর রশীদ জানান, দেশের নাট্যাঙ্গনের সকল সমিতির প্রতিনিধিরা এদিন সন্ধ্যায় বৈঠকে আগামী ২২ থেকে ৩১ মার্চ সকল নাটকের স্যুটিং স্থগিত রাখা হবে কি না, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাবেন।

এ পরিস্থিতিতে নির্বাচন হবে কি না, এ প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘নির্বাচন অনুষ্ঠান করার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের। নির্বাচন নির্দিষ্ট সময়ে হবে কি হবে না, সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার দায়িত্বও নির্বাচন কমিশনের। নিশ্চয়ই নির্বাচন কমিশন সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।’ 

নাট্যকার মামুনুর রশীদের নেতৃত্বে এস এ হক অলীক, ইরেশ জাকের, শহীদুজ্জামান সেলিম, সাজু মুন্তাসির, এজাজ মুন্না প্রমুখ সভায় অংশ নেন।

#

আকরাম/মাহমুদ/মোশারফ/সেলিম/২০২০/১৯০০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর :  ১০৩১

স্বাস্থ্যখাতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল

করোনা প্রতিরোধে করণীয় বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ব্রিফিং

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ):

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, করোনা ভাইরাসের কারণে স্বাস্থ্যখাতের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর ছুটি বাতিল করা হয়েছে। করোনা প্রাদুর্ভাব চলাকালীন সময়ে ও পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত স্বাস্থ্যখাতের সাথে যুক্ত সকল কর্মকর্তা, নার্স, চিকিৎসক ছুটি প্রাপ্য হবেন না।

আজ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে করোনা প্রতিরোধে করণীয় বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত বিষয়ে দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতি তুলে ধরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে মোট ১৭ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী আছে। ১৭ জনের সবাই বিদেশ ফেরত ব্যক্তি অথবা তাঁদের আত্মীয়-স্বজন। এ কারণে বিদেশ থেকে আর কোনো ব্যক্তি এই মুহূর্তে দেশে না এলে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সহজতর হবে।

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব চলাকালীন বিভিন্ন স্থানে বিয়ে, গণজমায়েত হওয়া প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো বলেন, Ôকরোনা রোগটি মারাত্মক ছোঁয়াচে। এজন্য এই মুহূর্তে দেশে কোনো রকম গণসমাবেশ আয়োজন করা যাবে না। বিয়ে ও অন্যান্য অনুষ্ঠান বন্ধ রাখতে হবে। স্কুল-কলেজ আগেই বন্ধ করা হয়েছে। এখন সৌদি আরবের মতো আমাদের দেশেও জুমার নামাজ জমায়াতের সাথে না পড়ে ঘরেই পড়তে হবে।Õ

কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম না মানার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, Ôটঙ্গির ইজতেমা ময়দান কোয়ারেন্টাইনের জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে। কোয়ারেন্টাইন ব্যবস্থা জোরালো করতে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে ছেড়ে দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মোঃ আসাদুল ইসলাম, অতিরিক্ত সচিব মোঃ হাবিবুর রহমান খান, মোঃ সিরাজুল ইসলাম-সহ অন্যান্য কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। 

#

মাইদুল/মাহমুদ/রাহাত/রফিকুল/সেলিম/২০২০/১৮০০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর : ১০৩০

দুর্যোগ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনায় গতিশীলতা আনতে চুক্তি স্বাক্ষরিত

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ) :

          দুর্যোগ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনায় জাইকার অর্থায়নে গতিশীলতা আনতে আজ ঢাকায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে জাপানের আন্তর্জাতিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান Oriental Consultants Global co. Ltd এবং CTI Engineering International Co. Ltd. এর সাথে বাংলাদেশ সরকারের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এই চুক্তির আওতায় The Disaster Risk Management Enhancement Project এর কার্যক্রমে সহযোগিতার জন্য প্রায় ৯১ কোটি টাকা ব্যয়ে বৈদেশিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান নিয়োগ করা হবে।

          বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে যুগ্ম সচিব ও প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক সুব্রত পাল চৌধুরী এবং পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের পক্ষে ইউজি আসানো (Yuji Ashano) চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

          চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ এনামুর রহমান প্রধান অতিথি এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ শাহ কামাল ও বাংলাদেশে জাইকার চিফ রিপ্রেজেন্টেটিভ হিরাতা হিতোশী (Hirata Hitoshi) বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোঃ মহসিন মোহসিন।

          চুক্তির আওতায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর এবং ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কার্যক্রমে আরো গতিশীলতা আনতে দুর্যোগকালীন ব্যবহার করা যায় এরূপ বিভিন্ন উদ্ধার সরঞ্জাম ও আধুনিক যন্ত্রপাতি ক্রয়ের স্পেসিফিকেশন প্রণয়নের ক্ষেত্রে পরামর্শক প্রতিষ্ঠান প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করবে।

