তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

তথ্যবিবরণী ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

তথ্যবিবরণী                                                                                                            নম্বর : ৩৪৬৭
 
        গৃহহীনদের জন্য দুর্যোগ সহনীয় ঘর নির্মাণ করা হবে
                  --- ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী
 
ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মোঃ এনামুর রহমান বলেছেন, গৃহহীনদের জন্য দুর্যোগ সহনীয় ঘর নির্মাণ করে দেয়া হবে। প্রতিবন্ধী, বেদে এবং হিজড়া সম্প্রদায়ের গৃহহীনদেরকেও ঘর প্রদান করা হবে। 
প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে উরংধনষরঃু ওহপষঁংরাব উরংধংঃবৎ জরংশ গধহধমবসবহঃ  বিষয়ক জাতীয় টাস্কফোর্সের চতুর্থ সভা শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদেরকে ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন।
এডভোকেসি গ্রুপ অন ডিজেবিলিটি ইনক্লুসিভ ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট এর প্রধান উপদেষ্টা সায়মা হোসেন ওয়াজেদ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ শাহ কামাল, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মোঃ আসাদুল ইসলাম, স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ এবং টাস্ক ফোর্সের অন্যান্য সদস্য সভায় উপস্থিত ছিলেন।
ব্রিফিংয়ে প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বন্যার মতো দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রতিবন্ধীবান্ধব নৌযান ‘মাল্টিপারপাস রেস্কিউ বোট’ নির্মাণ করা হবে, যেন বন্যাকবলিত লোকজন ছাড়াও এ নৌযানে গৃহপালিত পশু-পাখি বহন করা যায়। ৪৫ লাখ টাকা ব্যয়ে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর সহযোগিতায় এ নৌযান নির্মাণ করা হবে। প্রতি নৌযানে ১০০ জন করে বন্যাকবলিত মানুষ উদ্ধার ও বহন করা যাবে বলে প্রতিমন্ত্রী উল্লেখ করেন।
#
সেলিম/মাহমুদ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/২১৩০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ৩৪৬৬

বেলারুশ হতে আমদানিকৃত যান-যন্ত্রপাতি পরিদর্শন করলেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :    

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেছেন, সিটি কর্পোরেশন-সহ সরকারের অন্যান্য প্রতিষ্ঠান ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে বছরব্যাপী পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছে। এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে জনসচেতনতা এবং প্রতিটি নাগরিকের স্ব স্ব দায়িত্ব পালনকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে। যারা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে পেরেছে সে সমস্ত জায়গায় মশার প্রাদুর্ভাব বন্ধ করা সম্ভব হয়েছে।

আজ গাবতলী বেড়িবাঁধ সংলগ্ন কিচেন মার্কেটে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের বেলারুশ হতে আমদানিকৃত যান-যন্ত্রপাতি পরিদর্শনকালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয় সরকার বিভাগ কর্তৃক জি টু ‍জি- এর আওতায় বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও পরিচ্ছন্নতার কাজে বেলারুশ হতে এ সকল যান-যন্ত্রপাতি ক্রয় করা হয়। ক্রয়কৃত যান-যন্ত্রপাতির মধ্যে রয়েছে-স্কিড লোডার, বেক-হো-লোডার, হুইল লোডার, টুইন ড্রাম ভাইব্রেটরি রোড রোলার, কম্বাইন্ড অ্যাসফল্ট রোলার প্রভৃতি।

#

হাসান/ফারহানা/রফিকুল/রেজাউল/২০১৯/২০৪৫ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                             নম্বর : ৩৪৬৫
 
মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর সাথে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ
 
ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :
মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরার সাথে আজ সচিবালয়ে তাঁর অফিস কক্ষে বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাতে নারী উন্নয়ন ও নারীর ক্ষমতায়ন, কিশোর-কিশোরী ক্লাব, নারী উদ্যোক্তা-সহ দু’দেশের স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুন নাহার, উপসচিব ড. আবুল হোসেন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে নারী উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নের বাংলাদেশ বিশ্বে রোল মডেল। তিনি বাংলাদেশে প্রথম ডিএনএ ল্যাবরেটরি প্রতিষ্ঠায় যুক্তরাষ্ট্রের সাহায্য ও বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ প্রদান-সহ অন্যান্য সহোযগিতার জন্য তাঁকে ধন্যবাদ জানান। 
বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ মিত্র উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, পারস্পরিক সহযোগিতা ও সমঝোতার ভিত্তিতে দু’দেশ আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত এ সময় বাংলাদেশে বাল্যবিবাহ রোধ, নারী উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য বাজারজাতকরণ ও কিশোর-কিশোরী ক্লাব প্রতিষ্ঠায় তাঁর দেশের পক্ষ থেকে সহযোগিতা করার আগ্রহ ব্যক্ত করেন ও ভবিষ্যতে কিশোর-কিশোরী ক্লাব পরিদর্শন করার করার আগ্রহ প্রকাশ করেন।
#
আলমগীর/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/২১০০ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                       নম্বর : ৩৪৬৪
 
ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার আহ্বান সমবায় প্রতিমন্ত্রীর
 
বগুড়া, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :
পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স¦পন ভট্টাচার্য্য বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে প্রতিষ্ঠিত পল্লী উন্নয়ন একাডেমী, বগুড়া এর বিভিন্ন উদ্ভাবনীমূলক কর্মকা- দেশব্যাপী ছড়িয়ে দিলে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের দেশে রূপান্তরিত হবে, আত্মমর্যাদাশীল দেশ হিসেবে বিশ্ব দরবারে প্রতিষ্ঠিত হবে। 
বগুড়ায় পল্লী উন্নয়ন একাডেমী (আরডিএ) এর ২৯তম বার্ষিক পরিকল্পনা সম্মেলনে আজ প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। তিনি এ সময় আগত আলোচকবৃন্দকে বঙ্গবন্ধুর চেতনার সাথে সামঞ্জস্য রেখে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার বাস্তবসম্মত দিকনির্দেশনা প্রদান করার আহ্বান জানান।
পল্লী উন্নয়ন একাডেমী, বগুড়া’র মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ আমিনুল ইসলাম অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এবং মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। 
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বগুড়া-৫ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ হাবিবর রহমান, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মোঃ কামাল উদ্দিন তালুকদার, ময়মনসিংহ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. লুৎফুল হাসান, রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মজিবুর রহমান। 
পল্লী উন্নয়ন একাডেমী, বগুড়ার সম্মানিত পরিচালক, অনুষদ সদস্য, দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আগত শিক্ষক, বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে আগত ব্যক্তিবর্গ, গবেষক, বিশেষজ্ঞ-সহ একাডেমীর সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
#
 
আহসান হাবীব/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/২০৫০ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩৪৬৩

২০২০ সাল হবে সর্বোত্তম হজ ব্যবস্থাপনার বছর

                                        -- ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :    

২০২০ সালে সর্বোত্তম হজ ব্যবস্থাপনা উপহার দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব এডভোকেট শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ। এ জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান ।

২০১৯ সালে সফল হজ ব্যবস্থাপনা উপহার দেয়ায় গতকাল রাতে মক্কা নগরীতে প্রবাসী আওয়ামী কমিউনিটি মক্কা, সৌদি আরবসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে যৌথভাবে সফররত ধর্ম প্রতিমন্ত্রীকে দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সঠিক দিকনির্দেশনায় এবারের হজ ব্যবস্থাপনা সফল হয়েছে। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পবিত্রতা নষ্ট হতে দেয়া হবে না বলে আবারও হুঁশিয়ার করেন।

#

আনোয়ার/ফারহানা/সঞ্জীব/রেজাউল/২০১৯/২০০৪ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                    নম্বর : ৩৪৬২
 
খনন কাজে তদারকি জোরদার করতে হবে
     --- নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী
 
ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :
নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্মুদ চৌধুরী বলেছেন, নৌপথ খনন কাজে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খুবই আন্তরিক। খনন কাজে তদারকি জোরদার করতে হবে। দাপ্তরিক কাজে আরো গতিশীলতা আনতে হবে।
আজ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) এর ‘উন্নয়ন, আর্থিক ও প্রশাসনিক’ বিষয়ক সভায় প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
সভায় ঢাকার চারপাশে নদীর সীমানা পিলার স্থাপন, ওয়াকওয়ে নির্মাণ কাজ ত্বরান্বিত করার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়। সভায় জানানো হয়, ঢাকার কামরাঙ্গিরচর ও রামচন্দ্রপুরে সীমানা পিলার স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। নদী তীরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও বর্জ্য উত্তোলনের জন্য ছয়টি নতুন এক্সাভেটর সংগ্রহ করা হয়েছে। নদীকে দূষণমুক্ত করতে ‘রিভার ক্লিনার ভেসেল’ সংগ্রহ করা হবে। নৌপথ খননে আরো ড্রেজিং সংগ্রহের কাজ চলমান রয়েছে।
এছাড়া জামালপুরের বাহাদুরাবাদঘাট ও গাইবান্ধার বালাশীঘাটের মধ্যে দ্রুত ফেরি সার্ভিস চালু করা, শুন্যপদে জনবল নিয়োগ, চিলমারী নদী বন্দর-সহ অন্যান্য নদীবন্দর ও ঘাটগুলোর উন্নয়ন কাজ দ্রুত শেষ করার বিষয়ে আলোচনা হয়। বিআইডব্লিউটিএ ২০১৮-১৯ অর্থবছরে প্রায় ২৪৪ কোটি টাকা আয় করেছে বলে সভায় জানানো হয়।
অন্যান্যের মধ্যে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ভোলা নাথ দে এবং বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান কমডোর এম মাহবুব-উল-ইসলাম সভায় উপস্থিত ছিলেন।
#
জাহাঙ্গীর/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/১৯৫০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ৩৪৬১

সরকার শিক্ষক প্রশিক্ষণের পর্যাপ্ত সুযোগ সৃষ্টি করছে

                                                  -- শিক্ষা উপমন্ত্রী

ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :    

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেছেন, দক্ষ শিক্ষক তৈরির লক্ষ্যে সরকার প্রশিক্ষণের পর্যাপ্ত সুযোগ সৃষ্টি করে যাচ্ছে। প্রশিক্ষণের জন্য শিক্ষকদেরকে বিদেশে পাঠানোর পাশাপাশি আন্তর্জাতিক মানের প্রশিক্ষকদের দেশে এনে স্থানীয় পর্যায়ে ভালো মানের শিক্ষক প্রশিক্ষক তৈরি করার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের।

আজ সচিবালয়ে শিক্ষা উপমন্ত্রীর দপ্তরে Global Partnership for Education–এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা Alice Albright এর নেতৃত্বে চার সদস্যের এক প্রতিনিধিদলের সাক্ষাতে উপমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি শিক্ষা খাতে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের বর্ণনা দেন।

মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, সরকার কারিগরি শিক্ষার ওপর বিশেষ জোর দিচ্ছে যাতে বিদেশে দক্ষ জনশক্তি প্রেরণ করে দেশের অর্থনীতি সমৃদ্ধ করা যায়। বছরের শুরুতেই বিনামূল্যে বই বিতরণ, এমপিও-ভুক্ত শিক্ষকদের সরকারি খাত থেকে বেতন প্রদান, সরকারি-বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো নির্মাণ-সহ নানা কার্যক্রমের ফলে দেশে শিক্ষার সংখ্যাগত অগ্রগতি ঈর্ষণীয় উল্লেখ করে তিনি উন্নয়ন সহযোগীদের মানসম্পন্ন শিক্ষায় বিনিয়োগ ও ব্যাপকভিত্তিক সহযোগিতার আহ্বান জানান।

Alice Albright বলেন, তার সংস্থা বাংলাদেশে শিক্ষক প্রশিক্ষণে সহযোগিতা করতে আগ্রহী। এছাড়া শিক্ষা খাতে গৃহীত সরকারের স্তরভিত্তিক কৌশল বাস্তবায়নে সংস্থাটি সাহায্য করতে প্রস্তুত।

#

জাহিদ/মাহমুদ/সঞ্জীব/রেজাউল/২০১৯/১৯৩৮ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                  নম্বর : ৩৪৬০
 
