তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

তথ্যবিবরণী - 6/9/2019

তথ্যবিবরণী                                                                                     নম্বর : ৩৩৯১ 

 

ঋতুবরণ বাঙালির চিরন্তন উৎসব

        -- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ২২ ভাদ্র (৬ সেপ্টেম্বর) :

 

          সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, ঋতুবরণ বাঙালির চিরন্তন উৎসব। আবহমানকাল থেকে বাঙালি নববর্ষ, বর্ষাবরণ, বসন্তবরণ, শরৎ ও হেমন্ত উৎসব উদ্যাপন করে আসছে। চিরায়ত এসব উৎসব আগে আমাদের গ্রামীণ সংস্কৃতির অবিচ্ছেদ্য অংশ ছিল। এখন তা আমাদের শহুরে সংস্কৃতির অন্যতম অনুষঙ্গে পরিণত হয়েছে। ঋতুবরণ সংস্কৃতির গ্রাম থেকে শহরে স্থানান্তর ঘটেছে।

 

প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের বকুলতলায় সত্যেন সেন শিল্পী গোষ্ঠী আয়োজিত শরৎ উৎসব-১৪২৬ এর অংশ হিসেবে ‘শরৎ কথন পর্ব’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

 

সত্যেন সেন শিল্পী গোষ্ঠীর সভাপতি ড. হায়াৎ মামুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন রিপাবলিক অভ্ সিচেলিস (Seychelles) এর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের  সেক্রেটারি অভ্ স্টেট Ambassador Barry Faure, সত্যেন সেন শিল্পী গোষ্ঠীর সহসভাপতি অধ্যাপক নিগার চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মানজার চৌধুরী সুইট।

 

 

#

 

ফয়সল/রাহাত/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/২২৩০ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                     নম্বর :  ৩৩৯০

 

নতুন প্রজন্মকে ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহীম সম্পর্কে জানাতে হবে

                                                                -- সমাজকল্যাণ মন্ত্রী

 

ঢাকা, ২২ ভাদ্র (৬ সেপ্টেম্বর) :

 

সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ বলেছেন, ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহীম ছিলেন একজন মহান পুরুষ। নতুন প্রজন্মকে ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহীম সম্পর্কে জানাতে হবে।

 

মন্ত্রী আজ রাজধানীর বারডেম হাসপাতাল মিলনায়তনে বাংলদেশ ডায়াবেটিক সমিতি কর্তৃক জাতীয় অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহীমের ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। অধ্যাপক এ কে আজাদ খানের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক মোঃ আবুল মনসুর ও আখতারুজ্জামান আলো প্রমুখ।

 

এ সময় মন্ত্রী বলেন, ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহীমের কর্মময় জীবন সম্পর্কে যদি আমরা আগামীদিনের প্রজন্মকে জানাতে ব্যর্থ হই তাহলে তাঁর কীর্তি সম্পর্কে তারা অবহিত হবে না। ডা. ইব্রাহীমের কর্মকা-ের পরিধি যদি আমরা আগামী প্রজন্মকে জানাতে পারি তাহলে আগামী দিনের প্রজন্ম তাঁর কর্মময় জীবন থেকে অনেক শিক্ষা লাভ করতে পারবে এবং লাভবান হবে। তিনি বলেন, ডা. ইব্রাহীমের অবদান দেশ ও জাতি চিরদিন শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে। তিনি ডায়াবেটিক সমিতি ও যারা তার সান্নিধ্যে ছিলেন তাদেরকে ডা. ইব্রাহীমের কীর্তিগুলো আগামী প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দেওয়ার আহ্বান জানান।

 

মন্ত্রী বলেন, মানুষের সেবা ও সৃষ্টির সেবাই স্রষ্টার সন্তুষ্টি। ডা. ইব্রাহীমের কর্ম থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে আগামী দিনে মানুষের সেবার জন্য নিজেকে আত্মনিয়োগ করার জন্য সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি ডা. ইব্রাহীমের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে সবাইকে দেশ ও জাতি গঠনে কাজ করার আহ্বান জানান।

