তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৪ জুলাই ২০২০

তথ্যবিবরণী ৪ জুলাই ২০২০

তথ্যবিবরণী                                                                                                        নম্বর : ২৪১৫


‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍ চাহিদা অনুযায়ী জনশক্তি তৈরি করতে হবে

                        -শিক্ষা উপমন্ত্রী

ঢাকা, ২০ আষাঢ় (৪ জুলাই) :

          শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেছেন, কর্মক্ষেত্রের চাহিদা অনুযায়ী দেশের বিশ্ববিদ্যালয়সমূহকে কারিকুলাম পরিবর্তন করতে হবে। দেশের উদ্যোক্তারা অনেক ক্ষেত্রে বলে থাকেন তারা দক্ষ জনশক্তি পাচ্ছেন না। তাই বিদেশ থেকে দক্ষ লোকবল নিয়ে আসতে হয়। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়সমূহকে উদ্যোগ নিয়ে চাহিদা অনুযায়ী জনশক্তি তৈরি করতে হবে।

          উপমন্ত্রী আজ বাংলাদেশ স্টিম (সায়েন্স, টেকনোলজি, ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড ম্যাথমেটিক্স) সোসাইটি আয়োজিত এক অনলাইন সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

          বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. আল-নকীব চৌধুরী সভাপতিত্বে এই সেমিনারে আরো সংযুক্ত ছিলেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সত্য প্রসাদ মজুমদার, যুক্তরাষ্ট্রের মনমথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. গোলাম এম মাতবর,  ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অভ্ সায়েন্স, ব্যাঙ্গালোরের  প্রতিনিধি ড. সঞ্জীব কে  শ্রীভাস্টাভা, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফরিদ আহমেদ, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফায়েকুজ্জামান,  ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. লুৎফুল হাসান, জাহাঙ্গীরনগর  বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম-সহ বাংলাদেশের ২০ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য। মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত  ছিলেন পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য ড. শামসুল আলম।

          অনুষ্ঠানে উপমন্ত্রী বলেন, সকল শিক্ষার্থীকে কমপক্ষে এসএসসি পর্যন্ত বাধ্যতামূলকভাবে  বিজ্ঞান শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে। সেক্ষেত্রে মাধ্যমিক পর্যায়ে সায়েন্স, আর্টস, কমার্স নামে কোনো বিভাজন থাকবে না। তিনি আরো বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ অসংখ্য গ্রাজুয়েট তৈরি করছে যাদের কোনো কারিগরি দক্ষতা নেই। ফলে এদের অনেকেরই কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হয় না এবং বিপুল সংখ্যক জনশক্তি শ্রমবাজারের বাহিরে থেকে যায়। এই অবস্থা চলমান থাকলে রূপকল্প-২০৪১ এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব নয়। এসব বিষয় বিবেচনায় গ্রাজুয়েটদের প্রয়োজনীয় দক্ষতা তৈরি করা এবং কারিগরি শিক্ষার ক্ষেত্রে বয়সের বাধ্যবাধকতা তুলে দেয়ার চিন্তা-ভাবনা করছে সরকার।


  #

খায়ের/রাহাত/সঞ্জীব/কানাই/২০২০/২১৪৫ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ২৪১৬

মানবসম্পদ উন্নয়নে প্রশিক্ষণের কোনো বিকল্প নেই

                                         - বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ২০ আষাঢ় (৪ জুলাই) :

          বিদ্যুৎ, জ¦ালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, মানবসম্পদ উন্নয়নে প্রশিক্ষণের কোনো বিকল্প নেই। ২০৪১ সালের উন্নত বাংলাদেশের জন্য প্রয়োজন মানবিক গুণসম্পন্ন দক্ষ মানবসম্পদ। আজকের এই প্রশিক্ষিত কর্মকর্তারাই উন্নত বাংলাদেশ গড়বে। মনোবল চাঙ্গা রেখে সেভাবে নিজেদেরকে প্রস্তুত করুন।

