তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১২ এপ্রিল ২০১৬

Handout 12.04.2016

তথ্যবিবরণী                                                                                            নম্বর : ১২২৫
প্রণব মুখার্জীর সাথে স্বাস'্যমন্ত্রীর সাড়্গাৎ 
নয়াদিলস্নী (ভারত), ১২ এপ্রিল:
    ভারত সফররত স্বাস'্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম আজ নয়াদিলস্নীতে ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জীর সাথে রাষ্ট্রপতি ভবনে সাড়্গাৎ করেছেন। বৈঠকের শুরম্নতেই স্বাস'্যমন্ত্রী ভারতের কেরালার পুত্তিঙ্গাল মন্দিরে রোববারের অগ্নিকান্ডে হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেন। এই শোকাবহ ঘটনায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পড়্গ থেকে ভারতের রাষ্ট্রপতির কাছে সে  দেশের জনগণের জন্য বাংলাদেশের সহমর্মিতা পৌঁছে দেন তিনি।
    বাংলাদেশের বন ও পরিবেশ মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ও ভারতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত  সৈয়দ মোয়াজেম আলী এসময় উপসি'ত ছিলেন।
    স্বাস'্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত ও  নেপাল (বিবিআইএন) এর মধ্যে মটর ভেহিক্যাল এগ্রিমেন্ট এ অঞ্চলের আর্থসামাজিক উন্নয়নে গতিশীলতা বাড়বে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দূরদর্শী রাজনৈতিক চেতনার কারণে  বিবিআইএন চুক্তি স্বাড়্গরিত হয়েছে। 
    যে কোনো সময়ের তুলনায় বর্তমানে ভারত ও বাংলাদেশের মাঝে সবচেয়ে বেশি সুসংহত ও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বিদ্যমান- এই মনত্মব্য করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রাম থেকে শুরম্ন করে আর্থসামাজিক উন্নয়নের গতিধারায় ভারতের সহযোগিতা বাংলাদেশের জনগণ সবসময় কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করে। সাম্প্রতিক সময়ে বিদ্যুৎ ও পরিবহন খাতের উন্নয়ন এবং ছিটমহল বিনিময়সহ বিভিন্ন খাতে ভারতের আনত্মরিক সহযোগিতা সেদেশের সরকারের রাজনৈতিক সদিচ্ছার বহিঃপ্রকাশ বলে মনে করেন স্বাস'্য মন্ত্রী। গত মার্চে বাংলাদেশ থেকে ভারতে ব্যান্ডউইডথ রপ্তানির বিষয়টি উলেস্নখ করে দু’দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক সহযোগিতার ড়্গেত্র বাড়াতে আরো বেশি তৎপর হওয়ার ওপর গুরম্নত্বারোপ করেন তিনি। 
স্বাস'্যমন্ত্রী বাংলাদেশের স্বাস'্যখাতে সরকার গৃহীত সার্বিক কর্মসূচি ও সাফল্যের চিত্র এসময় তুলে ধরেন। বাংলাদেশে ভারতের সহায়তায় কয়েকটি নতুন মেডিকেল কলেজ নির্মাণ ও পুরানো কিছু কলেজের সংস্কারের চলমান কাজের চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, বাংলাদেশ আশা করে, স্বাস'্যখাতের উন্নয়নে ভারতের সহযোগিতার পরিমাণ ভবিষ্যতে আরো বাড়বে। 
    ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মূখার্জী বাংলাদেশের স্বাস'্যখাতসহ আর্থসামাজিক বিভিন্ন সূচকের অগ্রগতিতে সনেত্মাষ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করেন। তিনি বাংলাদেশের সমৃদ্ধির লড়্গ্যে ভারতের সহায়তা আরো বাড়বে বলে আশ্বাস প্রদান করেন। দু’দেশের মধ্যকার সম্পর্কের ভিত্তি ভবিষ্যতে আরো মজবুত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন ভারতের রাষ্ট্রপতি। 
     প্রণব মুখার্জী তাঁর লেখা তিনটি বই স্বাস'্যমন্ত্রীকে উপহার দেন। স্বাস'্যমন্ত্রীও তাঁকে আবহমান বাংলার সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য নকশি কাঁথা  উপহার দেন।
    পরে নয়াদিলস্নী বাংলাদেশ হাইকমিশনে স্বাস'্যমন্ত্রীর সঙ্গে বিজেপি সাধারণ সম্পাদক রাম মাধবসহ নেতারা নৈশভোজে মিলিত হন।    
#
পরীড়্গিৎ/আফরাজ/মোশাররফ/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৬/২১৩০ ঘণ্টা 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                            নম্বর : ১২২৪

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা বিশ্ববিদ্যালয়ে এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী

