তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৩ মে ২০২০

তথ্যবিবরণী ১৩.০৫.২০২০

তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর :  ১৭২৬

 

বিএসএমএমইউ-এটুআই স্পেশালাইজড টেলি-হেলথ সেন্টার

উদ্বোধন করলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

           বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএসএমএমইউ-এটুআই স্পেশালাইজড টেলি-হেলথ সেন্টার উদ্বোধন করেছেন তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক। এর ফলে এখন থেকে ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ নম্বরে ফোন করে দেশের যে কোনো প্রান্ত থেকে ভিডিও সংযোগে সহজেই নাগরিকগণ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সেবা নিতে পারবেন।

 

          প্রতিমন্ত্রী আজ ডিজিটাল প্লাটফর্মে প্রধান অতিথি হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় ও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের এটুআই  এর যৌথ উদ্যোগে  পরিচালিত এ স্পেশালাইজড টেলি-হেলথ সেন্টারের উদ্বোধন করেন।

 

          উদ্বোধনকালে প্রতিমন্ত্রী বলেন, চিকিৎসা সেবা জনগণের হাতের মুঠোয় পৌঁছে দিতে টেলিমেডিসিন সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। টেলি-হেলথ সেন্টার স্বাস্থ্য খাতের বৈষম্য দূর করবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এর ফলে জনগণকে চিকিৎসা সেবার জন্য ডাক্তারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরতে হবে না। আইসিটি প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, শুধু কোভিড-১৯ মোকাবিলায় নয়, করোনা পরবর্তী সময়েও টেলি-হেলথ সেন্টার স্বাস্থ্য খাতের বৈষম্য দূর করবে। এই সেবাটি কেবল ফোনে নয় ভিডিওতেও বিনামূল্যে এ সেবা পাওয়া যাবে।

 

#

 

শহিদুল/রাহাত/রেজ্জাকুল/সেলিম/২০২০/২১২০ ঘণ্টা

 

 

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর :  ১৭২৫

 

করোনা মোকাবিলায় সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালাচ্ছে সরকার

                                           -- শিল্প প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

          করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকার সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার। তিনি বলেন, বিদ্যমান পরিস্থিতি হতে উত্তরণ ঘটিয়ে দেশের অর্থনীতিকে গতিশীল রাখতে  সরকার ঘোষিত প্রায় ১ লাখ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজের বাস্তবায়নের কাজ চলমান রয়েছে। 

 

          আজ রাজধানীর মিরপুরে অসহায় দরিদ্রদের মাঝে ত্রাণ সহায়তা পরিচালনার জন্য মিরপুর মডেল থানার নিকট ৩শ' ব্যাগ খাদ্য প্রদানকালে সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী  এসব কথা বলেন।

 

          প্রতিমন্ত্রী বলেন,  মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া এ রোগের শনাক্তকরণ সুবিধা সারা দেশে সম্প্রসারিত করা হচ্ছে।  রাজধানী-সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে  করোনা সনাক্তে ল্যাবরেটরি ও নমুনা সংগ্রহের জন্য বুথ স্থাপন করা হচ্ছে। সরকার আয়-রোজগারহীন নিম্ন-মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্তের  মানুষদের নিকট খাবার পৌঁছে দিচ্ছে। তিনি বলেন, প্রাণঘাতী করোনা হতে বাঁচতে অপ্রয়োজনে ঘোরাফেরা বন্ধ করে ঘরে অবস্থান করতে হবে। প্রতিমন্ত্রী এ সময় করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ৩১ দফা অনুসরণ করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

 

#

 

মাসুম/রাহাত/রেজ্জাকুল/সেলিম/২০২০/১৯৪০ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর :  ১৭২৪

 

ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধের সময়সীমা আরো এক মাস বৃদ্ধি

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

অনাদায়ি ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধের সময়সীমা আরো এক মাস বৃদ্ধি করে ১৫ জুন, ২০২০  (০১ আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ) করা হয়েছে। ভূমি মন্ত্রণালয় আজ এ নির্দেশ জারি করে।

