তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

তথ্যবিবরণী - 01/09/2019

তথ্যবিবরণী                                                                                                                   নম্বর : ৩৩১৪
 
বর্ণাঢ্য আয়োজনে টাঙ্গাইলে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপের উদ্বোধন
 
টাঙ্গাইল, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন একজন ক্রীড়ামোদী ব্যক্তি ও খেলোয়াড়। ওয়ান্ডার্স ক্লাবের ফুটবল খেলোয়াড় ছিলেন তিনি। তাঁর বড় ছেলে শেখ কামালও আধুনিক ক্রীড়ার উদ্ভাবক। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও পিতার মতো খেলাধুলার ব্যাপারে যথেষ্ট আগ্রহী। টাঙ্গাইলে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতার নামে অনূর্ধ্ব-১৭ গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, টাঙ্গাইলবাসীর আধুনিক স্টেডিয়ামের প্রস্তাব আমি বাস্তবায়ন করার চেষ্টা করবো। 
আজ টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে আয়োজিত ‘খেলাধুলায় বাড়ে বল, মাদক ছেড়ে খেলতে চল’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ড কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট (অনূর্ধ্ব-১৭) ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ড কাপ ফুলবল টুর্নামেন্ট বালিকা (অনূর্ধ্ব-১৭) এর উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনকালে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এ সব কথা বলেন।
প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রতিটি জেলায় একটি করে সুইমিংপুল ও একটি করে জিমনেসিয়ামের চিন্তাও রয়েছে আমাদের। আশা করি, আমরা ক্রীড়ার মাধ্যমে যুবকদের মাদক থেকে সরিয়ে আনতে সক্ষম হবো।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোঃ জাফর উদ্দীন-সহ বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত খেলোয়াড় ও শিক্ষার্থীরা।
আন্তঃইউনিয়ন প্রতিযোগিতা থেকে সেরা খেলোয়াড়দের নিয়ে গঠিত হবে উপজেলা দল। পরবর্তীতে আন্তঃউপজেলা খেলায় সেরা খেলোয়াড় নিয়ে গঠিত হবে জেলা দল। জেলার সেরা খেলায়াড়দের নিয়ে গঠিত হবে বিভাগীয় দল। বিভাগীয় পর্যায়ের খেলা থেকে সেরা ৪০ জন খেলোয়াড় বাছাই করবে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। তাদেরকে উন্নত প্রশিক্ষণের জন্য ইউরোপে প্রেরণ করা হবে।
#
আরিফ/ইসরাত/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/২২৪০ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                                                      নম্বর : ৩৩১৩
 
পিডিবি’র সাথে রিলায়েন্স বাংলাদেশ এলএনজি এন্ড 
পাওয়ার লিমিটেডের বিদ্যুৎ ক্রয় চুক্তি স্বাক্ষর
 
ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :
আজ ঢাকায় বিদ্যুৎ ভবনে ৭১৮ মেগাওয়াট গ্যাসভিত্তিক কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ কেন্দ্র হতে উৎপাদিত বিদ্যুৎ ক্রয় সংক্রান্ত চুক্তি স¦াক্ষরিত হয়। বিদ্যুৎ বিভাগের সাথে বাস্তবায়ন চুক্তি, সঞ্চালন সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে পিজিসিবি’র সাথে এবং গ্যাস সরবরাহ সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের সাথে চুক্তি হয়েছে। 
চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, বীরবিক্রম প্রকল্প সংশ্লিষ্টদের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বিদ্যুৎ উৎপাদনের অনুরোধ করেন।
২২ বছর মেয়াদি এ চুক্তি অনুসারে ৩৬ মাসের ভেতর প্রকল্পটি বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদনে আসবে। আর-এলএনজি’র ক্ষেত্রে প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের মূল্য ৭ দশমিক ৩১২৩ সেন্ট ধরা হয়েছে। চুক্তিতে বিদ্যুৎ বিভাগের পক্ষে যুগ্মসচিব শেখ ফয়েজুল আমিন, পিডিবি’র পক্ষে পিডিবি’র সচিব সাইফুল ইসলাম আজাদ, পিজিসিবি’র পক্ষে কোম্পানির সচিব মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আজাদ, তিতাসের পক্ষে তিতাসের সচিব মাহমুদুর রব এবং রিলায়েন্স বাংলাদেশ এলএনজি এন্ড পাওয়ার লিমিটেডের পক্ষে কোম্পানিটির পরিচালক সমীর কুমার গুপ্ত স্বাক্ষর করেন।
পিডিবি’র চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদের সভাপতিত্বে চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে ভারতের হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলি দাস, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি সংক্রান্ত প্রধান সমন্বয়ক মোঃ আবুল কালাম আজাদ, বিদ্যুৎ বিভাগের সিনিয়র সচিব ড. আহমদ কায়কাউস এবং জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব আবু হেনা মোঃ রাহমাতুল মুনিম বক্তব্য রাখেন।
#
 