ভূমিমন্ত্রীর সাথে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ 
 
ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :
ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরীর সাথে আজ তাঁর কার্যালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার সাক্ষাৎ করেন। ভূমি সচিব মোঃ মাক্ছুদুর রহমান পাটওয়ারী এ সময় উপস্থিত ছিলেন। 
ভূমিমন্ত্রী বাংলাদেশের ভূমি ব্যবস্থাপনা ও এর ডিজিটালাইজেশনের বিভিন্ন পরিকল্পনার ব্যাপারে রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন। রাষ্ট্রদূত এ সময় মন্ত্রীকে ভূমি উন্নয়ন বিষয়ক যেকোনো সহায়তা প্রদানের আশ্বাস প্রদান করেন।
মন্ত্রী বলেন, এখন তদারকির কারণে দুর্নীতি করা সহজ হচ্ছে না। সরকার দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। ভূমি মন্ত্রণালয় থেকে শুরু করে মাঠ পর্যায়ে দুর্নীতি কমানোর জন্য চেষ্টা চালানো হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, ভূমি মন্ত্রণালয় একটি সেবামুখী মন্ত্রণালয়। ভূমি ব্যবস্থাপনা স্বয়ংক্রিয় হয়ে গেলে দুর্নীতিমুক্ত উন্নত সেবা প্রদান করা সম্ভব হবে।
বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রশংসা করে মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, বোস্টন ও হার্ভার্ড-সহ নাম করা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন কনফারেন্সে উদীয়মান বাংলাদেশের ব্যাপারে আলোচনা করা হচ্ছে। ‘বাংলাদেশ বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের গ্রাউন্ড জিরো’ উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের ভূয়সী প্রশংসা করেন।
সাক্ষাৎ শেষে ভূমিমন্ত্রী সাংবাদিকদেরকে ব্রিফিং করেন। মন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করার পর তাঁর কর্মকা- ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার বিষয়ে তিনি সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।
#
নাহিয়ান/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/২০০০ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                                              নম্বর : ৩৪৫৯
 
টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে উন্নত পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা জরুরি
            --- এলজিআরডি মন্ত্রী
 
ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :
স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেছেন, বাংলাদেশ সরকার ২০৩০ সালের মধ্যে জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বদ্ধপরিকর। বাংলাদেশের প্রায় এক-তৃতীয়াংশ মানুষ এখনও উন্নত পয়ঃনিষ্কাশন সুবিধা থেকে বঞ্চিত। কাজেই টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার ৬.২ নং লক্ষ্য অর্জনে সকলের জন্য উন্নত পয়ঃনিষ্কাশন সুবিধা নিশ্চিত করা জরুরি। দেশের সরকারি ও বেসরকারি খাত সম্মিলিতভাবে কাজ করলে পয়ঃনিষ্কাশন পণ্য ও সেবা প্রদান সহজলভ্য হবে এবং জনসাধারণ উপকৃত হবে।
আজ রাজধানীর রেডিসন ব্লু হোটেলের উৎসব হলে ‘ঘধঃরড়হধষ ঝধহরঃধঃরড়হ ওহফঁংঃৎু ঈড়হংঁষঃধঃরড়হং রহ ইধহমষধফবংয’ শীর্ষক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন। বাংলাদেশে পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা উন্নয়নে উৎসাহিত করতে স্থানীয় সরকার বিভাগ ও ইউনিসেফ যৌথভাবে দুই দিনব্যাপী এ কর্মশালার আয়োজন করেছে।
স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ কর্মশালায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোঃ জহিরুল ইসলাম, বাংলাদেশে সুইজারল্যান্ড দূতাবাসের প্রথম সচিব ডেরেক জর্জ, ফেডারেশন অভ্ বাংলাদেশ চেম্বারস অভ্ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই)-এর প্রেসিডেন্ট শেখ ফজলে ফাহিম, ইউনিসেফ-এর ওয়াশ কর্মসূচির প্রধান ডোরা জনস্টন এবং জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মোঃ সাইফুর রহমান। 
পরে মন্ত্রী বাংলাদেশি উদ্যোক্তাদের উদ্ভাবিত পয়ঃনিষ্কাশন সামগ্রীর প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন।
#
হাসান/মাহমুদ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/১৯১৫ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                                    নম্বর : ৩৪৫৮
 