 

#

 

জাকির/রাহাত/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/২১৫০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                   নম্বর :   ৩৩৮৯

 

কানাডায় বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্শি

বঙ্গবন্ধুর খুনি নূর চৌধুরীকে ফেরত দিতে কানাডার ফেডারেল মন্ত্রীর আশ্বাস

 

ঢাকা, ২২ ভাদ্র (৬ সেপ্টেম্বর) :

 

          কানাডা সফররত বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্শি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত খুনি নূর চৌধুরীকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে কানাডার ফেডারেল মন্ত্রী বিল ব্লেয়ারের সহযোগিতা কামনা করলে বিল ব্লেয়ার তাকে ফেরত পাঠানোর আশ্বাস দিয়ে বলেন, বিষয়টি কানাডার আইন ও বিচারমন্ত্রী এবং বহিরাগমন ও নাগরিকত্ব বিষয়ক মন্ত্রীর নিকট তুলে ধরা হবে। 

 

          বাণিজ্যমন্ত্রী গতকাল অটোয়ায় কানাডার ফেডারেল মন্ত্রী বিল ব্লেয়ারের সাথে একান্ত বৈঠকে এসব কথা বলেন। এ সময় মন্ত্রী বাংলাদেশের পক্ষ থেকে প্রত্যক্ষ ছাত্র ভর্তির সুযোগ সৃষ্টি, বাংলাদেশে কানাডিয়ান হাইকমিশনের ভিসা সেন্টার পুনঃস্থাপন, ফেডারেল সরকারের বাংলাদেশ সম্পর্কিত ভ্রমণ সতর্কীকরণ প্রত্যাহারের দাবি জানান।

 

          মন্ত্রী বলেন,  দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্য সম্পর্ক উন্নয়নে উভয় দেশের ব্যবসায়ীগণকে নতুন বিনিয়োগ ও বাণিজ্যের সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। উভয় দেশের বাণিজ্য বহুমুখীকরণ ও ধারাবাহিক উদ্ভাবন অব্যাহত রাখতে হবে। এ সময় কানাডায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোঃ মিজানুর রহমান, টরন্টোতে নিযুক্ত বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল মাইন উদ্দিন আহমেদ এবং বাংলাদেশ-কানাডা ট্রেড প্রমোশন সেন্টারের কর্মকর্তাবৃন্দ ও ডেলিগেশনের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

#

 

বকসী/মাহমুদ/রাহাত/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/২১৪৫ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                     নম্বর :  ৩৩৮৮

 

সকল বৈপ্লবিক পরিবর্তনেই তারুণ্যের ভূমিকা অনবদ্য

                                             -- তথ্যমন্ত্রী

 

ঢাকা, ২২ ভাদ্র (৬ সেপ্টেম্বর) :

 

          তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, বাংলাদেশ ও সমগ্র বিশ্বে সকল বৈপ্লবিক পরিবর্তনে তারুণ্যের  ভূমিকা অনবদ্য। বায়ান্ন’র ভাষা আন্দোলন, একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ, নব্বইয়ের গণআন্দোলন-সহ সকল গণতান্ত্রিক সংগ্রামে দেশের তরুণদের ভূমিকা ছিল ঐতিহাসিক। তারা সংগ্রাম করেছে, যুদ্ধ করেছে, প্রয়োজনে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিতে কুণ্ঠিত হয়নি। তারুণ্যই শক্তি।

 

আজ সন্ধ্যায় ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘স্টেজ ফর ইয়ুথ’ সংগঠনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

 

ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে যে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেখিয়েছেন, এই তরুণদের হাত ধরেই বাংলাদেশ তার স্বপ্নের ঠিকানায় শুধু পৌঁছেই যাবে না, সেই ঠিকানা অতিক্রম করতে পারবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বাংলাদেশকে উন্নতির যে সোপানে নিয়ে এসেছেন, তা নিয়ে আমরা বিশ্বের কাছে গর্ব করতে পারি উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার সময় এদেশের মানুষের গড় আয়ু ছিল ৩৯, এখন তা ৭৩ বছর, যেখানে পাকিস্তানের ৬৩, ভারতের ৬৯। ২০০৯ সালে শেখ হাসিনা যখন দ্বিতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হন, তখন আমাদের ৪০ শতাংশ মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে বাস করত, এখন তা ২০ শতাংশে নেমে এসেছে। মানবিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক সকল সূচকে আমরা পাকিস্তানকে বহু পেছনে ফেলে এগিয়ে গেছি। সে কারণে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী যখন আগামী দশ বছরে তাদের দেশকে সুইডেনের মতো বানাবেন বলেন, সেখানকার বুদ্ধিজীবীরা টিভি টক শো’তে বলেন, দশ বছরে পাকিস্তানকে বাংলাদেশের পর্যায়ে আনার চেষ্টা করা উচিত।

 

দেশকে এই অবিস্মরণীয় উন্নতির পথে ধাবমান রাখতে তরুণরা হবে এ দেশের অন্যতম প্রধান শক্তি উল্লেখ করে মন্ত্রী ‘স্টেজ ফর ইয়ুথ’র উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, সরকার সবসময় নতুনের সাথে আছে। স্টেজ ফর ইয়ুথ তরুণদের কর্মসংস্থানে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি।

 

‘স্টেজ ফর ইয়ুথ’র প্রেসিডেন্ট ইলিয়াস হোসাইনের সভাপতিত্বে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র একরামুল হক টিটু আমন্ত্রিত অতিথির বক্তব্য রাখেন।

 

#

 

আকরাম/মাহমুদ/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/২১০০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                     নম্বর :  ৩৩৮৭

 

ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে যোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে

                              -- সমাজকল্যাণ মন্ত্রী

 

ঢাকা, ২২ ভাদ্র (৬ সেপ্টেম্বর) :

 

সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে হলে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে যোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে।

 

মন্ত্রী আজ রাজধানীর বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তনে উৎসর্গ ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ আয়োজিত আলোচনা সভা ও সে¦চ্ছাসেবী মিলনমেলায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

 

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও উৎসর্গ ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ-এর প্রধান উপদেষ্টা শামসুল হক টুকুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মোঃ ইমরুল কায়েস ও সাধারণ সম্পাদক তানজিনা খান।

 

ফাউন্ডেশনের কার্যক্রমের প্রশংসা করে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী  বলেন, এ মিলনমেলা ভবিষ্যতে নতুন প্রজন্মকে আত্মপ্রত্যয়ে উজ্জীবিত হওয়ার পথে বড় ভূমিকা রাখবে। মন্ত্রী তরুণ প্রজন্মকে মাদক থেকে মুক্ত রাখতে উৎসর্গ ফাউন্ডেশনকে অগ্রণী ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান।

 

দেশের ৬৪ জেলার বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের প্রায় ১ হাজার সে¦চ্ছাসেবককে নিয়ে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন উৎসর্গ ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ।

 

#

 

জাকির/মাহমুদ/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/২০৩০ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                        নম্বর :  ৩৩৮৬
 
আফসার উদ্দিন কিংবদন্তি হয়ে থাকবেন
                             -- কৃষিমন্ত্রী
 
ময়মনসিংহ, ২২ ভাদ্র (৬ সেপ্টেম্বর) :
 
কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধে নিয়মিত মুক্তিবাহিনীর পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে নিজস্ব উদ্যোগে দেশের ভেতরে যে ক’টি অনিয়মিত বাহিনী গড়ে ওঠে তার মধ্যে ময়মনসিংহের আফসার বাহিনী ছিল অন্যতম।  এই বাহিনীর প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে শেষ পর্যন্ত আফসার উদ্দিন আহমেদ বীরত্বের সাথে অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন। মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বের জন্য তিনি কিংবদন্তি হয়ে থাকবেন। তিনি জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান।
 
