তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৪ এপ্রিল ২০১৫

তথ্যবিবরণী 24/04/2015

তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর :  ১১৮৭

সার্ভিস ওয়েভার পেতে এলডিসিভুক্ত দেশগুলোকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে
                                                                      -- বাণিজ্যমন্ত্রী
নয়াদিল্লী (ভারত), ১১ বৈশাখ (২৪ এপ্রিল) :
        বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বিশ্ববাণিজ্য সংস্থার সিদ্ধান্তমোতাবেক এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর জন্য সার্ভিস ওয়েভার প্রাপ্তির জন্য সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে। আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বাজারে ভারত সার্ভিসসেক্টরে গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানে রয়েছে। বিগত ১৫ বছরে সাউথ এশিয়ান দেশগুলো থেকে জনশক্তি রপ্তানি বেড়েই চলছে। ২০০০ সালে এ বৃদ্ধির হার ছিল শতকরা ১ দশমিক ৩  ভাগ, ২০১৩ সালে তা দাঁড়িয়েছে ৩ দশমিক ৬ ভাগে।
        মন্ত্রী গতকাল বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লীর প্রগতি ময়দানে অনুষ্ঠিত “ফার্স্ট ইন্ডিয়ান গ্লোবাল এক্সিবিশন অন সার্ভিস-২০১৫” এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে একথা বলেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এক্সিবিশনের উদ্বোধন করেন। ভারতের বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়, সার্ভিস এক্সপোর্ট প্রমোশন কাউন্সিল এবং কনফেডারেশন অভ্ ইন্ডিয়ান ইন্ডাস্ট্রি যৌথভাবে এ এক্সিবিশনের আয়োজন করেছে। এক্সিবিশনের উদ্দেশ্য হচ্ছে ভারতসহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশসমূহের সাথে বিশ্বের অন্যান্য দেশের সেবাখাতের উন্নয়ন ও বাণিজ্য সম্প্রসারণ।
        তোফায়েল আহমেদ বলেন, বিশ্ববাণিজ্য সংস্থায় এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর সমন্বয়কারী  হিসেবে বাংলাদেশ দায়িত্বপালন করে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সকলের আন্তরিক সহযোগিতা প্রয়োজন। সাউথ এশিয়ার বেশিরভাগ দেশের জিডিপিতে সার্ভিসসেক্টরের অবদান শতকরা ৫০ ভাগের বেশি। সাউথ এশিয়ার দেশগুলোতে সার্ভিসসেক্টরে অভ্যন্তরীণ চাহিদাও বাড়ছে। সার্ভিসসেক্টরে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে সাউথ এশিয়ান দেশগুলোর সুযোগ বৃদ্ধি করা জরুরি। অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জনের ক্ষেত্রে সাউথ এশিয়ান অঞ্চলে সার্ভিসসেক্টরে সহযোগিতা এবং বাণিজ্যবৃদ্ধির সুযোগ রয়েছে। এক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা দরকার। সাউথ এশিয়ার প্রাইভেট সেক্টরের উদ্যোক্তাগণ বাজার নির্ধারণ করে এ সুযোগকে কাজে লাগাতে পারেন। আইসিটি, পর্যটন, স্বাস্থ্য, শিক্ষা এবং এনার্জি খাত গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে। বিশ্ববাজারে সম্মিলিতভাবে কাজ করলে সুফল পাওয়া সম্ভব।
        মন্ত্রী বলেন, সার্ভিসসেক্টরে সার্কভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে নেপাল ও ভুটানের বাণিজ্য অনুকূলে। পর্যটনখাতে এ সার্ভিসসেক্টরের অবদান বেশি। সাউথ এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলোর সার্ভিসসেক্টরে বাণিজ্য প্রতিকূল অবস্থানে আছে। গত ফেব্রুয়ারি মাসে জেনেভায় অনুষ্ঠিত এক সভায় এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর জন্য সার্ভিস ওয়েভার নিয়ে আলোচনা হয়েছে। অনেক দেশের মতো ভারত এবং বাংলাদেশ এ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করে এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর জন্য অগ্রাধিকার বাজার সুবিধাপ্রাপ্তির ক্ষেত্রে প্রচেষ্টা চালায়।
        ভারত সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, এ ধরনের একটি এক্সিবিশনের মাধ্যমে সার্ভিসসেক্টরে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো সম্ভাবনা খুঁজে পাবে এবং তা কাজে লাগাতে সহযোগিতা বৃদ্ধি পাবে। সার্কভুক্ত দেশগুলো ইতোমধ্যে সার্ভিসসেক্টরে বাণিজ্য সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য ২০১০ সালে একটি এগ্রিমেন্ট স্বাক্ষর করেছে।  এ অঞ্চলের মানুষের আর্থসামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে সম্ভাবনাময় সুযোগগুলোকে কাজে লাগাতে হবে।
#

বকসী/মিজান/নবী/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৫/২১০০ ঘণ্টা

 

Handout                                                                                                          Number : 1186

 

Services sector emerge leading sector in South Asian economy

                                                                               -- Tofail Ahmed

 

New Delhi (India), April 24 :

 

            Bangladesh Commerce Minister Tofail  Ahmed has said, Services sector has emerged as leading sector accounting to more than 50 percent of the GDP in most of the South Asian Countries including Bangladesh due to increasing demand with the country. It has also contribution to employment generation.

 

            The Minister said this at a seminar on “Opportunities for Cooperation in Services in South Asia” at New Delhi’s historic Pragati Maidan today.

