তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৮ জুন ২০২০

তথ্যবিবরণী ৭ জুন ২০২০

 

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর:  ২০৬৮

 

টঙ্গীতে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর রক্তদান কর্মসূচি পালন

 

ঢাকা,  ২৪ জ্যৈষ্ঠ (৭ জুন):  

 

          গাজীপুরের টঙ্গীতে শহিদ আহসান উল্লাহ মাস্টার স্মৃতি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ‘রক্ত হলো স্রষ্টার দান, রক্ত দানে জীবন বাঁচান’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে আজ দিনব্যাপী এক  রক্তদান কর্মসূচি পালিত হয়েছে । 

 

          আজ টঙ্গীর নোয়াগাঁও স্কুল মাঠে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল উপস্থিত থেকে এ রক্তদান কর্মসূচি পালন করেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচিতে শুধু রক্তদাতাদের অংশগ্রহণের জন্য বিনীত অনুরোধ করেন প্রতিমন্ত্রী। 

 

          এ কর্মসূচি আয়োজনের প্রেক্ষাপট ব্যাখা করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে ব্লাড ব্যাংক ও হাসপাতালগুলোতে রক্তস্বল্পতা দেখা দিয়েছে । যার কারণে ক্যান্সার, থ্যালাসেমিয়া-সহ বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় জরুরিভাবে প্রচুর রক্তের প্রয়োজন হচ্ছে। যে কারণে আমাদের এই ব্লাডক্যাম্পের উদ্যোগ।

         

          তিনি বলেন শুধু রক্তদাতারা আসবেন। করোনায় স্বাস্থ্য বিধি রক্ষার কারণে জনসমাগম করা যাবে না। 

          কর্মসূচিতে মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, সিটি কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম নুরু সহ আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছা সেবকলীগ-সহ সকল স্তরের নেতাকর্মীরা সামাজিক দূরত্ব বজায় পূর্বক উপস্থিত ছিলেন। প্রথম দিনে প্রায় ২৫০ ব্যাগ রক্ত সংগ্রহ করা হয়েছে। এছাড়াও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়ে উঠা ব্যক্তিদের নিকট হতে  রক্তের প্লাজমা সংগ্রহ করা হয়েছে।  দাতাদের ব্যাপক সাড়া ও আগ্রহের কারণে আগামীকালও দিনব্যাপী এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। 

 

#

আরিফ/নাইচ/রফিকুল/শফিকুল/২০২০/২০৫৭ ঘণ্টা  তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ২০৬৭

 

 জরুরি বিমান পাঠিয়ে বাংলাদেশ থেকে করোনার ঔষধ সংগ্রহ করলো নাইজেরিয়া

 

ঢাকা, ২৪ জ্যৈষ্ঠ (৭ জুন) :

          বাংলাদেশে সম্প্রতি প্রস্তুতকৃত করোনার ঔষধ রেমডিসিভির (Remdesivir) ও রেমিভির (Remivir) জরুরি বিমান পাঠিয়ে সংগ্রহ করলো নাইজেরিয়া। নাইজেরিয়ার একজন গভর্নর করোনা আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হওয়ায় তাঁর চিকিৎসার জন্য সে দেশের সরকারের পক্ষ একটি চাটার্ড বিমান পাঠিয়ে এ ঔষধ সংগ্রহ করা হয়।

          নাইজেরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী Geoffrey Onyeama বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনকে গত ৬ জুন গভীর রাতে ফোন করে এ বিমানটি ঢাকায় অবতরণের বিষয়ে অনুমতি-সহ এ বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতার জন্য অনুরোধ করেন। নাইজেরিয়ার রাজধানী আবুজা থেকে রওনা হয়ে বিমানটি জেদ্দা হয়ে আজ বিকাল ৫টায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে অবতরণ করে এবং ঔষধ সংগ্রহ করে বিমানটি অল্প সময়ের মধ্যে নাইজেরিয়ার উদ্দেশ্যে বিমানবন্দর ত্যাগ করে।