আসলাম/নাইচ/মোশারফ/জয়নুল/২০১৯/২১২০ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                                                        নম্বর : ৩৩১২
 
সরকারি শিল্প কলকারখানা যাতে বন্ধ না হয় সেজন্য কাজ করছে সরকার
                                                                                     --- শিল্পমন্ত্রী 
 
কুষ্টিয়া, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :
শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, সরকারি শিল্প কলকারখানা যাতে বন্ধ না হয় সেজন্য সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে। বিদেশিদের ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে সরকার অত্যন্ত আন্তরিক। 
শিল্পমন্ত্রী আজ কুষ্টিয়া জেলায় কুষ্টিয়া সুগার মিলস ও রেনউক অ্যান্ড যজ্ঞেস্বর কোম্পানি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।
কোনো সরকারি শিল্প কারখানা বিক্রি করা হবে না উল্লেখ করে মন্ত্রী শিল্প কারখানার উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শ্রমিকদের প্রতি আহ্বান জানান। 
শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, শিল্প সচিব মোঃ আবদুল হালিম, কুষ্টিয়া সুগার মিলস ও রেনউক অ্যান্ড যজ্ঞেস্বর কোম্পানির কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার বলেন, চিনি শিল্প কারখানাগুলোকে লোকসানি খাত থেকে লাভজনক শিল্পে পরিণত করতে হবে। এজন্য নতুন গবেষণার উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, নতুন উচ্চ ফলনশীল আখ উৎপাদন করে চিনি শিল্পকে লাভজনক করতে হবে। 
এর আগে শিল্পমন্ত্রী ও শিল্প প্রতিমন্ত্রী ২০১৯-২০ আখ রোপণ মৌসুমের উদ্বোধন করেন এবং কুষ্টিয়া সুগার মিলে আখচাষি, কর্মকর্তা-কর্মচারী, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। 
 
#
মাসুম/ইসরাত/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/২১১০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর :৩৩১১

যথাসময়ে কপিরাইট ভবনের নির্মাণ কাজ শেষ করার আহ্বান সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর                     

ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, যথাসময়ে কপিরাইট ভবনের নির্মাণ কাজ শেষ করতে হবে। প্রকল্প বাস্তবায়নে যেন সময় বেশি না লাগে। তিনি আগামী ১৮ মাস তথা ২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা প্রদান করেন।

প্রতিমন্ত্রী আজ রাজধানীর আগারগাঁওয়ে কপিরাইট অফিস আয়োজিত কপিরাইট ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন-সহ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রকল্প সংশ্লিষ্ট গণপূর্ত ও স্থাপত্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও প্রকৌশলীবৃন্দ, ঠিকাদার ও প্রকল্প পরিচালকের প্রতি এ আহ্বান জানান।

কে এম খালিদ বলেন, বিদ্যমান কপিরাইট আইন আধুনিক ও যুগোপযোগী করা হচ্ছে এবং আগামী মাসে আইনটি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হবে। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, নির্মাণাধীন কপিরাইট ভবন একটি আধুনিক ও দৃষ্টিনন্দন স্থাপনায় পরিণত হবে যার মাধ্যমে কপিরাইট অফিসের কার্যক্রম আরো বেগবান ও ত্বরান্বিত হবে।

বাংলাদেশ কপিরাইট অফিসের রেজিস্ট্রার অভ্ কপিরাইটস জাফর রাজা চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোঃ আবু হেনা মোস্তফা কামাল এনডিসি ও গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মোঃ সাহাদত হোসেন।

#

 

ফয়সল/ফারহানা/রফিকুল/আব্বাস/২০১৯/২০৩৫ ঘণ্টাতথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ৩৩১০