 

            The seminar was also addressed, among others, by  Bangladesh State Minister for ICT, Post and Telecommunication Zunaid Ahmed Palak, State Minister of the Maldives for Economic Development Abdul Latheef Mohamed, President of Sri Lankan Federation of Chamber of Commerce and Industry Ajith Wattuhewa and Director General of Confederation of Indian Industry.

 

            Bangladesh High Commissioner to India Syed Muazzem Ali, former President of India-Bangladesh Chamber of Commerce Abdul Matlub Ahmad, Indian business leaders, senior officials of Indian government and diplomats were present at the seminar.

 

            Tofail Ahmed said India is a big player in the region due to its economic strength and it can play a vital role in the region.  Bangladesh, as LDC coordinator in the WTO, has been trying to get preferential market access in services for LDCs under the Waiver Decision of the WTO. To reap the benefits of economic integration, the region needs to promote liberalization in the service sector -  a promising area for a rising South Asia.

 

            'We should aim at taking necessary initiatives to operationalise the WTO agreement to increase trade and cooperation in service sector in South Asian Region,' Bangladesh Commerce Minister said, adding 'We can explore the opportunity to expand cooperation in the sector like ICT, Tourism, Energy, Healthcare and Education.  We can make these sectors very competitive in the world market.'

 

#

 

Enamul/Mizan/Nabi/Sanjib/Selim/2015/1820 Hrs.

তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর :  ১১৮৫

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদন্ত টিম ভান্ডারিয়ার পথে

ঢাকা, ১১ বৈশাখ (২৪ এপ্রিল) :

    পিরোজপুর  জেলার ভান্ডারিয়া সরকারি কলেজে ৯ এপ্রিল সংঘটিত অনভিপ্রেত ঘটনার তদন্তে গঠিত শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন তদন্ত টিম আজ ভান্ডারিয়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেছে। এ টিম আগামীকাল থেকেই কাজ শুরু করবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ঘটনাটিকে অতীব গুরুত্বের সাথে দেখছে।

    তদন্ত কমিটির সদস্যরা হলেন- শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস, যুগ্মসচিব (কলেজ) মোল্লা জালাল উদ্দিন এবং মিরপুর বাংলা কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ ইমাম হোসেন।

#

সুবোধ/মিজান/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৫/১৮০০ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :   ১১৮৪

নতুন প্রজন্ম সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার ভবিষ্যৎ মুক্তিযোদ্ধা
                                -- মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী


ঢাকা, ১১ বৈশাখ (২৪ এপ্রিল) :

    নতুন প্রজন্মকে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার ভবিষ্যৎ মুক্তিযোদ্ধা বলে উল্লেখ করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।  

    মন্ত্রী আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়  খেলারমাঠে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর আয়োজিত মুক্তির উৎসবে বক্তৃতাকালে একথা বলেন।

    মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। বাংলাদেশকে অসাম্প্রদায়িক চেতনাসমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়তে হলে নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হতে  হবে। শিশুরাই আগামীতে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক মুক্তি আনবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

    তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশকে জঙ্গিরাষ্ট্র বানানোর চেষ্টা কখনই সফল হবে না। ষড়যন্ত্র করে কখনও বাংলাদেশের ক্ষমতায় যাওয়া যাবে না। ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে জনগণ জেগে উঠেছে। তিনি ষড়যন্ত্রকারীদের ব্যাপারে সকলকে সতর্ক  থাকার আহ্বান জানান।

    মুক্তির উৎসবে অন্যান্যের মধ্যে অধ্যাপক মুহাম্মদ জাফর ইকবাল এবং ফেরদৌসী প্রিয়ভাসিনী বক্তৃতা করেন।

#

মারুফ/মিজান/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৫/১৭০০ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :  ১১৮৩

ডুমুরিয়ায় মৎস্য প্রতিমন্ত্রীর নদীভাঙন এলাকা পরিদর্শন

ডুমুরিয়া (খুলনা), ১১ বৈশাখ (এপ্রিল ২৪)

    মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ আজ খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার চাঁদগড়ে ভদ্রা নদীর ভাঙন এলাকা পরিদর্শন করেন।

    ভাঙনকবলিত এলাকা পরিদর্শনকালে প্রতিমন্ত্রী বলেন, নদীর ভাঙনরোধ ও বাঁধনির্মাণে স্থানীয় জনসাধারণের অভিজ্ঞতা ও পরামর্শ নিয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ সংশি¬øষ্ট দপ্তরকে কাজ করতে হবে। ক্ষতিগ্রস্ত লোকদের কর্মসংস্থানের জন্য বাঁধনির্মাণ কাজে সুযোগ দিতে হবে। এছাড়া, ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনকে নিয়মমাফিক ক্ষতিপূরণ দিতে তিনি সংশি¬øষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন। তিনি জলবায়ু ট্রাস্ট থেকে নদীর বাঁধনির্মাণের বরাদ্দকৃত অর্থপ্রাপ্তিতে তাঁর পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

    পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা, ইউপি চেয়ারম্যান ও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

    এর আগে প্রতিমন্ত্রী ডুমুরিয়ার জোয়ার্দ্দার বাড়ি মসজিদ ও আইতলা মঠ মন্দির পরিদর্শন করেন। তিনি উপজেলা পরিষদচত্বরে স্বাধীনতা স্মৃতিসৌধের নির্মাণকাজও পরিদর্শন করেন।

#

মিজান/মিজান/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৫/১৬৪০ ঘণ্টা

 

Todays handout (3).doc Todays handout (3).doc

Share with :

Facebook Facebook