তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৩rd সেপ্টেম্বর ২০১৯

তথ্যবিবরণী - 02/09/2019

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩৩২৬

দুই বাংলার বন্ধন ছিন্ন হওয়ার নয়

                 -- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ১৮ ভাদ্র (২ সেপ্টেম্বর) : 

          সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ- দুই বাংলার ভাষা ও সংস্কৃতি অভিন্ন। দুই দেশের সমুদ্রগামী জেলেরা প্রাকৃতিক দুর্যোগে আশ্রয় নেয়ার সময় সীমারেখার বিভাজন দেখেন না, সুন্দরবনে বাঘ বিচরণের সময় দু'বাংলার বনে ঘুরে বেড়ায়। ঐতিহাসিকভাবে দুই বাংলার বন্ধন অটুট। এ বন্ধন ছিন্ন হওয়ার নয়। এটি চিরস্থায়ী হোক। 

          প্রতিমন্ত্রী আজ রাজধানীর ঢাকা ক্লাবের স্যামসন সেন্টারে বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি আয়োজিত 'বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির ২০১৯-২০২১ মেয়াদে রাজধানী কমিটির অভিষেক' অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ২০২১ সালের কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলা বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করা হয়েছে এবং মেলার থিম কান্ট্রি করা হয়েছে বাংলাদেশকে। এজন্য পাবলিশার্স অ্যান্ড বুকসেলার্স গিল্ড, কলকাতা এবং কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলা আয়োজক কর্তৃপক্ষকে তিনি আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

          প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি (বাপুস) প্রকাশনা শিল্পের উৎকর্ষ ও বিকাশের মাধ্যমে শুধু ব্যবসা করছে না, বরং তাদের কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে জাতির উপকার ও সেবা করছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক এ বছর চার কোটি শিক্ষার্থীর হাতে বছরের প্রথম দিনে ৩৫ কোটিরও বেশি বই তুলে দিয়ে শিক্ষিত জাতি গঠনে অন্যতম প্রধান ভূমিকা পালন করছে বাপুস।

          বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির সভাপতি মো. আরিফ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোঃ আবু হেনা মোস্তফা কামাল, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী ও পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ড, কলকাতার প্রেসিডেন্ট ত্রিদিব কুমার চট্টোপাধ্যায়।

          অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির রাজধানী কমিটির সাধারণ সম্পাদক মিলেনিয়াম পাবলিকেশন্স এর স্বত্বাধিকারী এস এম লুৎফর রহমান। শুভেচ্ছা বক্তৃতা করেন জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক কবি মিনার মনসুর এবং বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির রাজধানী কমিটির সভাপতি অন্যপ্রকাশ এর প্রধান নির্বাহী মাজহারুল ইসলাম।

          উল্লেখ্য, বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি দেশের পুস্তক প্রকাশক-বিক্রেতাদের প্রতিনিধিত্বকারী বৃহত্তম সংগঠন। বাংলাদেশের প্রকাশনা শিল্প এবং বিপণন ব্যবস্থার উন্নয়ন ও এর আন্তর্জাতিক সংযোগ বৃদ্ধিতে কাজ করে চলেছে এ সংগঠনটি। 

#

ফয়সল/মাহমুদ/রফিকুল/রেজাউল/২০১৯/২২১৬ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                             নম্বর : ৩৩২৫

            স্বাস্থ্যসম্মত ন্যাপকিন সরবরাহে ‘ঋত’ু নামে প্রকল্প গ্রহণ করা হচ্ছে                                                                                                             --- শিক্ষা উপমন্ত্রী

ঢাকা, ১৮ ভাদ্র (২ সেপ্টেম্বর) :

          শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেছেন, শিক্ষাঙ্গনে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন বন্ধে সরকার আন্তরিক রয়েছে। এ বিষয়ে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। তিনি জানান, মেয়েদের মাসিক বিষয়ে সচেতন করতে এবং স্বাস্থ্যসম্মত ন্যাপকিন সরবরাহ করার লক্ষ্যে ‘ঋতু’ নামে একটি প্রকল্প গ্রহণ করতে যাচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

