তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৯ জুন ২০১৯

তথ্যবিবরণী - 29/6/2019

তথ্যবিবরণী                                                                                 নম্বর : ২৩৯৭ 
                  শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বিশ্বে বাঙালির পরিচয় বদলে দিয়েছে
                                                -- তথ্যমন্ত্রী
 
ঢাকা, ১৫ আষাঢ় (২৯ জুন) :
তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহ্মুদ বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর অসাধারণ নেতৃত্বের মাধ্যমে বিশ্বে বাঙালির পরিচয় বদলে দিয়েছেন। তাঁর নেতৃত্বে দল চারবার ক্ষমতায় এসেছে। উন্নয়ন ও অর্জনের মাধ্যমে তিনি দেশকে বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত করেছেন।’
মন্ত্রী আজ ঢাকায় শিল্পকলা একাডেমির চিত্রশালা মিলনায়তনে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা কমিটির উদ্যোগে ‘গৌরবের অভিযাত্রায় ৭০ বছর : তারুণ্যের ভাবনায় আওয়ামী লীগ’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘রাজনীতি হচ্ছে দেশ ও জনসেবার মহান ব্রত। ছাত্র রাজনীতিও তাই। সকল স্তরের রাজনীতিকেই অবক্ষয় থেকে মুক্ত রাখতে হবে।’
প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম সভায় সভাপতিত্ব করেন। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী, দলের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য অধ্যাপিকা মেরিনা জাহান সারাদেশ থেকে আগত প্রায় তিন শতাধিক তরুণ শিক্ষার্থীর সাথে মতবিনিময়ে অংশ নেন।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, খাদ্য ঘাটতির বাংলাদেশ এখন খাদ্য উদ্বৃত্তের দেশ, নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশ, অবিস্মরণীয় অর্থনৈতিক উন্নয়নের দেশ। বাংলা ভাষা এখন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা। ২১শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা দেশের জন্য এই বিরল সম্মান বয়ে এনেছেন।
অনুষ্ঠানের সভাপতি এইচ টি ইমাম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিশন-২০২১, ২০৪১, ২১০০, ডেল্টাপ্লান ঘোষণা করেছেন, তা বাস্তবায়নে তরুণ প্রজন্মকে যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতে হবে।
ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এবং টেলিযোগাযোগ খাতে দেশের আধুনিকায়নের নানা উদাহরণ দিয়ে সরকারের ডিজিটাল সক্ষমতা তুলে ধরেন।
পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, বিদেশে পলাতক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে পারাটা অনেক বড় সফলতা বলে মনে করি।
দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে আসা শিক্ষার্থী এবং তরুণ পেশাজীবীরা ভবিষ্যতে আওয়ামী লীগকে কীভাবে দেখতে চায়, সে বিষয়ে নানা প্রশ্ন করেন। মঞ্চ থেকে প্যানেল বক্তারা নিজ নিজ ক্ষেত্রে নানা বিষয়ের প্রশ্নের জবাব দেন।
#
আকরাম/ইসরাত/রাহাত/মোশারফ/সেলিম/২০১৯/২০৩০ ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                 নম্বর : ২৩৯৬ 
 
 
পরিকল্পিত ও বাসযোগ্য নগর গড়তে সরকার কাজ করছে
                                              ---ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী
 
ঢাকা, ১৫ আষাঢ় (২৯ জুন) :
 