ফ্লোরিডা (যুক্তরাষ্ট্র) ১২ এপ্রিল :
এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মো. মসিউর রহমান রাঙ্গার নেতৃত্বে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের ৬ সদস্যের প্রতিনিধিদল যুক্তরাষ্ট্রে ফ্লোরিডা বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শন করেন। এসময় মতবিনিময়কালে প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশে গ্রামীণ দারিদ্র্য  হ্রাসে চলমান ইকনমিক এমপাওয়ারমেন্ট অভ্ দ্য পুওরেস্ট ইন বাংলাদেশ (ইইপি), একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প, দুগ্ধ খাতের উন্নয়ন, পল্লী জনপদসহ বিভিন্ন প্রকল্পের সুফল ও উপকারভোগীদের বিষয় তুলে ধরেন। এসব প্রকল্পে বিশ্ববিদ্যালয়টির গবেষণা কার্যক্রম কিভাবে কাজে লাগানো যায় তা নিয়েও আলোচনা করেন।  
ফ্লোরিডা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকগণ পল্লিউন্নয়ন, দারিদ্র্যবিমোচন, খাদ্য, পুষ্টি ও দক্ষতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ কর্মকৌশল বিষয়ে আলোকপাত করেন। তারা তাদের গবেষণা দ্বারা কিভাবে বাংলাদেশকে তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিকভাবে উপকৃত করা যায় সেসব বিষয় তুলে ধরেন।
৪ এপ্রিল হতে সফররত প্রতিনিধিদলটি যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন শেষে ১৬ এপ্রিল ঢাকা ফিরবেন।
#

আহসান/আফরাজ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৬/২১১৫ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ১২২৩

কাজে যোগ দিতে শ্রমিকদের প্রতি আহ্বান পাট প্রতিমন্ত্রীর


ঢাকা, ২৯ চৈত্র (১২ এপ্রিল) :    

    বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী  মির্জা আজম বলেছেন, পাটকল শ্রমিকদের বকেয়া মজুরি ও ভাতা পরিশোধ, পাটখাতে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ, পাটকলগুলোকে উৎপাদনমুখী করতে ও যথাসময়ে পাট ক্রয়ের জন্য বাংলাদেশ জুট মিলস কর্পোরেশন (বিজেএমসি) কে গতকাল এক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।     গতকাল মন্ত্রিসভায় বাংলাদেশের পাটখাত নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। মন্ত্রিসভার সকল সদস্য পাটখাতের সকল সমস্যার বিষয়ে অত্যন্ত আন্তরিক। অর্থমন্ত্রণালয় থেকে এ অর্থ পেতে কিছুদিন সময় লাগবে। তাই বিজেএমসির নিজস্ব তহবিল থেকে আগামীকাল শ্রমিকদের দুই সপ্তাহের মজুরি পরিশোধের জন্য বরাদ্দ দেয়া হবে। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা দেয়া বরাদ্দ (এক হাজার কোটি টাকা) হাতে পাওয়ার পর শ্রমিকদের সকল বকেয়া মজুরি পরিশোধ করে দেয়া হবে।
    আজ বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ে পাটকল শ্রমিকদের সাথে এক সভাশেষে প্রতিমন্ত্রী একথা বলেন।
    প্রতিমন্ত্রী বলেন, রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল শ্রমিকদের বকেয়া মজুরি ও ভাতা পরিশোধের জন্য এক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়ার ঘোষণার পরও যেসব শ্রমিক আন্দোলন অব্যাহত রেখেছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ঘোষণার পরও খুলনা অঞ্চলের বিভিন্ন জায়গায় শ্রমিকরা আন্দোলন অব্যাহত রাখেন, যা মোটেও কাম্য নয়। তিনি সবাইকে আগামীকাল থেকে কাজ শুরু করার আহ্বান জানান। তা না হলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
    এসভায় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিব এম এ কাদের সরকার, বিজেএমসি চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল হুমায়ূন খালেদ, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের শ্রমবিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর  রহমান সিরাজসহ পাটকল শ্রমিকগণ  উপস্থিত ছিলেন ।
#

সৈকত/আফরাজ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৬/২১০৫ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                            নম্বর : ১২২২