আজ কৃষিমন্ত্রী ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলা চত্বরে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাব-সেক্টর কমান্ডার মেজর আফসার উদ্দিন আহমেদের ২৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। ভালুকা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অসীম কুমার উকিল এমপি, মোঃ এবাদুর করিম এমপি এবং কাজিম উদ্দিন আহমেদ ধনু এমপি।
 
উল্লেখ্য, আফসার উদ্দিন আহমেদ ১৯৪১ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে বিভিন্ন এলাকার মতো ভালুকায়ও প্রতিরোধ গড়ে ওঠে। এতে ঝাঁপিয়ে পড়েন তিনি। ১৭ এপ্রিল মাত্র সাতজন মুক্তিযোদ্ধা নিয়ে তিনি মল্লিকবাড়ী গ্রামে একটি ব্যাটালিয়ন গঠন করেন, যা পরে আফসার বাহিনী নামে খ্যাতি লাভ করে।
 
#
 
গিয়াস/মাহমুদ/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/১৯৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                     নম্বর :  ৩৩৮৫

 

এসডিজি অর্জনে বাংলাদেশ সাফল্য দেখাবে

                                        -- ভূমিমন্ত্রী

 

বেলফাস্ট (উত্তর আয়ারল্যান্ড), ৬ সেপ্টেম্বর :

 

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন, এমডিজির সফলতার মতো এসডিজি (টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য) অর্জনেও বাংলাদেশ সাফল্য দেখাবে।

 

গতকাল বৃহস্পতিবার বেলফাস্টে অবস্থিত উত্তর আয়ারল্যান্ড এসেম্বলি বিল্ডিং (স্টোরমন্ট) এর লং গ্যালারিতে অনুষ্ঠিত একটি সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে ভূমিমন্ত্রী এ কথা বলেন। এ সময় লন্ডনে অবস্থিত বাংলাদেশ হাইকমিশনের ডেপুটি হাইকমিশনার মুহাম্মদ জুলকার নাইন উপস্থিত ছিলেন।

 

সাইফুজ্জামান চৌধুরী আরো বলেন, ‘সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা’ এর অনেকগুলো লক্ষ্য অর্জনের সাথে সাথে অতি দরিদ্র অবস্থা থেকে অর্থনীতিকে উন্নয়নের দিকে নিয়ে যাওয়ার জন্য বাংলাদেশ কয়েক দশক ধরে কাজ করে গিয়েছে।

 

যুক্তরাজ্যভিত্তিক গবেষণা সংস্থা স্টাডি সার্কেল অয়োজিত ‘বাংলাদেশ : উন্নয়নের স্বর্ণ যাত্রা’ (বাংলাদেশ - এ গোল্ডেন জার্নি টু ডেভেলপমেন্ট) শীর্ষক সেমিনারটির স্পন্সর হিসেবে ছিলেন উত্তর আয়ারল্যান্ড লেজিসলেটিভ এসেম্বলির সদস্য মার্টিন-ও-মোয়েলার এমএলএ, ক্রিস লিটল এমএলএ ও মাইক নেসবিট এমএলএ।

 

সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ডা. শাম্মী আহমেদ প্রমুখ সেমিনারে বক্তব্য রাখেন। স্টাডি সার্কেলের সভাপতি সৈয়দ মোজাম্মেল আলীর সভাপতিত্বে সেমিনারটি অনুষ্ঠিত হয়। মার্টিন-ও-মোয়েলার শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন।

 

সেমিনারে বক্তারা বিশ্বের অন্যতম দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতি হিসেবে বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির কথা তুলে ধরেন। তাঁরা বাংলাদেশের সাম্প্রতিক উন্নয়নের প্রশংসা করেন।

 