 

উল্লেখ্য, প্রচলিত বিধি অনুযায়ী প্রতি বাংলা বছরের ৩০ চৈত্র তারিখের মধ্যে ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। কিন্তু করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে দেশে উদ্ভূত পরিস্থিতির কারণে গত ৯ এপ্রিল অনাদায়ি ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধের সময়সীমা এক মাস বৃদ্ধি করে ১৩ মে, ২০২০ (৩০ বৈশাখ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ) করে নির্দেশনা জারি করেছিল ভূমি মন্ত্রণালয়। অর্থাৎ, আজ ছিল বর্ধিত এ সময়সীমার শেষ দিন।

তবে, ইতোমধ্যে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে আগামী ১৬ মে তারিখ পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। তাই এই বর্ধিত সময়সীমার মধ্যেও ভূমি উন্নয়ন কর আদায়কারী সংশ্লিষ্ট দপ্তর এবং ভূমি উন্নয়ন কর প্রদানকারী  জনগণ ও সংস্থা উভয়ের পক্ষেই আদায় বা পরিশোধ করা সম্ভবপর হবে না মর্মে প্রতীয়মান হচ্ছে। এমতাবস্থায়, সাধারণ ও সংস্থা নির্বিশেষে সকল শ্রেণির ভূমি উন্নয়ন কর আদায় ও পরিশোধের সুবিধার্থে আগামী ১ আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ  (১৫ জুন ২০২০) পর্যন্ত ভূমি উন্নয়ন কর আদায়ের সময়সীমা পুনঃবর্ধিত করেছে ভূমি মন্ত্রণালয়।

 

#

 

নাহিয়ান/রাহাত/রেজ্জাকুল/সেলিম/২০২০/১৯৪০ ঘণ্টা

 

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর :  ১৭২৩

 

করোনা'র কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া ৫ হাজার অসচ্ছল

শিল্পীকে আর্থিক সহায়তা দেবে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :


          কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধকল্পে দেশব্যাপী চলমান লকডাউন পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে পড়া সারা দেশের প্রায় ৫ হাজার অসচ্ছল শিল্পী ও সংস্কৃতিসেবীদের এককালীন আর্থিক সহযোগিতা প্রদানের উদ্যোগ নিয়েছে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

 

          জেলা প্রশাসন এবং জেলা কালচারাল অফিসারের সহযোগিতায় মাঠ পর্যায় হতে এবং ঢাকা মহানগর এলাকার জন্য বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সহযোগিতায় তালিকা প্রস্তুত করা হচ্ছে। প্রস্তুতকৃত তালিকা অনুযায়ী পর্যায়ক্রমে এসব অসচ্ছল শিল্পী ও সংস্কৃতিসেবীকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হবে।

 

#

 

ফয়সল/রাহাত/রেজ্জাকুল/সেলিম/২০২০/১৯৩০ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর :  ১৭২২

 

-কমার্সের যৌথ সাংবাদিক সম্মেলনে বাণিজ্যমন্ত্রী

পণ্যের মান ও উন্নত সেবা নিশ্চিত করে গ্রাহকদের আস্থা অর্জন করতে হবে

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

          বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, দেশে ই-কমার্সের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাচ্ছে। করোনা ভাইরাসের কারণে দেশে চলমান পরিস্থিতিতে ই-কমার্স গ্রাহকদের চাহিদা পূরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্টদের পণ্যের মান ও সেবা নিশ্চিত করে গ্রাহকদের আস্থা অর্জন করতে হবে। ই-কমার্সে যাতে কোনো গ্রাহক প্রতারিত না হয়, সে বিষয় নিশ্চিত করতে হবে।


          মন্ত্রী আজ সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ই-কমার্সের উদ্যোগে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও ই-ক্যাবের  যৌথ অন-লাইন সাংবাদিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