গ্রাহকসেবার মান বৃদ্ধিতে সরকার আন্তরিক
                          -- বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ২৯ চৈত্র (১২ এপ্রিল) :
    বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, গ্রাহকসেবার মান বৃদ্ধি ও সাশ্রয়ী মূল্যে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছে।
    প্রতিমন্ত্রী আজ বিদ্যুৎ ভবনে ‘ডিপিডিসি অর্জিত ওঝঙ ৯০০১: ২০০৮ সনদ হস্তান্তর” অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।
    তিনি বলেন, এ সনদ আরো আগেই অর্জন করা উচিত ছিল। ঢাকাতে শতকরা ২০ ভাগ হারে গ্রাহক বাড়ছে। এ বর্ধিত গ্রাহকদের কীভাবে উন্নত সেবা দেয়া যায় সে বিষয়ে এখন থেকেই পরিকল্পনা নেয়া প্রয়োজন। ডিপিডিসির কলসেন্টার সার্বক্ষণিক খোলা রাখা ও ঊজচ (ঊহঃবৎঢ়ৎরংব জবংড়ঁৎপব চষধহহরহম) প্রদ্ধতি প্রয়োগ করার ওপর তিনি গুরুত্বারোপ করেন।
    বিদ্যুৎ বিভাগের আওতাধীন সকল সংস্থা ও কোম্পানিসমূহকে আইএসও সনদ অর্জন করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করার প্রেক্ষিতে ১৮ আগস্ট ২০১৪ ডিপিডিসি পরামর্শক হিসেবে ঊ্এ এৎড়ঁঢ় ধহফ উজঊঅগঝ এর সাথে চুক্তি করে।  গত ৪ মার্চ আইএসও সনদ ইস্যু করে।
    ডিপিডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মো. নজরুল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে বিদ্যুৎ সচিব মনোয়ার ইসলাম বক্তব্য রাখেন।
#

আসলাম/আফরাজ/মাহমুদ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৬/২০০৫ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                       নম্বর : ১২২১

বিরোধীদলীয় নেতাকে প্রধানমন্ত্রীর নববর্ষের শুভেচ্ছা

ঢাকা, ২৯ চৈত্র (১২ এপ্রিল) :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে বাংলা নববর্ষ-১৪২৩ উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।
 
    প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে প্রধানমন্ত্রীর প্রটোকল কর্মকর্তা এস এম খুরশিদ-উল-আলম আজ বিরোধী দলীয় নেতার সহকারী একান্ত সচিব এ কে এম আবদুর রহিম ভূঞার নিকট এবং জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের সহকারী একান্ত সচিব মো. মঞ্জুরুল ইসলামের নিকট বাংলা নববর্ষ-১৪২৩ এর শুভেচ্ছা কার্ড পৌঁছে দেন।
#

