তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

তথ্যবিবরণী ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ৭৬০

 

অমর একুশে গ্রন্থমেলাকে গিনেস বুক অভ্‌ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে অন্তর্ভুক্ত করা হবে

                                                                -- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৯ ফেব্রুয়ারি) :

 

          সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, অমর একুশে গ্রন্থমেলা সময়কাল ও দর্শক বিবেচনায় পৃথিবীর বৃহত্তম বইমেলা। মাসব্যাপী অনুষ্ঠিত এ বইমেলায় প্রায় কোটি দর্শকের আগমন ঘটে। তবে এ দর্শক সংখ্যার আনুষ্ঠানিক কোন হিসাব নেয়া হয় না। অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২১ হতে সঠিক দর্শক সংখ্যা গণনাপূর্বক পৃথিবীর বৃহত্তম গ্রন্থমেলা হিসেবে এটিকে গিনেস বুক অভ্‌ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

 

          প্রতিমন্ত্রী আজ রাজধানীর বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে বাংলা একাডেমি আয়োজিত মাসব্যাপী 'অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০' এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

 

          সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, গ্রন্থমেলার চেয়ে বইমেলা শব্দটি বেশি হৃদয়গ্রাহী, চিত্তাকর্ষক, আপন ও সার্বজনীন মনে হয়। তাছাড়া দীর্ঘকাল থেকে বইমেলা শব্দটি প্রচলিত এবং প্রধানমন্ত্রীও অমর একুশে গ্রন্থমেলা উদ্বোধনের সময় এ বিষয়ে নির্দেশনা প্রদান করেছেন। সেজন্য আগামী বছর থেকে 'অমর একুশে বইমেলা' নামে এ মেলার নামকরণ করা হবে। তিনি বলেন, আমরা চাই শুধু ফেব্রুয়ারিকে কেন্দ্র করেই নয়, বছরব্যাপী লেখালেখির চর্চা হোক এবং মানসম্মত বই প্রকাশিত হোক।

 

          জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ আব্দুল মান্নান ইলিয়াস। শুভেচ্ছা বক্তৃতা করেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী। অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০ এর প্রতিবেদন পাঠ করেন মেলা আয়োজন কমিটির সদস্য-সচিব ও বাংলা একাডেমির পরিচালক ড. জালাল আহমেদ।

 

#

 

ফয়সল/রাহাত/সঞ্জীব/সেলিম/২০২০/২২৩০ ঘণ্টা

 

 

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ৭৫৯

 

মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতিতে সরকার

                                              -- তথ্যমন্ত্রী

 

চট্টগ্রাম, ১৬ ফাল্গুন (২৯ ফেব্রুয়ারি) :

 

          তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, সরকার মাদকবিরোধী আইন বাস্তবায়নে অর্থাৎ ইয়াবার সাথে যারা যুক্ত, মাদক পাচারকারী, মাদক বিক্রেতা, মাদক সেবনকারী সবার বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করছে। তিনি বলেন,  আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার ক্ষেত্রে কে কোন দলের, কোন মতের কোন পথের সেটি দেখা হচ্ছে না, হবেও না। দলমত নির্বিশেষে যারা এটির সাথে যুক্ত তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে এবং হচ্ছে। 

 

          মন্ত্রী আজ চট্টগ্রাম জমিয়তুল ফালাহ মাঠে আঞ্জুমানে রজভীয়া নুরিয়া ট্রাস্ট আয়োজিত যৌতুক, মাদক ও নারী নির্যাতন বিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। 

 

          আঞ্জুমানে রজভীয়া নুরিয়া ট্রাস্টের চেয়ারম্যান আল্লামা আবুল কাশেম নূরী’র সভাপতিত্বে সমাবেশ উদ্বোধন করেন সৈয়দ সাইফুদ্দিন আহমেদ আল হাছানী। আলোচক ছিলেন ড. নূ ক ম আকবর হোসেন, আলহাজ্ব নুরুল হক, মাছুমুর রশীদ কাদেরী, জাহিদুল হাসান রুবায়েত, মাওলানা আবুল হাসান ওমাইর রজভী প্রমুখ।

