তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৬ এপ্রিল ২০১৫

তথ্যবিবরণী 16/04/2015

Handout                                                                                  Number :  1103

 

136 Bangladeshis arrive Djibouti today

 

Dhaka,  April 16 :

 

          136 Bangladeshi nationals including 5 women and 4 children who are evacuated from Hodeida, Yemen yesterday by an Indian Naval Ship (INS) have arrived safely at Djibouti today. Bangladesh Ambassador in Kuwait, stationed in Djibouti, received them at the sea port.

 

          Ministry of Foreign Affairs is arranging their food, shelter and other logistics during their stay in Djibouti. Ministry of Foreign Affairs is also arranging their onward journey from Djibouti to Dhaka by Bangladesh Biman Special Flight which is scheduled to operate on 20 April.

 

#

 

Jamal/Faizul/Mizan/Sanjib/Selim/2015/2130 Hrs

তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ১১০২


জনপ্রতিনিধিদের একমাত্র লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য জনসেবা
                                                        -- এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী

রংপুর, ৩ বৈশাখ (১৬ এপ্রিল) :
এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেছেন, জনপ্রতিনিধিদের একমাত্র লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য জনসেবা। তিনি জনপ্রতিনিধিদের ত্যাগের মনোভাব নিয়ে জনগণের ভাগ্যোন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি সহায়ক ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান।
প্রতিমন্ত্রী আজ রংপুর সার্কিট হাউস মিলনায়তনে লালমনিরহাট হাতিবান্ধা উপজেলার নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে একথা বলেন। এসময় জেলা প্রশাসক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।
    প্রতিমন্ত্রী বলেন, জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হওয়ার পর তাকে দলমত, ধর্ম ও বর্ণের ঊর্ধ্বে উঠে কাজ করতে হবে। এক্ষেত্রে দলীয়করণ বা আত্মীয়করণ কাম্য নয়। তিনি বর্তমান সরকারের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ, বনায়ন, বিদ্যুৎ ও অবকাঠামোগত চলমান উন্নয়ন কর্মকা-ে জনপ্রতিনিধিদের সততা নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করার পরামর্শ দেন। তিনি এ ব্যাপারে এলজিআরডি মন্ত্রণালয় থেকে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।
    পরে প্রতিমন্ত্রী প্রাইম মেডিকেল কর্তৃক আয়োজিত শিক্ষা ও ক্রীড়ানুষ্ঠানে পুরস্কার বিতরণ এবং এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করেন।
    এর আগে তিনি রংপুর সার্কিঠ হাউসে গংগাচড়া উপজেলার বিভিন্ন কলেজসমূহের পরিচালনা পর্ষদের কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় করেন।  
#
আহসান/ফায়জুল/আলম/নবী/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৫/২১৫৫ঘণ্টা

 

 

Handout                                                                                                       Number : 1101

 

Bangladesh reiterates commitment to making

more inclusive & secured cyberspace

                            -- Foreign Minister

 

The Hague,  April 16 :

           

            “Bangladesh reiterates her commitment to contribute to making cyberspace – the new frontier in our common heritage of mankind – more inclusive, secure and resilient. We wish to work together with all concerned to address the existing gaps in international norms to guide cyber security and safeguard measures”, said Foreign Minister of Bangladesh Abul Hassan Mahmood Ali while speaking at the Plenary Session of the Global Conference on Cyber Space (GCCS) 2015 at The Hague today.

            The Minister reaffirmed Bangladesh’s growing stakes and interest in engaging in cyber diplomacy as a foreign policy. He announced Bangladesh’s decision to join the Global Forum on Cyber Expertise (GFCE), a new international cooperation platform to be launched during the ongoing Conference to promote protection for the internet ecosystem in the developing countries.

            The Bangladesh Foreign Minister highlighted some of the advances made with realizing “Digital Bangladesh” and underscored Bangladesh’s vision to ensure access to the internet for all and promote the use of cyberspace as an empowerment tool. He underlined some of the challenges before countries like Bangladesh in the face of organized cyber crimes and attacks. He also referred to the awareness building work being done in collaboration with the civil society and private sector to preserve the right to privacy and freedom of expression in the cyberspace within an enabling legal framework.

            The Minister further stressed the need for identifying a common but differentiated set of challenges before the international community and finding the right responses to the emerging cyberspace landscape through multi-stakeholder dialogue and coordination.

            The two days Conference is the 4th such international gathering, which was opened by the Netherlands Prime Minister Mark Rutte. Foreign Minister Ali exchanged greetings with Prime Minister Rutte along with other dignitaries and conveyed to him the personal regards and felicitations of the Bangladesh Prime Minister Sheikh Hasina.

