তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

তথ্যবিবরণী - 09.09.2019

তথ্যববিরণী                                                      নম্বর : ৩৪৪০ 
সুপেয় পানি শতভাগ নিশ্চিত করতে পরিকল্পনা মন্ত্রীর আহ্বান

ঢাকা, ২৫ ভাদ্র (৯ সপ্টেম্বের) : 
সুপেয় পানি শতভাগ নিশ্চিত করতে সরকারি-বেসরকারি খাতকে যৌথভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান ।

মন্ত্রী আজ ঢাকার স্থানীয় এক হোটেলে ওয়াটার.ওআরজি (ডধঃবৎ.ড়ৎম) এর আয়োজনে ‘অ্যাডপ্টিং ওয়াটার ক্রেডিট: মবিলাইজিং ক্যাপিটাল ফর এসডিজি ৬’ শীর্ষক দিনব্যাপী কর্মশালার সমাপনী অধিবেশনে এ আহ্বান জানান।

মন্ত্রী বলেন, এই মুহূর্তে বাংলাদেশ একটি বিশাল পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। দেশের প্রবৃদ্ধির হার অত্যন্ত দ্রুত গতিতে বাড়ছে। ফলে কিছু বৈষম্যের বিষয়ও আসছে। সেই বৈষম্যের একটি বড় দিক হল পানি ও পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা। এসব বৈষম্য নিরসনে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি খাতের সাহায্য সহযোগিতা প্রয়োজন।

কর্মশালায় আরো বক্তব্য দেন ওহংঃরঃঁঃব ভড়ৎ ওহপষঁংরাব ঋরহধহপব ধহফ উবাবষড়ঢ়সবহঃ (ওহগ) এর নির্বাহী পরিচালক ড. মুস্তাফা কে. মুজেরী, ওয়াটার.ওআরজি'র নির্বাহী পরিচালক সাজিদ অমিত, ওয়াটার এইডের দক্ষিণ এশিয়ার পরিচালক খাইরুল ইসলাম প্রমুখ।

#
শাহেদ/মাহমুদ/রফিকুল/আব্বাস/২০১৯/২০৫৭ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                                   নম্বর : ৩৪৩৯

বিএমডব্লিউ ও মার্সিডিজ বেঞ্জ গাড়ি বাংলাদেশে তৈরির প্রস্তাব

জিএসপি সুবিধা বহাল রাখতে সহায়তা করবে জার্মানি

          ---অর্থমন্ত্রী

ঢাকা, ২৫ ভাদ্র (৯ সেপ্টেম্বর) : 

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, জার্মানি বিএমডব্লিউ ও মার্সিডিজ বেঞ্জ গাড়ি বাংলাদেশে তৈরির প্রস্তাব দিয়েছে । যেভাবে জার্মানি থাইল্যান্ডে প্রগতিশীল উৎপাদন ব্যবস্থার মাধ্যমে অ্যাসেম্বল করে, সেভাবেই এখানেও করবে। অর্থাৎ তারা বিএমডব্লিউ ও মার্সিডিজ বেঞ্জের কিছু পার্টস এখানেই তৈরি করবে এবং কিছু পার্টস বিদেশ থেকে নিয়ে আসবে। এছাড়া জিএসপি সুবিধা যেন বাতিল না হয়ে যায় সেক্ষেত্রে সহায়তা করবে জার্মানি ।

 ব্যবসা-বাণিজ্যের সম্ভাবনা খতিয়ে দেখতে ঢাকা সফররত জার্মানির উচ্চ পর্যায়ের একটি ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদল বাংলাদেশে নিযুক্ত জার্মানির রাষ্ট্রদূত পিটার ফারেনহোল্টজের নেতৃত্বে আজ রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে অর্থমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেন। সভা শেষে  অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের উদ্দেশে এসব কথা বলেন। 

অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, জার্মানির সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক সুপ্রাচীন, অনেক আগে থেকেই তারা এদেশে বিনিয়োগ করে আসছে। এই মুহূর্তে তারা সরকারকে প্রস্তাব দিচ্ছেন যে, তারা বড় আকারে এদেশের পাট শিল্পকে ব্যবহার করতে চায়। উল্লেখ্য, জার্মানির যত গাড়ি আছে, প্রায় সব গাড়ির ভেতরে পাটের ব্যবহার হয়ে থাকে। 