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মোঃ এনামুর রহমান বলেছেন, সবার জন্য পরিকল্পিত ও বাসযোগ্য নগর গড়তে সরকার কাজ করছে। প্রতিটি গ্রামে শহরের যাবতীয় নাগরিক সুবিধা পৌঁছে দিয়ে জনসাধারণের শহরমুখী হওয়ার প্রবণতা কমিয়ে আনা হবে। তিনি বলেন, সরকার বহুমুখী উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে শহরগুলোকে আধুনিক ও বাসযোগ্য করার পাশাপাশি প্রতিটি গ্রামকে শহরে উন্নীত করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।
প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে দু’দিনব্যাপী ৬ষ্ঠ নগর সংলাপ শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 
       ‘নগর সংলাপ’ আরবান আইএনজিও ফোরাম বাংলাদেশের একটি বার্ষিক আয়োজন যার মাধ্যমে নগরের জনগোষ্ঠী, নগর কর্তৃপক্ষ, নগরের বিভিন্ন পেশাজীবী, উন্নয়ন সংস্থা, গবেষক, শিক্ষাবিদ, শিক্ষার্থী, গণমাধ্যম এবং নীতিনির্ধারকদের পারস্পরিক মতবিনিময়, শিখন বিনিময় এবং নীতিনির্ধারণী সংলাপের সুযোগ করে দেওয়া হয়। ২৯-৩০ জুন দু’দিনব্যাপী এই নগর সংলাপে পরিকল্পিত ও একীভূত নগরায়ন, নগর দুর্যোগ সহনশীলতা, নগরের সবুজায়ন, নগর উন্নয়ন পরিকল্পনায় সকল স্তরের নাগরিকদের অংশগ্রহণ, নাগরিকদের মৌলিক অধিকার ও সেবা নিশ্চিতকরণসহ বিভিন্ন বিষয়ে ভিন্ন ভিন্ন সেশন অনুষ্ঠিত হবে।
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ শাহ কামাল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের ডিন ড. আ স ম মাকসুদ কামাল এবং হেবিটেট ফর হিউম্যানিটি বাংলাদেশের ন্যাশনাল ডিরেক্টর জন আর্মস্ট্রং অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন।
#
 
সেলিম/ইসরাত/রাহাত/সঞ্জীব/আব্বাস/২০১৯/১৮২৭ ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                       নম্বর : ২৩৯৫
 
 
যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের অবদান অপরিসীম
                                                  ---মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী
 
ঢাকা, ১৫ আষাঢ় (২৯ জুন) :
 
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের অবদান অপরিসীম। স্বাধীনতা চেতনা বিরোধীরা রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থাকাকালীন যখন জাতির পিতার আত্মস্বীকৃত খুনিদের পুনর্বাসিত করেছে, স্বাধীনতা বিরোধীদের হাতে স্বাধীনতার লাল-সবুজ পতাকা তুলে দিয়েছে, সদম্ভে ঘোষণা করেছে এখানে কোনো স্বাধীনতা যুদ্ধ হয়নি, নেই কোনো স্বাধীনতা বিরোধী, সেই সময়ে সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের আন্দোলন যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে জনমত সৃষ্টিতে অপরিসীম ভূমিকা রেখেছে। সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের সাবেক সভাপতি এ কে খন্দকারের লেখা বইয়ে ইতিহাস বিকৃতির ঘটনায় এ ফোরামের বিরোধিতাকে সাহসী পদক্ষেপ উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ওটা ছিলো ফরমায়েসি লেখা। এ ধরনের অপতৎপরতার বিরুদ্ধে ফোরাম ভবিষ্যতেও সাহসী ভূমিকা পালন করবে বলে মন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন। 
মন্ত্রী আজ ঢাকায় বেইলি রোডস্থ অফিসার্স ক্লাবে সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম মুক্তিযুদ্ধ ৭১ এর ৫ম জাতীয় কনভেনশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন ।
মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে আমরা একটি স্বাধীন দেশ পেয়েছি, আর তাঁরই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার দেশকে উন্নত-সমৃদ্ধরূপে গড়ে তুলতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন উদ্যোগের উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, একই নকশায় সকল মৃত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কবর তৈরি করা হবে। সকল বধ্যভূমি ও যুদ্ধের স্থানসমূহ সংরক্ষণের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতির পিতার ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণের স্থান, ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর মিত্র বাহিনীকে দেশে ফিরিয়ে নেওয়ার ঘোষণার স্থান এবং পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর আত্মসমর্পণের স্থান সংরক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। প্রথম সরকারের শপথ গ্রহণের স্থান মুজিবনগরকে মুক্তিযুদ্ধের তীর্থস্থানে পরিণত করতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতার পরিমাণ বৃদ্ধি করা হয়েছে এবং ভবিষ্যতে আরো বৃদ্ধি করা হবে।
সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের সভাপতি মেজর জেনারেল (অবঃ) কে এম শফিউল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জাতীয় কনভেনশনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হারুন হাবীব, ভাইস চেয়ারম্যান সেক্টর কমান্ডার লে. কর্নেল (অবঃ) আবু ওসমান চৌধুরী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান অধ্যাপিকা মমতাজ বেগম প্রমুখ। 
এর আগে বেলুন উড়িয়ে কনভেনশনের উদ্বোধন করা হয় এবং জাতীয় সংগীত ও দেশাত্মবোধক সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে কনভেনশনের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। বিভিন্ন বিভাগ ও জেলা থেকে প্রতিনিধিরা কনভেনশনে অংশগ্রহণ করেন।
#
 