          উপমন্ত্রী আজ রাজধানীর স্পেক্ট্রা কনভেনশন সেন্টারে জাতীয় শিশু ফোরামের আয়োজনে ‘শিশুর চোখে মানসম্মত শিক্ষা ও করণীয়’ শীর্ষক শিশু সংলাপে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। দৈনিক সমকালের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মুস্তাফিজ শফির সভাপতিত্বে সংলাপে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এনসিটিবি’র চেয়ারম্যান প্রফেসর নারায়ণ চন্দ্র সাহা।

          শিক্ষা উপমন্ত্রী আরো বলেন, সরকার শিক্ষকদের সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি করেছে এবং তাদের সমস্যা সমাধানে সচেষ্ট রয়েছে। কিন্ত সে তুলনায় শিক্ষকদের কাছ থেকে যথাযথ সেবা পাওয়া যাচ্ছে না। বরং সাম্প্রতিককালে শিক্ষক দ্বারা বিভিন্নভাবে যৌন হয়রানির অভিযোগ আসছে। সরকার এ সমস্ত শিক্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করবে।

          সারা বাংলাদেশ থেকে প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী এ সংলাপে অংশগ্রহণ করে।

#

খায়ের/মাহমুদ/সঞ্জীব/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/২১৫০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                             নম্বর : ৩৩২৪

জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার প্রদান বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত

ঢাকা, ১৮ ভাদ্র (২ সেপ্টেম্বর) :

          ক্রীড়া ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ দেশের ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠকদের মধ্যে জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার প্রদানের লক্ষ্যে এক জরুরি সভা আজ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল সভাপতিত্ব করেন।

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, ক্রীড়া ক্ষেত্রে জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার হচ্ছে সবচেয়ে সম্মানজনক পুরস্কার। এটি একজন ক্রীড়াবিদ বা ক্রীড়া সংগঠকদের জন্য সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মাননা। তাই এ পুরস্কার সুষ্ঠু ও নিখুঁতভাবে প্রদানের জন্য সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

           সভায় জানানো হয়, আগামী বছর জাতীয় ক্রীড়া দিবসে প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণের লক্ষ্যে কাজ করছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। ২০১৭ ও ২০১৮ সালে জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার প্রদানের লক্ষ্যে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে। ২০১৩, ২০১৪, ২০১৫ ও ২০১৬ সালের পুরস্কার প্রদানের জন্য যাচাই-বাছাইপূর্বক প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের জন্য প্রেরণ করা হবে।

          সভায় পুরস্কার প্রদানের লক্ষ্যে প্রাপ্ত আবেদনসমূহ যাচাই-বাছাই করতে ওয়ার্কিং কমিটি গঠন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। সভায় যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. জাফর উদ্দীন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ক্রীড়া সম্পাদক হারুন-অর রশীদ-সহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

#

আরিফ/মাহমুদ/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/২০২০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩৩২৩

তথ্যপ্রবাহে নতুন মাইলফলক : সমগ্র ভারতে বিটিভি সম্প্রচার শুরু

ঢাকা, ১৮ ভাদ্র (২ সেপ্টেম্বর) : 

          ভারতে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি)-এর সম্প্রচার উদ্বোধন করে দেশের তথ্যপ্রবাহে নতুন মাইলফলক স্থাপন করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ। ভারতের রাষ্ট্রায়ত্ত চ্যানেল দূরদর্শনের ডিরেক্ট ট্যু হোম (ডিটিএইচ) প্ল্যাটফর্ম ডিডি ফ্রি ডিশের মাধ্যমে দেশটিতে বিটিভির এ সম্প্রচার কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