#

সেলিম/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০২০/১৮১০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ১০২৯

ফুটবলের উন্নয়নে ব্রাজিলের সাথে এমওইউ স্বাক্ষরের নীতিগত সিদ্ধান্ত

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ) :

          ফুটবলের উন্নয়নে ব্রাজিল ও বাংলাদেশের সম্পর্ককে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে সমঝোতা স্মারক স¦াক্ষর করার বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। আজ সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেলের সভাপতিত্বে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

          সভা শেষে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ব্রাজিল বিশ্ব ফুটবলে অত্যন্ত শক্তিশালী একটি দল। এ দেশের ফুটবলের উন্নয়নে সরকার ব্রাজিলের সাথে কাজ করতে চায়। সরকার বিশ্বাস করে, ব্রাজিল থেকে দক্ষ ও অভিজ্ঞ কোচ এনে এদেশের কোচ ও প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দিতে পারলে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে। আমাদের কোচ বা খেলোয়াড়দেরকেও ব্রাজিলে উন্নততর প্রশিক্ষণে প্রেরণ করতে হবে। এ জন্য তাদের সাথে একটি সমঝোতা স্মারক স¦াক্ষরের ব্যাপারে সরকার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

          তিনি যোগ করেন, ‘গত বছর আমরা যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে চারজন বাছাইকৃত তরুণ উদীয়মান ফুটবলার (অনূর্র্ধ্ব-১৭) ব্রাজিলে পাঠিয়েছিলাম। তারা ঐ দেশে ভালো পারফরম্যান্স দেখিয়েছে। আমরা এ বার চাইবো একটি পূর্ণাঙ্গ দল প্রেরণ করতে একই সাথে বালিকা ফুটবলারদের পাঠানোর বিষয়টি আমরা গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করছি। আমরা চাইবো, বাছাইকৃত নারী ফুটবলারদের ব্রাজিলের বাইরে অন্য কোনো দেশে প্রেরণ করতে। সে লক্ষ্যেও আমরা কাজ করছি। সত্যিকার অর্থে ফুটবলের উন্নয়নে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণের কোনো বিকল্প নেই।’

          যুব ও ক্রীড়া সচিব মোঃ আকতার হোসেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক হারুনর রশীদ-সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব, ক্রীড়া পরিদপ্তরের পরিচালক, বিকেএসপি’র মহাপরিচালক ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক-সহ বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠকবৃন্দ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

#

আরিফ/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০২০/১৮০০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ১০২৮

যুগের চাহিদা অনুযায়ী প্রশিক্ষণ প্রদানের নির্দেশনা শিল্পমন্ত্রীর

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ) :

          যুগের চাহিদা অনুযায়ী প্রশিক্ষণ প্রদানের জন্য শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অভ্ ম্যানেজমেন্ট (বিআইএম)-কে নির্দেশনা দিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।

          আজ রাজধানীর সোবহানবাগে বিআইএম’র ১২ তলা ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এ নির্দেশনা প্রদান করেন। বিআইএম’র মহাপরিচালক তাহমিনা আখতারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিআইএম’র পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ও শিল্প সচিব মোঃ আবদুল হালিম বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন।

          মন্ত্রী বলেন, দেশ এগিয়ে যাবার সাথে সাথে বিভিন্ন ক্ষেত্রে দক্ষ ব্যবস্থাপকের চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ চাহিদা পূরণে কার্যকর ভূমিকা রাখতে বিআইএম কে প্রযুক্তিসমৃদ্ধ অত্যাধুনিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলা হবে।

          বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অভ্ ম্যানেজমেন্ট (বিআইএম)-কে শক্তিশালীকরণ প্রকল্পের আওতায় ১৪৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ১২ তলা বিশিষ্ট নতুন ভবন নির্মাণের পাশাপাশি অনুষদ সদস্য উন্নয়ন ও বিদ্যমান অবকাঠামো সংস্কার করা হবে। এর ফলে একই সঙ্গে ১৮শ’ প্রশিক্ষণার্থী একসাথে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করতে পারবেন। এতে বিআইএম’র কার্যক্রমে গতিশীলতা আসবে এবং ব্যবস্থাপনা বিষয়ক প্রশিক্ষণে নতুন দিগন্তের উন্মোচন হবে। জুন ২০২১ সাল নাগাদ প্রকল্পটি সমাপ্ত হবে।

#

মাসুম/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০২০/১৭৩০ঘণ্টা

তথ্যববিরণী                                                                                                  নম্বর : ১০২৭

 

স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ ও অধীনস্থ সংস্থায় ছুটি বাতিল

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ) :

 

          করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধ এবং আক্রান্ত্র রোগীদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ এবং এ বিভাগের অধীনস্থ সকল দপ্তর, অধিদপ্তর এবং সংস্থার সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের (মেডিকেল/নন মেডিকেল) পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সকল প্রকারের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।  