          Remdesivir, Remivir, স্বল্প সংখ্যক পিপিই অন্যান্য চিকিৎসা সামগ্রী স্যাম্পল হিসেবে এ সময় সংগ্রহ করা হয়। এ ঔষধের কার্যকারীতা সাপেক্ষে নাইজেরিয়ার সরকার সে দেশে এসব ঔষধ ও চিকিৎসা সামগ্রী বাংলাদেশ থেকে আমদানি করতে চায়। বাংলাদেশের গার্মেন্টস মার্কেটিং কোম্পানি ভূঁইয়া ইন্টারন্যাশনালের সিইও কবির আহমেদ ভুঁইয়ার মাধ্যমে এসব সামগ্রী বাংলাদেশ থেকে সংগ্রহ করে নাইজেরিয়ার সরকার।  

#

 

তৌহিদুল/নাইচ/রফিকুল/রেজাউল/২০২০/২০০৮ ঘণ্টা

তথ্যববিরণী                                                                                                   নম্বর : ২০৬৬
 
৭ই জুন ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস উদ্যাপন উপলক্ষে
আয়োজিত অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতায় বিপুল সাড়া, প্রায় ২ লাখ প্রতিযোগীর নিবন্ধন সম্পন্ন
 
ঢাকা, ২৪ জ্যষ্ঠৈ (৭ জুন) :
 
আজ ৭ই জুন ২০২০ ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস উদ্যাপন উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি’র পক্ষ থেকে একটি অনলাইন আলোচনা সভা এবং তরুণ প্রজন্মকে সম্পৃক্ত করার উদ্দেশ্যে অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। অনলাইন আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন ড. সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম। আলোচক হিসেবে থাকবেন কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এবং শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বাংলাদেশ টেলিভিশন ও অ্যাসোসিয়েশন অভ্ টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্স (অ্যাটকো) এর সহযোগিতায় ধারণকৃত আলোচনা অনুষ্ঠানটি ৭ই জুন সন্ধ্যা ৭টায় বাংলাদেশ টেলিভিশন ও অন্যান্য টেলিভিশন চ্যানেলে সুবিধাজনক সময়ে প্রচারিত হবে। 
 
এছাড়া জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৬ দফা আন্দোলন ও এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জন বিষয়ে সকলকে, বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মকে নিবিড়ভাবে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে ৭ই জুন ২০২০ তারিখ রাত ৯টা হতে রাত ১০টা এই এক ঘণ্টা ব্যাপী ‘শতবর্ষে শত পুরস্কার’ শিরোনামে একটি অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য ২ লক্ষাধিক প্রতিযোগী নিবন্ধন সম্পন্ন করেছেন। নিবন্ধিত প্রতিযোগীগণ নির্দিষ্ট সময়ে (৭ই জুন ২০২০, রাত ৯টা হতে রাত ১০টা) প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে ছয় মিনিটের ভেতর যত বেশি প্রশ্নের সঠিক উত্তর দিতে পারবেন, তার উপর ভিত্তি করে কম্পিউটার বিজয়ী নির্ধারণ করবে। যত দ্রæত সম্ভব ফলাফল ঘোষণা করে কুইজ প্রতিযোগিতায় ১০০ জন বিজয়ীকে পুরস্কার প্রদান করা হবে। ১ম পুরস্কার ৩ লাখ টাকা, ২য় পুরস্কার ২ লাখ টাকা, ৩য় পুরস্কার ১ লাখ টাকা, ৪র্থ পুরস্কার ৫০ হাজার টাকা, ৫ম পুরস্কার ২৫ হাজার টাকা এবং বিশেষ পুরস্কার ৯৫টি প্রতিটি ৫ হাজার টাকা। একই সাথে প্রতিযোগিদের ই-মেইলে সনদপত্র পাঠানো হবে। 
 
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির পক্ষ হতে উক্ত অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য নিবন্ধিত প্রতিযোগীদের শুভেচ্ছা এবং সকলকে অনলাইন আলোচনা অনুষ্ঠান দেখার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।
 
#
 
নাসরীন/নাইচ/রফিকুল/রেজাউল/২০২০/২০০৫ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর:  ২০৬৫

 

১১৮১  জনের মুক্তিযোদ্ধা গেজেট বাতিল করে প্রজ্ঞাপন জারি

ঢাকা,  ২৪ জ্যৈষ্ঠ (৭ জুন):

 

          ১১৮১ জনের মুক্তিযোদ্ধা গেজেট বাতিল করে প্রজ্ঞাপন জারি  করেছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়।    

 

          জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল আইন-২০০২ এর ৭ (ঝ) ধারা অনুযায়ী ২০১৯ এর ১০ ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল এর ৬৬তম সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক আজ এ প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

 

          গেজেট বাতিলকৃত প্রজ্ঞাপন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট www.molwa.gov.bd-তে পাওয়া যাবে। 

 

          আজ মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।   

#

 

মারুফ/নাইচ/ রফিকুল/শফিকুল/ ২০২০/১৯২৩ ঘণ্টা   

 

তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর: ২০৬৪

 

                       সুপেয় পানির আওতায় আসবে ৪০ লাখ ঢাকাবাসী       

                                         -স্থায়ী সরকার মন্ত্রী

ঢাকা,  ২৪ জ্যৈষ্ঠ (৭ জুন): 


          ঢাকা শহরের ক্রমবর্ধমান খাবার পানির চাহিদা মেটানোর জন্য পদ্মা নদীর উৎস হতে পানি সরবরাহের লক্ষ্যে পদ্মা (যশলদিয়া) পানি শোধনাগার নির্মাণ প্রকল্প (ফেজ-১) এর আওতায় 'মেইন লাইন নির্মাণ ও শক্তিশালীকরণ' শীর্ষক একটি প্রকল্প গ্রহণ করে ঢাকা ওয়াসা। ঢাকা ওয়াসার পদ্মা (যশলদিয়া) পানি শোধনাগার প্লান্ট বাস্থবায়িত হলে ঢাকা শহরের ৪০ লাখ নগরবাসী সুপেয় পানি পাবে।


          আজ স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলামের সাথে ডেনমার্ক সরকারের পক্ষে বাংলাদেশে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত মাইকেল হেমনিটি উইনথার ডেনমার্ক থেকে এক ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এ প্রকল্পে অর্থায়নে ড্যানিশ সরকারের সম্মতির কথা জানান।

 

          স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, এই প্লান্টটিতে  দৈনিক ৪ শত ৫০ মিলিয়ন লিটার পানি পরিশোধন করার সক্ষমতা রয়েছে। পুরোনো  ডিস্ট্রিবিউশন লাইন সংস্কার এবং নতুন লাইন স্থাপনের মাধ্যমে নগরবাসীর বর্ধিত চাহিদা অনুযায়ী পানি সরবরাহ করা সম্ভব হবে। তিনি বলেন, ডেনিশ সরকারের সহায়তায় প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে একদিকে যেমন ঢাকাবাসী সুপেয় পানি পাবে অন্যদিকে ইনকাম জেনারেটর হবে।

 

          পদ্মা (যশলদিয়া) পানি শোধনাগার থেকে ঢাকায় পানি সরবরাহের জন্য ডিস্ট্রিবিউশন লাইনের দৈর্ঘ্য হবে প্রায় ১৪১ কিলোমিটার। এই প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ৬শ' ৩৩ কোটি টাকা।

 

          এ সময় স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, ঢাকা শহরের বিভিন্ন জায়গায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা দ্রুততম সময়ে নিয়ন্ত্রণ করতে রাজধানীতে মিনি ফায়ার স্টেশন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই এটি স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ডেনমার্ক সরকার মিনি ফায়ার স্টেশন নির্মাণে সাহায্য করার আগ্রহ প্রকাশ করায় রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জানান তিনি। ভিডিও কনফারেন্সে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম অংশ নেন।


          এর আগে মন্ত্রী ডেনমার্কে করোনা পরিস্থিতির খোঁজ-খবর নেন এবং বাংলাদেশের পরিস্থিতি তুলে ধরেন।

 

#

 

হায়দার/নাইচ/রফিকুল/ শফিকুল/ ২০২০/১৮৪৯ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ২০৬৩

সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিমের রোগমুক্তি কামনায় তথ্য প্রতিমন্ত্রীর আহ্বানে দোয়া মাহফিল

 

সরিষাবাড়ি (জামালপুর), ২৪ জ্যৈষ্ঠ (৭ জুন) :

          জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিমের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বাদ জোহর স্থানীয় সংসদ সদস্য ও তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের নির্দেশে উপজেলার বিভিন্ন মসজিদ ও ধর্মীয় উপাসনালয়গুলোতে বিশেষ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