নূর এলাহী/আফরাজ/সঞ্জীব/রেজাউল/২০১৬/১৯৪৪ ঘণ্টা

 
তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ১২২০

সংস্কৃতিমন্ত্রীর সাথে ভারতের হাইকমিশনারের সাক্ষাৎ

ঢাকা, ২৯ চৈত্র (১২ এপ্রিল) :
    সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের সাথে বাংলাদেশে ভারতের হাইকমিশনার ঐধৎংয ঠধৎফযধহ ঝযৎরহমষধ আজ ঢাকায় বাংলাদেশ সচিবালয়ে সাক্ষাৎ করেন। এসময় দু’দেশের সংস্কৃতি সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা হয়। সংস্কৃতি বিষয়ক সচিব আক্তারী মমতাজ, অতিরিক্ত সচিব মাহমুদা আখতার মীনা ও প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আলতাফ হোসেন এসময় উপস্থিত ছিলেন।
    ভারতের হাইকমিশনারকে স্বাগত জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ভারত বাংলাদেশের দীর্ঘদিনের পরীক্ষিত বন্ধু। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, অবকাঠামো, জ্বালানি ও বিদ্যুৎ, ব্যবসা, সংস্কৃতি, ক্রীড়া, গণমাধ্যম প্রভৃতি পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে দু’দেশ আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় ভারতের আর্থিক সহযোগিতায় কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত কুষ্টিয়ার শিলাইদহ রবীন্দ্র কুঠিবাড়িতে রবীন্দ্র ভবন ও তৎসংলগ্ন অবকাঠামো নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এরকম আরো বিভিন্ন ইস্যুতে সম্মিলিতভাবে কাজ করার মাধ্যমে দেশ দু’টি বিদ্যমান বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে আরো দৃঢ় করতে পারে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
    মন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতা পরবর্তী সময় থেকে ভারতের সাথে বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক বিনিময় চুক্তি বিদ্যমান রয়েছে। এ চুক্তির আওতায় বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক দল বিভিন্ন সময় ভারত সফর করেছে ও ভারতের সাংস্কৃতিক দল বাংলাদেশ সফর করেছে এবং তা চলমান আছে। সংস্কৃতির এ বিনিময় দু’দেশের জনগণকে পরস্পরের আরো কাছে এনেছে। তিনি বলেন, আমাদের সংস্কৃতি বিনিময় বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ভারতের কলকাতার মধ্যে সীমাবদ্ধ রয়েছে। অন্যান্য প্রদেশের মধ্যেও তা বিস্তৃত করার ব্যাপারে মন্ত্রী বৈঠকে গুরুত্বারোপ করেন এবং এক্ষেত্রে ভারতের সহযোগিতা কামনা করেন।
    সাক্ষাৎকালে ভারতের হাইকমিশনার বলেন, পারস্পরিক সম্পর্ক দৃঢ়করণে সংস্কৃতি বিনিময় অপরিহার্য উপাদান। দু’দেশের সংস্কৃতির মধ্যে ব্যাপক সাদৃশ্য বিদ্যমান। সংস্কৃতি বিনিময়ের মাধ্যমে দু’দেশের জনগণ পরস্পরের সংস্কৃতিকে আরো জানতে পারছে। এর মাধ্যমে দু’দেশের মৈত্রীর বন্ধন আরো দৃঢ় হচ্ছে। তিনি বেসরকারিভাবে ভারত থেকে বাংলাদেশে আসার ক্ষেত্রে প্রক্রিয়া সহজীকরণের ব্যাপারে তিনি মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। মন্ত্রী এক্ষেত্রে ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে বলে হাইকমিশনারকে আশ্বস্ত করেন।
    কুষ্টিয়ার শিলাইদহে রবীন্দ্র কুঠিবাড়ীতে নির্মিতব্য রবীন্দ্রভবন ও তৎসংলগ্ন অবকাঠামোর নকশা অবলোকন করে হাইকমিশনার বলেন, এটি নির্মাণের ব্যাপারে অর্থসহ সহযোগিতা প্রদানে তাঁর দেশ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। অচিরেই এর নির্মাণ কাজ শুরু হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
    বৈঠকে দু’দেশের প্রতœসম্পদ নিয়েও আলোচনা হয়। বাংলাদেশের প্রতœসম্পদের খনন, পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণের ব্যাপারে অর্থ, বিশেষজ্ঞ ও দক্ষ জনবলের অপ্রতুলতার বিষয়টি উল্লেখ করে এক্ষেত্রে ভারতের সহযোগিতা কামনা করা হয়। সভা ও সিম্পোজিয়াম আয়োজন, প্রশিক্ষণ ও কারিগরি সহায়তা বিনিময়সহ দু’দেশ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে যৌথভাবে কাজ করতে পারে বলে ভারতের হাইকমিশনার মন্তব্য করেন।
#

কুতুবুদ-দ্বীন/আফরাজ/রেজাউল/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৬/২০০০ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ১২১৯

একনেকে ৮ প্রকল্প অনুমোদন

ঢাকা, ২৯ চৈত্র (১২ এপ্রিল) :
    জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) চলতি অর্থবছরের ২৬তম সভায় জামালপুরে অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন প্রকল্প, প্রাণিসম্পদ উৎপাদন উপকরণ ও প্রাণিজাত খাদ্যের মান নিয়ন্ত্রণ গবেষণাগার স্থাপন প্রকল্প এবং মানসম্পন্ন বীজ সরবরাহ বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পসহ মোট তিনহাজার পাঁচশ তিরাশি কোটি নিরানব্বই লাখ টাকা ব্যয়সংবলিত ৮টি নতুন ও সংশোধিত  প্রকল্প অনুমোদন  দেয়া হয়েছে।
    আজ ঢাকায় এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপার্সন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এই অনুমোদন দেয়া হয়। সভায় একনেক সদস্যবৃন্দ, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীগণ, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, মুখ্যসচিব এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ও সচিববৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
         পরিকল্পনা মন্ত্রী  আ হ ম মুস্তফা কামাল সভা শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে একনেক সভার বিস্তারিত উল্লেখ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী দেশের ষোলকোটি মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন। তিনি দেশের উত্তরাঞ্চলে খরা সহিষ্ণু এবং দক্ষিণাঞ্চলের জন্য পানি ও লবণাক্ততা সহিষ্ণু জাতের ফসল উদ্ভাবনে গবেষণা জোরদার করার তাগিদ দিয়েছেন। তিনি জানান বাংলাদেশ মাছ ও হালাল মাংস রপ্তানি আয় বাড়াতে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের অধীন একটি প্রাণিজাত খাদ্যের মান নিয়ন্ত্রণ গবেষণাগার স্থাপন প্রকল্প সভায় অনুুমোদন দেয়া হয়েছে। ২০১৮ সালের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন।
    পরিকল্পনা মন্ত্রী জানান, একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী বিদেশে বাংলাদেশের দূতাবাসসমূহের যেখানে নিজস্ব জমি আছে সেখানে দ্রুততার সাথে নিজস্ব দূতাবাস ভবন নির্মানের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন। দেশের উত্তরাঞ্চলের বিশেষ করে গাইবান্ধার সাথে দেশের বিভিন্ন এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নে গাইবান্ধা-ফুলছড়ি-ভরতখালী-সাঘাটা সড়ক প্রশস্তকরণ ও উন্নয়ন প্রকল্প সভায় অনুমোদন করা হয়। এছাড়া সভায় প্রধানমন্ত্রী বাহাদুরাবাদ ঘাট-বালাসীঘাট পর্যন্ত প্রস্তাবিত টানেল নির্মান প্রকল্প প্রণয়ন ত্বরান্বিত করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।
    সভায় অনুমোদিত প্রকল্পসমূহের মধ্যে রয়েছে ন্যাশনাল এগ্রিকালচারাল টেকনোলজি প্রোগ্রাম ২য় পর্যায় প্রকল্প, পল্লি বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমের আওতায় সত্তর হাজার ওভারলোডেড বিতরণ ট্রান্সফরমার প্রতিস্থাপন প্রকল্প এবং ইনস্টলেশন অভ্ সিঙ্গল পয়েন্ট মুরিং প্রজেক্ট এবং সৌদি আরবের রিয়াদে বাংলাদেশ চ্যান্সারি কমপ্লেক্স নির্মাণ প্রকল্প।
    পরিকল্পনা বিভাগের সচিব তারিক উল ইসলাম, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব কানিজ ফাতেমা এবং পরিকল্পনা কমিশনে সদস্যগণ প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন।
#