অপ্রচলিত অথচ লাভবান কৃষির দিকে গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার
            --- কৃষিমন্ত্রী
 
ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :
কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, ধান নির্ভর কৃষির পাশাপশি অপ্রচলিত অথচ লাভবান কৃষির দিকে গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার। কফি, কাজুবাদাম, অ্যাভোকাডো-সহ বিভিন্ন ফসল চাষে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে কৃষকদের।
আজ যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ঘড়ৎঃয ঊহফ (চাঃ) খঃফ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জরপশ ঐঁননধৎফ মন্ত্রীর সাথে তাঁর দপ্তরে সাক্ষাৎ করলে মন্ত্রী তাঁকে এসব কথা বলেন।
জরপশ ঐঁননধৎফ বলেন, ঘড়ৎঃয ঊহফ ২০১১ সালে বান্দরবানের রুমা উপজেলায় ৫০০টি কফি গাছের চারা দিয়ে কফি চাষ শুরু করে। বর্তমানে গাছের সংখ্যা ১ লাখ ৫০ হাজার। বিগত দুই বছর যাবৎ বাংলাদেশে উৎপাদিত কফি বাজারজাত ও রপ্তানি করা হচ্ছে। ঘড়ৎঃয ঊহফ এবং ঋঅঙ মনে করে বাংলাদেশের কফি বিশ্ব মানের। এটার চাষ বাংলাদেশের পরিবেশের জন্য উপযোগী, পানি কম লাগে, পোকামাকড় ও রোগজীবাণুর আক্রমণ নেই। এছাড়া ঋঅঙ বাংলাদেশে কফি প্রসেসিং মেশিন বিনামূল্যে সরবরাহ করছে। 
মন্ত্রী বলেন, কফি উৎপাদনে অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য কিছুসংখ্যক কৃষককে ভিয়েতনামে পাঠানো হবে। কৃষিজাত পণ্যের ওপর সরকার প্রণোদনা দিয়ে থাকে, সেক্ষেত্রে কফিকেও এর আওতায় আনা হবে। তিনি ঘড়ৎঃয ঊহফ কে সবধরনের সহযোগিতা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। এছাড়া ভিয়েতনাম থেকে উন্নত জাতের কফি চারা দেশে এনে চাষ করার পরিকল্পনা ব্যক্ত করেন।
 
#
গিয়াস/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/১৯১৫ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                              নম্বর : ৩৪৫৭
 
তৃণমূল পর্যায়ে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা হচ্ছে
        --- মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী
 
ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করে তৃণমূল পর্যায়ে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা হচ্ছে। সামগ্রিক স্বাস্থ্যসেবা বৃদ্ধির লক্ষ্যে দেশে মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়েছে এবং প্রয়োজনীয় সংখ্যক চিকিৎসক নিয়োগদান-সহ সম্ভাব্য সকল কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। 
মন্ত্রী আজ ঢাকায় হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে বাংলাদেশ একাডেমি অভ্ ডার্মাটোলজির ২য় আন্তর্জাতিক কনফারেন্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। 
মন্ত্রী বলেন, সম্প্রতি ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব দেখা দিলে চিকিৎসক সমাজ নিরলস পরিশ্রম করে আক্রান্ত রোগীদের সেবা প্রদান করেছে। তাঁদের আন্তরিক চিকিৎসাসেবার ফলে অধিকাংশ ডেঙ্গু রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরেন। এ সময় মন্ত্রী চর্মরোগ-সহ বিভিন্ন ধরনের ছোঁয়াচে ও সংক্রামক রোগের ক্ষেত্রে সচেতনতা সৃষ্টিতে চিকিৎসকদের কার্যকর ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান। মহান মুক্তিযুদ্ধে চিকিৎসকদের গৌরবোজ্জ¦ল ভূমিকার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ভারতের মাটিতে বাংলার শরণার্থীরা যখন বিভিন্ন ধরনের রোগে আক্রান্ত হয়ে সীমাহীন কষ্ট ভোগ করছিলো তখন তরুণ চিকিৎসকগণ তাদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করেছে। 
বাংলাদেশ একাডেমি অভ্ ডার্মাটোলজির সভাপতি প্রফেসর ডাঃ মোঃ শহীদুল্লাহ্ সিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কনফারেন্সে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের সভাপতি ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, বাংলাদেশ একাডেমি অভ ডার্মাটোলজির সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মোঃ মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম ভূইয়া। 
দিনব্যাপী সম্মেলনে দেশের তিনজন চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডার্মাটোলজি বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ডাঃ এ জ এম মাইদুল ইসলাম, প্রফেসর ডাঃ মুজিবুল হক এবং প্রফেসর ডাঃ এম এ ওয়াদুদকে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়। সম্মেলনে চর্মরোগ বিশেষজ্ঞগণ বিভিন্ন সেশনে অংশ নেন এবং নিজেদের মধ্যে অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন।
#
দীপংকর/মাহমুদ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/১৮৫০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ৩৪৫৬