 

          ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, মাদক এমন একটি বিষ যেটির কারণে শুধু যারা মাদকসেবী তার জীবনটা ধ্বংস হয় তা নয়, পুরো পরিবারটা ধ্বংস হয়ে যায়। অনেক মাদকাসক্ত সন্তানের হাতে মা-বাবা, স্ত্রী হত্যার স্বীকার হয়েছেন, এমনকি মাদকাসক্ত পিতার কাছে নিজের সন্তান পর্যন্ত নিরাপদ নয়। মাদকের টাকা জোগাড় করতে গিয়ে সন্তানকে পর্যন্ত বিক্রি করে দিয়েছে এমন নজির রয়েছে। সুতরাং এই অভিশাপ থেকে সমাজকে পরিপূর্ণভাবে মুক্ত করা প্রয়োজন। এই ক্ষেত্রে আঞ্জুমানে রজভীয়া নুরিয়ার চেয়ারম্যান আল্লামা আবুল কাশেম নূরী’র যৌতুক ও মাদক বিরোধী যে আন্দোলন, সেটা সরকার যে মাদক ও যৌতুকের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ  করেছে তার জন্য অত্যন্ত সহায়ক।

 

          যৌতুকবিরোধী আন্দোলনকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, এই সমস্ত আন্দোলনের কারণে এবং সরকার যে যৌতুক বিরোধী আইন করেছে তার কারণে যৌতুক এখন অনেক কমে গেছে। আজ থেকে ৩০/৪০ বছর আগে যৌতুকের জন্য দেনদরবার হতো। এখন সেটা আর হয় না। তবে বিয়ের বরযাত্রী কত হয় সেটা নিয়ে আলোচনা করে এখনো। 

 

          মন্ত্রী বলেন, অনেক বৃদ্ধা বাবা-মা মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার জন্য সাহায্যের আবেদন নিয়ে বিভিন্ন জনের কাছে যায়। এটি হওয়া উচিত নয়। এভাবে বিয়ে করলে জীবনে সুখী হওয়া যায় কিনা সেটা আমার কাছে বোধগম্য নয়। মেয়ের পিতার উপর পাথরের বোঝা চাপিয়ে দিয়ে মেয়েকে জীবনসঙ্গী করে জীবনে সুখী হওয়া যাবে না। 

 

          তথ্যমন্ত্রী বলেন, এজন্য আবুল কাশেম নূরী সাহেবের আন্দোলনকে আমি সমর্থন জানাই। আমি বিশ্বাস করি এই ধরনের আন্দোলনের মাধ্যমে দেশকে মাদক ও যৌতুক মুক্ত করতে পারবো। সরকার যৌতুক বিরোধী আইন করেছে, বাল্যবিবাহ বিরোধী আইন আছে। এই আইনগুলো যদি সঠিক প্রয়োগ হয়, তাহলে আমি বিশ্বাস করি বাংলাদেশ যৌতুক ও মাদক মুক্ত হবে। মানুষ এখন যেমন যৌতুক দাবি করতে লজ্জা পায়, তখন গোপনে যৌতুক নিতেও সাহস করবে না।

 

          মন্ত্রী বলেন, যেই ছেলে ১০ বছর আগে বিদেশ গেছে সে এখন এসে তার গ্রাম চিনতে পারে না, শহরও চিনতে পারে না। আমার নিজের গ্রামেও ১০ বছর আগে বিদ্যুৎ ছিল না। সড়কের বেহাল অবস্থার কারণে ১০ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে গিয়েছি। কিন্তু এখন সেখানে সব বাড়ির আঙ্গিনায় গাড়ি যায়। যেখানে রাস্তা কেউ কখনও কল্পনা করেনি সেখানে পাকা রাস্তা হয়েছে। এটি সারা বাংলাদেশের চিত্র।  ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, এই উন্নয়নের সাথে মানুষের আত্মিক উন্নয়ন প্রয়োজন। তাহলেই দেশটাকে আমরা সত্যিকার অর্থে একটি উন্নত দেশে রূপান্তর করতে পারবো।