          প্রতিমন্ত্রী আজ তাঁর বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে বাংলাদেশ পাওয়ার ম্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউট আয়োজিত ডেসকোতে নব-নিযুক্ত সহকারী প্রকৌশলীদের বুনিয়াদি প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ পাওয়ার ম্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউটকে আন্তর্জাতিক মানের প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। বর্তমানে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব যে সাফল্য অর্জন করেছে সেখানে আরো দক্ষ জনশক্তি প্রয়োজন। আমাদের বিতরণ, সঞ্চালন ও উৎপাদন কোম্পানিগুলো অনেক বেশি সক্ষমতা অর্জন করেছে। প্রকৌশলীদেরও সক্ষমতা বাড়াতে হবে। এ সময় দক্ষতা অর্জনের পাশাপাশি গ্রাহক সন্তুষ্টির ওপরও জোর দিয়ে তিনি বলেন, একজন গ্রাহক যেন সেবা নিতে এসে কোনো অবস্থাতেই হয়রানির শিকার না হোন সেদিকে সবাইকে খেয়াল রাখতে হবে।

          বাংলাদেশ পাওয়ার ম্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউটের রেক্টর মোঃ মাহবুব-উল-আলমের সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল এই অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস ও বিদ্যুৎ সচিব ড. সুলতান আহমেদ বক্তব্য রাখেন। প্রশিক্ষণ কোর্সে ডেসকো’র নব-নিযুক্ত ৩২ জন সহকারী প্রকৌশলী অংশগ্রহণ করেন।

#

আসলাম/রাহাত/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২০/২১৪০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                          নম্বর : ২৪১৪


‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍প্রচলিত শিল্প-বাণিজ্যের ডিজিটাল রূপান্তর শুরু হয়েছে

                                  -টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

ঢাকা, ২০ আষাঢ় (৪ জুলাই) : 

          ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, প্রচলিত পদ্ধতির বিদ্যমান ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিল্প ডিজিটাল পদ্ধতিতে রূপান্তর শুরু হয়েছে। আমরা এখন চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের যুগে বসবাস করছি। এটা ছড়িয়ে দিতে হবে। আমাদের বড় সম্পদ হচ্ছে মানব সম্পদ। এই সম্পদকে কাজে লাগাতে হবে।

          মন্ত্রী আজ ঢাকায় বেসিস প্রণীত মানব সম্পদ হ্যান্ডবুকের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবিরের সঞ্চালনায় জুম কনফারেন্সিংয়ে বেসিস এর সাবেক সভাপতি এ তৌহিদ, হাবিবুল্লাহ এন করিম, রফিকুল ইসলাম রাউলি, মাহবুব জামান, শামীম আহসান এবং বেসিস এর সাবেক পরিচালক শাহ ইমরুল কায়েস বক্তৃতা করেন।

          মন্ত্রী বলেন, করোনায় প্রত্যন্ত গ্রামের স্কুলটিও ইন্টারনেটে অনলাইন ক্লাস প্রত্যাশা করছে। সময়ের প্রয়োজনে খাদ্যের মতো ইন্টারনেটের প্রয়োজনীয়তা সমানভাবে দেখা দিয়েছে। করোনাকালে শিক্ষা ও স্বাস্হ্যখাতে ডিজিটাল প্রযুক্তির প্রয়োজনীয়তা অনিবার্য হয়ে উঠেছে। ডিজিটাল ইন্ডাস্ট্রির প্রয়োজনীয়তা আগামী দিনে ব্যাপক আকারে বৃদ্ধি পাবে।

          অনুষ্ঠানে বেসিস সদস্যদের জন্য হ্যান্ডবুকটিকে একটি অসাধারণ গাইড হিসেবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল দুনিয়ায় যারা কাজ করেন তারা অধিকাংশই বয়সে তরুণ এবং অতীত কোনো অভিজ্ঞতা ছাড়াই তারা কাজ শুরু করেন। এই ধরনের প্রকাশনা তরুণদের জন্য ভালো একটি দিকনির্দেশনা প্রদান করবে যা ডিজিটাল জগতে তাদের অধিকতর অবদান রাখার সুযোগ সৃষ্টিতে সহায়ক হবে ।

         

#

শেফায়েত/রাহাত/সঞ্জীব/কানাই/২০২০/২১১২ ঘণ্টা  

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                       নম্বর : ২৪১৩

‍‍‍‍‍‍‍‍‍

জর্ডানে পুনর্বাসন কেন্দ্রে আটককৃত বাংলাদেশিদের জন্য দূতাবাসের উপহার

ঢাকা, ২০ আষাঢ় (৪ জুলাই) :