স্থানীয় রাজনৈতিক প্রতিনিধি, উত্তর আয়ারল্যান্ডের ব্যবসায়ী সম্প্রদায় এবং দাতব্য ও স্বেচ্ছাসেবী খাতের সদস্য, স্থানীয় প্রবাসী বাংলাদেশি, শিক্ষাবিদ, সাংবাদিক এবং কূটনীতিকবৃন্দ এই সম্মেলনে উপস্থিত থেকে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।

         

#

 

নাহিয়ান/মাহমুদ/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/১৮৪০ ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                        নম্বর :  ৩৩৮৪
 
জনগণের সেবক হিসেবে কাজ করতে হবে
                -- গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী
 
নাজিরপুর (পিরোজপুর), ২২ ভাদ্র (৬ সেপ্টেম্বর) :
 
সকল অনিয়ম ও দুর্নীতির ঊর্ধ্বে থেকে জনগণের সেবক হিসেবে কাজ করার জন্য জনপ্রতিনিধি ও সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।
 
আজ পিরোজপুরের নাজিরপুর এলজিইডি’র উদ্যোগে নাজিরপুর ডাকবাংলো চত্বরে ‘নাজিরপুর উপজেলা অবকাঠামো উন্নয়ন’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এ আহ্বান জানান।
 
নাজিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রোজী আকতারের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আখতারুজ্জামান খান কবির, এলজিইডি’র তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ও প্রকল্প পরিচালক কাজী মিজানুর রহমান, পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান, পিরোজপুর এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী সুশান্ত রঞ্জন রায় এবং নাজিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অমূল্য রঞ্জন হালদার। 
 
মন্ত্রী বলেন, পিরোজপুর-১ আসনের তিনটি উপজেলার  উন্নয়নের লক্ষ্যে ইতোমধ্যে সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করেছে সরকার। এর মধ্যে জেলার স্বরূপকাঠী উপজেলার সাথে নাজিরপুর উপজেলা হয়ে পিরোজপুর সদরের সাথে সরাসরি সড়ক যোগাযোগের জন্য সন্ধ্যা নদী ও তালতলা নদীতে ব্রিজ-কালভার্ট-সহ রাস্তা তৈরির সম্ভাব্যতা যাচাই ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে।
 
মতবিনিময় সভায় নাজিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান-সহ নয়টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও সদস্যবৃন্দ নিজ নিজ এলাকার বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনার বিষয়গুলো মন্ত্রীর কাছে তুলে ধরেন। 
 
#
 
ইফতেখার/মাহমুদ/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/১৮০০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                     নম্বর :  ৩৩৮২

 

খেলাঘর সম্মেলনে তথ্যমন্ত্রী

দেশপ্রেম, মমতা আর মেধা দিয়ে পেরিয়ে যাও স্বপ্নের ঠিকানা

 

ঢাকা, ২২ ভাদ্র (৬ সেপ্টেম্বর) :

 

দেশপ্রেম, মমতা, মূল্যবোধ আর মেধা দিয়ে নিজের এবং দেশের স্বপ্নের ঠিকানা অতিক্রমের জন্য শিশু-কিশোরদের দুর্জয় প্রত্যয়ে উজ্জীবিত হতে বলেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ।

 

আজ ঢাকায় শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় মিলনায়তনে খেলাঘর ঢাকা মহানগর উত্তর সম্মেলন ২০১৯-এ প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সমবেত সহস্রাধিক শিশু-কিশোর ও অভিভাবকদের উদ্দেশে মন্ত্রী এ উদ্দীপনার মন্ত্র উচ্চারণ করেন।

 

ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে যে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেখিয়েছেন, তা বাস্তবায়নে আজকের এই শিশু-কিশোরদের সুনাগরিক হয়ে গড়ে উঠতে হবে। তাদের হাত ধরেই বাংলাদেশ তার স্বপ্নের ঠিকানায় শুধু পৌঁছেই যাবে না, সেই ঠিকানা অতিক্রম করতে পারবে। আজ পাকিস্তান বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে আক্ষেপ করে, আর ভবিষ্যতের সেদিন সমগ্র বিশ্ব অবাক তাকিয়ে দেখবে এ দেশের বিস্ময়কর অগ্রগতি।