বাসচাপায় নিহত শিল্পী পারভেজের আহত পুত্র আলভী’র শয্যাপাশে তথ্যমন্ত্রী

দানবরূপী চালকদের রুখতেই হবে

ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :    

          ‘কিছু দানবরূপী চালকদের রুখতেই হবে’ বলেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ। 

          আজ দুপুরে রাজধানীর শ্যামলীতে ট্রমা সেন্টারে বাসচাপায় গুরুতর আহত কিশোর আলভী’কে দেখার পর সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে মন্ত্রী একথা বলেন। গত বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) যে পরিবহনের বাসচাপায় উত্তরায় সংগীতশিল্পী পারভেজ রব নিহত হন, সেই একই পরিবহনের বাস চাপায় শনিবার (৮ সেপ্টেম্বর) তার কনিষ্ঠ পুত্র আলভী গুরুতর আহত ও তার বন্ধু মেহেদী নিহত হন।

          ড. হাছান বলেন, ‘অসচেতনভাবে গাড়ি চালানোর কারণে মানুষের মৃত্যুবরণ, পঙ্গুত্ববরণ -এগুলো সব দুর্ঘটনা নয়, কিছু খুনের ঘটনা। সুতরাং এগুলোর লাগাম টেনে ধরতেই হবে।’

          ‘ভুয়া লাইসেন্স বা রোড পারমিট ছাড়া গাড়ি চালানোর ক্ষেত্রে দায়ী সবার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন, সরকার এ বিষয়ে কাজ করছে’ উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যাদের এভাবে বেপরোয়া গাড়ি চালানো, মানুষের উপর গাড়ি তুলে দেয়ার কারণে প্রাণ ঝরে পড়ছে, সেই দানবদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে, রুখতেই হবে। এজন্য প্রয়োজন জোরালো প্রচার ও ক্যাম্পেইন। সরকার ইতোমধ্যে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে এবং ১১১টি সুপারিশ সেখানে নেয়া হয়েছে। আমি আশা করি, এই সুপারিশগুলো যদি বাস্তবায়িত হয় তাহলে সড়ক দুর্ঘটনা অনেকাংশেই কমে যাবে।’

          তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘সিংহভাগ অর্থাৎ বেশিরভাগ ড্রাইভার ভালোভাবে গাড়ি চালানোর চেষ্টা করে, ইচ্ছাকৃতভাবে দুর্ঘটনা ঘটায় না। কিন্তু কিছু চালক বেপরোয়া গাড়ি চালায়, একে অপরের সাথে প্রতিযোগিতায় নামে, অনেক ক্ষেত্রে ইচ্ছাকৃতভাবে চাপা দেয়। এরা দুষ্কৃতকারী, দুর্বৃত্ত। অসচেতনভাবে, ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালানো এই সমস্ত চালকের ট্রাফিক আইন সম্পর্কে কোনো ধারণা নেই। এদের কারণেই দুর্ঘটনা ঘটছে। এদেরকে অবশ্যই নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে।’