          জর্ডানের আম্মানের পুনর্বাসন কেন্দ্রে আটককৃত বাংলাদেশিদের জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী উপহার দিয়েছে বাংলাদেশ দূতাবাস। জর্ডানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান আম্মানের জোয়াইদেহ পুনর্বাসন কেন্দ্র পরিদর্শনকালে কেন্দ্রের পরিচালক দালাল সাওয়ালহার কাছে এসব সামগ্রী হস্তান্তর করেন।

          জোয়াইদেহ পুনর্বাসন কেন্দ্রে বর্তমানে ১০৩ জন বাংলাদেশি মহিলা অবস্থান করছেন। এদের মধ্যে ৮৭ জন প্রশাসনিক কারণে আটক, ২ জন বিচারিক কারণে আটক এবং ১৪ জন বিভিন্ন ফৌজদারি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে অবস্থান করছেন। প্রশাসনিক কারণে আটকরা স্বদেশে ফেরার আগে সাধারণত ১৫-২০ দিনের জন্য স্বল্পমেয়াদে পুনর্বাসন কেন্দ্রে আটক হিসেবে অবস্থান করেন। তবে, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে বিমানবন্দর বন্ধ থাকায় তারা এই কেন্দ্রে ৪ মাস যাবত অপেক্ষা করছেন। এমতাবস্থায়, নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীর ঘাটতি দেখা দেওয়ায় তাদের ব্যবহারের জন্য বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত দূতাবাসের পক্ষ থেকে পোশাক, সাবান এবং টেলিফোন কার্ডসংবলিত ১০৩টি বাক্স হস্তান্তর করেন। দূতাবাসের শ্রম শাখার প্রথম সচিব মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

          পুনর্বাসন কেন্দ্রের পরিচালক রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জানান এবং এই সংকটের মুহুর্তে প্রয়োজনীয় সামগ্রী সরবরাহ করে আটক বাংলাদেশিদের সহায়তা করতে দূতাবাসের প্রচেষ্টার প্রশংসা করেন।

  #

খাদিজা/রাহাত/সঞ্জীব/কানাই/২০২০/২০১০ ঘণ্টা  

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                        নম্বর : ২৪১২

 


‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍দুর্যোগকালীন সেবা প্রদানে রৌমারী উপজেলাকে

ওয়াটার মিনিবাস প্রদান করলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী 

 

রৌমারী (কুড়িগ্রাম), ২০ আষাঢ় (৪ জুলাই):

          প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন দুর্যোগকালীন চরাঞ্চলের অসহায় মানুষের জরুরি সেবা পরিচালনার জন্য কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলা প্রশাসনকে একটি ওয়াটার মিনিবাস প্রদান করেছেন। এ সময় তিনি জানান, ভবিষ্যতে রাজিবপুর ও চিলমারী উপজেলায় আরো একটি করে ওয়াটার মিনিবাস দেওয়া হবে।   

          প্রতিমন্ত্রী আজ রৌমারীতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আল ইমরানের হাতে ওয়াটার মিনিবাসের চাবি আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করেন। এ সময় উপজেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তা-সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও মহিলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

          হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী বলেন, কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী, চিলমারী, রাজীবপুর উপজেলা চর ও নদীভাঙন এলাকা হওয়ায় প্রতিবছরই বন্যা-সহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ লেগে থাকে। এ বছর করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে মানুষ আরো কষ্টে আছে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার দুর্যোগকালীন অসহায় দরিদ্র মানুষের সহযোগিতায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। কোনো অসহায় দরিদ্র অনাহারে থাকবে না। সরকার দুর্যোগের সময় দরিদ্র মানুষের নিকট খাদ্য, বস্ত্র ও অসুস্থদের ঔষধ ঘরে পৌঁছে দেবে।

 

  #

রবীন্দ্রনাথ/রাহাত/সঞ্জীব/কানাই/২০২০/১৯২০ ঘণ্টা  

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                       নম্বর : ২৪১১

বিএনপি নেতারা আইসোলেশনে থেকে প্রেস ব্রিফিং করে, আর সরকারের দোষ ধরে

                                                                                         - তথ্যমন্ত্রী

চট্টগ্রাম, ২০ আষাঢ় (৪ জুলাই) :

          তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, ‘বিএনপি’র অনেক নেতা আছে, যারা ঘরের মধ্যে আইসোলেশনে থেকে শুধু প্রেস ব্রিফিং করে, আর সরকারের দোষ ধরে। জনগণের সহায়তায় তারা এগিয়ে আসেনি। সারা দেশে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী এবং কিছু স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের কর্মীরাই আছে মানুষের পাশে।’

          আজ চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলা অডিটরিয়ামে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জন্য চিকিৎসা সরঞ্জামাদি প্রদান ও বন্যহাতির আক্রমণে মৃত ব্যক্তিবর্গের পরিবারের মাঝে সরকারের আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

          মন্ত্রী বলেন, ‘যারা ঘরে বসে বসে শুধু সমালোচনা করছে, তারা কিন্তু ঘর থেকে বের হচ্ছে না। পক্ষান্তরে আওয়ামী লীগ ও সরকারের কেউ কিন্তু বসে নেই। আক্রান্ত হলে কি হতে পারে সেটিও আমি জানি, তারপরও আমি বসে নেই। সব প্রস্তুতি নিয়েই কিন্তু মাঠে কাজ করছি। এই সময়ে দেশের মানুষ যখন আক্রান্ত, তখন হাত গুটিয়ে বসে থাকার কোনো কারণ নেই।’

          দলীয় নেতাকর্মীদের জনগণের পাশে থাকার অনুরোধ জানিয়ে ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের জনগণের পাশে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। আমরা নির্দেশনা মেনে জনগণের পাশে আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকবো। সেই কারণে আমাদের দলের বহু নেতা করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। অনেক নেতা মৃত্যুবরণ করেছে। মৃত্যু যেকোনো সময় হতে পারে, তাই বলে জনগণের এই দুর্দশার সময় বসে থাকবো সেটা হতে পারে না।’

          তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘রাঙ্গুনিয়ার ৬০ হাজারের বেশি পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে। এখনো সেই ত্রাণ কার্যক্রম চলমান আছে। এর বাইরে আমাদের পারিবারিক প্রতিষ্ঠান এনএনকে ফাউন্ডেশনের মাধ্যমেও হাজার হাজার মানুষকে ত্রাণ দেওয়া হয়েছে। যতদিন এই পরিস্থিতি থাকবে, সরকার জনগণের পাশে আছে এবং থাকবে।’

          ড. হাছান মাহ্মুদ জানান, রাঙ্গুনিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাতে করোনা রোগীদের সঠিকভাবে চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হয় সেই লক্ষ্য নিয়ে কিছু কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে সেখানে আইসোলেশন সেন্টার করা হয়েছে এবং বেডের সংখ্যা বৃদ্ধি করে অক্সিজেন সিলিন্ডার-সহ প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সুরক্ষা সরঞ্জামের ব্যবস্থা করে সেটিকে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত-সহ আধুনিকায়ন করা হবে বলেও জানান মন্ত্রী।

          সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানিয়ে ড. হাছান মাহ্মুদ বলেন, ‘রাঙ্গুনিয়াতেও অনেক করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। আমাদের মনে রাখতে হবে আমার সুরক্ষা আমার হাতে। আমি যদি সচেতন না হই সরকার কিংবা ডাক্তার-সহ অন্য কেউ আমাকে সুরক্ষিত করতে পারবে না। অসচেতন থাকলে যে কেউ যেকোনো সময় আক্রান্ত হতে পারে।’

          উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাসুদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ শফিকুল ইসলাম, সহকারী পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আবু নাছের মোহাম্মদ ইয়াছিন নেওয়াজ, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা রেহানুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শামসুল আলম তালুকদার প্রমুখ।

#

আকরাম/রাহাত/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২০/১৯৩০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                        নম্বর : ২৪১০

কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাসসংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

ঢাকা, ২০ আষাঢ় (৪ জুলাই) :

          ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স কো-অর্ডিনেশন সেন্টার (এনডিআরসিসি) থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য ৬৪ জেলায় ইতোমধ্যে ২ লাখ ১১ হাজার ১৭ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ করা হয়েছে। এছাড়া শিশু খাদ্য-সহ অন্যান্য সামগ্রী ক্রয়ের জন্য ১২২ কোটি ৯৭ লাখ ৭২ হাজার ২৬৪ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বরাদ্দকৃত এ সাহায্য দেশের সকল জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে বিতরণ করা হচ্ছে।

