তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২০ এপ্রিল ২০১৫

তথ্যবিবরণী 20/04/2015

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ১১৩৯

বাজার তদারকি
১০ প্রতিষ্ঠানকে ৬২ হাজার টাকা জরিমানা

ঢাকা, ৭ বৈশাখ (২০ এপ্রিল) :
    জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বাজার তদারকিকালে আজ ঢাকা মহানগরীর উত্তরা সেক্টর-১ এলাকায় অস্বাস্থ্যকর উপায়ে খাদ্যপণ্য উৎপাদনের অপরাধে হিমালয় রেস্টুরেন্টকে ১৫ হাজার টাকা, উত্তরা বিরিয়ানি এন্ড রেস্তোরাঁকে ১০ হাজার টাকা এবং পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকার অপরাধে অমিতা মিনি মার্টকে আট হাজার টাকা ও থ্রি এস শপিং মলকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া, সেগুনবাগিচা এলাকার আল আমিন স্টোরকে এক হাজার টাকা জরিমানা ও অভিযোগকারীকে জরিমানার ২৫ শতাংশ হিসেবে ২৫০ টাকা প্রদান করা হয়।  

    অপরদিকে চট্টগ্রামের বায়েজীদ ও অক্সিজেন মোড় এলাকায় অস্বাস্থ্যকর উপায়ে খাদ্যপণ্য উৎপাদনের অপরাধে ক্যাফে বায়েজীদকে পাঁচ হাজার টাকা, মেসার্স জমজম হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টকে তিন হাজার টাকা, মেসার্স মক্কা হোটেলকে ১০ হাজার টাকা, মেয়াদউত্তীর্ণ পণ্য বিক্রয়ের অপরাধে মেসার্স সিগ্যালকে পাঁচ হাজার টাকা ও পণ্যের মোড়কে এমআরপি লেখা না থাকার অপরাধে মেসার্স ফুলকলিকে তিন হাজার টাকা  জরিমানা করা হয় ।

#


আবুল/সাইফুল্লাহ/মিজান/রফিকুল/জয়নুল/২০১৫/২১২০ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ১১৩৮

যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানি সফরশেষে দেশে ফিরেছেন স্পিকার

ঢাকা, ৭ বৈশাখ (২০ এপ্রিল) :
বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ও সিপিএ নির্বাহী কমিটির চেয়ারপার্সন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানি সফরশেষে আজ ঢাকা ফিরেছেন।
স্পিকারকে স্বাগত জানাতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ আশরাফুল মকবুলসহ সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ।
স্পিকার ওয়াশিংটন ডিসিতে চধৎষরধসবহঃধৎু ঘবঃড়িৎশ ড়হ ঃযব ডড়ৎষফ ইধহশ ্ ওগঋ আয়োজিত এষড়নধষ চধৎষরধসবহঃধৎু ঈড়হভবৎবহপব এবং জার্মানির বার্লিনে ঊঁৎড়ঢ়বধহ চধৎষরধসবহঃধৎু ঋড়ৎঁস ড়হ চড়ঢ়ঁষধঃরড়হ ধহফ উবাবষড়ঢ়সবহঃ (ঊচঋ) ও এবৎসধহ অষষ চধৎঃু চধৎষরধসবহঃধৎরধহং’ এৎড়ঁঢ় ড়হ চড়ঢ়ঁষধঃরড়হ ধহফ উবাবষড়ঢ়সবহঃ আয়োজিত ঞযব ওহঃবৎহধঃরড়হধষ এ৭/২০ চধৎষরধসবহঃধৎরধহং’ ঈড়হভবৎবহপব ড়হ ঊসঢ়ড়বিৎরহম ডড়সবহ ধহফ এরৎষং ঃড় খবধফ ঝবষভ-উবঃবৎসরহবফ, ঐবধষঃযু অহফ চৎড়ফঁপঃরাব খরাবং শীর্ষক অনুষ্ঠানে যোগদান করেন।  
যুক্তরাষ্ট্র সফরকালে চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ, সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক এবং সানজিদা খানম স্পিকারের সফরসঙ্গী হিসেবে ছিলেন।
#


শিবলী/সাইফুল্লাহ/আলম/জসীম/রফিকুল/জয়নুল/২০১৫/১৯২০ঘণ্টা  
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ১১৩৭
ঔষধশিল্প সমিতির সাথে মতবিনিময়কালে স¦াস্থ্যমন্ত্রী
ঔষধ রপ্তানি বৃদ্ধিতে পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার

ঢাকা, ৭ বৈশাখ (২০ এপ্রিল) :
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ঔষধের দাম সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে রাখার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, দেশের জনগণের অর্থনৈতিক জীবনমানের সাথে সংগতি রেখে ঔষধের মূল্যনির্ধারণ করলে সাধারণ মানুষের কষ্ট লাঘব হবে।
মন্ত্রী আজ সচিবালয়ে বাংলাদেশ ঔষধশিল্প সমিতির নবনির্বাচিত কমিটির সাথে মতবিনিময়কালে একথা বলেন।
সমিতির নতুন সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, মহাসচিব ফেরদৌস জামান, বাংলাদেশ ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান, এসেনশিয়াল ড্রাগস কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. অধ্যাপক এহসানুল কবিরসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এবং সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির কর্মকর্তাবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।
বাংলাদেশের ঔষধশিল্পকে দেশের অর্থনীতির অন্যতম বৃহৎ চালিকাশক্তি উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে বিশ্বের একশ’র বেশি দেশে আমাদের ঔষধ রপ্তানি হচ্ছে। আমাদের ঔষধের গুণগতমান আন্তর্জাতিকভাবে সমাদৃত। আমাদের ঔষধ যেন বিশ্বের আরো বেশি দেশে রপ্তানি করা যায় সরকারও সে লক্ষ্যে নানামুখী পদক্ষেপ নিচ্ছে।
স¦াস্থ্যমন্ত্রী ভেজাল ঔষধের বিরুদ্ধে সরকারের কঠোর অবস্থানের কথা পুনরুল্লেখ করে বলেন, সাধারণ মানুষের চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় ঔষধে ভেজাল কোনোভাবেই সরকার মেনে নেবে না। ভেজাল ঔষধের বিরুদ্ধে চলমান অভিযান আরো কঠোর হবে উল্লেখ করে তিনি ঔষধশিল্প সমিতির সহযোগিতা কামনা করেন। মন্ত্রী এসময় ঔষধশিল্প সমিতির নতুন কমিটির নির্বাচিত সদস্যদেরকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান।
সমিতির নেতৃবৃন্দ সরকারের ভেজাল ঔষধবিরোধী অবস্থানের প্রতি ঐকমত্য জানিয়ে অভিযানে সরকারকে সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। তাঁরা ঔষধের মূল্যনির্ধারণে মন্ত্রীর আহ্বানের প্রতি সহমত পোষণ করে জনগণের প্রতি পূর্ণ সহানুভূতি রেখে বিষয়টি বিবেচনার আশ্বাস প্রদান করেন।
#

পরীক্ষিৎ/সাইফুল্লাহ/আলম/জসীম/রফিকুল/জয়নুল/২০১৫/১৮৩০ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                      নম্বর : ১১৩৫

গ্রাম পুলিশের রাষ্ট্রীয় মর্যাদা, বেতন স্কেল নির্ধারণে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় পদক্ষেপ নেবে
                                                                           - স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী


ঢাকা, ৭ বৈশাখ (২০ এপ্রিল) :

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ বলেছেন, দেশের গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর নিরাপত্তা, মানবাধিকার রক্ষা ও আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়নে গ্রাম পুলিশ সরকারের সাথে সেতুবন্ধনের কাজ করছে। এজন্য গ্রাম পুলিশের রাষ্ট্রীয় মর্যাদা, বেতন স্কেল নির্ধারণসহ জীবন মানোন্নয়নে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া হবে। তিনি আজ গুলিস্তান কর্ণেল তাহের মিলনায়তনে বাংলাদেশ গ্রাম পুলিশ কর্মচারী ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।  
সংগঠনের সভাপতি ভবেন্দ্র নাথ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ই¯্রাফিল আলম এমপি, শিরিন আক্তার এমপি, সংগঠনের নেতা মো. মোস্তফা কামাল, মো. মোজাম্মেল হক, ওবায়দুল হক, জহিরুল হক ও শ্রমিক নেতা নইমুল আহসান জুয়েল।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিশ দলীয় জোটের সাম্প্রতিক আন্দোলনে সড়ক, সেতু ও রেলপথসহ বিভিন্ন স্থাপনা রক্ষায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে সহায়ক ভূমিকা রাখতে গিয়ে গ্রাম পুলিশের সদস্যগণের হতাহতের ঘটনা ঘটে। তিনি তাদের ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারী হিসেবে স্বীকৃতি, বেতন স্কেল, অবসর ও ঝুঁকি ভাতাসহ ৭-দফা দাবি পূরণে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সার্বিক সহায়তার ঘোষণা দেন।  
উল্লেখ্য, ইতোমধ্যে বর্তমান সরকার গ্রাম পুলিশের মহল্লাদার ও দফাদারদের বেতন ভাতা যথাক্রমে
১ হাজার ৯ শত ও ২ হাজার ১ শত টাকা হতে ৩ হাজার ও ৩ হাজার ৪ শত টাকায় উন্নীত করেছে।
#


আহসান/মোহাম্মদ আলী/শুকলা/রেজ্জাকুল/আসমা/২০১৫/১৫৩০ ঘণ্টা      
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                      নম্বর : ১১৩৩

ওয়াশিংটনে বাংলা নববর্ষ উদ্যাপন

 