 

‘আর এজন্য প্রয়োজন আমাদের শিশু-কিশোরদের জঙ্গিবাদ, মৌলবাদ, মাদক ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের আসক্তি থেকে মুক্ত রেখে দেশপ্রেম ও মানবিক মূল্যবোধে উজ্জীবিত করা, যে কাজকে খেলাঘর ও এ ধরনের উদ্যোগ অনেক এগিয়ে নিতে পারে’, বলেন তথ্যমন্ত্রী। নিজের জীবন দর্শনকে সহজে ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, ‘সময় জীবনে সবচেয়ে মূল্যবান। আর মানুষ আলোর বেগে ছুটতে না পারলেও প্রতিটি মুহূর্তকে কাজে লাগাতে পারে। আর শৈশব-কৈশোরই হচ্ছে জীবনকে গড়ে তোলার শ্রেষ্ঠ সময়। জীবন মানেই যুদ্ধ। আমি পারবোই- এমন প্রত্যয়ে বুক বেঁধে এগিয়ে চলতে হবে লক্ষ্যের দিকে। জয় আসবেই।’

 

খেলাঘর মহানগর উত্তরের সভাপতি  এডভোকেট আরিফুর রহমানের সভাপতিত্বে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ, বিশিষ্ট গণমাধ্যম গবেষক ও শিশু সংগঠক রহমান মুস্তাফিজ প্রমুখ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন।

 

#

 

আকরাম/মাহমুদ/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/১৭৪৫ ঘণ্টা

Handout                                                                                                          Number :  3383

 

Australia to intensify development cooperation with Bangladesh

 

Dhaka,  September 06 :                                          

 

Australia will intensify development cooperation with Bangladesh and will promote the economic partnership in the years ahead. This was assured by Australian Foreign Minister Marise Payne while she had a bilateral meeting with Foreign Minister of Bangladesh Abdul Momen in Dhaka yesterday. Marise Payne is on a three-day visit to Bangladesh to attend third IORA Blue Economy Ministerial Conference being held in Dhaka on 4-5 September 2019. 

 

Foreign Minister Momen expressed his gratitude to the visiting Minister for reaffirming their support for the repatriation of the forcefully displaced Myanmar nationals. Before coming to Bangladesh Foreign Minister Marise Payne visited Myanmar to assess the circumstance in Myanmar with regard to Repatriation.

 

Foreign Minister Marise Payne assured Australia will remain engaged with international community to put pressure on Myanmar to create conducive environment towards safe and sustainable repatriation of the Rohingyas. Foreign Minister Momen said Rohingyas are fearful to going back to Rakhine state because of trust deficit and underlined the importance of early repatriation of the Rohingyas under international observation. Minister Marise Payne said she so far read reports on Rohingya crisis and to realize the real circumstance and ground situation she visited Cox's Bazar Rohingya camp . She said Australia will continue its communication with Myanmar for solution of the Rohingya crisis and will increase its humanitarian assistance for the displaced people through NGOs and UN agencies. 

 

Australian Foreign Minister appreciated economic development of Bangladesh under the leadership of Prime Minister Sheikh Hasina. She said Australia is willing to grow its relations with Bangladesh with greater engagement. The two Foreign Ministers pledged to work together to promote peace, stability and prosperity in Indian Ocean region. Foreign Minister invited Australian investment in Special Economic Zones (SEZs) of Bangladesh. 

 

In light of growing business interactions and people-to-people contact between Bangladesh and Australia, Foreign Minister Momen requested Australian Foreign Minister to review Australia's travel advisory on Bangladesh. Minister Momen also requested to resume the visa office at Australian High Commission in Dhaka which is currently shifted to New Delhi. Foreign Minister Momen also requested Minister Payne to lift the air cargo restrictions in light of meeting of aviation security standards at Dhaka airport. Minister Payne assured Australian side will follow up on these requests and will report back. 