 ‌         স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী আজ দেশে নতুন করে আরো ৩ হাজার ২৮৮ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১ লাখ ৫৯ হাজার ৬৭৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ২৯ জন-সহ এ পর্যন্ত ১ হাজার ৯৯৭ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ হাজার ৭২৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৭০ হাজার ৭২১ জন।

          এখন পর্যন্ত সর্বমোট ২৫ লাখ ২৮ হাজার ২৪৫টি পিপিই সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে মোট বিতরণ করা হয়েছে ২৪ লাখ ৭ হাজার ৩৬৪টি এবং মজুত আছে ১ লাখ ২০ হাজার ৮৮১টি।

          সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে ৬২৯টি প্রতিষ্ঠান এবং এর মাধ্যমে তাৎক্ষণিকভাবে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের সেবা প্রদান করা যাবে ৩১ হাজার ৯৯১ জনকে।

#

তাসমীন/রাহাত/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২০/১৮০০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ২৪০৯

 

দেশের সকল দুর্যোগে আওয়ামী লীগ মানুষের পাশে থাকে, বিএনপি নয়

                                                         - পানি সম্পদ উপমন্ত্রী

 

শরীয়তপুর, ২০ আষাঢ় (৪ জুলাই) :

          পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, দেশের সকল দুর্যোগে একমাত্র আওয়ামী লীগই মানুষের পাশে থাকে, বিএনপি নয়। বিএনপি ঘরের মধ্যে নিরাপদে বসে শুধু সরকারের সমালোচনা করে। দেশের মানুষের দুঃখ তারা বোঝে না।

          আজ শরীয়তপুরের নড়িয়ায় পদ্মার ডান তীর সংরক্ষণ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শনকালে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

          উপমন্ত্রী বলেন, আমরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রকল্পগুলোর কাজ অব্যাহত রেখেছি। সম্প্রতি ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার বাঁধের জরুরি মেরামত কাজ সেনাবাহিনীকে দেয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে সকল বাঁধ সুপার ডাইকের আদলে নির্মাণ হবে যাতে বন্যার পানি মানুষের জান-মালের কোনো ক্ষতি করতে না পারে। বন্যাঘাতের সকল এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ড তথা মন্ত্রণালয় জরুরি পদক্ষেপ নিতে তৎপর রয়েছে। বন্যা পরিস্থিতি নিবিড় পর্যবেক্ষণের জন্য কন্ট্রোল রুম চালু রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী সার্বক্ষণিক বন্যা পরিস্থিতির খবর রাখছেন।

          এ সময় পানি উন্নয়ন বোর্ডের অতিরিক্ত মহাপরিচালক হাবীবুর রহমান, প্রধান প্রকৌশলী তোফায়েল আহমেদ, প্রকল্প পরিচালক আব্দুল হেকিম, নির্বাহী প্রকৌশলী এস এম আহসান হাবীব প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

          পরে উপমন্ত্রী শরীয়তপুরের ঘড়িসার, ডিঙ্গামানিক ইউনিয়নে ও সখিপুর থানার অসহায় ও দুস্থদের মাঝে সরকারের বিশেষ বরাদ্দ থেকে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ বিতরণ এবং বৃক্ষরোপণ করেন।

#

আসিফ/রাহাত/সঞ্জীব/জয়নুল/২০২০/১৭৫০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                          নম্বর : ২৪০৮


‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍সাবেক অর্থমন্ত্রী ড. ওয়াহিদুল হকের মৃত্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক

ঢাকা, ২০ আষাঢ় (৪ জুলাই) :

          সাবেক অর্থমন্ত্রী  ও কানাডার টরেন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমিরেটাস অধ্যাপক ড. ওয়াহিদুল হকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

          আজ এক শোকবার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অত্যন্ত মেধাবী ও শ্রদ্ধাভাজন ব্যক্তিত্ব ড. ওয়াহিদুল হক আমার শিক্ষক ছিলেন। ১৯৬৯ সালে পাকিস্তানের রাওয়ালপিন্ডিতে প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খানের গোলটেবিল বৈঠকে উপস্থাপনের জন্য বঙ্গবন্ধুর ছয় দফার পক্ষে এএমএ মুহিত, আব্দুর রব চৌধুরী-সহ কিছু সিএসপি অফিসার একটি খসড়া দলিল প্রস্তুত করেছিলেন। এ খসড়া দলিল প্রস্তুত করার সময় ইসলামাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতির শিক্ষক  ড. ওয়াহিদুল হক অংশগ্রহণ করেন।