          আজ ঢাকায় রামপুরাস্থ বিটিভির প্রধান কার্যালয়ে ভারতে বিটিভির সম্প্রচার উদ্বোধনকালে  আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, ‘আজ ভারতীয় সময় সকাল ৯টা এবং বাংলাদেশ সময় সাড়ে ৯টায় ভারতে বিটিভির সম্প্রচার শুরু হয়। এখন আনুষ্ঠানিকভাবে এর ঘোষণা দিচ্ছি। ২০১৫ সালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের সময় প্রসার ভারতীর মাধ্যমে সেখানে বিটিভি সম্প্রচারের যৌথ ঘোষণা দেওয়া হয়। তারই পরিপ্রেক্ষিতে এ বছর জুলাইয়ের মধ্যেই সব প্রস্তুতি শেষ হয়। পৃথিবী যখন গ্লোবাল ভিলেজে পরিণত হয়েছে তখন টিভি চ্যানেলগুলো সীমানায় বাধা থাকতে পারে না।’ 

          দুই দেশের সম্পর্কে নতুন মাত্রা যুক্ত হয়েছে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিগত ১০ বছরে ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক নতুন মাত্রায় পৌঁছেছে। আর সেই মাত্রায় নতুন মাত্রা যুক্ত করেছে ভারতে বিটিভির এই সম্প্রচার। দু’দেশের মানুষের সম্পর্ক আরো দৃঢ় হবে। 

          তথ্য প্রতিমন্ত্রী মোঃ মুরাদ হাসান এই দিনটিকে ঐতিহাসিক উল্লেখ করে বলেন, এটা বাংলাদেশের জন্য এক ঐতিহাসিক মুহূর্ত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ আজ বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। একদিন এমন আসবে যখন সমগ্র বিশ্বে বিটিভি সম্প্রচারিত হবে। 

          বিশেষ অতিথি হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলী দাশ বলেন, এমন পদক্ষেপের ফলে দু’দেশের মধ্যকার সাংস্কৃতিক বন্ধুত্ব আরো দৃঢ় হবে। দু’দেশের মধ্যকার তথ্য বিনিময় ও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে আজকের এ পদক্ষেপ। মানুষের সঙ্গে মানুষের সম্পর্ক বন্ধনে মূল ভিত্তি হবে এটি। ভারতের মানুষের ঘরে পৌঁছাবে বিটিভি যা দু’দেশের মানুষদের আরো কাছে নিয়ে আসবে। আমি এই যাত্রা সফল হোক এই শুভ কামনা জানাই। 

          অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিটিভির মহাপরিচালক এস এম হারুন অর রশীদ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ। সভাপতিত্ব করেন তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব আব্দুল মালেক।

#

আকরাম/মাহমুদ/সঞ্জীব/আব্বাস/২০১৯/১৯৪৫ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                            নম্বর : ৩৩২২

বঙ্গবন্ধুর ছবি বাংলাদেশের ইতিহাসের কথা বলে

                             --- মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

ঢাকা, ১৮ ভাদ্র (২ সেপ্টেম্বর) :

          মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি বাংলাদেশের ইতিহাসের কথা বলে। স্বাধীনতা বিরোধীরা জাতির পিতার স্মৃতিকে জনগণের হƒদয় থেকে চিরতরে মুছে ফেলার জন্য অনেক অপপ্রয়াস চালিয়েছে। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর কর্মময় জীবন ও তাঁর দুর্লভ ছবিগুলোর মাধ্যমে তিনি জনগণের মাঝে জীবন্ত হয়ে থাকবেন চিরকাল।

          আজ সদরঘাটস্থ গ্রেটওয়াল শপিং সেন্টারে পুথিনিলয় প্রকাশনার উদ্যোগে ‘বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