ওয়াশিংটন ডিসি, ৭ বৈশাখ (২০ এপ্রিল) :
    বাংলা নববর্ষ ১৪২২ উদ্যাপন উপলক্ষে ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাস রবিবার সন্ধ্যায় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। বিগত বছরের ব্যথা আর গ্লানি ঝেড়ে ফেলে বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি বাংলা নববর্ষকে বরণ করেন।
    যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন তার সংক্ষিপ্ত ভাষণে নববর্ষে সকলের সুখ ও সমৃদ্ধজীবন কামনা করেন। তিনি বলেন এদেশে বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্ম যেন তাদের আত্মপরিচিতি ও শেকড়ের সাথে সম্পর্ক বজায় রাখে। এ ব্যাপারে তিনি বাবা-মা এবং অভিভাবকদের বিশেষ দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
    অনুষ্ঠানের শুরুতে দূতাবাসপরিবার ‘এসো হে বৈশাখ এসো এসো’ গানটি পরিবেশন করেন। আবহমান বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য তুলে ধরে ‘বাংলাস্কুল’, ‘বর্ণমালা শিক্ষাঙ্গণ’, ‘একতারা’, সুর বিতান, ফ্রেন্ডস এন্ড ফ্যামিলি এবং শিল্পীরা সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশন করেন।
     অনুষ্ঠানশেষে দূতাবাসের পক্ষ থেকে বাংলার ঐতিহ্যবাহী পান্তা-ইলিশ পরিবেশন করা হয়।
#


মোহাম্মদ আলী/শুকলা/রেজ্জাকুল/আসমা/২০১৫/১২০০ ঘণ্টা     

 
তথ্যবিবরণী                                                                                                      নম্বর : ১১৩২

দক্ষিণ কোরিয়া  সফরশেষে দেশে ফিরেছেন নৌমন্ত্রী

ঢাকা, ৭ বৈশাখ (২০ এপ্রিল) :

বাংলাদেশে গ্লোবাল মেরিটাইম ডিসট্রেস অ্যান্ড সেফটি সিস্টেম (জিএমডিএসএস) এবং ইন্টিগ্রেটেড মেরিটাইম নেভিগেশন সিস্টেম (আইএমএনএস) প্রকল্প  বাস্তবায়নের জন্য ব্যবহারিক ও কারিগরি বিষয়াদি সরেজমিন পরিদর্শন শেষে নৌ-পরিবহণ মন্ত্রী শাজাহান খান রোববার (১৯ এপ্রিল) রাতে দক্ষিণ কোরিয়া থেকে দেশে ফিরেছেন। তিনি ১৩ এপ্রিল রাতে কোরিয়ার উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেন।  
 নৌ-মন্ত্রী চার সদস্যের একটি প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন। প্রতিনিধিদলের অনন্য সদস্যরা হলেন, সমুদ্র পরিবহণ অধিদফতরের মহাপরিচালক কমডোর এম জাকিউর রহমান ভূইয়া, নৌ-পরিবহণ মন্ত্রীর একান্ত সচিব এম এম তারিকুল ইসলাম এবং সমুদ্র পরিবহণ অধিদফতরের প্রকৌশলী ও জাহাজ জরিপকারক এস এম নাজমুল হক।
উল্লেখ্য নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের অধীন সমুদ্র পরিবহণ অধিদফতরের বাস্তবায়নাধীন কোরিয় আর্থিক সহায়তাপুষ্ট ‘এস্টাবলিষ্টমেন্ট অব জিএমডিএসএস এন্ড ইন্টিগ্রেটেড মেরিটাইম নেভিগেশন সিস্টেম (ইজিআইএমএনএস)’ শীর্ষক অনুমোদিত প্রকল্পের আওতায় ঢাকায় কমান্ড এন্ড কন্ট্রোল সেন্টার স্থাপন এবং উপকূল এলাকায় রেডিও স্টেশন স্থাপন করা হবে। এর মাধ্যমে উপকূলে চলাচলকারী সকল নৌযানকে মনিটরিং-এর আওতায় এনে নিরাপত্তা প্রদান ছাড়াও প্রাকৃতিক দুর্যোগের পূর্বাভাস জানানো সম্ভব হবে।
 প্রকল্পটির আওতায় চুক্তিবদ্ধ কোরিয় পরামর্শক প্রতিষ্ঠান এএনএসই টেকনোলজিস কোম্পানি লিমিটেড ইতোমধ্যে সাইট সার্ভে ও পরিদর্শন সম্পন্ন করে প্রতিবেদন দাখিল করেছে। উক্ত প্রতিবেদনের আলোকে প্রকল্পের বিডিং ডকুমেন্ট তৈরি, দরপত্র আহ্বানসহ পরবর্তী কার্যক্রম শুরু হবে।
#


জাহাঙ্গীর/মোহাম্মদ আলী/শুকলা/রেজ্জাকুল/আসমা/২০১৫/১২০০ ঘণ্টা

 

Todays handout (3).doc Todays handout (3).doc

Share with :

Facebook Facebook