বিএনপি’কে জঙ্গিনির্ভর সন্ত্রাস-আশ্রয়ী রাজনীতি পরিহার করার পরামর্শ তথ্যমন্ত্রীর

ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :

বিএনপি’র ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে তাদেরকে জঙ্গি আশ্রয়ী রাজনীতি পরিহার করে জনমুখিতার পরামর্শ দিয়ে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্মুদ বলেছেন, ‘বিরোধীদল হিসেবে গত সাড়ে দশ বছরে বিএনপি যেভাবে জঙ্গিনির্ভর ও সন্ত্রাস আশ্রয়ী রাজনীতি করেছে, সেটি দেশের রাজনীতির জন্য অত্যন্ত দুঃখজনক। গণমানুষের জন্য যারা রাজনীতি করে, কোনোভাবেই তাদের এ ধরনের বিধ্বংসী পথের আশ্রয় নেয়া উচিত নয়। আমি বলবো, বিএনপি যাতে ভবিষ্যতে জঙ্গিনির্ভর ও সন্ত্রাস আশ্রয়ী এবং দোষারোপ করার অপরাজনীতি পরিহার করে মানুষের কাছাকাছি যেতে সুস্থ রাজনীতিতে ফিরে আসে।’

আজ সচিবালয়ে নিজ কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী বলেন, ‘৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বিএনপিকে অভিনন্দন। তবে বিএনপির জন্ম হয়েছে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারী জিয়াউর রহমানের হাতে। জিয়াউর রহমান অস্ত্রের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করে ক্ষমতার উচ্ছিষ্ট বিলিয়ে অন্যদল থেকে দলছুট হয়ে উচ্ছিষ্ট গ্রহণকারী অধিকাংশ নেতাদের নিয়ে দল গঠন করেছেন। এরই নাম বিএনপি।’

মন্ত্রী বলেন, ‘বেগম জিয়ার নেতৃত্বেও বিএনপি দেশকে সুশাসন দিতে পারেনি। দুর্নীতি-দুঃশাসনই শুধু নয়, বিএনপির দশ বছরে দেশ জঙ্গিদের অভয়ারণ্যে পরিণত হয়েছিল। হাওয়া ভবন তৈরি করে সেখানে সমান্তরাল সরকার পরিচালনা করা হচ্ছিল। তাদের নেতৃত্বে দেশ লজ্জাকরভাবে পরপর পাঁচবার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। অগ্রগতির চাকা একই জায়গায় ঘুরপাক খেয়ে পরিণত হয়েছিল ঘূর্ণায়মান চাকায়।’

বিএনপি’কে পেছনে ফিরে তাকানোর অনুরোধ জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি’র আমলে প্রকাশ্য দিবালোকে জনসভায় হামলা চালিয়ে সংসদ সদস্য শাহ এএমএস কিবরিয়া ও আহসানউল্লাহ মাস্টারকে হত্যা করা হয়েছিল। বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে আওয়ামী লীগকে সমাবেশের অনুমতিও দিত না। ২১ আগস্ট সমাবেশের অনুমতি দিয়েছিল মধ্যরাতে। যাতে আমরা মঞ্চ বানাতে না পারি। সে কারণে আমরা ট্রাকের ওপর সমাবেশ করেছিলাম। তারা আমাদের প্রার্থিত মুক্তমঞ্চে না দিয়ে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে এমন জায়গায় আমাদের সমাবেশের অনুমতি দিয়েছিল যাতে ভবন থেকে গ্রেনেড ছোঁড়া যায়।’

বাংলাদেশে আইএস নেই

বাংলাদেশে আইএস নেই, বলেছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহ্মুদ। সাম্প্রতিক ককটেল বিস্ফোরণ সম্পর্কে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে আইএস নেই। গাড়ির চাকা বিকল হলেও বলে আইএস করেছে। আবার ককটেল বিস্ফোরণ হলেও বলে আইএস করেছে। কারা যে এগুলো ছড়ায় আমরা জানি না।’

গাড়িচাপায় পা হারানো কৃষ্ণা রাণী প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘পথচারী কৃষ্ণা রাণীর ওপর গাড়ি তুলে দেওয়া অত্যন্ত মর্মান্তিক। আমি গাড়ির মালিক ও চালকদের সমিতিকে বলবো, প্রশিক্ষিত চালক ছাড়া যাতে কোনো হেলপার গাড়ি না চালান, তা নিশ্চিত করতে। যারা এই দুর্ঘটনাটি ঘটিয়েছে তাদের বিচার হোক, সেটি আমি চাই। ’