          ‘আমি মালিক, শ্রমিক ও চালক ভাইদের সমিতিসহ বিভিন্ন সমিতিকে অনুরোধ জানাবো, যাতে করে কেউ ভুয়া লাইসেন্স দিয়ে গাড়ি চালাতে না পারে এবং অসুস্থ গতি প্রতিযোগিতায় না নামে, এজন্য সবার সচেতনতা দরকার’ বলেন ড. হাছান। 

          আলভী’র মাতা রুমানা সুলতানা, খালা মনিরা বেগম, ট্রমা সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী অধ্যাপক ডা. আ ফ ম রুহুল হক, বিশিষ্ট সংগীতশিল্পী রফিকুল আলম, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। তথ্যমন্ত্রী বিনা খরচে আলভীর চিকিৎসার জন্য অধ্যাপক ডা: আ ফ ম রুহুল হককে অনুরোধ জানালে তিনি সে ব্যবস্থা করবেন বলে জানান।

#

আকরাম/মাহমুদ/সঞ্জীব/রেজাউল/২০১৯/১৭৫৬   ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ৩৪৫৫

 

১১০টি প্রতিষ্ঠানকে ভোক্তা অধিকারের জরিমানা

 

ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) :    

 

            জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সোমবার অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন অপরাধে ১১০টি প্রতিষ্ঠানকে ৮ লক্ষ ৭ হাজার টাকা জরিমানা করেছে। অধিদপ্তরের বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়ের ৪৫ জন কর্মকর্তার নেতৃত্বে রাজধানীসহ সারাদেশে এই বাজার তদারকি কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

       রাজধানীর গুলশান, শাহবাগ ও লালবাগ এলাকায় বাজার তদারকিকালে খাদ্যপণ্যে নিষিদ্ধ দ্রব্য মিশ্রণের অপরাধে 'নানদুস'কে এবং অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য পণ্য তৈরির অপরাধে 'রেড কেবেস রেস্টুরেন্ট', 'জুসি জুসবার' ও 'আইডিয়াল প্রেস'কে মোট ২ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

          এছাড়া দেশব্যাপী ৪২টি বাজার তদারকি কার্যক্রমের মাধ্যমে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য পণ্য তৈরি, পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকা, মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য বা ঔষধ বিক্রয়, খাদ্য পণ্যে নিষিদ্ধ দ্রব্যের মিশ্রণ, প্রতিশ্রুত পণ্য বা সেবা যথাযথভাবে বিক্রয় বা সরবরাহ না করা, ভেজাল পণ্য বা ঔষধ বিক্রয়, বাটখারা বা ওজন পরিমাপক যন্ত্রের কারচুপি, ধার্য্কৃত মূল্যের অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রয়, সেবাগ্রহীতার জীবন বা নিরাপত্তা বিপন্নকারী কার্যকলাপ, ওজনে কারচুপি, সেবা প্রদানে অবহেলা ইত্যাদি দ্বারা সেবাগ্রহীতার অর্থ, স্বাস্থ্য, জীবনহানি ইত্যাদি ঘটানো এবং পণ্যের মূল্যের তালিকা প্রদর্শন না করার অপরাধে ৯৬টি প্রতিষ্ঠানকে ৪  লক্ষ ৯২ হাজার ২০০ টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।

          অন্যদিকে লিখিত অভিযোগ নিষ্পত্তির মাধ্যমে ধার্য্কৃত মূল্যের অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রি, পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকা এবং প্রতিশ্রুত পণ্য বা সেবা যথাযথভাবে বিক্রয় বা সরবরাহ না করার অপরাধে ১০টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা আরোপ ও আদায় এবং আইনানুযায়ী ১০ জন অভিযোগকারীকে জরিমানার ২৫ শতাংশ তৎক্ষণাৎ প্রদান করা হয়।

          সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, আর্মড পুলিশ ব্যাটলিয়ন, সিভিল সার্জন, মৎস্য কর্মকর্তা, পরিবেশ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, বাজার কর্মকর্তা, স্যানিটারি ইন্সপেক্টর, শিল্প ও বণিক সমিতির প্রতিনিধি এবং ক্যাবের সদস্যগণ তদারকি কার্যক্রমে সহায়তা প্রদান করেন। এসময় সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে জনগণের মাঝে লিফলেট ও প্যাম্পফ্লেট বিতরণ করা হয়েছে।