শেফায়েত/আফরাজ/মাহমুদ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৬/১৮৫০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                        নম্বর : ১২১৮
 উত্তরা এপার্টমেন্ট প্রকল্পের ফ্ল্যাট হসত্মানত্মর ডিসেম্বরে

ঢাকা, ২৯ চৈত্র (১২ এপ্রিল) :

    এবছরের ডিসেম্বর মাসে উত্তরা ১৮নম্বর সেক্টরে নির্মাণাধীন এ্যাপার্টমেন্ট প্রকল্পের ৮৪০টি ফ্ল্যাট হসত্মানত্মর করা হবে। আগামী বছরের জুন মাসে আরো প্রায় এক হাজার ৫০০টি এবং অবশিষ্ট ৪ হাজার ২৯৬টি ফ্ল্যাট ২০১৮ সালের জুন মাসের মধ্যে হসত্মানত্মর করা হবে।

    আজ গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন উত্তরা ১৮ নম্বর সেক্টরে নির্মাণাধীন প্রকল্প পরিদর্শনকালে এ তথ্য প্রকাশ করেন। এখানে বর্তমানে ৬ হাজার ৬৩৬টি ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হচ্ছে। 

    গণপূর্ত মন্ত্রী বলেন, বেসরকারিভাবে নির্মাণ করা ফ্ল্যাটের চেয়ে এসব ফ্ল্যাটের মূল্য অনেক কম নির্ধারণ করা হয়েছে। মধ্যবিত্তদের আবাসনের বিষয়কে গুরম্নত্ব দিয়েই এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ ফ্ল্যাটের প্রতি বর্গফুটের মূল্য ধরা হয়েছে ৪ হাজার ৮০০ টাকা। এরমধ্যে অর্ধেক মূল্য সুদমুক্তভাবে চার বছরের মধ্যে পরিশোধ করতে হবে। অবশিষ্ট মূল্য  শতকরা ৮ থেকে ৯ ভাগ সুদে আট বছরে কিসিত্মতে পরিশোধ করতে হবে। তবে নির্মাণ কাজ শেষ হলে অর্ধেক মূল্য পরিশোধ করেও ফ্ল্যাট বুঝে নেয়া যাবে।

    তিনি বলেন, এখানে উন্নতমানের স্কুল, খেলার মাঠ, মার্কেট, লেকসহ নানা সুবিধা নিশ্চিত করা হচ্ছে। তাছাড়া এলাকার যোগাযোগ ব্যবস'াও উত্তম। এখান থেকে মেট্রোরেলে খুব অল্প সময়ের মধ্যেই মতিঝিল বা সচিবালয় এলাকায় যাওয়া যাবে। এসব ফ্ল্যাট নির্মাণ সম্পন্ন হলে বিপুলসংখ্যক লোকের আবাসন সমস্যার সমাধান হবে।

    রাজউকের সদস্য আব্দুর রহমান, গণপূর্ত অধিদপ্তরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলামসহ সংশিস্নষ্ট কর্মকর্তাগণ এসময় উপসি'ত ছিলেন। 