          পররাষ্ট্রমন্ত্রী মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

         

 

  #

তৌহিদুল/রাহাত/সঞ্জীব/কানাই/২০২০/১৭২৫ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                                       নম্বর : ২৪০৭


‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍শতাব্দীর দ্বিতীয় সেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার সাকিব: যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর অভিনন্দন 

ঢাকা, ২০ আষাঢ় (৪ জুলাই) :

          ক্রিকেটের বাইবেল খ্যাত ম্যাগাজিন উইজডেনের ক্রিকেট মান্থলি শতাব্দীর সেরা খেলোয়াড়দের  তালিকায় সাকিব আল হাসান নির্বাচিত হওয়ায় তাকে আন্তরিক শুভেচছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল । ক্রিকেট বিষয়ক বিখ্যাত সাময়িকী উইজডেন ক্রিকেট তাদের জুলাই সংখ্যায় শতাব্দীর দ্বিতীয় সেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার হিসেবে বাংলাদেশ অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে নির্বাচিত করেছে। টেস্টেও ষষ্ঠ স্থান অর্জন করেছেন সাকিব।

          এক শুভেচ্ছা বার্তায় ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, একুশ শতাব্দীর দ্বিতীয় সেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার হিসেবে নির্বাচিত হওয়ায় বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানান তিনি। সাকিবের এ অর্জনের মধ্যে দিয়ে বিশ্ব ক্রিকেটে বাংলাদেশের অবস্থান আরো সুদৃঢ় হলো।  

          ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন,বাংলাদেশ সরকার সবসময় সাকিব আল হাসানের পাশে আছে । সাকিব  তার সাফল্যের এ ধারাবাহিকতা ভবিষ্যতেও অক্ষুন্ন রাখবে। তিনি তার মেধা যোগ্যতা পরিশ্রম ও চেষ্টার ফলে আজকের এ অবস্থানে আসতে পেরেছেন বলে উল্লেখ করেন প্রতিমন্ত্রী।

          টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-২০ তে শতাব্দীর সেরা ১০ জন ক্রিকেটার করে বেছে নিতে ক্রিকেট পরিসংখ্যান বিশ্লেষক সংস্থা ক্রিকভিজের সঙ্গে যৌথ গবেষণা করেছে ক্রিকেটের বিখ্যাত ম্যাগাজিন উইজডেন। তারপর ‘মোস্ট ভ্যালুয়েবল প্লেয়ার’ নির্বাচন করেছে উইজডেন মান্থলি। এই নির্বাচন প্রক্রিয়ায় একটি ক্রিকেটারের ম্যাচে কতটা অবদান ছিল তা মূল্যায়ন করা হয়েছে। বিচারকার্য শেষে দেখা গেছে ওয়ানডেতে শতাব্দীর দ্বিতীয় মূল্যবান ক্রিকেটার বা সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছেন সাকিব। টেস্টেও ষষ্ঠ স্থানে আছেন তিনি ।

 

#

আরিফ/গিয়াস/শামীম/২০২০/১৩৪০ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                                       নম্বর : ২৪০৬


‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍খুরশিদ আলমের মৃত্যুতে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী'র শোক 

ঢাকা, ২০ আষাঢ় (৪ জুলাই) :

                 বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব (পিআরএল ভোগরত) খুরশিদ আলমের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ  প্রকাশ করেছেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, বীর প্রতীক।

          খুরশীদ আলম হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল রাতে ইন্তেকাল করেছেন। আজ বাদ যোহর বাসাবো ঝিলপাড় জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে মরহুমের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে এবং শাহাজানপুর কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হবে। 

          মন্ত্রী ব্যক্তিগতভাবে এবং বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা/কর্মচারীর পক্ষ থেকে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং মরহুমের শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

#

সৈকত/গিয়াস/শামীম/২০২০/১২৪৮ ঘন্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                       নম্বর : ২৪০৫


‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍করোনা পরিস্থিতিতে সরকারের ‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত

ঢাকা, ২০ আষাঢ় (৪ জুলাই) :


       করোনা পরিস্থিতিতে সৃষ্ট দুর্যোগে দেশের সাধারণ মানুষের কষ্ট লাঘবে মানবিক সহায়তা হিসেবে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রেখেছে সরকার । এ পর্যন্ত সারা দেশে দেড় কোটির বেশি পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয়েছে।