এসোসিয়েশন অভ্ জার্মান চেম্বার্স অভ্ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিকে সঙ্গে নিয়ে জার্মান এশিয়া-প্যাসিফিক বিজনেস এসোসিয়েশনের জার্মান ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদল এ সফরের আয়োজন করেছে। এই দলে বস্ত্র, আসবাবপত্র, জাহাজ থেকে শুরু করে পরিবেশ-প্রযুক্তি, ব্যাংকিং ও পর্যটন খাতের প্রতিনিধিরা রয়েছেন। 

#

তৌহিদুল/মাহ্‌মুদ/ফারহানা/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/২০২৭ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                     নম্বর : ৩৪৩৮
 
‘বঙ্গবন্ধু নদীপদক’ নদী রক্ষা কার্যক্রমকে গতিশীল করবে
        --- নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী
 
ঢাকা, ২৫ ভাদ্র (৯ সেপ্টেম্বর) :
নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্মুদ চৌধুরী বলেছেন, নদী রক্ষায় বর্তমান সরকার নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সরকার নদী রক্ষায় দেশের মানুষের মধ্যে জাগরণ সৃষ্টি করেছে। তিনি বলেন, প্রথমবারের মতো ‘বঙ্গবন্ধু নদীপদক’ প্রদান নদী রক্ষা কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করবে।
প্রতিমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধু নদীপদক প্রদান জাতীয় মনোনয়ন কমিটির উপদেষ্টা আজ নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বঙ্গবন্ধু নদীপদক প্রদানের জন্য জাতীয় মনোনয়ন কমিটির এক সভায় এসব কথা বলেন। নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ আবদুস সামাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে মনোনয়ন কমিটির সদস্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় জানানো হয়, বঙ্গবন্ধু নদীপদক প্রদানের জন্য জাতীয় পর্যায়ে আটটি এবং বিভাগীয় পর্যায়ে ১৫টি আবেদনপত্র পাওয়া গেছে। এগুলোর মধ্য থেকে জাতীয় পর্যায়ে তিনটি এবং বিভাগীয় পর্যায়ে আটটি পদক প্রদান করা হবে। উপযুক্ত প্রার্থী পাওয়া না গেলে পদকের সংখ্যা কম হতে পারে। প্রাপ্ত আবেদনপত্র থেকে যোগ্য প্রার্থীর কার্যক্রম যাচাইয়ের জন্য নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় থেকে দু’জন করে কর্মকর্তা সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো পরিদর্শন করবেন। তারা তিন কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন পেশ করবেন।
নদী রক্ষায় ‘বঙ্গবন্ধু নদীপদক’ জাতীয় পর্যায়ে ব্যক্তি/ প্রতিষ্ঠান, সরকারি, বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত সংস্থাকে বিশেষ অবদানের জন্য আঠারো ক্যারেট মানের ৫০ গ্রাম ওজনের একটি স্বর্ণপদক, নগদ ৭৫ হাজার টাকা ও সার্টিফিকেট এবং বিভাগীয় পর্যায়ে ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠান, সরকারি, বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত সংস্থাকে বিশেষ অবদানের জন্য আঠারো ক্যারেট মানের ৩০ গ্রাম ওজনের একটি স্বর্ণপদক, নগদ ৫০ হাজার টাকা ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হবে। বিভাগীয় পর্যায়ে একটি করে মোট আটটি এবং জাতীয় পর্যায়ে তিনটি পদক প্রদান করা হবে। 
#
জাহাঙ্গীর/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/২০৫০ঘণ্টা

তথ্যববিরণী                                                                                                           নম্বর : ৩৪৩৭

বাজার তদারকি

৮৮ প্রতিষ্ঠানকে ৭ লাখ ৩২ হাজার টাকা জরিমানা

ঢাকা, ২৫ ভাদ্র (৯ সপ্টেম্বের) : 

            জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়, বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়ের ৩৪ জন কর্মকর্তার নেতৃত্বে ঢাকা মহানগর, চট্টগ্রাম মহানগর, মাদারীপুর, ময়মনসিংহ, মানিকগঞ্জ, নরসিংদী, গাজীপুর, টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, নেত্রকোণা, ফরিদপুর, ফেনী, কক্সবাজার, নোয়াখালী, খুলনা, বাগেরহাট, চুয়াডাঙ্গা, রংপুর, পঞ্চগড়, দিনাজপুর, কুড়িগ্রাম, রাজশাহী, জয়পুরহাট, সিলেট, হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজারে বাজার তদারকি কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। তদারকিকালে ৮৮টি প্রতিষ্ঠানকে ৭ লাখ ৩২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

            ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয় এবং ঢাকা জেলা কার্যালয়ের নেতৃত্বে সিদ্ধিরগঞ্জ, বিমানবন্দর ও শাহবাগ এলাকায় বাজার তদারকি কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। বাজার তদারকিকালে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বা ঔষধ বিক্রির অপরাধে সাথী এন্টারপ্রাইজকে ৫০ হাজার টাকা, মূল্যের তালিকা প্রদর্শন না করার অপরাধে টাঙ্গাইল মিষ্টি ঘরকে ৫ হাজার টাকা, টাঙ্গাইল পুষ্টি ঘরকে ৫ হাজার টাকা, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যপণ্য তৈরির অপরাধে মদিনা হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টকে ৫ হাজার টাকা, ওয়ান্ডার ইন রেস্টুরেন্টকে ২০ হাজার টাকা ও মক্কা হোটেলকে ৫ হাজার টাকা, পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকার অপরাধে ওয়ান্ডার ইন কনফেকশনারিকে ২ হাজার টাকা, মুসলিম সুইটসকে ৩০ হাজার টাকা ও ভিশন ফার্মাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।

            প্রধান কার্যালয় কর্তৃক বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মোবাইল টিমের সাথে ঢাকা মহানগরীর হাতিরপুল এলাকায় পণ্যের মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করার অপরাধে ভাই ভাই স্টোরকে ২  হাজার টাকা, মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য বিক্রির অপরাধে জাকির স্টোরকে ৫ হাজার টাকা, পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকার অপরাধে লোকনাথ স্টোরকে ৩ হাজার টাকা ও বিক্রমপুর মিষ্টান্ন ভান্ডারকে ২০ হাজার টাকা, এছাড়া দেশব্যাপী ২৯টি বাজার তদারকি কার্যক্রমের মাধ্যমে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য পণ্য তৈরি, পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকা, মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য বা ঔষধ বিক্রয়, খাদ্য পণ্যে নিষিদ্ধ দ্রব্যের মিশ্রণ, প্রতিশ্রুত পণ্য বা সেবা যথাযথভাবে বিক্রয় বা সরবরাহ না করা, ভেজাল পণ্য বা ঔষধ বিক্রয়, বাটখারা বা ওজন পরিমাপক যন্ত্রের কারচুপি, ধার্যকৃত মূল্যের অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রয়, সেবা গ্রহীতার জীবন বা নিরাপত্তা বিপন্নকারী কার্যকলাপ, সেবা প্রদানে অবহেলা ইত্যাদি দ্বারা সেবাগ্রহীতার অর্থ, স্বাস্থ্য, জীবনহানি ইত্যাদি ঘটানো এবং পণ্যের মূল্যের তালিকা প্রদর্শন না করার অপরাধে ৬৮টি প্রতিষ্ঠানকে ৩ লাখ ৭২ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।

            অন্যদিকে লিখিত অভিযোগ নিষ্পত্তির মাধ্যমে ধার্যকৃত মূল্যের অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রি, প্রতিশ্রুত পণ্য বা সেবা যথাযথভাবে বিক্রয় বা সরবরাহ না করার অপরাধে ৭টি প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ ৫৭ হাজার ৫ শত টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় এবং আইনানুযায়ী ৭ জন অভিযোগকারীকে জরিমানার ২৫ শতাংশ হিসেবে ৩৯ হাজার ৩৭৫ টাকা প্রদান করা হয়।

            সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, আর্মড পুলিশ ব্যাটলিয়ন, সিভিল সার্জন, মৎস্য কর্মকর্তা, পরিবেশ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্যানিটারি ইন্সপেক্টর, শিল্প ও বণিক সমিতির প্রতিনিধি এবং ক্যাবের সদস্যগণ এসব তদারকি কার্যক্রমে সহায়তা প্রদান করেন।

#

ফাহমিনা/ফারহানা/রফিকুল/আব্বাস/২০১৯/১৯৪০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                           নম্বর : ৩৪৩৬
 