            The Conference has gathered more than 1,500 participants from Governments, private sector and civil society from all over the world to discuss a range of policy issues concerning security, freedom and economic growth in the cyberspace from diverse perspectives.

            The Bangladesh Ambassador to the Netherlands, Executive Director of Bangladesh Computer Council and Additional Secretary (Security and Immigration) of Ministry of Home Affairs accompanied the Foreign Minister at the Conference.

#

Khaleda/Faizul/Mizan/Sanjib/Selim/2015/2000 Hrs

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :  ১১০০

৯৪ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করেছে কোস্টগার্ড

ঢাকা, ৩ বৈশাখ (১৬ এপ্রিল) :

    আজ কোস্টগার্ড স্টেশন টেকনাফ এর একটি অপারেশনদল গোপন তথ্যের ভিত্তিতে টেকনাফ থানাধীন নাফনদীর তীরে বড়ইতলি এলাকায় একটি সন্দেহজনক সিএনজিকে থামতে বললে সিএনজিটি পালাবার চেষ্টা করে। কোস্টগার্ড সিএনজিটিকে তাড়া করলে সিএনজিচালক ইয়াবা ভর্তি কার্টন ফেলে রেখে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

    পরবর্তীতে কোস্টগার্ড অপারেশনদল পরিত্যক্ত অবস্থায় কার্টন দু’টি তল্লাশি করে ৯৪ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করে। যার আনুমানিক মূল্য টাকা ৪ কোটি ৭০ লাখ টাকা। জব্দকৃত ইয়াবা যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

#

মারুফ/ফায়জুল/নবী/মোশারফ/সেলিম/২০১৫/২০২০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :  ১০৯৯
স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সাথে ইরানের রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

ঢাকা, ৩ বৈশাখ (১৬ এপ্রিল) :

    ইরান বাংলাদেশে একটি অত্যাধুনিকমানের রেড ক্রিসেন্ট হাসপাতালনির্মাণের আগ্রহপ্রকাশ করেছে। প্রয়োজনীয় জমিবরাদ্দ পেলে তারা শীঘ্রই কাজ শুরু করতে চায়। বাংলাদেশ ও ইরানের মধ্যে একটি চিকিৎসাশিক্ষা সহযোগিতাবিষয়ক এক সমঝোতাস্মারক স্বাক্ষরের জন্যেও দেশটি আগ্রহ দেখিয়েছে।
বাংলাদেশে নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত ড. আব্বাস ভায়েজি (উৎ. অননধং ঠধবুর) আজ সচিবালয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের সাথে সাক্ষাতকালে এ আগ্রহের কথা জানান।
রাষ্ট্রদূত দু’দেশের মাঝে বিদ্যমান দীর্ঘদিনের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা তুলে ধরে বলেন, স্বাস্থ্যখাতে দু’দেশ অতীতে একসাথে কাজ করেছে। বাংলাদেশ থেকে পূর্বে ইরানে নিয়মিত চিকিৎসক যেত, এমনকি তেহরান বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও অনেক বাংলাদেশি উচ্চতর ডিগ্রি লাভ করেছে।
তিনি বাংলাদেশ থেকে ইরানে নিয়মিত চিকিৎসক ও নার্স নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য মোহাম্মদ নাসিমকে অনুরোধ জানিয়ে বলেন, প্রয়োজনে ইরান থেকেও চিকিৎসক এবং বিশেষজ্ঞ বাংলাদেশে চিকিৎসা সহায়তায় পাঠানো যেতে পারে। এতে দু’দেশই লাভবান হবে।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বাংলাদেশ ও ইরানের একই ধর্মীয় সংস্কৃতির কথা উল্লেখ করে বলেন, ইরানের সমৃদ্ধ ইতিহাস ও ঐতিহ্যের প্রতি বাংলাদেশের জনগণের শ্রদ্ধা ও আগ্রহ আছে। একত্রে কাজ করলে দু’দেশের আর্থসামাজিক উন্নতি ত্বরান্বিত হবে।
মন্ত্রী বাংলাদেশের ঔষধের আন্তর্জাতিকমানের গুণগত দিক তুলে ধরে বলেন, বাংলাদেশ বর্তমানে বিশ্বের ১০০টিরও বেশি দেশে ঔষধরপ্তানি করছে। ইরান বাংলাদেশ থেকে ঔষধআমদানি করলে সাশ্রয়ীমূল্যে বিশ্বমানসম্মত ঔষধ পেতে পারে। ইরানের রাষ্ট্রদূত মন্ত্রীর এ প্রস্তাব সক্রিয়ভাবে বিবেচনা করার আশ্বাস প্রদান করে বাংলাদেশের কয়েকটি ঔষধশিল্প প্রতিষ্ঠান পরিদর্শনের আগ্রহপ্রকাশ করেন।
রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশে মেডিকেল কলেজগুলোতে আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে আরো অধিক ছাত্রভর্তির সুযোগ প্রদানে মন্ত্রীর সহায়তা কামনা করেন। তিনি জানান, বাংলাদেশ থেকে সর্বাধিক পরিমাণ পাটআমদানি করে ইরান। বর্তমানে তারা বাংলাদেশের গার্মেন্টস ও ঔষধআমদানিতে আগ্রহী। রাষ্ট্রদূত স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে ইরান সফরের আমন্ত্রণ জানালে মন্ত্রী সাদরে তা গ্রহণ করেন।
#
পরীক্ষিৎ/ফায়জুল/মিজান/নবী/আলম/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৫/১৭২০ ঘণ্টা
 

তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ১০৯৮

কানাডার রাষ্ট্রদূতের সাথে বাণিজ্যমন্ত্রীর মতবিনিময়
কানাডা বাংলাদেশের সাথে বাণিজ্য বাড়াতে আগ্রহী

ঢাকা, ৩ বৈশাখ (১৬ এপ্রিল) :
    বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, কানাডা বাংলাদেশের সাথে বাণিজ্য বাড়াতে আগ্রহী। কানাডার সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্যিক সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। দু’দেশের অর্থনৈতিক সম্পর্ক আরো বৃদ্ধি করতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। কানাডার বাজারে বাংলাদেশের তৈরিপোশাক বেশ জনপ্রিয়।
    মন্ত্রী আজ ঢাকায় বাংলাদেশ সচিবালয়ে তাঁর কার্যালয়ে ঢাকায় নিযুক্ত কানাডার হাইকমিশনার ইবহড়রঃ-চরবৎৎব খধৎধসবব এর সঙ্গে মতবিনিময় করে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে একথা বলেন। এসময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন উপস্থিত ছিলেন।
    তোফায়েল আহমেদ বলেন, এ মুহূর্তে বাংলাদেশ এলডিসিভুক্ত দেশমূহের সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করছে। বাণিজ্যমন্ত্রী দেশের পক্ষে এ দায়িত্ব পালন করছে। এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর জন্য উন্নত দেশসমূহের কাছে সার্ভিস ওয়েভার প্রাপ্তি এবং ডব্লিউটিও-এর ট্রিপস চুক্তির আওতায় ঔষধের ক্ষেত্রে প্যাটেন্ট আইন বাস্তবায়নসংক্রান্ত অব্যাহতির মেয়াদ বৃদ্ধি করা জরুরি, যার মেয়াদ আগামী ৩১ ডিসেম্বর শেষ হবে। এজন্য প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে।
    মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ সরকার তৈরিপোশাক খাতের শ্রমিকদের কর্মবান্ধব ও নিরাপদ কাজের পরিবেশ সৃষ্টি করেছে। শুল্কমুক্ত ফায়ার সেফটি ডোর আমদানির সুযোগ দেওয়া হয়েছে।  কারখানার বিল্ডিং সেফটি ও ফায়ার সেফটি নিশ্চিত করা হয়েছে। সরকার সফলতার সাথে ক্রেতাগোষ্ঠীর দেয়া একশন প্ল্যান বাস্তবায়ন করেছে। ক্রেতাদের সংগঠন একোর্ড এবং এলায়েন্স এ পর্যন্ত প্রায় আড়াই হাজার কারখানা বিল্ডিং পরিদর্শন করেছে। এরমধ্যে মাত্র ২৯টি কারখানাভবন ব্যবহার অযোগ্য ঘোষিত হয়েছে, সেগুলো তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। শ্রমিকদের অধিকার রক্ষায় বাংলাদেশ সরকার সবধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।
    উল্লেখ্য, গত ২০১৩-১৪ অর্থবছরে কানাডায় বাংলাদেশ ১ হাজার ৯৯ দশমিক ৬৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য রপ্তানি করেছে, একই সময়ে বাংলাদেশ কানাডা থেকে আমদানি করেছে ৫শ’ ৮৫ দশমিক ৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য। ট্রেড ব্যালেন্স বাংলাদেশের পক্ষে ৫শ’ ১৪ দশমিক ১৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। কানাডা বাংলাদেশকে দীর্ঘদিন ধরে ডিউটি ফ্রি ও কোটা ফ্রি বাজার সুবিধা দিয়ে আসছে।
#
বকসী/ফায়জুল/মিজান/নবী/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৫/২০৪০ঘণ্টা


তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ১০৯৭

পদকপ্রাপ্ত কৃষকদের সাথে বাণিজ্যমন্ত্রীর মতবিনিময়
অবরোধ ও হরতালের কারণে কৃষকদের ক্ষতি পুষিয়ে দেয়া হবে


ঢাকা, ৩ বৈশাখ (১৬ এপ্রিল) :
    বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, অবরোধ ও হরতাল ব্যর্থ হয়েছে। এসময় অনেক নিরীহ মানুষকে আগুনে পুড়িয়ে মারা হয়েছে, অনেকেই আহত হয়েছেন, অনেকে হাসপাতালের বার্নইউনিটে চিকিৎসাধীন আছেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। পুড়ে যাওয়া গাড়ির জন্যও অগ্নিদগ্ধ মানুষদের আর্থিক সহায়তা দেয়া হচ্ছে। বিগত তিনমাসের অবরোধ ও হরতালের কারণে কৃষকদের যে ক্ষতি হয়েছে সরকার তা পুষিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। কৃষকদের ক্ষতি হয় এমন ধ্বংসাত্মক কর্মসূচি কোনো দলেরই দেয়া উচিত নয়। বর্তমান সরকার কৃষকদের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে, প্রয়োজনে সবধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।
    মন্ত্রী আজ ঢাকায় বাংলাদেশ সচিবালয়ে তাঁর কার্যালয়ে বাংলাদেশ কৃষকউন্নয়ন সোসাইটির চেয়ারম্যান এম সিরাজুল ইসলাম-এর নেতৃত্বে ১২ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল মতবিনিময় করতে এলে তাঁদের উদ্দেশ্যে একথা বলেন।
    কৃষকরা মন্ত্রীকে জানান, বিগত তিনমাসের অবরোধ ও হরতালের কারণে কৃষিপণ্য পরিবহণে অস্বাভাবিক ভাড়া বৃদ্ধি, রাজধানীতে কৃষিপণ্য পরিবহণ করতে না দেয়ায়  বিপুল পরিমাণে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তারা মন্ত্রীর কাছে দাবি করেন, আসন্ন ফলের মৌসুমে যাতে ফরমালিনের নামে উৎপাদিত আম ও লিচু ধ্বংস করা না হয় বা হয়রানি করা না হয়, দেশে উৎপাদিত কৃষিপণ্যের ক্ষতি না হয়, এমন কৃষিপণ্য আমদানির ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে, যাতে ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি না করা হয় এবং গৃহীত কৃষিঋণের সুদমওকুফ করা হয়।
    কৃষকদের এসকল দাবির প্রেক্ষিতে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের এগিয়ে যাবার মূলপ্রেরণার উৎস কৃষক। অবরোধ ও হরতালের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন দেশের ক্ষুদ্র কৃষকরা। কৃষকরা কৃষিপণ্য, মৎস্য ইত্যাদি বাজারজাত করতে পারেননি।  কৃষিপণ্য ক্ষেতেই নষ্ট হয়েছে, ট্রাকে পেট্রোলবোমা দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। যা বাংলাদেশের ইতিহাসে নজিরবিহীন। মন্ত্রী এ ধরনের ধ্বংসাত্মক কার্যক্রম থেকে দেশের সকল দলের প্রতি আহ্বান জানান।
    এসময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন উপস্থিত ছিলেন।
#
লতিফ/ফায়জুল/নবী/আলম/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৫/২০১০ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর :  ১০৯৬
আইএমএসও’র মহাপরিচালক পদে ক্যাপ্টেন মঈন উদ্দিন আহমেদের যোগদান

লন্ডন (যুক্তরাজ্য), এপ্রিল ১৬ :

    আন্তর্জাতিক মোবাইল স্যাটেলাইট সংস্থা (আইএমএসও) এর মহাপরিচালক পদে বাংলাদেশের নির্বাচিত প্রার্থী ক্যাপ্টেন মঈন উদ্দিন আহমেদ গতকাল সংস্থার সচিবালয়ে দায়িত্বভার গ্রহণ করেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ২৭ নভেম্বর লন্ডনে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক মোবাইল স্যাটেলাইট সংস্থার ২৩তম সাধারণসভায় বাংলাদেশের প্রার্থী ক্যাপ্টেন মঈন উদ্দিন আহমেদ এক প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনে সংস্থাটির মহাপরিচালক নির্বাচিত হন। এ সংস্থার ৩৫ বছরের ইতিহাসে প্রথম কোনো উন্নয়নশীল দেশের প্রার্থী মহাপরিচালক পদে দায়িত্বপ্রাপ্ত হলেন।