#

 

ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/আসমা/২০১৯/১৬২০ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : 3454

weAviwUwmÕi wZb wW‡cv‡Z cixÿvg~jK A‡Uv‡gkb Pvjy

ঢাকা, ২৭ ভাদ্র (১১ সেপ্টেম্বর) : 

weAviwUwmÕi mKj wW‡cv‡Z A‡Uv‡gkb Pvjy Kivi D‡`¨v‡Mi Ask wn‡m‡e ivRavbxi Kj¨vYcy‡i wZbwU wW‡cv‡Z cixÿvg~jKfv‡e A‡Uv‡gkb Pvjy Kiv n‡q‡Q| AvR msm` fe‡b AbywôZ GKv`k RvZxq msm‡`i moK cwienb I †mZz gš¿Yvjq m¤úwK©Z ¯’vqx KwgwUi 3q ˆeV‡K G Z_¨ Rvbv‡bv nq|  KwgwUi mfvcwZ GKveŸi †nv‡mb G‡Z mfvcwZZ¡ K‡ib| kxNªB me KqwU wW‡cv I BDwb‡U A‡Uv‡gkb Pvjy Kiv n‡e e‡j mfvq Avkv cÖKvk Kiv nq|

 

KwgwUi m`m¨ moK cwienb I †mZz gš¿x Ievq`yj Kv‡`i, Gbvgyj nK, ‡gvt Avey Rvwni, †iRIqvb Avn¤§` †ZŠwdK, †gvt Qwjg DÏxb Zid`vi, †kL mvjvnDwÏb Ges iv‡eqv Avjxg ˆeV‡K AskMÖnY K‡ib|

 

          evsjv‡`k †ivW Æv݇cvU© K‡cv©‡ikb (weAviwUwm) Gi wW‡cv¸‡jvi Kvh©µg cwiPvjbvi †ÿ‡Î ¯^”QZv Revew`wnZv wbwðZKiY Ges mvD_ Gwkqvb mve wiwRIbvj B‡Kv‡bvwgK †KvAcv‡ikb (mv‡mK) moK ms‡hvM cÖKí-1 Ges mv‡mK moK ms‡hvM cÖKí-2 Gi mvwe©K Kvh©µg Ges me©‡kl AMÖMwZ m¤ú‡K© ˆeV‡K we¯ÍvwiZ Av‡jvPbv Kiv nq|

 

          ‰eV‡K D‡jøL Kiv nq †h, evsjv‡`k †ivW Æv݇cvU© K‡cv©‡ikb Gi Aax‡b †gvU ev‡mi msL¨v 1830wU, wbeÜb I cwi`k©‡bi A‡cÿvq bZzb evm 325wU Ges †givg‡Zi A‡cÿvq 75wU nvjKv I fvix evm i‡q‡Q|

 

          wW‡cvi Pvwn`v Abyhvqx µ‡qi †ÿ‡Î ¯^”QZv Avbq‡bi Rb¨ cvewjK cÖwKDi‡g›U iyjm& (wcwcAvi) Abyhvqx cÖavb Kvh©vj‡qi gva¨‡g †K›`ªxqfv‡e Uvqvi I e¨vUvwi µq K‡i wW‡cv‡Z mieivn Kivi e¨e¯’v MÖnY Kiv n‡”Q e‡j ˆeV‡K Rvbv‡bv nq| Gmgq ¯^”QZv eRvq †i‡L weAviwUwmi wewfbœ cwienb µ‡qi mycvwik K‡i KwgwU|

 

†mZz wefv‡Mi wmwbqi mwPe, moK cwienb I gnvmoK wefv‡Mi mwPemn gš¿Yvjq I msm` mwPevj‡qi mswkøó Kg©KZ©ve„›` ‰eV‡K Dcw¯’Z wQ‡jb|

#

 

 

সাব্বির/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/কুতুব/২০১৯/1640 ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                       &

Todays handout (11).docx Todays handout (11).docx

Share with :

Facebook Facebook