বিএনবিসি’র চূড়ান্ত সংস্করণ গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রীর নিকট হস্তান্তর
 
ঢাকা, ২৫ ভাদ্র (৯ সেপ্টেম্বর) :
গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমের নিকট আজ তাঁর দপ্তরে বাংলাদেশ ন্যাশনাল বিল্ডিং কোড (বিএনবিসি) ২০১৭ এর চূড়ান্ত সংস্করণ গেজেট আকারে প্রকাশের জন্য হস্তান্তর করেছে বিএনবিসি প্রণয়নের জন্য গঠিত স্টিয়ারিং কমিটির সদস্যগণ।
হস্তান্তরকালে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ শহীদ উল্লা খন্দকার, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ আখতার হোসেন, রাজউকের চেয়ারম্যান ড. সুলতান আহমেদ, গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মোঃ সাহাদাত হোসেন এবং হাউজিং এন্ড বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক মোহাম্মদ শামীম আখতার উপস্থিত ছিলেন।
বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যুরো অভ্ রিসার্চ টেস্টিং এন্ড কনসালটেশন (বিআরটিসি) এর সহযোগিতায় হাউজিং এন্ড বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউট বিএনবিসি ২০১৭ এর চূড়ান্ত সংস্করণ তৈরি করেছে। এই বিল্ডিং কোড প্রণয়নের জন্য গঠিত স্টিয়ারিং কমিটির আহ্বায়ক ছিলেন স্থাপত্য অধিদপ্তরের প্রধান স্থপতি কাজী গোলাম নাসির এবং সদস্য সচিব ছিলেন হাউজিং এন্ড বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক মোহাম্মদ শামীম আখতার।
তিনটি ভলিউমের বিএনবিসি ২০১৭ এর চূড়ান্ত সংস্করণ ২০১৯ সালে গেজেট আকারে প্রকাশ হতে যাচ্ছে এবং গেজেট প্রকাশের পর এটি অনতিবিলম্বে কার্যকর হবে। বাংলাদেশে সকল ভবন নির্মাণের ক্ষেত্রে এটি মেনে চলা আইনগতভাবে বাধ্যতামূলক হবে।
#
 
ইফতেখার/মাহমুদ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/১৯৩০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                   নম্বর : ৩৪৩৫

‘মির্জা’ নয় ‘মিথ্যা ফখরুল’ বলছেন তাকে অনেকে

           ---ড. হাছান মাহ্‌মুদ

ঢাকা, ২৫ ভাদ্র (৯ সেপ্টেম্বর) : 

‘মির্জা’ নয় ‘মিথ্যা ফখরুল’ বলছেন তাকে অনেকে, ক্রমাগত মিথ্যাচারই এর কারণ, বিএনপি মহাসচিবের বিষয়ে এ কথাই বললেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। 

 

আজ বিকালে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে মিডিয়া, প্রচার ও ডকুমেন্টেশন উপকমিটির চতুর্থ সভা শেষে সংসদে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যকে ‘অসত্য’ বলে বিএনপি মহাসচিবের মন্তব্য নিয়ে সাংবাদিকদের  প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন। 

 

ড. হাছান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে মির্জা ফখরুলের এ ধরনের মন্তব্য রাজনৈতিক শিষ্টাচার বহির্ভূত’। ‘বিএনপির রাজনীতিই মিথ্যার ওপরে প্রতিষ্ঠিত’ উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘বেগম জিয়া এরশাদ সাহেবের কাছ থেকে দু’টি বাড়ি ও দশ লাখ টাকা নিয়েছেন। অপ্রিয় এ সত্য সংসদে উঠে আসায় মির্জা ফখরুল এই মিথ্যাচার করেছেন, যা কোনোভাবেই কাম্য নয়।’ 

                  

রংপুর উপনির্বাচনে বিএনপির পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর খুনি সম্পৃক্ত ব্যক্তিকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জিয়াউর রহমান শুধু বঙ্গবন্ধুর খুনিদের আশ্রয়-প্রশ্রয়ই দেননি, রক্ষার কাজও করেছেন, ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারি করে খুনিদের বিচারের পথ বন্ধ করেছেন। আর বেগম জিয়া আরো একধাপ এগিয়ে খুনি-রাজাকারদের মন্ত্রিসভায় স্থান দিয়ে তাদের গাড়িতে দেশের পতাকা তুলে দিয়েছেন। বিএনপির রাজনীতির প্রতিষ্ঠা তাই খুনের ওপরও। 