    উলেস্নখ্য, উত্তরা তৃতীয় ফেজে ১৮নম্বর সেক্টরে রাজউকের নিজস্ব অর্থায়নে ১৭৯টি ভবনে ১৫ হাজার ৩৬টি আবাসিক ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হচ্ছে। ২১৪ দশমিক ৪৪ একর জমির ওপর এপার্টমেন্টগুলো নির্মাণ করা হচ্ছে। মোট আয়তনের প্রায় ৪৫ শতাংশ জায়গায় সবুজ বেষ্টনী, স্কুল, খেলার মাঠ, মসজিদ, শপিংমল ইত্যাদি গড়ে তোলা হচ্ছে। এ ছাড়াও বেসমেন্ট ও নিচতলায় গড়ি পার্কিং ও দৃষ্টিনন্দন লেক থাকবে এ প্রকল্প এলাকায়। এখানে ১২৫০ বর্গফুট ও ১০৫০ বর্গফুট আয়তনের ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হচ্ছে। বর্তমানে রাজউক ৪০টি এবং গণপূর্ত বিভাগ ৩৯টি ভবন নির্মাণ করছে। অবশিষ্ট ১০০টি ভবনে আট হাজার ৪০০টি ফ্ল্যাট নির্মাণ করবে মালয়েশিয়া সরকার। 
#

কিবরিয়া/আফরাজ/মাহমুদ/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৬/১৮০০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                       নম্বর : ১২১৭ 

গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স'ায়ী কমিটির বৈঠক 

ঢাকা, ২৯ চৈত্র (১২ এপ্রিল) :
দশম জাতীয় সংসদের গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স'ায়ী কমিটির ১৩তম বৈঠক আজ জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত হয়।
কমিটির সভাপতি আলহাজ মো. দবিরম্নল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য ও গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, কামাল আহমেদ মজুমদার, এ কে এম ফজলুল হক, মো. আবু জাহির, আবু সালেহ মোহাম্মদ সাঈদ (দুলাল) ও  বেগম নূর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরী অংশগ্রহণ করেন। 
বৈঠকে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপড়্গের অধীনে বিগত পাঁচ বছরে বিভিন্ন প্রকল্প থেকে কোন কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে পস্নট ও ফ্ল্যাট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে এবং আগামীতে কোন কোন প্রকল্প থেকে পস্নট ও ফ্ল্যাট বরাদ্দ দেয়া হবে সে বিষয়ে আলোচনা করা হয়।  
কমিটি গণপূর্ত অধিদপ্তরের অধীনে সকল প্রকার টেন্ডারিং কার্যক্রমে ই-টেন্ডারিং প্রক্রিয়া চালুকরণ ও সরকারি আবাসন পরিদপ্তরের অধীন বাড়ি/ফ্ল্যাটের ইউটিলিটি (পানি, বিদ্যুৎ, গ্যাস) বিল আদায়ে সংশিস্নষ্ট কর্মকর্তাকর্মচারীদের আরও দায়িত্বশীল হওয়ার সুপারিশ করে। 
বৈঠকে রাজউকের নির্মাণাধীন ফ্ল্যাট বিক্রি বৃদ্ধির জন্য জোর প্রচারণা ও রোডশোর আয়োজন করার সুপারিশ করা হয়।
বৈঠকে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশিস্নষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ উপসি'ত ছিলেন।
#

ইনামুল/আফরাজ/রেজাউল/সেলিম/২০১৬/১৭০০ ঘণ্টা


তথ্যবিবরণী                                                                                        নম্বর : ১২১৬
 আনত্মর্জাতিক শিড়্গামেলায় যোগ দিতে মস্কো গেছেন শিড়্গামন্ত্রী 

মস্কো (রাশিয়া), ১২ এপ্রিল :

মস্কো আনত্মর্জাতিক শিড়্গামেলা (মস্কো ইন্টারন্যাশনাল এডুকেশন ফেয়ার)-২০১৬ তে যোগ দিতে শিড়্গামন্ত্রী নুরম্নল ইসলাম নাহিদ আজ মস্কো পৌঁছেছেন।

রম্নশ ফেডারেশনের শিড়্গা ও বিজ্ঞান বিষয়ক মন্ত্রী ডিমিট্রি ভি লিভানভ (উসরঃৎরু ঠ খরাধহড়া)-এর আমন্ত্রণে বাংলাদেশের শিড়্গামন্ত্রী এ আনত্মর্জাতিক শিড়্গামেলায় যোগ দিচ্ছেন।