 
          মন্ত্রী বলেন, দেশে ই-কমার্সের প্রসার ঘটানো প্রয়োজন। চলমান পরিস্থিতিতে যারা কর্মহীন হয়েছেন, তাদের ই-কমার্সে কাজে লাগানো যেতে পারে। তিনি বলেন, দেশে ই-বাণিজ্য প্রসারে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে।

 
          ই-ক্যাবের সভাপতি শমী কায়সারের সভাপতিত্বে  এ যৌথ সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন ই-ক্যাবের উপদেষ্টা সংসদ সদস্য নাইম রাজ্জাক, বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন, এফবিসিসিআই’র সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম প্রমুখ।

 

#

 

বকসী/রাহাত/রেজ্জাকুল/সেলিম/২০২০/১৯২০ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর :  ১৭২১

 

করোনায় সম্ভাব‍্য ক্ষয়ক্ষতি উত্তরণে কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের কাজ চলছে

                                              -- পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী


ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

          পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী  স্বপন ভট্টাচার্য্য বলেছেন, করোনায় সম্ভাব‍্য ক্ষয়ক্ষতি থেকে উত্তরণে কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নে কাজ করছে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগ। তিনি বলেন, দেশের দারিদ্র্য বিমোচনে এ  বিভাগ  সরাসরি অবদান রাখছে। তাই এই দুর্যোগে আমাদের আরো সক্রিয় হতে হবে। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা ছাড়া এই দুর্যোগ মোকাবিলা সম্ভব নয়। 

 

          কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাব এর  ক্ষতিকর প্রভাব থেকে  উত্তরণে  করণীয় নির্ধারণ এবং কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের  জন্য পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের  সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত  জরুরি সভায়  প্রতিমন্ত্রী  আজ এসব কথা বলেন।

 

          সভায় প্রতিমন্ত্রী জানান, বর্তমানে দেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী ও ঔষধ ব্যতীত অন্যান্য মালামাল বিপণন বন্ধ রয়েছে। এ অবস্থায় ঋণ নিয়ে পণ্য উৎপাদনে নিয়োজিত সদস্যগণ কাঁচামাল সরবরাহ ও উৎপাদিত পণ্য বিপণন করতে না পারায় সুফল পাচ্ছে না। ফলে, বর্তমান পরিস্থিতিতে উপকারভোগী সদস্যদের একদিকে যেমন পূর্বের ঋণ পরিশোধের সক্ষমতা নেই, অন্যদিকে পিডিবিএফ এর অপর্যাপ্ত ঋণ তহবিলের কারণে নতুন করে এসকল উপকারভোগীদের পুনরায় ঋণ প্রদান করা সম্ভব হবে না।

 

          সভায় করোনা ভাইরাসের কারণে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়  বিভাগের আওতাধীন দপ্তর ও সংস্থার কি পরিমান ক্ষতি হয়েছে ও এই ক্ষতি কি ভাবে কাটিয়ে ওঠা যায়, সে বিষয়ে দপ্তর-সংস্থার প্রধানগণ মতামত প্রদান করেন।

 

#

 

হাবীব/রাহাত/রেজ্জাকুল/সেলিম/২০২০/১৯২০ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর :  ১৭২০

 

গরম মসলা ব্যবসায়ীদের সাথে বাণিজ্যমন্ত্রীর বৈঠক

মসলার দাম কমলো ১০-২৫ ভাগ

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

          গরম মসলার দাম শতকরা ১০-২৫ ভাগ কমানোর ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ পাইকারি গরম মসলা ব্যবসায়ী সমিতি। আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি এবং বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দিনের সাথে সমিতির ৬ সদস্যের প্রতিনিধি দল এক বৈঠকের পর এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

 