#

 

আকরাম/ফারহানা/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/১৯১০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                          নম্বর : ৩৩০৯
 
আইসিটি প্রতিমন্ত্রীর সাথে বিএফডিএস এর প্রতিনিধিদলের সাক্ষাৎ
 
ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলকের সাথে বাংলাদেশ ফ্রিল্যান্সার্স ডেভলপমেন্ট সোসাইটি (বিএফডিএস) এক প্রতিনিধিদল আজ আইসিটি টাওয়ারস্থ তাঁর দপ্তরে সাক্ষাৎ করেন। 
প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশি পণ্য বিশ্বব্যাপী অনলাইন মার্কেটে বিক্রির এবং ফ্রিল্যান্সাররা সফলভাবে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করার বিষয়ে সার্বিক সহায়তার আশ্বাস দেন। অনলাইন ফিল্যান্সারসহ সকলেই যেন সরকার প্রদত্ত সকল সুবিধা গ্রহণ করতে পারে সে ব্যাপারে সকলকে সচেষ্ট থাকার আহ্বান জানান তিনি।
এ সময় বিএফডিএস এর নেতৃবৃন্দ অনলাইন ফ্রিল্যান্সারদের বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনার কথা প্রতিমন্ত্রীকে অবহিত করেন। এ সময় তারা বাংলাদেশের অনলাইন ফ্রিল্যান্সারদের জন্য আইডি কার্ড পদ্ধতি প্রবর্তন, ক্ষুদ্র ফ্রিল্যান্সার টিম ও অন্যান্য ভেঞ্চারটিম আইডি কার্ড ব্যবহারের সহযোগিতা কামনা করেন। বৈঠকে ফ্রিল্যান্সাররা দেশের বিভিন্ন হাইটেক পার্কের বিভিন্ন সুবিধা গ্রহণসহ তরুণরা যেন ফ্রিল্যান্সিং সফলভাবে শুরু করতে পারে সে বিষয়েও বিস্তারিত আলোচনা হয়।
বিএফডিএস এর চেয়ারম্যান ড. তানজিবা রহমান, সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান, প্রাণ আরএফএল গ্রুপ, এপেক্স, ঊর্মি টেক্সটাইল, ব্রাক ব্যাংক ও ইস্টার্ন ব্যাংকের প্রতিনিধিরা অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন।
#
 
শহিদুল/ফারহানা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/১৯২৫ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                                     নম্বর : ৩৩০৮
 
সমগ্র দেশের ভূমি অফিস সিসিটিভির আওতায় আসছে
           --- ভূমিমন্ত্রী
 
ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :
ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন, দুর্নীতিমুক্ত ভূমি সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সমগ্র দেশের ভূমি অফিসগুলোকে সিসিটিভির আওতায় আনা হবে।
আজ ভূমি মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত মাঠ পর্যায়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি)দের অনুকূলে ডাবল কেবিন পিকআপ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে তিনি এ কথা বলেন।
উপস্থিত সহকারী কমিশনার (ভূমি)দের মন্ত্রী বলেন, কেবিন পিকআপ দেওয়ার মূল উদ্দেশ্য যেন তারা তাদের আওতাধীন এলাকার ভূমি অফিসগুলো ঠিকভাবে পর্যবেক্ষণ করতে পারেন ও প্রয়োজনে আকস্মিক পরিদর্শন করতে পারেন। এছাড়া এর সাথে যেন সরকারি অন্যান্য দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করে মাঠ পর্যায়ে একটি গুণগত পরিবর্তন আনতে পারেন। মন্ত্রী এসিল্যান্ডদের সরকারি গাড়ির লগবুক কার্যকরীভাবে লিপিবদ্ধ করার নির্দেশ প্রদান করেন।
মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা-সহ আরো উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রণালয়ের মাঠ প্রশাসন শাখার যুগ্ম সচিব প্রদীপ কুমার দাস, উপসচিব কামরুল ইসলাম চৌধুরী, কেবিন পিকআপ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান প্রগতি ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেডের উপমহাব্যবস্থাপক একেএম আনোয়ার মোর্শেদ ও উপপ্রধান প্রকৌশলী নবারুণ সরকার।
#
 