চারদিনব্যাপী এ মেলা আগামীকাল (১৩ এপ্রিল) মস্কোর ক্রাসনায়া প্রেসনা (কৎধংহধুধ চৎবংহুধ)-এর এক্সপো সেন্টারে শুরম্ন হচ্ছে। শিড়্গামেলা উপলড়্গে আয়োজিত শিড়্গা বিষয়ক সম্মেলনে বিভিন্ন দেশের শিড়্গামন্ত্রী ও উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিবৃন্দ অংশ নেবেন। সম্মেলনে সাধারণ ও কারিগরি শিড়্গাড়্গেত্রে উদ্ভাবিত কৌশল ও প্রযুক্তি, শিড়্গাড়্গেত্রে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার, বিশেষ শিশুদের শিড়্গাদান কৌশল প্রভৃতি বিষয় আলোচিত হবে। এছাড়া, শিড়্গাড়্গেত্রে উদ্ভাবিত বিভিন্ন প্রযুক্তি ও উপকরণ প্রদর্শিত হবে। বাংলাদেশের শিড়্গামন্ত্রীর এ সম্মেলনে বক্তব্য দেয়ার কথা রয়েছে।

    ১৭ এপ্রিল শিড়্গামন্ত্রী দেশে ফিরবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

#

সাইফুলস্নাহ/আফরাজ/মাহমুদ/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৬/১৮০০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                       নম্বর : ১২১৫
তথ্য বাতায়নে যুক্ত হচ্ছে ভয়েসকল সুবিধা

ঢাকা, ২৯ চৈত্র (১২ এপ্রিল) :
    জনগণের হাতের মুঠোয় সেবা পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে তথ্যপ্রাপ্তি আরো সহজলভ্য করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এখন থেকে নাগরিকগণ যেকোনো সময় কল করে বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়নের যেকোনো তথ্য সংগ্রহ করার লক্ষ্যে ভয়েস একসেস তৈরির কার্যক্রম হাতে নিয়েছে একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম। এই উদ্যোগ বাস্তবায়নে আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ের ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সম্মেলনকক্ষে একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম এবং রবি আজিয়াটা লিমিটেডের মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে।
    সমঝোতা স্মারক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব মো. ফয়জুর রহমান চৌধুরী এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) এম এম জিয়াউল আলম,  ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. শওকত মোস্তফা, এটুআই-এর পলিসি অ্যাডভাইজার আনীর চৌধুরী, এটুআই ই-সার্ভিস পরিচালক ড. মো. আব্দুল মান্নান, জনপ্রেক্ষিত বিশেষজ্ঞ নাঈমুজ্জামান মুক্তা এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ, এটুআই ও রবি আজিয়াটা লিমিটেডের কর্মকর্তাগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।
    এই সমঝোতা স্মারকে এটুআই এর পক্ষে স্বাক্ষর করেন এটুআই প্রকল্প পরিচালক ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) কবির বিন আনোয়ার এবং রবি আজিয়াটা লিমিটেডের পক্ষে ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মতিউল ইসলাম নওশাদ।
    এই সমঝোতা স্মারকের আলোকে বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়নের ভয়েস একসেস বাস্তবায়নের জন্য একসেস টু ইনফরমেশন প্রোগ্রাম (এটুআই) ও রবি আজিয়াটা লিমিটেডের যৌথ উদ্যোগে একটি কলসেন্টার স্থাপন করা হবে। এর ফলে যেকোনো মোবাইল অপারেটর ব্যবহারকারী নাগরিকগণ সর্বনিম্ন রেটে ভয়েসকল, এসএমএস আইভিআর এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও
ই-মেইল ব্যবহার করে বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়নের সকল তথ্য পাবেন।
    উল্লেখ্য, বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (িি.িনধহমষধফবংয.মড়া.নফ) বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম সরকারি তথ্য বাতায়ন যা ইতোমধ্যে ২০১৫ সালে আইটিইউ (ওঞট) কর্তৃক প্রদত্ত ডঝওঝ অধিৎফ পেয়েছে। সকল সরকারি ওয়েবসাইটকে একত্রে সংযুক্ত করে প্রতিটি নাগরিকের তথ্য ও সেবাপ্রাপ্তি নিশ্চিত করতেই বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়নটি করা হয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়নে ২ দশমিক ১ মিলিয়ন কনটেন্ট রয়েছে। এছাড়া ৪শ’ সরকারি সেবাপ্রাপ্তির বিস্তারিত বিবরণ এবং ১ হাজার ৪শ’র বেশি সরকারি ফরম বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়নে রয়েছে।
#