          মন্ত্রী বলেন, ছোট পরিসরে হলেও এ ধরনের আয়োজনের প্রভাব বৃহৎ ও সুদূরপ্রসারী। বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নারে স্থান পাওয়া বঙ্গবন্ধুর দুর্লভ আলোকচিত্রগুলো দেখে নতুন প্রজন্ম জাতির পিতা ও এদেশের ইতিহাস সম্পর্কে জানতে পারবে। মন্ত্রী এ মহৎ উদ্যোগের জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান। তিনি বাংলাদেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের ব্যক্তিগত উদ্যোগে এ ধরনের বঙ্গবন্ধু কর্নার প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানান।

          উদ্বোধনের পর মন্ত্রী ও আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার ঘুরে দেখেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আয়োজক প্রতিষ্ঠান পুথিনিলয় এর স্বত্বাধিকারী ড. শ্যামল পাল, বিশিষ্ট লেখক ড. হায়াৎ মামুদ, ড. কমল সাহা প্রমুখ।

#

দীপংকর/মাহমুদ/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/১৯৪৫ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                            নম্বর : ৩৩২১

রোহিঙ্গাদের মোবাইল সুবিধা বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর

ঢাকা, ১৮ ভাদ্র (২ সেপ্টেম্বর) :

          বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদেরকে মোবাইল সুবিধা প্রদান না করার জন্য শুরু থেকেই সকল মোবাইল অপারেটর-সহ সংশ্লিষ্ট সংস্থাসমূহকে নির্দেশনা প্রদান সত্ত্বেও ক্যাম্পে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর হাতে সিম ও রিম ব্যবহƒত হচ্ছে বলে বিভিন্ন মাধ্যমে জানা যায়।

          এ বিষয়ে জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বিটিআরসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

          বিটিআরসি সেই পরিপ্রেক্ষিতে আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কোনো প্রকার সিম বিক্রি, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী কর্তৃক সিম ব্যবহার বন্ধ তথা তাদেরকে মোবাইল সুবিধা প্রদান না করার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য সকল মোবাইল অপারেটরকে গতকাল রবিবার জরুরি নির্দেশ প্রদান করেছে।

#

শেফায়েত/মাহমুদ/ফারহানা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/১৮৪৫ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩৩২০ 

বিজিবির অভিযানে ৪৬ কোটি টাকার চোরাচালান জব্দ

ঢাকা, ১৮ ভাদ্র (২ সেপ্টেম্বর) :

          বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) গত আগস্ট মাসে দেশের সীমান্ত এলাকাসহ অন্যান্য স্থানে অভিযান চালিয়ে ৪৬ কোটি ১৩ লাখ ৬৩ হাজার টাকা মূল্যের বিভিন্ন প্রকারের চোরাচালান ও মাদকদ্রব্য জব্দ করেছে।

          মাদকের মধ্যে রয়েছে ২ লাখ ৬৮ হাজার ৭৪ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ৩২ হাজার ৬ শত ২৪ বোতল ফেনসিডিল, ৬ হাজার ১২ বোতল বিদেশি মদ, ৩ শত ৩৫ ক্যান বিয়ার, ৪ শত ২৬ কেজি গাঁজা, ২ কেজি ৫৬০ গ্রাম হেরোইন, ৩ হাজার ৭ শত ৯১টি অ্যানেগ্রা/সেনেগ্রা ট্যাবলেট, ২ হাজার ৯৯টি ইনজেকশন এবং ৭ লাখ ৩৫ হাজার ৬ শত ১৭টি অন্যান্য ট্যাবলেট।

          জব্দকৃত অন্যান্য দ্রব্যের মধ্যে রয়েছে ৪ কেজি ২ শত ৯৬ গ্রাম স্বর্ণ, ৯ হাজার ৬ শত ৭৮টি ইমিটেশন গহনা, ৭০ হাজার ৬ শত ৪৪টি কসমেটিকস, ২ হাজার ৫ শত ৬৩টি শাড়ি, ৬ শত ৯৪টি থ্রিপিস/শার্টপিস, ৩ হাজার ২ শত ৬১টি তৈরি পোশাক, ৭ হাজার ৪ শত ৫২ ঘনফুট কাঠ ও ৫ হাজার ১ শত ১০ লম্বাফুট কাঠ, ৩ হাজার ৮ শত ৯০ কেজি চা পাতা, ৮টি ট্রাক, ৪টি পিকআপ, ৮টি প্রাইভেটকার, ৯টি সিএনজি চালিত অটোরিকশা, ৩৬টি মোটরসাইকেল এবং ১ শত ১৯টি গাড়ির যন্ত্রাংশ।