পেশাগত জীবনে ক্যাপ্টেন মঈন উদ্দিন আহমেদ ১৯৭৬ সালে বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে যোগদান করেন এবং পরবর্তীতে তিনি বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের নির্বাহী পরিচালক (কারিগরি) হিসেবে দায়িত্বপালন করেন। তিনি ২০০৪ সালে নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয় থেকে লিয়েনে আন্তর্জাতিক মেরিটাইম সংস্থা (আইএমও)-তে যোগদান করেন এবং বর্তমানে সংস্থাটির মেরিটাইম নিরাপত্তা বিভাগের জ্যেষ্ঠ কারিগরি কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োজিত।

রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রণাধীন স্যাটেলাইটসমূহের যোগাযোগের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে ৯৯ সদস্যরাষ্ট্রের সমন্বয়ে গঠিত আন্তর্জাতিক মোবাইল স্যাটেলাইট সংস্থা কাজ করে যাচ্ছে। সংস্থাটি ১৯৭৯ সালে ওহসধৎংধঃ নামে গঠিত হয়েছিল। ১৯৯৮ সালে এটি আন্তর্জাতিক মোবাইল স্যাটেলাইট সংস্থা হিসেবে নামান্তরিত হয়।

#

সায়েম/ফায়জুল/মিজান/নবী/আলম/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৫/১৬৪০ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                               নম্বর : ১০৯৫

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত

ঢাকা, ৩ বৈশাখ (১৬ এপ্রিল) :
    
    দশম জাতীয় সংসদের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৮ম বৈঠক আজ কমিটির সভাপতি ইমরান আহমদ এর সভাপতিত্বে সংসদভবনে অনুষ্ঠিত হয়।

    বৈঠকে ২০০৯ সাল থেকে শুরু হওয়া বর্তমান সরকারের ধারাবাহিক দু’মেয়াদে গৃহীত যুগান্তকারী পরিকল্পনাসমূহ বাস্তবায়নে সঠিক ও কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের ওপর গুরুত্বারোপ করে বিগত সভায় গৃহীত সিদ্ধান্তগুলোর বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা করা হয়।

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেড (ইঞঈখ) এবং টেলিটককে জাতীয়স্বার্থ সমুন্নত রাখার চেতনায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়ে সরকারের ‘ভিশন ২০২১’ বাস্তবায়নের জন্য উন্নত, শক্তিশালী ও টেকসই টেলিকম অবকাঠামো গঠনের ও টেলিটককে দেশের শীর্ষঅবস্থানে এগিয়ে নেয়ার ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের যথাযথ দায়িত্বপালনের পরামর্শ প্রদান করা হয়।  

কারিগরি ও অন্যান্য দিকসম্পর্কে ঈগঝ প্রক্রিয়ায় ক্রয়আইন সঠিকভাবে অনুসৃত না হওয়ায় ইতঃপূর্বে সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে আলোচনা ও গৃহীত সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে সম্ভাব্য জটিলতা নিরসনকল্পে ইতোমধ্যে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (ইঞজঈ) কর্তৃক অনুমোদনকৃত দরপত্রপ্রক্রিয়া বাতিল করার বিষয়ে কমিটিকে অবহিত করা হয়। এ বিষয়ে কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরিবর্তিত পরিস্থিতি মূল্যায়ন, উত্তম ও উপয্ক্তু স্পেসিফিকেশন, কস্ট এন্ড বেনিফিট বিশ্লেষণ ও উপযোগিতা ইত্যাদি সকলদিক বিচারবিশ্লেষণপূর্বক বাস্তবসম্মত আনুমানিক প্রাক্কলনব্যয় নির্ণয় করে নতুনভাবে ঈগঝ সার্ভিসক্রয় ও স্থাপনের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও বৈঠকে অবহিত করা হয়।

এছাড়া, বৈঠকে ইঞজঈ ও ইঞঈখ, প্রতিটি মোবাইল অপারেটর,  ঘঞঞঘ, ওঝচ সহ অডিটের ক্ষেত্রে টেকনিক্যাল অডিটটিম বা সিস্টেম অডিটর নিয়োগের চলমান প্রক্রিয়া, স্যাটেলাইট কার্যক্রম, টাওয়ারনির্মাণ ও হাইটেকপার্কের সর্বশেষ অবস্থা, টেলিটকের বাণিজ্যিক পরিকল্পনা, দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবলের সাথে বাংলাদেশের যুক্ত হওয়া ইত্যাদি সম্পর্কে হালনাগাদ তথ্য বৈঠকে উপস্থাপন ও আলোচনা করা হয়।