এনায়েত/আফরাজ/সঞ্জীব/রেজাউল/২০১৬/১৮০৫ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                       নম্বর : ১২১৪
বিটিভি শিল্পীসম্মানী অনলাইনে
ঢাকা, ২৯ চৈত্র (১২ এপ্রিল) :
    বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) শিল্পীসম্মানী অনলাইনে প্রদান চালু হয়েছে। আজ তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মরতুজা আহমদ তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষ থেকে বিটিভির সাথে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ ডিজিটাল পদ্ধতি উদ্বোধন করেন। এর ফলে বিটিভির শিল্পীদের সম্মানী দ্রুততার সাথে প্রাপ্তি নিশ্চিত হলো।
    প্রথমবার ১৬ জন শিল্পীর সম্মানী অনলাইনে প্রদানের মাধ্যমে এ সেবা উদ্বোধনের সময় তথ্যসচিব বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে তথ্য মন্ত্রণালয় একাগ্রভাবে কাজ করছে। এ মন্ত্রণালয়ের সকল অধিদপ্তর ও সংস্থাকে সম্পূর্ণ ডিজিটাল পদ্ধতির আওতায় নিয়ে আসা হচ্ছে। এতে যেমন স্বচ্ছতা বাড়ছে, তেমনি সেবার মান এবং গতিও হচ্ছে প্রশংসনীয়।
    তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্বোধন পরিকল্পনাসমূহ, টেকসই উন্নয়ন ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় সমন্বয় করে দেশীয় সংস্কৃতি লালিত অনুষ্ঠান সম্প্র্রচার করবে বাংলাদেশ টেলিভিশন।
    ভিডিও কনফারেন্সের অপর প্রান্তে থাকা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক এস এম হারুন-অর-রশীদসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে সচিব বলেন, বিটিভির দর্শকসংখ্যা বৃদ্ধির চেষ্টা এবং একে  ডিজিটাল পদ্ধতিতে রূপান্তরের প্রক্রিয়ায় কোনো ঘাটতি থাকা চলবে না। মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে সকল সহযোগিতা দেবে। এসময় তিনি বিটিভির ডিজিটালাইজেশন ও নববর্ষের বিশেষ আয়োজনের অগ্রগতি সম্পর্কে খোঁজখবর নেন।
    ভিডিও কনফারেন্সে বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক এস এম হারুন-অর-রশীদ জানান, বিটিভিকে ডিজিটাল পদ্ধতিতে রূপান্তরের জন্য ৮টি মডিউল হাতে নেয়া হয়েছে। এছাড়াও বাংলা নববর্ষ উদ্যাপনের লক্ষ্যে বাংলাদেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সম্মিলন ঘটিয়ে অনুষ্ঠান সাজিয়েছে বিটিভি।
    মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ এস এম মাহবুবুল আলম, শাহজাদী আঞ্জুমান আরা, সরাফ উদ্দীন আহমেদ ও রোকসানা মালেকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালকের সাথে অংশ নেন অতিরিক্ত মহাপরিচালক (বার্তা) মো. নাসির উদ্দিন।
#

আকরাম/আফরাজ/সঞ্জীব/রেজাউল/২০১৬/১৭৫৮ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ১২১৩

উচ্চশিক্ষার সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে
                          -- স্পিকার

ঢাকা, ২৯ চৈত্র (১২ এপ্রিল) :
জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশের তরুণ সমাজকে সামনে এগিয়ে নিতে তাদের জন্য উচ্চ শিক্ষার পথ প্রশস্ত করতে হবে। তাদের অগ্রযাত্রা যাতে বাধাগ্রস্ত না হয় সেদিকে খেয়াল রেখে তাদের জন্য সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি তথ্যপ্রযুক্তিগত শিক্ষায় সম্পৃক্ত করতে হবে। তিনি ব্রিটিশ কাউন্সিলকে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য আরো বেশি উচ্চশিক্ষার সুযোগ সৃষ্টির আহ্বান জানান।
স্পিকার আজ ঢাকায় ব্রিটিশ কাউন্সিল অডিটোরিয়ামে ব্রিটিশ কাউন্সিল কর্তৃক প্রথমবারের মতো আয়োজিত আইইএলটিএস বৃত্তি-২০১৫ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ আহ্বান জানান।  
স্পিকার বলেন, শিক্ষিত জাতি নির্মাণে শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। উচ্চ শিক্ষার জন্য যে অর্থের প্রয়োজন তা অনেক অভিভাবকের পক্ষে বহন করা সম্ভব হয় না। ব্রিটিশ কাউন্সিলের এ ধরনের বৃত্তি প্রদান কর্মসূচি উচ্চশিক্ষা গ্রহণে শিক্ষার্থীদেরকে  উৎসাহিত করেছে। তিনি আইইএলটিএস বৃত্তি -২০১৫ বৃত্তিপ্রাপ্ত ৪ জনই নারী হওয়ার বিষয়কে বাংলাদেশের নারী অগ্রগতির উল্লেখযোগ্য দিক হিসেবে চিহ্নিত করেন।

Todays handout (15).doc Todays handout (15).doc

Share with :

Facebook Facebook