 

          আজ স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ থেকে এ বিষয়ে অফিস আদেশ জারি করা হয়।

#

জাকির/মাহমুদ/রফিকুল/আব্বাস/২০২০/১৭৩১ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর : ১০২৬

এনইসি সভায় প্রায় ২ লাখ কোটি টাকা অনুমোদন

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ) :

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সভায় আজ ২০১৯-২০ অর্থ বছরের জন্য ১ লাখ ৯২ হাজার ৯২১ কোটি টাকার ব্যয় সম্বলিত সংশোধিত বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। 

এছাড়া স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান বা কর্পোরেশনের Rb¨ ৮ হাজার ২৭৭ কোটি ৫৬ jvL টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এর ফলে সংশোধিত বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির সর্বমোট আকার দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ১ হাজার ১৯৮ কোটি ৫৬ লক্ষ টাকা।  

প্রধানমন্ত্রী ও এনইসি’র চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

এছাড়া, বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ কর্তৃক প্রণীত ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা প্রতিবেদন এবং ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির জুলাই, ২০১৯ হতে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ পর্যন্ত বাস্তবায়ন অগ্রগতি ও পর্যালোচনা প্রতিবেদন এ এনইসি সভায় উপস্থাপন করা হয়েছে।

বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি’র সফল বাস্তবায়ন দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, যোগাযোগ ব্যবস্থার উbœqb, কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়ন, খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ, দারিদ্র্য বিমোচন তথা দেশের সামগ্রিক আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। 

সভায় পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নানসহ মন্ত্রিপরিষদের সদস্যবর্গ, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব, মুখ্য সমন্বয়ক (এসডিজি), পরিকল্পনা কমিশনের সদস্যবৃন্দ এবং বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিব ও সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

#

শাহেদুর/অনসূয়া/গিয়াস/আসমা/২০২০/১৬২০ ঘণ্টা                                         

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর : ১০২৫   

ড. আশরাফ সিদ্দিকীর মৃত্যুতে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর শোক

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ) :

বিশিষ্ট লোকসাহিত্যিক ও লোকগবেষক এবং বাংলা একাডেমির সাবেক মহাপরিচালক ড. আশরাফ সিদ্দিকীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।

প্রতিমন্ত্রী আজ এক শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। তিনি বাংলাদেশের লোকসাহিত্য চর্চা ও লোকগবেষণায় ড. আশরাফ সিদ্দিকীর অবদানের কথা কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করেন।

একুশে পদক বিজয়ী ড. আশরাফ সিদ্দিকী (৯৩) আজ ভোররাতে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন।

#

ফয়সল/অনসূয়া/গিয়াস/আসমা/২০২০/১৬০০ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                                              নম্বর : ১০২৪ 

কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

ঢাকা, ৫ চৈত্র (১৯ মার্চ) :

ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স কো-অর্ডিনেশন সেন্টার (NDRCC) সকাল ১১ টা পর্যন্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুযায়ী করোনা ভাইরাস শনাক্তকরণের জন্য এ পর্যন্ত দেশে ৬ লাখ ৩১ হাজার ৫ শত ৩৮ জনকে স্ক্রিনিং করা হয়েছে। তন্মধ্যে ৩টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৩ লাখ ১১ হাজার ৮ শত ২৩ জন,  দু’টি সমুদ্রবন্দরে ৮ হাজার ২ শত ৮৫ জন, ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট ও বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশনে ৭ হাজার ২৯ জন এবং অন্যান্য চালু স্থলবন্দরসমূহে ৩ লাখ ৪ হাজার ৪ শত ১ জনকে স্ক্রিনিং করা হয়েছে। 

দেশে ১৮ মার্চ পর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তিকৃত রোগীর সংখ্যা ৫৮ জন, এর মধ্যে ৩৫ জন ছাড়প্রাপ্ত। বর্তমানে বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ২৩ জন ভর্তি আছেন। এর মধ্যে ঢাকায় ১৯ জন ও অন্যান্য বিভাগে ৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় ৫ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছে। ঢাকার বাইরে এ সংখ্যা শূন্য। রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর), এখন পর্যন্ত এ বছরে COVID-19 সন্দেহে ১৪ জন রোগীকে এবং ১ জনের মৃত্যু নিশ্চিত করেছে।  

এ পর্যন্ত সারাদেশে ৬ হাজার ৩ শত ৯৩ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইন করা হয়। যার মধ্যে ১ হাজার ৪ শত ২২ জন ছাড়প্রাপ্ত। এছাড়া দেশে হাসপাতালগুলোতে কোয়ারেন্টাইন অবস্থানরত রোগী

2020-03-19-21-23-94f845680c622c394211b25aff0f8b30.docx 2020-03-19-21-23-94f845680c622c394211b25aff0f8b30.docx

Share with :

Facebook Facebook