নাহিয়ান/ফারহানা/মোশারফ/জয়নুল/২০১৯/১৯১০ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                      নম্বর : ৩৩০৭ 
 
টেলিযোগাযোগ বিভাগের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল করার সিদ্ধান্ত 
ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :
 
ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অধীন বিটিসিএল, ডাক অধিদপ্তর ও টেলিফোন শিল্প সংস্থা (টেশিস)-এর ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত ১৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল প্রতিষ্ঠান হিসেবে রূপান্তরের মাধ্যমে ডিজিটার পদ্ধতিতে পাঠদান কার্যক্রমের যাত্রা শুরু হচ্ছে। 
ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সভাপতিত্বে এই বিভাগের ব্যবস্থাপনাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের পরিচালনা পর্ষদ ও সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের সাথে সম্প্রতি ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে রূপান্তরের এই সিদ্ধান্ত হয়।
মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ডিজিটাল বিপ্লবের দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ ডিজিটাল মহাসড়ক নির্মাণ-সহ ডিজিটাল অবকাঠামো নির্মাণ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান হিসেবে এই বিভাগের অধীন প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ডিজিটালাইজড করা এই বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ একটি দায়িত্ব। ডিজিটালাইজেশনের অংশ হিসেবে এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে ডিজিটাল হাজিরা ও ফলাফল-সহ প্রতিষ্ঠানে ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সকল কার্যক্রম ডিজিটালাইজড করা হবে বলে মন্ত্রী  জানান।  
বৈঠকে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব অশোক কুমার বিশ^াস, বিটিসিএল ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইকবাল মাহমুদ, ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এসএস ভদ্র, টেশিস ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফকরুল ইসলাম এবং বিজয় ডিজিটালের সিইও জেসমিন জুঁই উপস্থিত ছিলেন।
#
 
শেফায়েত/ফারহানা/সঞ্জীব/আব্বাস/২০১৯/১৯১৫ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ৩৩০৬

 

প্রধান বিচারপতির ছুটিকালীন বিচারপতি মনোনীত

 

ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :

         

          বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন ১ সেপ্টেম্বর থেকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত সাপ্তাহিক ছুটি ও বাংলাদেশ সরকারের ঘোষিত ছুটি-সহ কোর্টের অবকাশকালে বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট, আপীল বিভাগের মামলা সংক্রান্ত জরুরি বিষয়াদি নিষ্পত্তির জন্য Vacation Judge  হিসেবে ১ সেপ্টেম্বর  থেকে ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীকে এবং ২১ সেপ্টেম্বর থেকে ১০ অক্টোবর ২০১৯ পর্যন্ত বিচারপতি মোঃ নূরুজ্জামানকে মনোনীত করেছেন।

 

          বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ২, ৯, ও ১৯ সেপ্টেম্বর এবং বিচারপতি মোঃ নূরুজ্জামান আগামী ২৩ ও ৩০ সেপ্টেম্বর  এবং ৬ অক্টোবর সকাল ১১ টা থেকে চেম্বার কোর্টে শুনানি গ্রহণ করবেন।

 

          সুপ্রীম কোর্টের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।  

 

#

 

বদরুল/ফারহানা/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/১৯০৬ ঘণ্টাতথ্যবিবরণী                                                                                        নম্বর : ৩৩০৫ 

আগামীকাল থেকে ভারতে বিটিভির সম্প্রচার শুরু

ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :

আগামীকাল থেকে ভারতে বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি)-এর সম্প্রচার শুরু হচ্ছে। তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ এই সম্প্রচার কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। ভারতের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন দুরদর্শনের ডিটিএইচ প্ল্যাটফরম - ডি ডি ফ্রি ডিশ এর মাধ্যমে বিটিভির এই সম্প্রচার চলবে।

এ উপলক্ষে আগামীকাল বিকাল ৩ টায় রাজধানীর রামপুরায় বিটিভি মিলনায়তনে উদ্বোধন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ মুরাদ হাসান এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলি দাস অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। তথ্যসচিব আবদুল মালেক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন।

অনুষ্ঠানটি বাংলাদেশ টেলিভিশন সরাসরি সম্প্রচার করবে।   

#

অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/আসমা/২০১৯/১৬২০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩৩০৪ 

নদী বন্দরসমূহে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত

ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :

ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারিপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার অঞ্চলসমূহের উপর দিয়ে দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্বদিক থেকে ঘন্টায় ৪৫-৬০ কি.মি. বেগে বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দর সমূহকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। সমুদ্র বন্দরসমূহের জন্য কোন সতর্কবার্তা নেই।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স কো-অর্ডিনেশন সেন্টারের দুপুর ২টার প্রতিবেদন অনুযায়ী আজ এ তথ্য পাওয়া গেছে।  

আজ সকাল ৯টা থেকে ২৪ ঘণ্টার পূর্ভাবাস অনুযায়ী খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

সব নদ-নদীর পানি বিপদসীমার নিচে রয়েছে।    

#

কাদের/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/নাছির/রবি/আসমা/২০১৯/১৫৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩৩০৩

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিববর্ষ উদ্‌যাপন উপলক্ষে পোস্টার ডিজাইন আহ্বান

ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিববর্ষ (১৭ মার্চ ২০২০ থেকে ১৭ মার্চ ২০২১) উদ্‌যাপন উপলক্ষে বর্ণিল পোস্টার ডিজাইন আহ্বান করা হয়েছে। ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখের মধ্যে  ডিজাইন পাঠানোর জন্য দেশে ও দেশের বাইরে বসবাসরত আগ্রহী বাংলাদেশি নাগরিকদের প্রতি অনুরোধ করেছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্‌যাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির মিডিয়া, প্রচার ও ডকুমেন্টেশন উপকমিটি। 

পোস্টারের আকার হতে হবে 20© ©x30© ©/23© ©x36© © । পোস্টারে আকর্ষণীয় স্লোগান তৈরি করে দেয়া যেতে পারে অথবা স্লোগান স্থাপনের জায়গা রেখে ডিজাইন করা যেতে পারে। পোস্টারের ডিজাইনে মুজিব বর্ষের লোগোর জন্য জায়গা নির্দিষ্ট করে রাখতে হবে। পোস্টারে ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী’ উদ্‌যাপন এবং ‘মুজিববর্ষ [১৭ মার্চ ২০২০ থেকে ১৭ মার্চ ২০২১] কথাগুলো থাকতে হবে। 

ডিজাইন Illustrator-6/EPS Outline Al File- এ প্রস্তুত করে পাঠাতে হবে। নির্বাচিত সেরা ৫টি ডিজাইনের জন্য পুরস্কৃত করা হবে। 

ই-মেইলে ডিজাইন পাঠানোর ঠিকানা mujib100posters@gmail.com। ডাকযোগে অথবা সরাসরি হার্ডকপি, সিডি, পেনড্রাইভে ডিজাইন পাঠানোর ঠিকানা : মহাপরিচালক, চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর, ১১২ সার্কিট হাউস রোড, ঢাকা-১০০০। অমনোনীত ডিজাইন ফেরত দেওয়া হবে না।

যেকোন তথ্যের জন্য চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তরের ৮৩৩১০৩৪ নম্বরে ফোন করার জন্য অনুরোধ করা হলো। 

#

ডিএফপি/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/আসমা/২০১৯/১৫২০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩৩০২

দেশের ডেঙ্গু পরিস্থিতি

ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী গত জানুয়ারি থেকে আজ পর্যন্ত হাসপাতালগুলোতে সর্বমোট ডেঙ্গু আক্রান্ত ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৭১ হাজার ৯৭ জন। তার মধ্যে চিকিৎসা শেষে ছাড়পত্র নিয়ে চলে গেছেন ৬৬ হাজার ৬৫৮ জন। এ যাবত ৫৭ জনের মৃত্যু ডেঙ্গুজনিত বলে নিশ্চিত করা হয়েছে।        

বর্তমানে সারা দেশের হাসপাতালগুলোতে ভর্তিকৃত ডেঙ্গুরোগী আছেন ৪ হাজার ২৫৪ জন, যার মধ্যে ঢাকার ৪১টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ২ হাজার ৩৪০ জন।  

গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে নতুন ৯০২ জন ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন, যার মধ্যে ঢাকা শহরে ৪০৫ জন।

#

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/জসীম/আসমা/২০১৯/১৩৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                       নম্বর : ৩৩০১