 কমিটির সদস্য ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, শরীফ আহমেদ এবং কাজী ফিরোজ রশীদ বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের চেয়ারম্যান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিবদ্বয় এবং সংশ্লিষ্ট সংস্থাসমূহের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দও বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

#
লাবণ্য/ফায়জুল/মিজান/নবী/আলম/সঞ্জীব/আব্বাস/২০১৫/১৯৪৫ ঘণ্টা

 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ১০৯৪

গণতন্ত্র সুরক্ষায় জঙ্গিবাদ ধ্বংস করুন
                                                    -- তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা, ৩ বৈশাখ (১৬ এপ্রিল) :
    তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, সামাজিক যোগাযোগের জন্য যেমন কণ্ঠস্বরের সুরক্ষা প্রয়োজন, তেমনি গণতন্ত্রের সুরক্ষায় প্রয়োজন সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদ বিতাড়ন। জঙ্গিবাদকে গণতন্ত্রে অস্বাভাবিক আচরণকারী ক্যান্সারের দুষ্টকোষ অভিহিত করে তিনি বলেন, দেশ ও জনগণের সুরক্ষায় এর ধ্বংস অনিবার্য।
    আজ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাঃ মিলন সম্মেলনকক্ষে বিশ্বকণ্ঠ দিবস উপলক্ষে এসোসিয়েশন অভ্ ফোনোসার্জনস অভ্ বাংলাদেশ আয়োজিত বৈজ্ঞানিক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী একথা বলেন। তিনি মানুষের কণ্ঠকে প্রকৃত সামাজিক যোগাযোগের সরাসরি মাধ্যম ও মানুষের দর্পণরূপে উল্লে¬খ করে এর যতœ ও সময়মতো চিকিৎসার ওপর সর্বাধিক গুরুত্বারোপ করেন।
    এসোসিয়েশনের সভাপতি অধ্যাপক ডাঃ কামরুল হাসান তরফদারের সভাপতিত্বে সেমিনারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডাঃ কামরুল হাসান খান, বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের মহাসচিব অধ্যাপক ডাঃ এম ইকবাল আর্সালান কণ্ঠশিল্পী সুবীর নন্দী ও অভিনেতা ঝুনা চৌধুরী বক্তব্য রাখেন।  
    অধ্যাপক ডাঃ এসএম খোরশেদ আলম মজুমদার সেমিনারে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। ‘স্বরের সুরক্ষায় ফোনোসার্জনস অভ্ বাংলাদেশ’ শিরোনামে বৈজ্ঞানিক উপস্থাপনা করেন ডাঃ শেখ হাসানুর রহমান খান।  
#
আকরাম/মিজান/আলম/নবী/সঞ্জীব/মোশারফ/জয়নুল/২০১৫/১৯১৫ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ১০৯৩