          উদ্ধারকৃত অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে ১টি পিস্তল, ৭টি বন্দুক, ২টি দেশীয় তৈরি পাইপ গান, ১টি ম্যাগাজিন, ১৬ রাউন্ড গুলি এবং ৬টি হাত বোমা। এছাড়াও সীমান্তে বিজিবি’র অভিযানে মাদকপাচারসহ অন্যান্য চোরাচালানে জড়িত থাকার অভিযোগে ২ শত ২৩ জন এবং অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের দায়ে ৭১ জন বাংলাদেশি নাগরিক এবং ৩ জন নাইজেরিয়ান নাগরিককে আটক করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।      

#

শরিফুল/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/নাছির/রবি/রেজ্জাকুল/আসমা/২০১৯/১৫৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩৩১৯

বাজার তদারকি ৩৯টি প্রতিষ্ঠানকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা

ঢাকা, ১৮ ভাদ্র (২ সেপ্টেম্বর) : 

          জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর গতকাল ঢাকা মহানগর, কিশোরগঞ্জ, গাজীপুর, টাঙ্গাইল, নরসিংদী, ফরিদপুর, নেত্রকোণা, মানিকগঞ্জ, চুয়াডাঙ্গা, রংপুর, রাজশাহী, গাইবান্ধা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, সিলেট ও চাঁদপুরে বাজার তদারকি কার্যক্রম পরিচালনা করে ৩৯টি প্রতিষ্ঠানকে মোট ১ লাখ ৫০ হাজার ৭ শত টাকা জরিমানা করেছে।  

          বাজার তদারকিকালে ঢাকায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য পণ্য তৈরির অপরাধে 'অমি হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট' কে ৫ হাজার টাকা, পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকার অপরাধে 'রাজভোগ সুইটস'কে ৫ হাজার টাকা এবং মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য বা ঔষধ বিক্রির অপরাধে 'সেবা ক্লিনিক'কে দশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

          এছাড়া দেশব্যাপী ১৫টি বাজার তদারকি কার্যক্রমের মাধ্যমে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য পণ্য তৈরি, পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকা, মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য বা ঔষধ বিক্রয়, খাদ্য পণ্যে নিষিদ্ধ দ্রব্যের মিশ্রণ, প্রতিশ্রুত পণ্য বা সেবা যথাযথভাবে বিক্রয় বা সরবরাহ না করা, ভেজাল পণ্য বা ঔষধ বিক্রয়, বাটখারা বা ওজন পরিমাপক যন্ত্রের কারচুপি, ধার্য্যকৃত মূল্যের অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রয়, সেবা গ্রহীতার জীবন বা নিরাপত্তা বিপন্নকারী কার্যকলাপ, ওজনে কারচুপি, সেবা প্রদানে অবহেলা ইত্যাদি দ্বারা সেবাগ্রহীতার অর্থ, স্বাস্থ্য, জীবনহানি ইত্যাদি ঘটানো এবং পণ্যের মূল্যের তালিকা প্রদর্শন না করার অপরাধে ৩৫টি প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ ২৫ হাজার ৭ শত টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।

          অন্যদিকে লিখিত অভিযোগ নিষ্পত্তির মাধ্যমে ধার্য্যকৃত মূল্যের অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রির অপরাধে ১টি প্রতিষ্ঠানকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় এবং আইনানুযায়ী ১ জন অভিযোগকারীকে জরিমানার ২৫ শতাংশ হিসেবে তৎক্ষণাৎ ১ হাজার ২ শত ৫০ টাকা প্রদান করা হয়।