 

 বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা নিয়ে বিএনপির অভিযোগ খণ্ডন করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সরকার খালেদা জিয়ার সর্বোচ্চ চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য সুবিধা নিশ্চিত করেছে। তারপরও বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে বিএনপি যেভাবে অপরাজনীতি করছে, তাতে বেগম জিয়াকে খাটো করা হচ্ছে। বেগম জিয়ার হাঁটু ও কোমরের পুরনো ব্যথা নিয়ে রাজনীতি বিএনপি এবং বেগম জিয়া উভয়ের জন্যই লজ্জাকর। অন্য কোনো ইস্যু না পেয়ে তারা বেগম জিয়ার হাঁটু ও কোমরের পুরনো ব্যথাকেই ইস্যু করার চেষ্টা করছে।’

 

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্মেলন

 

এদিকে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে মিডিয়া, প্রচার ও ডকুমেন্টেশন উপকমিটির সভায় মন্ত্রী বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু বিশ্বের সকল শোষিতের পক্ষে ছিলেন। তাঁর শোষণহীন বিশ্ব গড়ে তোলার স্বপ্নকে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে বাংলাদেশ ও বিশ্বের প্রধান আটটি শহরে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্মেলন আয়োজন করা হবে।’ 

 

উপকমিটির সদস্য-সচিব হিসেবে তথ্যসচিব আবদুল মালেক বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ, বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে  নানা রকমের অনুষ্ঠান নির্মাণ, কফি টেবিল বুক, পকেট বুক ইত্যাদি প্রচার সামগ্রী তৈরির পরিকল্পনা পেশ করেন। 

 

বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক, তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ মুরাদ হাসান এবং উপস্থিত সদস্যগণ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসেবে বঙ্গবন্ধুর প্রতি জনগণের ভালোবাসা প্রকাশে এই উদ্যোগগুলো সহায়ক হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। 

#

আকরাম/মাহ্‌মুদ/মোশারফ/আব্বাস/২০১৯/১৪২২ ঘণ্টা

Handout                                                                                                                   Number : 3434

Bangladesh Participates at the 84th Thessaloniki International Fair

Dhaka, 25 Bhadra (9 September) :

            Bangladesh Embassy in Athens is participating at the 84th Thessaloniki International Fair 2019 being held in the northern port city of Thessaloniki, Greece, which is also the second largest city after capital Athens. This year Bangladesh’s theme is ÔBangladesh, a dream destination for Trade & InvestmentÕ.

            In the evening of 7 September, Greek Prime Minister Kyriakos Mitsotakis inaugurated the Fair. This year India is the ÔHonour CountryÕ having an opportunity to showcase its products and services at the Fair. Thessaloniki international Fair is the biggest international Trade Fair in Greece and in the entire Balkan region which became an annual hub for consumers, manufacturers, investors, traders, retailers of this region and attracting business communities from across the globe because of its centrality in the greater region. Last year it received a staggering 2,84,000 visitors and this year's Fair is expected to draw more than 3,00,000 visitors.

            Bangladesh Embassy has been participating in the Fair for the last three years to take advantage of the huge presence of businessmen and investors to draw their attention of the trade and investment potentials of Bangladesh in line with the government's policy of economic diplomacy. The Bangladesh stall is functioning as a promotional and information booth with the aim to enhance trade and investment with Greece and its neighbouring countries. This year for the first time Bangladeshi business community representing the jute sector is participating in the fair displaying jute and jute goods for the consumers and traders of Greece and the greater Balkan region. Three traders from Bangladesh are participating in the fair and they have already started attracting a wide range of visitors including consumers, traders and retailers. Greece and surrounding Mediterranean region import a large amount of jute goods mainly gunny sacks and eco-friendly items every year and Bangladesh jute traders are aiming to increase contacts and interactions with them using the TIF platform.

            Bangladesh Embassy and the participating businessmen from Bangladesh are utilizing the Fair to make contacts with the potential businessmen and investors. A number of business to business meetings have also been scheduled. The fair will continue until 15 September.