          এ সময় মোহাম্মদ নাসিম-সহ করোনা আক্রান্ত সবার আশু রোগমুক্তি কামনা করে দোয়া করা হয়।

          উল্লেখ্য, মোহাম্মদ নাসিম করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবার পর গত শুক্রবার ব্রেইন স্ট্রোক ও পরে মস্তিস্কে সফল অস্ত্রোপচারের পর তাঁকে বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালের আইসিইউতে ভেন্টিলেশনে ও ৪৮ ঘন্টার নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল। গতকাল থেকে তাঁর শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি ঘটে। পরে চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সমন্বয়ে ১৩ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়।

#

মাহবুবুর/নাইচ/রফিকুল/রেজাউল/২০২০/১৮৫৮ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ২০৬২

 

কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

ঢাকা, ২৪ জ্যৈষ্ঠ (৭ জুন) :

          ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স কো-অর্ডিনেশন সেন্টার (এনডিআরসিসি) থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য ৬৪ জেলায় ইতোমধ্যে ২ লাখ ১ হাজার ৪ শত ১৭ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ করা হয়েছে। এছাড়া শিশু খাদ্য-সহ অন্যান্য সামগ্রী ক্রয়ের জন্য ১১৬ কোটি ৬৭ লাখ ৭২ হাজার ২৬৪ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বরাদ্দকৃত এ সাহায্য দেশের সকল জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে বিতরণ করা হচ্ছে । ‌

          স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী আজ দেশে নতুন করে আরো ২ হাজার ৭৪৩ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৬৫ হাজার ৭৬৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৪২ জন-সহ এ পর্যন্ত ৮৮৮ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ হাজার ১৩৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

          এখন পর্যন্ত সর্বমোট ২৫ লাখ ৯ হাজার ১৪২টি পিপিই সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে মোট বিতরণ করা হয়েছে ২২ লাখ ১৬ হাজার ৪৭৫টি এবং মজুত আছে ২ লাখ ৯২ হাজার ৬৬৭টি।

          সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে ৬২৯টি প্রতিষ্ঠান এবং এর মাধ্যমে তাৎক্ষণিকভাবে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের সেবা প্রদান করা যাবে ৩১ হাজার ৯৯১ জনকে।

#

তাসমীন/নাইচ/রফিকুল/রেজাউল/২০২০/১৮৪০ ঘন্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                             নম্বর:  2061

ঐতিহাসিক ছয়- দফা বাঙালির মুক্তির সনদ হিসেবে কাজ করেছে

                                             -ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

ঢাকা,  ২৪ জ্যৈষ্ঠ (৭ জুন):

          ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ৬৬ সালের  ছয়- দফা আমাদের মুক্তির সনদ হিসেবে কাজ করেছে।   দেশের নামটি প্রস্তাবনা ছাড়া স্বাধীনতা ঘোষণার সব কিছুই নিহিত ছিলো এই  ছয় দফায়।  ছয় দফা মানেই স্বাধীনতার ঘোষণা। এর পর থেকেই  বঙ্গবন্ধুর আপসহীন সংগ্রামের কঠিন পথ বেয়ে ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের দিকে এগিয়ে যায় বাঙালি জাতি।  

          মন্ত্রী আজ ঢাকায় ডাক অধিদপ্তর আয়োজিত ৭ জুন ঐতিহাসিক ছয় -দফা দিবস উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট অবমু্‌ক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।  তিনি বেইলী রোডে তাঁর সরকারি বাসভবন থেকে জুম ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন। 

          অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. নূর-উর-রহমান, অতিরিক্ত সচিব মো. আজিজুল ইসলাম, শাহাদাৎ হোসেন এবং ডাক অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক হারুন অর রশীদ ভিডিওতে সংযুক্ত থেকে বক্তৃতা করেন।  ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এসএস ভদ্র অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

          মন্ত্রী বলেন, ১৯৬৬ সালের এই দিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঘোষিত ছয়-দফা দাবির পক্ষে দেশব্যাপী তীব্র গণ আন্দোলনের সূচনা হয়।  এই দিনে আওয়ামী লীগের ডাকা হরতালে টঙ্গি, ঢাকা  ও নারায়ণগঞ্জে তৎকালীন পুলিশ ও ইপিআর'র গুলিতে মনু মিয়া, শফিক ও শামসুল হক সহ অনেক বাঙালি শহিদ হন।   