#

ফাহমিনা/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/রেজ্জাকুল/আসমা/২০১৯/১৬০০ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩৩১৮  

৪র্থ সাউথ এশিয়ান স্পিকার্স সামিট

এসডিজি অর্জনে ‘মালে ঘোষণা’ গৃহীত

ঢাকা, ১৮ ভাদ্র (২ সেপ্টেম্বর) :  

          আজ মালদ্বীপের মালেতে ‘চতুর্থ সাউথ এশিয়ান স্পিকার্স সামিট’-এ এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলের দেশগুলোর সংসদসমূহকে সম্পৃক্ত করতে ‘মালে ডিকলারেশন’ গৃহীত হয়। সামিটে অংশগ্রহণকারী দেশ আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, ভূটান, ভারত, মালদ্বীপ, পাকিস্তান এবং শ্রীলংকার স্পিকারগণ সর্বসম্মতিক্রমে কার্যকর ও লক্ষ্যভিত্তিক ১১টি সুপারিশমালাসহ এই ঘোষণা অনুমোদন করেন ।মালদ্বীপের মালেতে গতকাল এই সামিট শুরু হয়। 

          স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী আজ সামিটের দ্বিতীয় দিনে ‘ক্যাটালাইজিং দ্যা গ্লোবাল এজেন্ডা অন ক্লাইমেট চেঞ্জ- ওভারকামিং চ্যালেঞ্জেস অ্যান্ড ইউটিলাইজিং অপরচুনিটিজ টু স্ট্রেনদ্যান দ্যা রিজিওনাল এজেন্ডা ফর ডেলিভারিং অন দ্যা প্যারিস এগ্রিমেন্ট’ অধিবেশনে মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেন।

           অধিবেশনে প্যানেল আলোচক হিসেবে ছিলেন মালদ্বীপ পার্লামেন্টের এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড ক্লাইমেট চেঞ্জ কমিটির সভাপতি আহমেদ সালিম, নেপালের অ্যাটমোসফেয়ার ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ইন্টিগ্রেটেড মাউন্টেন ডেভেলপমেন্ট এর রিজিওনাল ম্যানেজার অরনিকো কুমার পান্ডে এবং ইউএনডিপি সদর দপ্তরের ইনক্লুসিভ পলিটিক্যাল প্রসেস টিম লিডার চার্লস চ্যাওভেল।

           দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলে প্যারিস চুক্তি বাস্তবায়নের অগ্রগতি নিয়ে অধিবেশনে আলোচনা হয়। চুক্তির সফল বাস্তবায়নের জন্য বিদ্যমান আইনগত বিচ্যুতিসমূহ দূর করার কর্মপরিকল্পনা ও সঠিক বাস্তবায়ন   প্রক্রিয়া নিয়েও এসময় আলোচনা হয়। এছাড়াও অধিবেশনে আঞ্চলিক দায়বদ্ধতার জন্য প্রতিটি দেশের সংসদের ভূমিকা শক্তিশালীকরণ, জলবায়ু পরিবর্তন, বায়ু দূষণ ও স্বাস্থ্যের মধ্যে পারস্পরিক সমন্বয় সাধন, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় এবং বিদ্যমান দুর্যোগ ঝুঁকি, ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠী ও ইকোসিস্টেম বিষয়ে আলোচনা হয়।

          এ সম্মেলনে মালদ্বীপের স্পিকার মোহাম্মদ নাশিদ, ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়ন (আইপিইউ) সেক্রেটারি জেনারেল মার্টিন চুনগং, দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশের স্পিকার অংশ নেন।

#

তারিক/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/নাছির/রবি/আসমা/২০১৯/১৫০০ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বরঃ ৩৩১৭

জিডিপিতে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি বিশ্বে সবার উপরে

                                                     - অর্থমন্ত্রী                                        

ঢাকা, ১৮ ভাদ্র (২ সেপ্টেম্বর) :