বিএড শিক্ষাক্রমে পরিবর্তন আসছে

ঢাকা, ৩ বৈশাখ (১৬ এপ্রিল) :
    আধুনিক জ্ঞানবিজ্ঞানে দক্ষ নতুনপ্রজন্ম গড়ার কাজের উপযোগী শিক্ষক তৈরির জন্য ব্যাচেলর অভ্ এডুকেশন (বিএড) এর শিক্ষাক্রমে পরিবর্তন আনা হচ্ছে। এর খসড়া চূড়ান্ত করার কাজ চলছে।
শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ আজ ঢাকায় সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ মিলনায়তনে ‘পরিমার্জিত বিএড শিক্ষাক্রম চূড়ান্তকরণ’ শীর্ষক দিনব্যাপী জাতীয় কর্মশালার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।
কর্মশালায় শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষা একটি গতিশীল উন্নয়নধর্মী বিষয়। বিশ্বে প্রতিনিয়ত পরিবর্তন হচ্ছে, পরিবর্তন হচ্ছে শিক্ষায়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গত অর্ধযুগে বাংলাদেশের শিক্ষাখাতে প্রভূত উন্নয়ন ঘটেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এখন সময় এসেছে শিক্ষার মানোন্নয়নের। শিক্ষার মানোন্নয়নের মূল কারিগর হলেন শিক্ষকসমাজ। আধুনিক যুগোপযোগী শিক্ষার সাথে তালমিলিয়ে ছাত্রছাত্রীদের গড়ে তুলতে শিক্ষকদের তৈরি হতে হচ্ছে। মন্ত্রী বিএড শিক্ষাক্রমে শিক্ষকদের নৈতিক মূল্যবোধ ও দায়িত্বশীলতার বিষয়াদি গুরুত্বসহকারে অন্তর্ভুক্ত করার পরামর্শ দেন। তিনি আগামীদিনের শিক্ষকসমাজকে আইটিনির্ভর শিক্ষাপ্রদান পদ্ধতির দক্ষকারিগর বানানোর উদ্যোগ নেয়ার জন্য বলেন। তিনি ‘ভিশন ২০২১’এর মধ্যমআয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় বাস্তবায়নে একটি দক্ষ নতুনপ্রজন্ম গড়ার কাজে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
শিক্ষাসচিব মোঃ নজরুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর হারুন উর রশিদ, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এম এ মান্নান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ফাহিমা খাতুন, টিকিউআই-২ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক বনমালী ভৌমিক ও এডিবি প্রতিনিধি এবাদুর রহমান বক্তৃতা করেন।
উল্লেখ্য, বর্তমান প্রচলিত বিএড শিক্ষাক্রম ২০০৬ থেকে চালু আছে। এতে জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ এর দৃষ্টিভঙ্গি, মাধ্যমিকস্তরের পরিমার্জিত শিক্ষাক্রম ২০১২ এর চাহিদা, তথ্যপ্রযুক্তির আমূল পরিবর্তন ইত্যাদি অন্তর্ভূক্ত নেই। শিক্ষাক্রমে এসব আঙ্গিক ঢোকানোই এ উদ্যোগের লক্ষ্য। চলমান একবছর মেয়াদি প্রশিক্ষণকোর্সকে দু’টি সেমিস্টারে ভাগ করা হবে। প্রথম সেমিস্টারের ব্যাপ্তিকাল হবে জানুয়ারি থেকে জুন এবং দ্বিতীয় সেমিস্টারের ব্যাপ্তিকাল হবে জুলাই থেকে ডিসেম্বর। প্রশিক্ষণের ফল বিভাগের পরিবর্তে লেটার গ্রেডে প্রকাশ করা হবে।
#
ঢালী/ফায়জুল/মিজান/আলম/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৫/১৮৫০ঘণ্টা  

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ১০৮৮


বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক
শেখ মো. আব্দুল্লাহকে দেখতে ওবায়দুল কাদের বিএসএমএমইউ-তে যান

ঢাকা, ৩ বৈশাখ (১৬ এপ্রিল) :
 
    সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের আজ চিকিৎসাধীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শেখ মোঃ আব্দুল্লাহকে দেখতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে যান।
    মন্ত্রী চিকিৎসকদের সাথে শেখ আব্দুল্লাহর চিকিৎসার সর্বশেষ অগ্রগতি নিয়ে কথা বলেন।
    এসময় মন্ত্রী তার দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।
#

নাছের/অনসূয়া/শুকলা/রেজ্জাকুল/আসমা/২০১৫/১৫১৫ ঘণ্টা

 
তথ্যবিবরণী                                                                                                      নম্বর : ১০৯০

কলকাতায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সাথে ভূমিমন্ত্রীর সাক্ষাৎ
ছিটমহল বিনিময় সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানে বাস্তব পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে

ঢাকা, ৩ বৈশাখ (১৬ এপ্রিল) :

    কলকাতায় ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সাথে গত ১৩ এপ্রিল সোমবার বাংলাদেশের ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফের ভারত-বাংলাদেশ ছিটমহল বিনিময় সংক্রান্ত বিষয়ে এক ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। মমতা ব্যানার্জি বাংলাদেশের ভূমিমন্ত্রীকে আশ্বস্ত করে বলেন, দীর্ঘদিন ঝুলে থাকা ছিটমহল বিনিময় সমস্যার সমাধানে অতি দ্রুত দুই দেশের পক্ষ থেকে বাস্তব পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।
    পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় ভূমিমন্ত্রী এর সংক্ষিপ্ত সফরে মমতা ব্যানার্জির সাথে এক সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন। ঘন্টাব্যাপী আলোচনার মুখ্য বিষয় ছিল ছিটমহল বিনিময় সংক্রান্ত। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি আশ্বাস দেন খুব দ্রুত এ জটিলতার নিরসন করা হবে। সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বাংলাদেশ সফরে এলে তিনি বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে যে আতিথেয়তা পেয়েছেন তাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। জাতিসংঘে বাংলা ভাষাকে স্থায়ী ভাষা করার উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বাংলাদেশের সাথে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর পূর্ণ সমর্থন রয়েছে বলে ভূমিমন্ত্রীকে আশ্বস্ত করেন।
    ভূমিমন্ত্রী কলকাতার সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, বাংলাদেশ সন্ত্রাসবাদকে প্রশ্রয় দেয় না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জঙ্গি, সন্ত্রাসবাদ দমনে কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছেন। বাংলাদেশ, পশ্চিমবঙ্গ সীমান্তে অনেকেই সন্ত্রাসী কর্মকা- ঘটানোর চেষ্টা করছে, বাংলাদেশ সরকার তা দমনে উদ্যোগ নিয়েছে। পাশাপাশি তিনি বলেন, ব্লগার অভিজিৎ রায়ের খুনিরা অবশ্যই ধরা পড়বে, শাস্তি পাবে। মন্ত্রী সন্ত্রাস দমনে ভারত সরকারের আন্তরিকতার প্রশংসা করেন।
#