          বৈঠকের পর বাংলাদেশ পাইকারি গরম মসলা ব্যবসায়ী সমিতি গরম মসলার মূল্য তালিকা ঘোষণা করেন। নির্ধারিত মূল্য হলো- জিরা (ভারত) প্রতি কেজি ৩০০-৩৪০ টাকা, দারচিনি (চীন) প্রতি কেজি ৩১০-৩৩০ টাকা, দারচিনি (ভিয়েতনাম) প্রতি কেজি ৩৫০-৩৭০ টাকা, লবঙ্গ প্রতি কেজি ৬৮০-৭২০ টাকা, এলাচ প্রতি কেজি ২৮০০-৩২০০ টাকা, গোলমরিচ (সাদা) ৫৫০-৫৮০ টাকা, গোলমরিচ (কাল) ৩৬০-৩৮০ টাকা।  ঘোষিত মূল্য তালিকায় স্বাক্ষর করেন বাংলাদেশ পাইকারি গরম মসলা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. এনায়েত উল্লাহ এবং মহাসচিব মো. আতিকুল হক।

 

          এর আগে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (আইআইটি) মোঃ ওবায়দুল আজমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় গরম মসলার আন্তর্জাতিক বাজার ও বাংলাদেশে আমদানি মূল্য পর্যালোচনা করা হয়। সভায় আসন্ন পবিত্র ঈদ উল ফিতরকে সামনে রেখে গরম মসলার মূল্য স্থিতিশীল রাখার বিষয়ে একমত পোষণ করা হয়।

 

#

 

বকসী/রাহাত/রেজ্জাকুল/সেলিম/২০২০/১৮৩০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর :  ১৭১৯

 

আক্রান্ত ব্যক্তির সেবায় পিছপা হবেন না
                                  -- স্বাস্থ্যমন্ত্রী
 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

          স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক সদ্য যোগদানকৃত চিকিৎসকদের উদ্দেশে বলেছেন,  চিকিৎসার ক্ষেত্রে আক্রান্ত কোনো ব্যক্তির সেবায় পিছপা হবেন না।আক্রান্ত ব্যক্তিকে নিজ পরিবারের একজন সদস্য ভেবে সেবা দেবেন।


          মন্ত্রী আজ ঢাকায় বিসিপিএস অডিটোরিয়ামে ৩৯তম বিসিএস এর অপেক্ষমান তালিকা থেকে নতুন করে পদায়নকৃত ২ হাজার চিকিৎসকের ওরিয়েন্টেশন কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।


          চিকিৎসকদের নিয়োগ প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, গত ২৫ এপ্রিল ২ হাজার চিকিৎসক ও ৬ হাজার নার্স নিয়োগের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নিকট চিঠি দেয়া হলে ৭ মে নিয়োগের তালিকা আমাদের হাতে আসে। মাত্র ১০-১২ দিনেই এত বড় নিয়োগ একটি বিরল ঘটনা। খুব শীঘ্রই আরো বেশ কিছু টেকনোলজিস্ট নিয়োগের প্রক্রিয়াও চলমান রয়েছে। এসব নিয়োগ সম্পন্ন হলে দেশের স্বাস্থ্যসেবার মান নিঃসন্দেহে আরো বৃদ্ধি পাবে। এত দ্রুত বিপুলসংখ্যক চিকিৎসক নিয়োগের অনুমোদন দেওয়ায়  প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতাও জানান তিনি।


          স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের সচিব আলী নূর, নিউরো সার্জন বিশেষজ্ঞ ও বিসিপিএস এর সভাপতি কাজী দ্বীন মোহাম্মদ-সহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

 

#

 

মাইদুল/রাহাত/রেজ্জাকুল/সেলিম/২০২০/১৮৪০ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর : 17১৮

 

পার্সেল স্পেশাল ট্রেন পরিচালনা কর‌ছে রেলও‌য়ে

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

          করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে যাত্রীবাহী ট্রেন বন্ধ থাকলেও কৃষিপণ্যবাহী পার্সেল ট্রেন পরিচালনা করছে বাংলাদেশ রেলওয়ে । বর্তমানে বাংলাদেশ রেলওয়েতে তিনটি রুটে এ ট্রেন চলাচল করছে।