মোটরযান আইন নিয়ে গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান

ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘নতুন মোটরযান আইন (সংশোধনী) ২০১৯’ এবং এর আওতায় বিভিন্ন অপরাধের শাস্তির বিধান উল্লেখ করে একটি স্বার্থান্বেষী মহল অপপ্রচার ও গুজব প্রচার করছে।

প্রকৃতপক্ষে সড়ক পরিবহন সেক্টরে ‘নতুন মোটরযান আইন (সংশোধনী) ২০১৯’ নামে কোন আইন বাংলাদেশে নেই।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে জাতীয় সংসদে পাশ হওয়া সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ কার্যকর করতে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ অংশীজনদের সাথে আলোচনা করে বিধিমালা প্রণয়নের কাজ করছে।

‘নতুন মোটরযান আইন (সংশোধনী) ২০১৯’ এবং অপরাধের শাস্তির বিধান বিষয়ক তথ্য সম্পূর্ণ অপপ্রচার ও গুজব। এ অপপ্রচার ও গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

#

নাছের/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/জসীম/আসমা/২০১৯/১৩৩০ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                                       নম্বর: ৩৩০০

সরকারি চুক্তিতে বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য উপযুক্ত ধারা যুক্ত করা হবে

                                                    - আইনমন্ত্রী

ঢাকা, ১৭ ভাদ্র (১ সেপ্টেম্বর) :

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বিতর্কের তাৎক্ষণিক সমাধান সকল ব্যবসা, বিনিয়োগ, বাণিজ্য এবং শিল্পে সাফল্যের মূল চাবিকাঠি। টেকসই আর্থিক খাতের জন্য আদালতে যাওয়ার আগে বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তি পদ্ধতির প্রয়োগ এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। তাই সরকার সকল সরকারি চুক্তিতে এডিআর বা সালিশ ও মধ্যস্থতার মাধ্যমে বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য উপযুক্ত ধারা যুক্ত করার নীতিগত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।      

৩১ আগস্ট রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল আরবিট্রেশন সেন্টার (বিয়াক) আয়োজিত ‘টেকসই আর্থিক খাতের জন্য আর্থিক বিবাদসমূহ সমাধান কল্পে কার্যকর বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তি প্রক্রিয়া’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বিশ্বব্যাপী ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানগুলো এখন মামলা মোকদ্দমার দীর্ঘসূত্রিতায় না জড়িয়ে বিরোধ নিষ্পত্তি করার জন্য দ্রুত এবং কার্যকর সমাধানের সুবিধার্থে এডিআর পদ্ধতিকে বেছে নিচ্ছে। বাংলাদেশেও বিরোধ নিষ্পত্তিতে সীমিত আকারে এডিআর পদ্ধতি বেশ কিছুদিন ধরে প্রয়োগ করা হচ্ছে বলে মন্ত্রী জানান। এটিকে আইনি কাঠামোয় আনতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক সালিশ, বিদেশি সালিশি রোয়েদাদ স্বীকৃতি ও বাস্তবায়ন এবং অন্যান্য সালিশ সম্পর্কিত বিধান প্রণয়নকল্পে বাংলাদেশে ২০০১ সালে সালিশি আইন প্রণয়ন করে যা বাংলাদেশকে আধুনিক সালিশ বা আরবিট্রেশনের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে এসেছে।   

আইনমন্ত্রী আরো বলেন, সরকার সালিশি আইন, ২০০১ প্রণয়ন ছাড়াও গত কয়েক বছরে অর্থঋণ আদালত আইন, দেওয়ানি কার্যবিধিসহ কিছু আইনে এডিআর এর বিধান যুক্ত করেছে। বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন আইন এবং রিয়েল এস্টেট ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাক্টেও সালিশের বিধান যুক্ত করেছে। শুল্ক, ভ্যাট, আয়কর ও শ্রম আইন মামলার সমাধানের জন্যও এডিআর চালু করা হয়েছে। 

বিয়াক এর চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনসী, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হক, থাইল্যান্ড আরবিট্রেশন সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পাসিত আসওয়াওয়াত্তাপরন, বিশ্বব্যাংকের কর্মকর্তা পারমিতা দাসগুপ্তা, লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সাইমন আস্কি প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

#

রেজাউল/অনসূয়া/নাছির/রেজ্জাকুল/আসমা/২০১৯/১০৩০ ঘণ্টা    

Todays handout (13) (1).docx Todays handout (13) (1).docx

Share with :

Facebook Facebook