#

Khadiza/Mahmud/Mosharaf/Joynul/2019/1815hours

তথ্যবিবরণী                                                                                                         নম্বর : ৩৪৩৩
 
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপনে আন্তর্জাতিক সম্মেলন হবে 
             --- তথ্যমন্ত্রী
ঢাকা, ২৫ ভাদ্র (৯ সেপ্টেম্বর) : 
তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্মুদ বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর শোষণহীন বিশ^ গড়ে তোলার স্বপ্নকে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে বিশে^র প্রধান আট শহরে আয়োজন করা হবে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্মেলন। দেশের ভেতরেও এ রকম সম্মেলনের আয়োজন করা হবে। এতে বঙ্গবন্ধু সম্বন্ধে দেশে ও দেশের বাইরে আরো ভালোভাবে জানার সুযোগ সৃষ্টি হবে। 
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি’র কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মিডিয়া, প্রচার ও ডকুমেন্টেশন উপকমিটির ৪র্থ সভায় সভাপতির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী আজ এসব কথা বলেন। 
উপকমিটির সদস্য-সচিব তথ্যসচিব আবদুল মালেক বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চলচ্চিত্র ও বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে নানা রকমের অনুষ্ঠান নির্মাণ, কফি টেবিল বুক, পকেট বুক ইত্যাদি প্রচার সামগ্রী তৈরির পরিকল্পনা পেশ করেন। 
বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক, তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ মুরাদ হাসান এবং সভায় উপস্থিত সদস্যগণ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপনের অংশ হিসেবে বঙ্গবন্ধুর প্রতি জনগণের ভালোবাসা প্রকাশে এই উদ্যোগগুলো সহায়ক হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। 
এই সভায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও তথ্য মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ-সহ আরো উপস্থিত ছিলেন পিআইবি’র চেয়ারম্যান আবেদ খান, বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সিইও মাশুরা হোসেন, বিটিভি’র মহাপরিচালক এস এম হারুন-অর-রশীদ, বাংলাদেশ বেতারের মহাপসরিচালক নারায়ণ চন্দ্র শীল, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বহিঃপ্রচার অণুবিভাগের মহাপরিচালক মাসুদুর রহমান, দ্য ডেইলি অবজারভারের সম্পাদক ইকবাল সোবহান চৌধুরী, দৈনিক আমাদের নতুন সময়ের সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান, একুশে টিভির সিইও মঞ্জুরুল হাসান বুলবুল, দৈনিক জনকণ্ঠের নির্বাহী সম্পাদক স্বদেশ রায়, একাত্তর টিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোজাম্মেল হক বাবু, দেশ টিভির পরিচালক তারিক সুজাত, এটিএন বাংলার প্রধান বার্তা সম্পাদক জ ই মামুন, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সাইফুল আলম, জাতীয় প্রেসক্লাবের সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমীন, নাগরিক টিভির সিইও ডা. আব্দুন নূর তুষার, দৈনিক ইত্তেফাকের প্রকাশক তারিন হোসেন, বিএফইউজে’র সেক্রেটারি জেনারেল শাবান মাহমুদ, প্রধানমন্ত্রীর উপপ্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন এবং একাত্তর টিভির সাংবাদিক ফারজানা রুপা।
#
 
নাসরীন/মাহমুদ/মোশারফ/জয়নুল/২০১৯/১৮১০ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                                         নম্বর : ৩৪৩২

পুলিশ সদস্যদের মাঝে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের জনসচেতনতামূলক সভা

মশার লার্ভা নির্মূলে বছরজুড়ে ঔষধ  প্রয়োগ কার্যক্রম অব্যাহত রাখার তাগিদ

ঢাকা, ২৫ ভাদ্র (৯ সেপ্টেম্বর) :

          স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আজ রাজধানীতে পুলিশ সদস্যদের মাঝে ডেঙ্গু বিষয়ে জনসচেতনতামূলক  মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ বিভাগের আইএইচআর মাইগ্রেশন হেলথ্ ও ইমারর্জিং রি ইমারর্জিং ডিজিজ প্রোগ্রাম এর আয়োজনে মেট্রোপলিটন পুলিশ সদর দপ্তরের শহীদ এস আই শীরু মিয়া সম্মেলন কক্ষে এই সভার আয়োজন করা হয়। সহস্রাধিক পুলিশ সদস্য এতে অংশগ্রহণ করেন।  সভায় সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের পিপিএম মোঃ জোবায়দুর রহমান এবং প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ডাঃ সানিয়া তহমিনা।

          ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধে সারা বছর সকলের চারপাশ পরিষ্কার রেখে মশার প্রজনন স্থান ধ্বংস করার জন্য জনসচেতনতা বাড়ানোর ওপর সভায় গুরুত্বারোপ করা হয়। মশার লার্ভা ও পুন:বয়স্ক মশা নির্মূলে নিয়মিত লার্ভিসাইড এবং এডাল্টিসাইড ঔষধ প্রয়োগ কার্যক্রম বছরজুড়ে অব্যাহত রাখার উপরও সভায় জোর দেওয়া হয়।

          ডাঃ সানিয়া তহমিনা মূল উপস্থাপনায় বাংলাদেশের ডেঙ্গুরোগের বর্তমান পরিস্থিতি, বিশ্বের ডেঙ্গু পরিস্থিতির সাথে আমাদের দেশের তুলনামূলক চিত্র তুলে ধরেন। এ সময় তিনি ডেঙ্গু বিষয়ক জনসচেতনতামূলক ভিডিও চিত্র উপস্থাপন করেন। তিনি জানান, এ বছর শুধু বাংলাদেশ নয়. পৃথিবীর অনেক দেশেই যেমন শ্রীলংকা, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম, ব্রাজিল ইত্যাদি দেশে ডেঙ্গুজনিত রোগে  মৃত্যু এবং আক্রান্তের হার গত কয়েক বছরের তুলনায় বৃদ্ধি পেয়েছে। কয়েকটি  দেশে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার আমাদের থেকেও বেশি।

          এ ছাড়া সভায় উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রন শাখার ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডাঃ মোঃ হাফিজুল ইসলাম, সিনিয়র এডভাইজার, ডাঃ মোঃ নাসির আহমেদ খান, ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার হেপাটাইটিস ও এমআরসি ডাঃ শ ম গোলাম কায়সার, ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার কালাজ্বর ডাঃ আবু নাইম মোহাম্মদ সোহেল, ডাঃ মোঃ মোস্তফা মাহমুদ, ডাঃ মুশিকুর রহমান । এ পর্যন্ত ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে যারা  মৃত্যুবরণ করেন তাদের জন্য সভায় গভীর শোক প্রকাশ করা হয়।

#

নাছির/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/রেজাউল/২০১৯/১৬৪৮ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                 নম্বর : ৩৪৩১

সমুদ্র বন্দরের জন্য তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত বহাল

ঢাকা, ২৫ ভাদ্র (৯ সেপ্টেম্বর) :

ভারতের উড়িষ্যা ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি বর্তমানে ছত্রিশগড় ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে। বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারসমূহকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স কো-অর্ডিনেশন সেন্টার থেকে পাওয়া আজ দুপুর ২ টার প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

আজ ৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরসমূহের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারিপুর, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলসমূহের উপর দিয়ে দক্ষিণ অথবা দক্ষিণ-পূর্বদিক থেকে ঘন্টায় ৪৫-৬০কি.মি. বেগে অস্থায়ী ভাবে দমকা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদী  বন্দরসমূহকে এক  নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘন্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী খুলনা, বরিশাল, ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহীও ময়মনসিংহ বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরণের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

ব্রহ্মপুত্র-যমুনা, উত্তর-পূর্বাঞ্চল এবং দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের নদ-নদীসমূহের পানি সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে, অপরদিকে গঙ্গা-পদ্মা নদীসমূহের পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদ-নদীসমূহের পানি সমতল বৃদ্ধি অব্যাহত থাকতে পারে, অপর দিকে গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানি সমতল হ্রাস পেতে পারে।

#

এনডিআরসিসি/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/আসমা/২০১৯/১৫২০ ঘণ্টা   

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ৩৪৩০

জুলাই মাসে ৫৬২টি মাদকবিরোধী জনসচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত

ঢাকা, ২৫ ভাদ্র (৯ সেপ্টেম্বর) : 

গত জুলাই মাসে সারাদেশে ৫৬২টি মাদকবিরোধী প্রচারণা সভা অনুষ্ঠিত হয়। মাদকবিরোধী অভিযান, প্রচার কার্যক্রম ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের তথ্যমতে মাঠ পর্যায়ে প্রচারিত ফিলারগুলোর তথ্য নিম্নরূপ :