 

          রুট তিনটি হল : চট্টগ্রাম- সরিষাবাড়ী -চট্টগ্রাম, ঢাকা -ভৈরব বাজার - ঢাকা, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলও‌য়ে স্টেশন (পঞ্চগড়)  -ঢাকা।

 

          উল্লেখ্য, গত ১ মে থেকে ট্রেনগুলো কৃষিপণ্য, সবজি ও অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস পরিবহন করছে। এ পর্যন্ত এই পার্সেল ট্রেনের মাধ্যমে বাংলাদেশ রেলওয়ে প্রায় ৫ লাখ কেজি সবজি ও কৃষিপণ্য পরিবহন করে কৃষ‌কের পণ্য পরিবহনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে।

 

#

 

শরিফুল/রাহাত/রেজ্জাকুল/সেলিম/২০২০/১৭৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ১৭১৭

 

স্ক্রলে প্রচারের জন্য

সকল ইলেকট্রনিক মিডিয়া

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

          সকল ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় নিম্নোক্ত বিষয়টি স্ক্রলে প্রচারের জন্য অনুরোধ করা হলো :

 

মূল বার্তা :   

          'ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধের সময়সীমা আগামী ১৫ জুন২০২০ পর্যন্ত বৃদ্ধি'

 

#

 

নাহিয়ান/রাহাত/রেজ্জাকুল/সেলিম/২০২০/১৭০০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                নম্বর :  ১৭১৬

 

খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির তালিকা পুণরায় প্রস্তুত করে  

প্রকৃত গরিব ও দুস্থদের অন্তর্ভুক্ত করার নির্দেশ খাদ্যমন্ত্রীর

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

          খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় সারা দেশে বছরে পাঁচ মাস  ৫০ লাখ পরিবারকে প্রতিমাসে ৩০ কেজি চাল প্রতি কেজি ১০টাকা দরে প্রদান করা হয়ে থাকে। কিন্তু দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে এই তালিকায় থাকা সুবিধাভোগীদের নিয়ে অভিযোগ আসায় অতি দ্রুত যাচাই-বাছাই করে প্রকৃত গরীব ও দুস্থদের নাম তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে নতুন তালিকা তৈরি করার জন্য জেলা প্রশাসক ও জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

 

          মন্ত্রী আজ ঢাকায় তাঁর মিন্টো রোডস্থ সরকারি বাসভবন থেকে ঢাকা বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার, আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক, জেলা প্রশাসক ও জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন।

 

          মন্ত্রী এ সময় স্বজনপ্রীতির ঊর্ধ্বে থেকে প্রকৃত গরিব ও দুঃস্থদের নাম তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে তালিকা প্রস্তুত করার নির্দেশ দেন। প্রয়োজনে প্রতিটি উপজেলায় অতীতে তালিকা তৈরি করার সময়ে যে ট্যাগ অফিসার ছিলেন তাদেরকে সরিয়ে নতুন করে কোনো ট্যাগ অফিসারকে দায়িত্ব দেওয়ার কথা বলেন খাদ্যমন্ত্রী।

         

লটারির তালিকা ইউনিয়ন অফিসে টাঙিয়ে দেওয়ার নির্দেশ খাদ্যমন্ত্রীর

 

          খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এ সময় আরো বলেছেন, চলতি বোরো মৌসুমে যে সমস্ত কৃষক বোরো চাষ করেছেন এমন প্রকৃত কৃষকের মধ্য থেকে লটারির মাধ্যমে কৃষক নির্বাচন করতে হবে। লটারি করার পর চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত কৃষকের নামের তালিকা ইউনিয়ন অফিসের তথ্যকেন্দ্রে ঝুলিয়ে রাখতে হবে; যাতে সবাই দেখতে পায়। এ সমস্ত কাজ অত্যন্ত স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মধ্য দিয়ে করতে হবে।