গত দশ বছরে জিডিপিতে কারেন্ট প্রাইস মেথডে (চলতি বাজার মূল্য) বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি বিশ্বে সবার উপরে। যেখানে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি শতকরা ১৮৮ ভাগ এবং অন্যান্য দেশের মধ্যে চীন ১৭৭, ভারত ১১৭, ইন্দোনেশিয়া ৯০, মালয়েশিয়া ৭৮, অস্ট্রেলিয়া ৪১ এবং ব্রাজিল ১৭ ভাগ প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল আজ মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ তথ্যটি অবহিত করেন। অর্থমন্ত্রী গত ২৯ আগস্ট ২০১৯ এ ‘দ্য স্পেক্টেটর ইনডেক্স’ কর্তৃক প্রকাশিত বিশ্বের ২৬টি শীর্ষ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জনকারী দেশের তথ্যের ভিত্তেতে  এ বিষয়টি তুলে ধরেন।

          অর্থমন্ত্রী সমগ্র জাতির পক্ষ থেকে এ অর্জনের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বলেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে চলমান অগ্রগতির ধারা অব্যাহত থাকলে খুব সহসাই বাংলাদেশ বিশ্ব অর্থনীতিতে আরো জোরালো দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে। 

বাংলাদেশের এ অগ্রগতি ধরে রাখার জন্য প্রধানমন্ত্রী সকলকে বিশেষভাবে নির্দেশনা দেয়ার পাশাপাশি অর্থনৈতিক খাতকে আরো শক্তিশালী করার মাধ্যমে অচিরেই বাংলাদেশ তার অভিষ্ট লক্ষ্য অর্জন করে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মাণ করবে বলে অর্থমন্ত্রী আশা ব্যক্ত করেন।

#

তৌহিদুল/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/জসীম/কুতুব/২০১৯/১৫৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩৩১৬ 

নদী ও সমুদ্র বন্দরসমূহে কোন সতর্কবার্তা নেই

ঢাকা, ১৮ ভাদ্র (২ সেপ্টেম্বর) :

        দেশের অভ্যন্তরীণ নদী ও সমুদ্র বন্দরসমূহের জন্য কোন সতর্কবার্তা নেই।

          দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স কো-অর্ডিনেশন সেন্টারের দুপুর
২টার প্রতিবেদন অনুযায়ী আজ এ তথ্য পাওয়া গেছে।  

          আজ সকাল ৯টা থেকে ২৪ ঘণ্টার পূর্ভাবাস অনুযায়ী ঢাকা, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

          সব নদ-নদীর পানি বিপদসীমার নিচে রয়েছে।    

#

কাদের/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/নাছির/রবি/আসমা/২০১৯/১৪৪০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩৩১৫

ডেঙ্গুর প্রকোপ কমছে

ঢাকা, ১৮ ভাদ্র (২ সেপ্টেম্বর) :   

          স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী গত জানুয়ারি থেকে আজ পর্যন্ত ডেঙ্গু রোগের চিকিৎসা শেষে ছাড়পত্র নিয়ে চলে গেছেন ৬৭ হাজার ৮৪৩ জন। এ যাবত ৫৭ জনের মৃত্যু ডেঙ্গুজনিত বলে নিশ্চিত করা হয়েছে।         

          বর্তমানে সারা দেশের হাসপাতালগুলোতে ভর্তিকৃত রোগী আছেন ৩ হাজার ৯৩১ জন, যার মধ্যে ঢাকার ৪১টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ২ হাজার ১৭৭ জন।    

          গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে নতুন ৮৬৫ জন ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন, যার মধ্যে ঢাকা শহরে ৩৯৬ জন।

#

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/জসীম/আসমা/২০১৯/১৩৪৫ ঘণ্টা  

Todays handout (5).docx Todays handout (5).docx

Share with :

Facebook Facebook