তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১০ এপ্রিল ২০১৫

তথ্যবিবরণী 10/4/2015

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :  ১০৩৫

সরকার যে কোনো দুর্যোগে জনগণের পাশে রয়েছে         
                          -- মোঃ শাহরিয়ার আলম                                                                                                                                                                                                                                                                                

রাজশাহী, ২৭ চৈত্র (১০ এপ্রিল) :

    পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহ্রিয়ার আলম বলেছেন, সরকার যে কোনো দুর্যোগে জনগণের পাশে রয়েছে। বর্তমান সরকার  বিপদে, আপদে ও দুর্যোগে জনগণের পাশে দাঁড়ানোর রাজনীতিতে বিশ্বাসী । 

প্রতিমন্ত্রী আজ রাজশাহীর বাঘা  উপজেলায় সম্প্রতি প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা আড়ানী, বাউসা, পাকুড়িয়া ও মনিগ্রাম এলাকা পরিদর্শনকালে বেশ কয়েকটি পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায়  একথা বলেন। 

প্রতিমন্ত্রী জনগণকে সাহস ও ধৈর্যের সাথে  দুর্যোগ মোকাবিলা করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, সরকার ক্ষতিগ্রস্তদের  সম্ভব সবরকম সাহায্য সহযোগিতা দিয়ে যাবে। তিনি ব্যক্তিগত তহবিল থেকেও ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য করার আশ্বাস দেন। 
 
উল্লেখ্য, গত  ৪ এপ্রিল  বাঘা উপজেলায় সাতটি ইউনিয়ন ও দু’টি পৌরসভার ওপর দিয়ে  প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় বয়ে যায়। এতে এক হাজার ৪৫০টি  পরিবার সম্পূর্ণরূপে এবং সাত হাজার ৩৫০টি পরিবার আংশিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।  

 ইতোমধ্যে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ৬০ হাজার টাকা ও ১৬ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ করা হয়েছে। ঝড়ে  দু’জন নিহত ও তিনজন আহত হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে স্থানীয় প্রশাসন থেকে  নিহত দু’জনকে ২০ হাজার করে ৪০ হাজার টাকা এবং আহত তিনজনকে পাঁচ হাজার করে ১৫ হাজার টাকা প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া, অতি ক্ষতিগ্রস্ত ২০টি পরিবারকে  এক বান্ডিল করে ঢেউটিন প্রদান করা হয়েছে এবং তাদেরকে আরো তিন হাজার করে টাকা দেয়া হবে।  ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে ১০ কেজি করে চাল প্রদান করা হয়েছে।

পরিদর্শনকালে বাঘা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বাদল চন্দ্র হালদার, থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম আশরাফ ও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

#

মিজান/মিজান/নবী/মোশারফ/সেলিম/২০১৫/২১৪৫ ঘণ্টা

Handout                                                                                                         Number : 1034

 

11 stranded Bangladeshis in Yemen repatriated to Bangladesh

 

Dhaka, April 10 :

 

            The first group of 11 Bangladeshi nationals who were stranded in Yemen has arrived Dhaka from Djibouti by Emirates flight today.

 

            Additional Foreign Secretary Mizanur Rahman received them at the airport. Other Senior Officials from the Ministry also were present during that time.

 

            As of today 304 Bangladeshi nationals have been evacuated from Yemen to Djibouti. Out of them, 272 Bangladeshis were rescued by Indian Naval Ship (INS) from Hodeida and 20 have been evacuated by Air India from Sana'a. The remaining 287 Bangladeshis are currently staying in Djibouti under the arrangement made by the Ministry of Foreign Affairs. 

 

            Ministry of Foreign Affairs has set up a ‘Repatriation Control Room’ in Djibouti led by Bangladesh Ambassador in Kuwait to conduct the repatriation process. It is expected that more Bangladeshis will be evacuated from Yemen to Djibouti for ultimate repatriation to Bangladesh soon. 

 

            The whole repatriation operation is being carried out under the direct supervision of the  Foreign Minister Abul Hasan Mahmud Ali.