          ৬৪ জেলার জেলা প্রশাসন থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী গতকাল পর্যন্ত সারাদেশে চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে দুই লাখ ১১ হাজার ১৭ মেট্রিক টন এবং বিতরণ করা হয়েছে এক লাখ ৯৮ হাজার ১২০ মেট্রিক টন। এতে উপকারভোগী পরিবার সংখ্যা এক কোটি ৬৮ লাখ ৩০ হাজার ১৮ এবং উপকারভোগী লোকসংখ্যা সাত কোটি ৩৮ লাখ ৪ হাজার ৭৯৫ জন।

শিশু খাদ্য সহ অন্যান্য সামগ্রী ক্রয়ের জন্য নগদ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে প্রায় ১২৩ কোটি টাকা। এরমধ্যে সাধারণ ত্রাণ হিসেবে নগদ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ৯৫ কোটি ৮৩ লাখ ৭২ হাজার ২৬৪ টাকা এবং বিতরণ করা হয়েছে ৯৩কোটি ৯২ লাখ ৪ হাজার ১৬ টাকা। এতে উপকারভোগী পরিবার সংখ্যা এক কোটি ১৬ হাজার ৫২৯ এবং উপকারভোগী লোক সংখ্যা চার কোটি ৪২ লাখ ৩৪ হাজার ৫৮৫ জন।

শিশু খাদ্য সহায়ক হিসেবে বরাদ্দদেয়া হয়েছে ২৭ কোটি ১৪ লাখ টাকা এবং এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে ২৬ কোটি ৪০ লাখ ১৯ হাজার টাকা। এতে উপকারভোগী পরিবার সংখ্যা আট লাখ ৪২ হাজার ৫৪৭ এবং উপকারভোগী লোকসংখ্যা ১৭ লাখ ৫৮ হাজার ৪৩৪ জন।

#

সেলিম/গিয়াস/শামীম/২০২০/১১.১৬ ঘন্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                       নম্বর : ২৪০৪


‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍  ইউনিসেফের নির্বাহী বোর্ডের বার্ষিক অধিবেশনের সমাপনী

শিশুদের কল্যাণ নিশ্চিতের ওপর গুরুত্বারোপ করলেন রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা

 

নিউইয়র্ক, ৪ জুলাই :

          রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা বলেন, কোভিড -১৯ মহামারিকালে শিশুদের সাধারণ টিকাদান কর্মসূচি অব্যাহত রাখা, নিরাপদভাবে স্কুলসমূহ পুনরায় চালু করা, শিক্ষার্থীদের ডিজিটাল সুযোগ-সুবিধা ও সংযোগ নিশ্চিত করা, নিরাপদ পানি ও পয়:নিষ্কাশন নিশ্চিত করা, উন্নত মানসিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদান এবং শিশুদের মনো-সামাজিক উন্নয়নের জন্য কর্মসূচি তৈরি করা হচ্ছে। ন্যায়সঙ্গত, অন্তর্ভুক্তিমূলক ও পরিবেশ বান্ধব সমাজ বিনির্মাণে সদস্য দেশের সরকারসমূহকে সহায়তা করতে অবশ্যই ইউনিসেফকে তার প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে আর এই প্রচেষ্টাসমূহে উদ্ভাবন, দক্ষতা ও অর্থের মূল্যকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে’।

বৃহস্পতিবার ২ জুলাই ইউনিসেফ নির্বাহী বোর্ডের চার দিন ব্যাপী বার্ষিক অধিবেশনের শেষ দিনে বোর্ড সভাপতি হিসেবে সমাপনী বক্তব্য প্রদান করেন রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা। বিশ্বব্যাপী ইউনিসেফের গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো এগিয়ে নিতে কৌশলগত দিক-নির্দেশনা ও সহযোগিতামূলক ছয়টি সিদ্ধান্ত সর্বসম্মতিক্রমে এ সভায় গৃহীত হয়।

এসডিজি বাস্তবায়ন প্রচেষ্টায় সদস্যদেশ

2020-07-04-21-59-d9479a6ee69c19637d211eae465df14c.docx 2020-07-04-21-59-d9479a6ee69c19637d211eae465df14c.docx

Share with :

Facebook Facebook