 

          মন্ত্রী বলেন, ধান-চাল সংগ্রহের ক্ষেত্রে প্রতিটি উপজেলায় সংগ্রহ কমিটি রয়েছে। সংগ্রহ কমিটিকে প্রতিটি ইউনিয়নে যেয়ে কৃষকের উপস্থিতিতে লটারি করার আহ্বান জানান তিনি।  কৃষকের ধান দেওয়ার ক্ষেত্রে  আর্দ্রতা সমস্যার কথা তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন,  কৃষকের ধান দেয়ার ক্ষেত্রে আদ্রতা নিয়ে একটু সমস্যা হয় কিন্তু প্রতিটি উপজেলার কৃষি অফিসে আদ্রতা মাপার যন্ত্র রয়েছে। কৃষকের নামের লটারি করার পর উপজেলা কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা নির্বাচিত কৃষকের বাড়িতে গিয়ে তাদের ধানের আদ্রতা পরিমাপ করতে পারে। এছাড়া দেশের প্রতিটি ইউনিয়নে খাদ্যশস্যের আদ্রতা মাপার যন্ত্র সরবরাহ করার বিষয়টির উপরও তিনি গুরুত্ব দেন।

 

          ঢাকা বিভাগের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, কৃষকের স্বার্থের কথা চিন্তা করে; তাদের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করার জন্য ধান-চাল কেনার ক্ষেত্রে ধানকে অগ্রাধিকার দিতে হবে এবং কৃষক যেন কোনোভাবেই হয়রানির শিকার না হয় সেদিকেও লক্ষ্য রাখতে হবে। পাশাপাশি যেকোনো প্রকার অস্বচ্ছতা, দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতির ঊর্ধ্বে থেকে সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে  ধান-চাল সংগ্রহ কার্যক্রম শতভাগ সফল করার নির্দেশ দেন মন্ত্রী।

#

সুমন/রাহাত/রেজ্জাকুল/সেলিম/২০২০/১৯৪০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর :  ১৭১৫

 

কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

          ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স কো-অর্ডিনেশন সেন্টার (এনডিআরসিসি) থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য ৬৪ জেলায় আজ পর্যন্ত ১ লাখ ৫৩ হাজার ২১৭ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ করা হয়েছে। এছাড়া শিশু খাদ্য-সহ অন্যান্য সামগ্রী ক্রয়ের জন্য ৮৫ কোটি ১৭ লাখ ৭২ হাজার ২৬৪ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বরাদ্দকৃত এ সাহায্য দেশের সকল জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে বিতরণ করা হচ্ছে । ‌

 

          রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী আজ দেশে নতুন করে আরো ১ হাজার ১৬২ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৭ হাজার ৮২২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ২১৪ জন-সহ এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৩৬১ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৯ জন-সহ এ পর্যন্ত ২৬৯ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন। দেশের ৪১টি পরীক্ষাগারে গত ২৪ ঘণ্টায় ৭ হাজার ৯০০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

 

          এখন পর্যন্ত সর্বমোট ২১ লাখ ৬৭ হাজার ৫৪৭টি পিপিই সংগ্রহ করা হয়েছে, তার মধ্যে গতকাল পর্যন্ত  মোট বিতরণ করা হয়েছে ১৭ লাখ ৯৬ হাজার ১৯৬টি এবং মজুদ আছে ৩ লাখ ৭১ হাজার ৩৫১টি।

 

          সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে ৬১৭টি প্রতিষ্ঠান এবং এর মাধ্যমে তাৎক্ষণিকভাবে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের সেবা প্রদান করা যাবে ৩১ হাজার ১৬৫ জনকে।

 

#

 

তাসমীন/রাহাত/রেজ্জাকুল/সেলিম/২০২০/১৭২০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর : 17১৪

কোভিড-১৯ এর সামাজিক ও প্রাতিষ্ঠানিক সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণের কারিগরি নির্দেশনা