          ছয়-দফার মাধ্যমেই  গোটা জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীনতার প্রস্তুতি কাজ সম্পন্ন করা হয়েছিলো উল্লেখ করে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফা জব্বার বলেন, মানুষ আগে থেকে তৈরি না থাকলে যুদ্ধে আমরা জয়ী হতে পারতাম না।  বঙ্গবন্ধু সমগ্র জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন।  ১৯৪৭ সালে পাকিস্তান রাষ্ট্রটির জন্মের পর থেকেই  প্রতিবাদের মধ্য দিয়ে মহান নেতা শেখ মুজিব বাঙালির জাতি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রামের যাত্রা শুরু করেছিলেন।  অভাবনীয় ত্যাগ ও নির্যাতন সহ্য করে ৬৬, ৬৮, ৬৯ সালে তিনি মহানায়কে পরিণত হন।  এরই ধারাবাহিকতায় সত্তরের নির্বাচন আওয়ামী লীগের আকাশচুম্বি বিজয় এবং একাত্তরের স্বাধীনতা অর্জিত হয়।

          মন্ত্রী করোনা পরিস্থিতিতে নানা প্রতিকূলতা সত্ত্বেও ঐতিহাসিক ৭ জুন উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট প্রকাশ করা এবং জীবনের ঝুঁকি নিয়েও টেলিকম ও ইন্টারনেট সেবা নিরবচ্ছিন্ন রাখার জন্য তাঁর অধীনস্থ দপ্তর ও সংস্থার সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

          ডাক অধিদপ্তর ‘ছয়-দফা শহিদ দিবস’ উপলক্ষে ১০ টাকা মূল্যমানের একটি স্মারক ডাকটিকিট এবং ১০টাকা মুল্যমানের একটি উদ্বোধনী খাম প্রকাশ করেছে।

          উল্লেখ, মন্ত্রী স্মারক ডাকটিকিট ও উদ্বোধনী খাম  অবমুক্ত করেন।

#

 

শেফায়েত/নাইচ/ রফিকুল/ শফিকুল/ ২০২০/১৮৩১ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                         নম্বর : ২০৬০

 

বিভেদের ভাইরাসে জাতিকে বিভ্রান্ত না করার আহ্বান সেতু মন্ত্রীর


ঢাকা, ২৪ জ্যৈষ্ঠ (৭ জুন) :

          বিভেদের ভাইরাসে জাতিকে বিভ্রান্ত না করার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। 

          মন্ত্রী আজ ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস উপলক্ষে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগের পক্ষে দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তাঁর বাসভবন থেকে ব্রিফিংয়ে একথা বলেন।

          ওবায়দুল কাদের ৬ দফাকে স্বাধিকার সংগ্রামের গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক হিসেবে অভিহিত করে বলেন, যারা ৭ই মার্চ ও ৭ জুন পালন করে না তাদের স্বাধীনতার চেতনা এবং মুক্তিযুদ্ধের আদর্শে বিশ্বাস নেই। দলমত ধর্মবর্ণনির্বিশেষে সকলের প্রতি করোনা মোকাবিলার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, রাজনীতি করার সময় এখন নয়, বর্তমান পরিস্থিতিতে সবাইকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয়ে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হবে।

          মন্ত্রী এ সময় বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী নেতৃত্বে গোটা জাতি আজ ঐক্যবদ্ধ, তিনি সংকটে সাহসী ও সফল একজন রাষ্ট্রনায়ক। একদিকে মানুষকে বাঁচানো অন্যদিকে করোনা প্রতিরোধের চ্যালেঞ্জ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন।

          আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ৬ দফা বাঙালির মুক্তির সনদ। এ আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় বন্দি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কারামুক্তি ঘটে এবং ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দানে সর্বদলীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের পক্ষ থেকে শেখ মুজিবকে বঙ্গবন্ধু উপাধিতে ভূষিত করা হয়।

#

নাছের/নাইচ/রফিকুল/রেজাউল/২০২০/১৭৩৮ ঘণ্টা

 

2020-06-07-21-18-509675b986bc8b749257cad6d26ac3fc.docx 2020-06-07-21-18-509675b986bc8b749257cad6d26ac3fc.docx

Share with :

Facebook Facebook