 

#

 

Tohidul/Mahmud/Mosharaf/Salim/2019/17.40 Hrs.

 

 

 


Handout                                                                                                          Number :  3381

 

Foreign Minister calls for strengthening Bangladesh-Sri Lanka business linkages

 

Dhaka,  September 06 : 

 

Foreign Minister Dr. A K Abdul Momen met the Sri Lankan Foreign Minister Tilak Marapana on the sidelines of the IORA Blue Economy Ministerial Conference which opened in Dhaka at the Hotel Intercontinental yesterday.

 

Both sides discussed various areas of bilateral cooperation between the two countries, with particular focus on enhancing business to business connectivity. The Bangladesh Minister highlighted the potential of importing quality and affordable pharmaceuticals from Bangladesh to Sri Lanka. Minister Momen mentioned that a growing number of Sri Lankans are engaging in the RMG sector in Bangladesh and stressed that signing of the agreements on Promotion and Reciprocal Protection of Investment, Avoidance of Double Taxation and Cooperation on Customs Matters would further safeguard and encourage investments in a win-win manner. Expressing agreement with the Bangladesh side, Minister Marapana informed that a business delegation from Sri Lanka is scheduled to visit Bangladesh in mid-September to discuss further business enhancement opportunities in Bangladesh.

 

Dr. Momen urged his Sri Lankan counterpart to expedite conclusion of the Coastal Shipping Agreement between the two countries which is expected to enhance trade and commerce between the two countries. Concurring with this view, the Sri Lankan Minister also touched upon the potential of developing cruise tourism in the Bay of Bengal.

 

Discussing security related issues, Minister Momen highlighted the zero-tolerance policy of Prime Minister Sheikh Hasina against terrorism. He mentioned that Bangladesh is a secular country where people from all religions live in peace and harmony. He also sought Sri Lankan support in connection with repatriation of the more than 1 million Rohingyas from Bangladesh back to Myanmar, in safety and dignity. He cautioned that if this situation is allowed to continue for long, it can lead to security challenges in the region.

 

#

 

Tohidul/Mahmud/Mosharaf/Salim/2019/17.30 Hrs.

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                      নম্বর : ৩৩৮০

সমুদ্র বন্দরের জন্য তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত বহাল

ঢাকা, ২২ ভাদ্র (৬ সেপ্টেম্বর) : 

          ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স কো-অর্ডিনেশন সেন্টার থেকে পাওয়া আজ দুপুর ২ টার প্রতিবেদনে  চট্টগ্রাম, বক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারসমূহকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্য্ন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

          প্রতিবেদন অনুযায়ী উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি বর্তমানে উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এলাকায় অবস্থান করছে। এর প্রভাবে বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

          আজ সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, সিলেট, যশোর, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার অঞ্চলের উপর দিয়ে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কি.মি. বেগে বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়া বহে যেতে পারে। এসব এলাকার নদী বন্দরসমূহকে এক নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

#

তাসমীন/মাহমুদ/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/১৭১০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩৩৭৯

দেশের ডেঙ্গু পরিস্থিতি

ঢাকা, ২২ ভাদ্র (৬ সেপ্টেম্বর) :     

          স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী গত জানুয়ারি থেকে আজ পর্যন্ত ডেঙ্গু রোগের চিকিৎসা শেষে ছাড়পত্র নিয়ে চলে গেছেন ৭১ হাজার ৬১৭ জন। এ যাবত ৫৭ জনের মৃত্যু ডেঙ্গুজনিত বলে নিশ্চিত করা হয়েছে।         

          বর্তমানে সারা দেশের হাসপাতালগুলোতে ডেঙ্গুরোগে আক্রান্ত ভর্তিকৃত রোগী আছেন ৩ হাজার ৩৩৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে নতুন ৭৯৩ জন ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

#

আয়শা/মাহমুদ/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/১৬৫০ ঘণ্টা 

Todays handout (9).docx Todays handout (9).docx

Share with :

Facebook Facebook