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

          স্বাস্থ্য অধিদফতরের সমন্বিত কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র 'কোভিড-১৯ এর সামাজিক ও প্রাতিষ্ঠানিক সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণের কারিগরি নির্দেশনা' প্রণয়ন করেছে। এই নির্দেশনায় বিভিন্ন ব্যক্তি, গোষ্ঠী, সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানের জন্য পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে। কোভিড-১৯ মহামারী প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে বাড়িঘর এর জন্য পালনীয়  কারিগরি নির্দেশনাসমূহ নিম্নরূপ:

  • বাড়িতে থার্মোমিটার, মাস্ক, জীবানুনাশক এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী সংরক্ষণ করুন।
  • পরিবারের সদস্যদের স্বাস্থ্য সক্রিয়ভাবে পর্যবেক্ষণ নিরীক্ষণ করুন। এক্ষেত্রে প্রতি সকালে এবং সন্ধ্যায় তাপমাত্রা পর্যবেক্ষণের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।
  • পর্যাপ্ত বায়ু চলাচলের জন্য জানালা সবসময় বা অন্তত ২০-৩০ মিনিটের জন্য দিনে ২-৩ বার খুলে দিয়ে বাড়ির অভ্যন্তরে বায়ু চলাচল অব্যাহত রাখুন।
  • জীবানুনাশক দ্বারা বাড়ি ও তার আশেপাশের পরিবেশ পরিষ্কার রাখুন।
  • পরিবারের সদস্যদের মধ্যে একটি তোয়ালে সকলে মিলে ব্যবহার করবেন না, ঘন ঘন কাপড় এবং লেপ তোষক  রোদে দিন; ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যকর অভ্যাস গড়ে তুলুন, যত্রতত্র থুথু ফেলবেন না, হাঁচি দেওয়ার সময় মুখ এবং নাক টিস্যু বা কনুইয়ের ভাঁজে রেখে হাঁচি কাশি দিন।
  • সঠিক পরিমাণে ও নিয়মিত পুষ্টিকর খাবার খাওয়ার অভ্যাস করুন, একটি বৈজ্ঞানিক ডায়েট প্ল্যান করুন, নিয়মিত হাল্কা ব্যায়াম করুন, পর্যাপ্ত ঘুমান এবং ইমিউনিটি বৃদ্ধি করুন।
  • বাইরে থেকে ফিরে এবং হাঁচি -কাশি দেয়ার পর হাত সাবান-পানি ব্যবহার করে ধুয়ে নিন অথবা ৭০% এলকোহলযুক্ত জীবানুনাশক (Sanitizer) দিয়ে হাত পরিস্কার করুন।
  • বন্য প্রাণি খাওয়া বা সংস্পর্শে আসা থেকে বিরত থাকুন। হাঁস-মুরগি ও ডিম খাওয়ার আগে সঠিক তাপমাত্রায় রান্না করুন।
  • বেড়াতে যাওয়া, দাওয়াত ও আড্ডা দেয়া থেকে বিরত থাকুন
  • যদি অসুস্থ থাকেন তবে বাইরে যাওয়া থেকে বিরত থাকুন, ভিড়ের জায়গায় যাবেন না এবং বাইরে বেরোনোর সময় অবশ্যই মাস্ক পরবেন। আপনার জন্য সাধারণ কাপড়ের মাস্কই যথেষ্ট। এটা পরা এবং খোলার নিয়ম অনুসরণ করুন। পুন:ব্যবহার এর ক্ষেত্রে প্রতিবার ব্যবহার এর পর হাল্কা গরম পানিতে সাবান গুলিয়ে ভাল করে ধুয়ে রোদে শুকিয়ে নিবেন।
  • জনাকীর্ণ এলাকায় যাতায়াত বা অন্যান্য লোকের সাথে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের সময় অবশ্যই মাস্ক পরুন।
  • আপনি যদি মাঝারি এবং উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চলে থাকেন তবে অপ্রয়োজনীয় ভ্রমণ এড়িয়ে চলুন বা কমিয়ে আনার /সীমিত রাখার চেষ্টা করুন; কোয়ারান্টাইনে থাকা ব্যক্তিদের সাথে মেলামেশা পরিহার করুন এবং বিশেষ প্রয়োজনে মেলামেশার সময় পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা এবং জীবাণুমুক্তকরণের দিকে মনোযোগ দিন, ব্যক্তিগত সুরক্ষা জোরদার করুন এবং মাস্ক পরুন।