 

          তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, আমাদের দেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ক্ষেত্রে পৃথিবীর কাছে উদাহরণ। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ক্ষেত্রে আমরা যে উদাহারণ সৃষ্টি করেছি তা অনেক দেশ আমাদের কাছ থেকে শিখতে পারে। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা ২০৪১ সালের মধ্যে এ দেশকে উন্নত সমৃদ্ধ দেশের স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছে দিতে পারবো।

 

#

 

আকরাম/রাহাত/সঞ্জীব/সেলিম/২০২০/২২৪০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                      নম্বর : ৭৫৮

 

পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই

---প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

রংপুর, ১৬ ফাল্গুন (২৯ ফেব্রুয়ারি) :

 

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন বলেছেন, মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিতকরণ ও পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই। বর্তমান সরকার শিক্ষক-সহ শিক্ষার সাথে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের দেশ-বিদেশের বিভিন্ন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করছে। 

 

প্রতিমন্ত্রী আজ রংপুর পিটিআই অডিটোরিয়ামে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের ডিপিএড কোর্সের উদ্বোধন ও অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 

 

প্রতিমন্ত্রী শিক্ষকতা মহান পেশা উল্লেখ করে বলেন, বর্তমান সরকারের সময় শিক্ষকদের সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি ও আর্থিক উন্নয়নে সহকারী শিক্ষকদের বেতন স্কেল এক ধাপ উন্নয়ন-সহ প্রধান শিক্ষকদের দ্বিতীয় শ্রেণির মর্যাদা প্রদান করা হয়েছে। সম্প্রতি সকল ধরনের প্রধান শিক্ষককের বেতন গ্রেড ১১ এবং সহকারী শিক্ষককের বেতন গ্রেড ১৩ তে উন্নীত করা হয়েছে। এছাড়া সহকারী প্রধান শিক্ষক পদ সৃষ্টি কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে যাদের বেতন গ্রেড নির্ধারণ করা হয়েছে ১২। 

 

প্রতিমন্ত্রী শিক্ষকদের উদ্দেশে বলেন, প্রশিক্ষণলব্ধ জ্ঞান নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে দক্ষতার সাথে যথাযথ প্রয়োগ করে মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে হবে। তিনি বলেন, আজকের শিশুরাই আগামী দিনে উন্নত ও সমৃদ্ধ জাতি গঠনের নেতৃত্ব দেবে। তাই আধুনিক ও মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করে শিক্ষার্থীদেরকে আলোকিত মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার দায়িত্ব শিক্ষকদের। 

 

 

           #

রবীন্দ্রনাথ/নাইচ/সঞ্জীব/আব্বাস/২০২০/২০৪৪ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ৭৫৭

 

চার লেন সড়কের নির্মাণকাজের উদ্বোধন করলেন পানি সম্পদ উপমন্ত্রী

 

শরীয়তপুর, ১৬ ফাল্গুন (২৯ ফেব্রুয়ারি) :

 

          পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, ৮৫৯ কোটি টাকা ব্যয়ে শরীয়তপুর (মনোহর বাজার) থেকে ইব্রাহিমপুর ফেরিঘাট পর্যন্ত শীর্ষক প্রকল্পে নির্মিতব্য সড়কটি সম্পন্ন হলে পদ্মা সেতু থেকে ৪ লেনের এই সড়কটি সরাসরি সংযুক্ত হলে যোগাযোগ ব্যবস্থা আরো সুগম হবে। এছাড়া মেঘনা নদীর ওপর দিয়ে সেতু বা টানেল নির্মাণের জন্য ফিজিবিলিটি স্ট্যাডি চলছে।