ঢাকা বিভাগে নরসিংদী জেলায় মাদকবিরোধী সভা ৩৩টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক মাদকবিরোধী আলোচনা সভা ১০৪টি ও ১টি স্থানে মাদকবিরোধী ফিলার প্রচার; ময়মনসিংহে মাদকবিরোধী সভা ১টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ১১টি ও ৭টি স্থানে মাদকবিরোধী ফিলার প্রচার; চট্টগ্রামে মাদকবিরোধী সভা ৪২টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ৭৮টি, ৪টি স্থানে মাদকবিরোধী ফিলার প্রচার; রাজশাহীতে মাদকবিরোধী সভা ৪৫টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ৩১টি, মাদকবিরোধী ফিলার প্রচার ২৭টি স্থানে; রংপুরে মাদকবিরোধী সভা ২৩টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ২৬টি, মাদকবিরোধী ফিলার প্রচার ৭টি স্থানে; খুলনায় মাদকবিরোধী সভা ৫৫টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ৩৩টি, ২টি স্থানে মাদকবিরোধী ফিলার প্রচার; বরিশালে মাদকবিরোধী সভা ২০টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ২২টি, ৩৫টি স্থানে মাদকবিরোধী ফিলার প্রচার এবং সিলেটে মাদকবিরোধী সভা ২৩টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা ১৫টি, মাদকবিরোধী ফিলার প্রচার ৪টি স্থানে।

জুলাই মাসে আটটি বিভাগে মাদকবিরোধী সভা হয়েছে ২৪২টি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক আলোচনা সভা হয়েছে ৩শ’ ২০টি, ফিলার প্রচার হয়েছে ৮৭টি। অভিযানকালে আইস, এলএসডি, ইয়াবা ট্যাবলেট, হেরোইন, গাঁজা, গাঁজা গাছ, বিদেশি মদ, বিয়ার, ফেনসিডিল, এসকফ (কোডিন মিশ্রণ) সিরাপ, ইনজেকটিং ড্রাগ, রেক্টিফাইড স্পিরিট, ডিনেচার্ড স্পিরিট, চোলাই মদ, জাওয়া, ড্যান্ডি (নেশাজাতীয় গাম), টলুইন, পাসপোর্ট, বিভিন্ন যানবাহন, মোবাইল সেট, নগদ অর্থ ও গুলি জব্দ করা হয়।  

#  

মাসুম/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/সুবর্ণা/আসমা/২০১৯/১৫১৫ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ৩৪২৯

ডেঙ্গুর প্রকোপ কমছে

ঢাকা, ২৫ ভাদ্র (৯ সেপ্টেম্বর) :   

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে নতুন ৭১৬ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। সেপ্টেম্বর মাসের শুরু থেকেই হাসপাতালগুলোতে নতুন ডেঙ্গুরোগী ভর্তির সংখ্যা লক্ষ্যণীয়ভাবে কমে এসেছে।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী গত জানুয়ারি থেকে আজ পর্যন্ত ডেঙ্গু রোগের চিকিৎসা শেষে ছাড়পত্র নিয়ে চলে গেছেন ৭৩ হাজার ৯ শত ৪২ জন। বর্তমানে সারা দেশের হাসপাতালগুলোতে ডেঙ্গুরোগে আক্রান্ত ভর্তিকৃত রোগী আছেন ৩ হাজার ৯১ জন। এ যাবত ৬০ জনের মৃত্যু ডেঙ্গুজনিত বলে নিশ্চিত করা হয়েছে। 

#

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/রেজাউল/২০১৯/১৪৪৫ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ৩৪২৮

বঙ্গবন্ধুর রাষ্ট্র চিন্তার সাথে পরিচিত হতে সংসদ সদস্যদের প্রতি স্পিকারের আহ্বান

ঢাকা, ২৫ ভাদ্র (৯ সেপ্টেম্বর) :    

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাষ্ট্র চিন্তা ও উন্নয়ন দর্শনের সাথে পরিচিত হতে তাঁর বক্তব্যের রেকর্ডসমূহ অধ্যয়নের জন্য সংসদ সদস্যদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।   

স্পিকার বল

Todays handout (10).docx Todays handout (10).docx

Share with :

Facebook Facebook