                     

#

 

Mizan/Nabi/Sanjib/Selim/2015/1745 Hrs

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ১০৩৩

 

অধিক প্রোগ্রামার তৈরি হলে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের কাজ জোরালো হবে

                                                      -- তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ২৭ চৈত্র (১০ এপ্রিল) :

         

          তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নেয়ার জন্য আরো বেশি প্রোগ্রামার তৈরি করতে হবে। দেশে যত বেশি প্রোগ্রামার তৈরি হবে, ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের কার্যক্রম তত জোরালো হবে। সরকার চায় বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাত এগিয়ে যাক। এগিয়ে যাক আমাদের তারুণ্য।

          প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল অডিটোরিয়ামে তথ্য ও  যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ আয়োজিত ১৯৯৮ সাল থেকে ইন্টারন্যাশনাল কলেজিয়েট  প্রোগ্রামিং কনটেস্ট (আইসিপিসি) ও আঞ্চলিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের সম্মাননা ও প্রণোদনা এবং এবারের ইন্টারন্যাশনাল অলিম্পিয়াড ইন ইনফরমেটিক্সে অংশগ্রহণকারীদের অনুদান প্রদান অনুষ্ঠানে একথা বলেন।

          তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ বক্তব্য রাখেন।

          প্রতিমন্ত্রী সম্মাননা ও অনুদান প্রাপ্তদের অধ্যবসায়ী হওয়া এবং ইংরেজি শিক্ষার প্রতি জোর দেয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, প্রোগ্রামিং কনটেস্ট একটি কো-কারিকুলার এক্টিভিটি। এখানে সফল হতে হলে প্রয়োজন দ্রুত ও নিখুঁত কোডিং, জটিল সমস্যা সমাধান করার সক্ষমতা, ধৈর্য, অধ্যবসায়, ভালো টিমওয়ার্ক, চাপের মুখে সমস্যা সমাধানের ঝোঁক এবং সর্বোপরি আত্মবিশ্বাস ও ইংরেজিতে ভালো দক্ষতা।

          প্রোগ্রামিংয়ে ভালো করে আধুনিক ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগের কথা উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, গুগল, ফেসবুক, মাইক্রোসফটের মতো বড় বড় কোম্পানিগুলো ভালো প্র্রোগ্রামিং জানা তরুণ-তরুণীদের এবং যারা বিভিন্ন প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতায় ভালো করে তাদেরকে অগ্রাধিকারভিত্তিতে চাকরি প্রদান করে। সেক্ষেত্রে প্রোগ্রামিং জানা আমাদের তরুণ প্রজন্মের ভালো ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ আছে। প্রোগ্রামিংয়ে ক্যারিয়ার সৃষ্টিতে সরকার সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে এবং তা অব্যাহত থাকবে।

          অনুষ্ঠানে আইসিপিসি ও আঞ্চলিক পর্যায়ে শীর্ষস্থান অধিকারী বিভিন্ন টিমের ৮০ জনকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। এবারের ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন টিমের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে প্রণোদনা প্রদান করা হয়েছে এবং প্রাক-বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের সবচেয়ে বড় প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা ইন্টারন্যাশনাল অলিম্পিয়াড ইন ইনফরমেটিক্সে অংশগ্রহণকারীদের উৎসাহ ও অনুপ্রেরণা যোগাতে তাজিকিস্তানে অনুষ্ঠেয় প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য তাদের রাউন্ড-ট্রিপের বিমানভাড়া ও দৈনন্দিন ব্যয় বাবদ ৫ লাখ টাকা অনুদান প্রদান করা হয়।

#

নাসের/মিজান/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৫/১৭০০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                                                                                                                     নম্বর : ১০৩২


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির 
ভর্তি কার্যক্রমের ২য় রিলিজস্লি¬পের মেধাতালিকা প্রকাশ ১২ এপ্রিল 


ঢাকা, ২৭ চৈত্র (১০ এপ্রিল) :

    জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্র্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির ভর্তির ২য় রিলিজস্লিপের মেধাতালিকা ১২ এপ্রিল প্রকাশ করা হবে। উক্ত ফল এসএমএস এর মাধ্যমে বিকেল ৪টা থেকে যেকোনো মোবাইল মেসেজ অপশনে গিয়ে NUATHNRoll No লিখে ১৬২২২ নম্বরে ঝবহফ করে জানা যাবে এবং রাত ৯টায়www.nu.edu.bd/admissions অথবা admissions.nu.edu.bd ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।
 
    উল্লে¬খ্য, ২য় রিলিজস্লি¬পের ভর্তি কার্যক্রম শেষ হলে পরবর্তীতে আর কোনো মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে না অর্থাৎ ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্র্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে বলে বিবেচিত হবে।

    এ ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.nu.edu.bd/admissions থেকে জানা যাবে।

#

ফয়জুল/মিজান/সঞ্জীব/আব্বাস/২০১৫/১৭১২ ঘণ্টা

Todays handout (3).doc Todays handout (3).doc

Share with :

Facebook Facebook