 

          উপমন্ত্রী আজ শরীয়তপুর জেলার ভেদেরগঞ্জ উপজেলার বালারহাটে মনোহর বাজার থেকে আলুবাজার ফেরিঘাট পর্যন্ত চার লেনের সড়কের নির্মাণকাজ উদ্বোধনকালে একথা বলেন। 

 

          এর আগে শরীয়তপু‌রের সখিপুর থানাকে উপজেলায় উন্নীত করার লক্ষ্যে যৌক্তিক প্রস্তাব প্রেরণের নিমিত্তে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসকের কার্যাল‌য়ের স‌ম্মেলন ক‌ক্ষে 'গণশুনানি' অনু‌ষ্ঠিত হয়। গণশুনা‌নি‌তে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী প্রধান অতিথি হিসেবে এবং ভেদরগঞ্জ ও স‌খিপুরের সাধারণ জনগণ, জনপ্রতি‌নি‌ধি ও রাজ‌নৈ‌তিক ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

 

#

 

আসিফ/নাইচ/সঞ্জীব/সেলিম/২০২০/১৯৩০ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ৭৫৬

 

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ প্রজন্মের কাছে রেখে যেতে হবে

                                            -- অর্থমন্ত্রী

 

ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৯ ফেব্রুয়ারি) :

 

          অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, মুজিববর্ষ ভিক্টোরিয়ান্স ক্রিকেট টি-২০ টুর্নামেন্টের আয়োজনটি একটি আদর্শকে উপস্থাপন করা, আদর্শটি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ। বঙ্গবন্ধু  শেখ  মুজিবুর  রহমানের আদর্শ ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে  রেখে  যেতে  হবে। এজন্যই  বঙ্গবন্ধুর  জন্মশতবার্ষিকী  উপলক্ষে  মুজিববর্ষ  ভিক্টোরিয়ান্স  ক্রিকেট টি-২০ টুর্নামেন্টের  আয়োজন করা হয়েছে। 

 

          আজ কুমিল্লার লালমাইস্থ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে মুজিববর্ষ ভিক্টোরিয়ান্স ক্রিকেট 
টি-২০ টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলার ট্রফি বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

                                                                                               

উল্লেখ্য, গত ২৫ জানুয়ারি এ টুর্নামেন্টের ফাইনালে অংশগ্রহণ করে বরুড়া ও মনোহরগঞ্জ উপজেলা দল। মনোহরগঞ্জ উপজেলা দল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।

           

#

 

গাজী তৌহিদুল/নাইচ/সঞ্জীব/সেলিম/২০২০/১৯০০ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ৭৫৫

 

নতুন উদ্যোক্তাদের প্রতি ব্যাংকগুলোকে আরো মনোযোগী হবার আহ্বান শিল্প প্রতিমন্ত্রীর

 

ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৯ ফেব্রুয়ারি) :

 

নারী উদ্যোক্তা-সহ নতুন উদ্যোক্তাদের প্রতি ব্যাংকগুলোকে আরো মনোযোগী হবার আহ্বান জানিয়েছেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার। তিনি বলেন, সারা দেশে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা সম্ভাবনাময় স্থানীয় শিল্পসমূহের বিকাশে প্রয়োজনীয় ঋণ-সহ আনুষঙ্গিক ব্যাংকিং নিশ্চিত করতে হবে।

 

আজ রাজধানীর খিলগাঁও গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ প্রাঙ্গণে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড আয়োজিত ডিজিটাল ব্যাংকিং মেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। 

 

শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, সামাজিক বৈষম্য হ্রাসে ব্যাংকগুলোর বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। ব্যাংকিং সুবিধাবঞ্চিতদের এই সেবার অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। বিকল্প উপায়ে তাদের কাছে ব্যাংকিং সেবা পৌঁছে দিতে হবে।

 

শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, জনগণ যাতে তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তির সর্বোচ্চ সুবিধা পেতে পারে সে জন্য সরকার কম খরচে ইন্টারনেট সেবা প্রাপ্তি নিশ্চিত করেছে। প্রতিমন্ত্রী এসময় আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্যে সকল ব্যাংকিং কার্যক্রম দ্রুত সম্পন্ন করার আহ্বান জানান।

 

 

#

মাসুম/নাইচ/সঞ্জীব/আব্বাস/২০২০/১৯২৪ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ৭৫৪

 

সকলে মিলে কাজ করলে বাংলাদেশের পরিবেশ হবে বিশ্বের মধ্যে শ্রেষ্ঠ

                                                        ---পরিবেশ ও বন মন্ত্রী

 

ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৯ ফেব্রুয়ারি) :

 

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন বলেছেন, বর্তমান সরকার পরিবেশ দূষণের বিরুদ্ধে 'জিরো টলারেন্স' নীতি বাস্তবায়ন করছে। গত এক বছরে ক্ষতিকর ধোঁয়া নিঃসরণকারী প্রায় ৫ শত অবৈধ ইটভাটা ও কারখানা ধ্বংস করা হয়েছে। ক্ষতিকর ধোঁয়া নিঃসরণকারী যানবাহনের বিরুদ্ধেও আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের লক্ষ্যে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হচ্ছে। তিনি বলেন,  ইটভাটার দূষণ থেকে স্থায়ীভাবে মুক্তির জন্য ইটের বিকল্প ব্লকের ব্যবহার শুরু করা হচ্ছে। সকল কারখানায় বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সিস্টেম বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। সরকারের সাথে সকলে মিলে দূষণ রোধে কাজ করলে আমরা ফিরে পাবো বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ প্রাকৃতিক পরিবেশ সমৃদ্ধ সুজলা, সুফলা, শস্য, শ্যামলা সোনার বাংলাদেশ ।


          মন্ত্রী আজ ধামরাইয়ের আলাদিনস পার্কে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় আয়োজিত বার্ষিক বনভোজন-২০২০ এর পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

          মন্ত্রী বলেন, অন্যতম দূষণকারী পলিথিন ও প্লাস্টিকের বর্জ্য রিসাইক্লিংয়ের কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। মন্ত্রী জানান, পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখতে মুজিববর্ষে দেশের ৪শত ৯২টি উপজেলায় একযোগে শতলক্ষ গাছের চারা রোপণ করা হবে। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, শুধু প্রাকৃতিক পরিবেশ ঠিক করলেই হবে না। মনোজাগতিক দূষণ রোধে সন্তানদের সাহিত্য চর্চা ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করাতে হবে।


#

দীপংকর/নাইচ/সঞ্জীব/আব্বাস/২০২০/১৮৩৮ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                      নম্বর : ৭৫৩

 

শিক্ষার্থীদের চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের অটোমেশন বিষয়ে দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে

                                                                                 ---শিক্ষামন্ত্রী

 

গাবতলী (বগুড়া), ১৬ ফাল্গুন (২৯ ফেব্রুয়ারি) : 

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, বিশ্ব আজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন প্রযুক্তির আবিষ্কার হচ্ছে। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের ফলে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্ট, রোবট শ্রম বাজার দখল করবে। নতুন প্রজন্মকে তাই চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের অটোমেশন বিষয়ে দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে।

মন্ত্রী আজ বগুড়ার গাবতলীতে সৈয়দ আহম্মদ কলেজের শতবর্ষ পূর্তি ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।  