রেজুয়ান/অনসূয়া/শুকলা/রেজ্জাকুল/আসমা/২০১৫/১৬০০ ঘণ্টা

 


    
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ১০৮৯

সরকারি হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত

ঢাকা, ৩ বৈশাখ (১৬ এপ্রিল) :   

দশম জাতীয় সংসদের সরকারি হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ২৫তম বৈঠক আজ জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সভাপতি ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এর সভাপতিত্বে কমিটির সদস্য মো. আব্দুস শহীদ, বেগম রেবেকা মমিন, মো. শামসুল হক টুকু, মঈন উদ্দিন খান বাদল, এ কে এম মাঈদুল ইসলাম, মো. রুস্তম আলী ফরাজী এবং বেগম ওয়াসিকা আয়েশা খান বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।
বৈঠকে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) এর ২০০৫-০৮ অর্থবছরের হিসাব সম্পর্কিত বাংলাদেশ মহা হিসাব-নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রকের বার্ষিক অডিট রিপোর্ট ২০১০-১১ এর অনিষ্পন্ন ৫ টি অডিট আপত্তি বিষয়ে আলোচনা করা হয় যার সাথে জড়িত অর্থের পরিমাণ প্রায় ১ শত ৬২ কোটি ৪৯ লাখ টাকা।
বৈঠকে জানানো হয়, সরকারি বিধি উপেক্ষা করে অনিয়মিতভাবে ৯ তলা ভবনের পরিবর্তে ১৮ তলা এবং ৬ তলা ভবনের পরিবর্তে ১৬ তলা ভবন নির্মাণের নকশা অনুমোদনপূর্বক ভবন নির্মাণকারীকে প্রায়
১ শত ৪৩ কোটি টাকার অবৈধ সুবিধা প্রদান করা হয়েছে। এই ঘটনার সাথে জড়িত দোষী ব্যক্তিদের সনাক্তপূর্বক তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করে অনধিক ৩০ দিনের মধ্যে কমিটিকে অবহিত করতে বলা হয়।
অডিট রিপোর্টে জানানো হয়, মূলনথির অস্তিÍত্ব না রেখে পরিত্যক্ত সম্পত্তি অবমুক্তির মাধ্যমে হস্তান্তর করায়  প্রায় ১১ কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া গুলশান ও বনানী এলাকার বিভিন্ন প্লটে অনেকেই অবৈধভাবে বসবাস করছেন। কমিটি বেআইনীভাবে বসবাসকৃতদের কাছ থেকে প্লটসমূহ উদ্ধারে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের সুপারিশ করে।
বৈঠকে আরও জানানো হয়, যথাযথ উত্তরাধিকার সনদ ও পরিত্যক্ত সম্পত্তির তালিকা হতে অবমুক্তি ছাড়াই নামজারি করায় সরকারের ১ কোটি টাকা এবং প্লট গ্রহীতার নিকট থেকে নির্ধারিত হারের চেয়ে কম হারে কনভারসন ফি আদায়ের ফলে প্রায় ৪ কোটি ৩০ লাখ টাকার আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া বাণিজ্যিক এলাকার প্লটকে বাণিজ্যিকে রূপান্তর না করে বাস্তবে বাণিজ্যিক ব্যবহারের সুযোগ প্রদান করায় প্রায় ২ কোটি ৪১ লাখ টাকা ক্ষতি হয়েছে। কমিটি এইসব অনিয়মের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে।
বৈঠকে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ মন্ত্রণালয় ও জা<

Todays handout (14).doc Todays handout (14).doc

Share with :

Facebook Facebook