#

অনসূয়া/জসীম/মহসীন/২০২০/১৫৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ১৭১৩

 

টিসিবি সাশ্রয়ী মূল্যে প্রায় ২৩ হাজার মেট্রিকটন পেঁয়াজ বিক্রয় করেছে

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ট্রেডিং করপোরেশন অভ বাংলাদেশ (টিসিবি) এর মাধ্যমে ১ এপ্রিল, ২০২০ থেকে ঢাকাসহ দেশের সকল বিভাগ, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সাশ্রয়ী মূল্যে পেঁয়াজসহ বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী বিক্রয় করে আসছে। এ পর্য্ন্ত প্রায় ৩০ হাজার ডিলারের মাধ্যমে ট্রাক সেলে টিসিবি পেঁয়াজ প্রথমে প্রতি কেজি ৪৫ টাকা, পরে ৩৫ টাকা এবং বর্তমানে ২৫ টাকা মূল্যে বিক্রয় করছে।  

 

টিসিবি ১ এপ্রিল, ২০২০ থেকে এ পর্য্ন্ত প্রায় ২৩ হাজার মেট্রিকটন পেঁয়াজ স্বল্প আয়ের মানুষের কাছে বিক্রয় করেছে।

 

#

 

লতিফ/অনসূয়া/জসীম/কুতুব/২০২০/১৫৩৫ ঘণ্টা 

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর : 171২ 

 

কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবা গেমচেঞ্জার হিসেবে আবির্ভূত হবে

                                                -আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ৩০ বৈশাখ (১৩ মে) :

 

 

          ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকে তথ্য সুরক্ষা ও সাইবার নিরাপত্তার দিকে গুরুত্ব দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। আজ ডিজিটাল প্লাটফর্মে 'পাঠাও টেলি মেডিসিন' সেবার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান। তিনি বলেন, কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবা গেমচেঞ্জার হিসেবে আবির্ভূত হবে।

 

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে ভাতা প্রদানের ক্ষেত্রে আঙুলের ছাপের পরিবর্তে ফেস রিকগনিশন প্রযুক্তি ব্যবহার করতে যাচ্ছে সরকার। ইতোমধ্যে বয়স্ক ও বিধবা ভাতা প্রদানে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

 

          পলক বলেন, টেলিমেডিসিন খরচ ও ঝুঁকি কমায়। ইতোমধ্যেই প্রভা, সহজ ও পাঠাও এর মতো প্রতিষ্ঠানগুলো টেলিমেডিসিন সেবা চালু করছে। এটা শুধু প্রযুক্তির ব্যবহারই বাড়াচ্ছে না, ঝুঁকি ও খরচ কমাবে। বেশি সংখ্যক মানুষের কাছে সেবা পৌঁছে দিতে উৎসাহিত করবে।

 

          এ সময় প্রতিটি জায়গায় প্রযুক্তির ব্যবহার হচ্ছে উল্লেখ করে খাবার ও স্বাস্থ্যের পর শিক্ষাসহ অনেক মৌলিক সেবায় পাঠাও যুক্ত হবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনে অন্যান্য স্ট

2020-05-13-21-58-79324f216fc6fa18c2effa8ee671cb98.docx 2020-05-13-21-58-79324f216fc6fa18c2effa8ee671cb98.docx

Share with :

Facebook Facebook