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ আজ এক বিস্ময়ের নাম।  সবচেয়ে বেশি মানুষের ঘনত্বপূর্ণ এ দেশটি কীভাবে এত উন্নতি করতে পারে তাই আজ সারা বিশ্বের কাছে বিস্ময়। বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ।  বাংলাদেশ আজ তৈরি করছে পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, মহাশূন্যে প্রেরণ করেছে স্যাটেলাইট, কর্ণফুলী নদীর নিচ দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে টানেল, নিজস্ব  অর্থায়নে  তৈরি হচ্ছে  পদ্মা সেতু এবং ১১ হাজার  কমিউনিটি ক্লিনিক  স্থাপন করা হয়েছে।

#

খায়ের/নাইচ/সঞ্জীব/আব্বাস/২০২০/১৮০৫ ঘণ্টা

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                               নম্বর : ৭৫২   

 

উন্নত জাতি গঠনে শিক্ষার সাথে দীক্ষা, বিদ্যার সাথে বিনয় প্রয়োজন

    ----তথ্যমন্ত্রী

চট্টগ্রাম, ১৬ ফাল্গুন (২৯ ফেব্রুয়ারি) : 

 

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, 'উন্নত জাতি গঠনে শিক্ষার সাথে দীক্ষা ও বিদ্যার সাথে বিনয় প্রয়োজন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০৪১ সাল নাগাদ বাংলাদেশকে একটি উন্নত রাষ্ট্রে রূপান্তর করতে চান। সেই উন্নত রাষ্ট্র রূপান্তর করতে হলে উন্নত জাতি গঠন করতে হবে।'

মন্ত্রী বলেন, 'আমাদের সন্তানেরা বড় ডাক্তার হবে, সরকারি বড় কর্মকর্তা হবে, কিন্তু গ্রামের দরিদ্র কৃষকের জন্য তার দরজা খোলা রাখে না, তেমন উন্নয়ন আমরা চাই না। আমাদের নতুন প্রজন্ম নিজেদেরকে এমনভাবে গড়ে তুলবে তাদের মধ্যে মেধা, মূল্যবোধ, দেশাত্মবোধ ও মানুষের প্রতি মমত্ববোধ থাকবে।'

আজ চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার মরিয়মনগর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সুবর্ণ জয়ন্তী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

সুবর্ণজয়ন্তী উদ্‌যাপন পরিষদের আহ্বায়ক শওকত হোসেন সেতু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিদ্যালয়টির প্রাক্তন ছাত্র চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) এর ভিসি ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম ও রাঙ্গুনিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাসুদুর রহমান। 

ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, পারিবারিক ও সামাজিক মূল্যবোধে আমরা পাশ্চাত্যের চাইতেও অনেক বেশি ধনী। কিন্তু পাশ্চাত্যের অন্ধ অনুকরণে আমাদের পারিবারিক এবং সামাজিক মূল্যবোধ যেন হারিয়ে না যায়, সেগুলো যেন আরো সমৃদ্ধ হয়। ২০৪১ সাল নাগাদ পাশ্চাত্য যেন দেখে আমরা তাদের মতোই বস্তুগতভাবে উন্নত হয়েছি, একই সাথে তাদের চেয়ে আমাদের নতুন প্রজন্ম দেশাত্মবোধ, মূল্যবোধ ও মমত্ববোধে অনেক বেশি উন্নত। তারা যেন আমাদেরকে অনুকরণ করে, আমরা রাষ্ট্রকে সেই জায়গায় নিয়ে যেতে চাই।

মন্ত্রী বলেন, আমরা তেমন উন্নয়ন চাই না, যেটা পাশ্চাত্যে ঘটেছে। সেখানে দেখা যায়, পাশের বাড়িতে কী হচ্ছে সেটা কেউ দেখে না। পাশের বাড়িতে একাকি ৮৫ বছরের বৃদ্ধ থাকে। হঠাৎ একদিন দেখা গেলো সেই বাড়ি থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। তিনি একাকি মৃত্যুবরণ করেছেন। পাশের বাড়িতে খবর না রাখার কারণে দুর্গন্ধের কারণে তার মৃত্যুর খবর পান। অথচ এতোদিন কেউ খবর রাখেনি। আমরা চাই না আমরা যখন বৃদ্ধ হবো তখন আমাদের সন্তানেরা আমাদের বৃদ্ধাশ্রমে পাঠিয়ে দিক। সে ধরনের উন্নয়ন আমরা চাই না। 

ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, বাংলাদেশ এখন খাদ্য উৎপাদনে উদ্বৃত্তের দেশ। এখন খাদ্যের জন্য মানুষকে হাহাকার করতে হয় না। মানুষের মাঝে হাহাকার এখন মমত্ববোধের জন্য, ভালোবাসার জন্য। যা ধীরে ধীরে লোপ পাচ্ছে। তাই শিক্ষকদের অনুরোধ জানাবো শিক্ষার্থীদের মেধাবিকাশের পাশাপাশি তাদের মধ্যে মমত্ববোধ, দেশাত্মবোধ এবং মূল্যবোধের অনুপ্রবেশ ঘটাতে হবে।  না হয় আমাদের দেশকে স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছে দেওয়া সম্ভব নয়। ২০৪১ সাল নাগাদ শুধুমাত্র বস্তুগত উন্নয়নের মাধ্যমে অবকাঠামোগত দিক দিয়ে উন্নত রাষ্ট্র গঠন করতে চাই না। আমরা চাই একটি উন্নত জাতিও গঠন করতে।

মন্ত্রী বলেন, আমরা যদি আমাদের জীবনের পেছনে ফিরে তাকাই তাহলে আমাদের শ্রদ্ধেয় শিক্ষকদের স্মরণ করতে হয়। তাদের দেয়া শিক্ষা এবং দীক্ষায় জীবন চলার পথে বহু পথ পেরিয়ে আজকের এই অবস্থানে এসেছি। আমাদের উন্নত নতুন প্রজন্ম গঠন করতে হবে। এটি না হলে সঠিক মানুষ গঠন করা সম্ভবপর নয়। 

#

আকরাম/নাইচ/সঞ্জীব/আব্বাস/২০২০/১৭৩৫ ঘণ্টা

 

Handout                                                                                                          Number : 751

 

Foreign Minister inspects the Bangladesh Embassy in Paris

 

Dhaka, 29 February:

 

Foreign Minister Dr. A K Abdul Momen paid a visit to the Bangladesh Embassy in Paris yesterday. During the visit, Dr. Momen inspected the Embassy's consular service facilities and talked to the present service seekers to get firsthand knowledge on the quality of service provided by the Embassy. He was also updated on the Paris Embassy's preparedness for the celebration of the Birth Centenary of the Father of the Nation Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman.

 

Later, he attended a Reception held in his honour by the Jalalabad Association of Paris where two Mayors and a handful of councilors from various French cities were also in attendance to exchange views on various contemporary global issues. The French representatives were fulsome in praising Bangladesh Government for its proactive role to promote climate change related issues and adopting innovative approaches to combat the menace of climate change. 

 

 

#

Tohidul/Nice/Sanjib/Abbas/2020/2110 Hours

 

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ৭৫০

 

শিক্ষা কর্মকর্তার মৃত্যুতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর শোক

                                                                    

ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৯ ফেব্রুয়ারি) : 

 

          নোয়াখালী সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ জসিম উদ্দিন সেখের মৃত্যুতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন  শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। 

 

          আজ এক শোকবার্তায় প্রতিমন্ত্রী বলেন, জসিম উদ্দিন সেখ ছিলেন একজন দক্ষ ও মেধাবী কর্মকর্তা। তাঁর মৃত্যুতে প্রাথমিক শিক্ষা পরিবারের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি হলো। তিনি মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। 

           

#

রবীন্দ্র/রেজ্জাকুল/মাসুম/২০২০/২০৪০ ঘণ্টা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

                                                                      

2020-02-29-22-49-e63295b864d382dab84703a174655e92.docx 2020-02-29-22-49-e63295b864d382dab84703a174655e92.docx

Share with :

Facebook Facebook