দীপংকর/ইসরাত/রাহাত/সঞ্জীব/আব্বাস/২০১৯/১৮২০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                   নম্বর :  ২৩৯৪

 
মর্মান্তিক অপরাধের পেছনে সর্বগ্রাসী মাদক দায়ী
                                       ---শিক্ষামন্ত্রী
 
ঢাকা, ১৫ আষাঢ় (২৯ জুন) :
 
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, সর্বগ্রাসী মাদকের কারণে সমাজে এক ধরনের অস্থিরতা কাজ করছে। নানা ধরনের অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে। 
মন্ত্রী আজ রাজধানীর রমনায় ঢাকা ক্লাবে ইনার হুইল ডিস্ট্রিক্ট ৩২৮ আয়োজিত এক অনষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 
মন্ত্রী বলেন, যে মানবতাবোধ, দেশপ্রেম, নৈতিকতাবোধ নিয়ে আমাদের শিশুদের বেড়ে ওঠার কথা শিশুরা সেভাবে বেড়ে উঠছে না। আমরা শুধু ভালো ফলাফলের দিকে বেশি নজর দিচ্ছি। আমরা মনোযোগ দিচ্ছি গণিত, ইংরেজি অথবা বিজ্ঞানের দিকে। নৈতিকতা নিয়ে ভাবছি না। শিশুদের নৈতিক মূল্যবোধ জাগ্রত করতে আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার প্রয়োজনীয় পরিবর্তন করা হবে। 
অনুষ্ঠানে ইনার হুইলের ২০১৯-২০ সেশনের নতুন কমিটি দায়িত্বভার গ্রহণ করে। ডিস্ট্রিক্ট ৩২৮ এর নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন নাইমা সাখাওয়াত।
#
 
খায়ের/ইসরাত/রাহাত/সঞ্জীব/আব্বাস/২০১৯/১৮১২ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                             নম্বর : ২৩৯৩

 

তরুণদের চাকরি প্রত্যাশী না হয়ে উদ্যোক্তা হওয়া উচিত

                                                                           ----বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ১৫ আষাঢ় (২৯ জুন) :

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, সম্ভাবনাময় তরুণদের চাকরি প্রত্যাশী না হয়ে উদ্যোক্তা হওয়ার প্রচেষ্টা থাকা উচিত। সরকার উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য নানাভাবে প্রণোদনা দিচ্ছে। বাংলাদেশ এনার্জি এন্ড পাওয়ার রিসার্চ কাউন্সিল থেকেও গবেষণা কাজে প্রকল্প প্রতি সর্বোচ্চ দুই কোটি টাকা প্রদান করা হয়ে থাকে।

 

প্রতিমন্ত্রী গতকাল বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে দুই দিনব্যাপী ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি ন্যাশনাল ক্যারিয়ার ফেয়ার-২০১৯ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।  

 

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতির আকার বাড়ছে। চাকরি নিয়ে তরুণদের হতাশ হওয়ার কিছু নেই। আগামী পাঁচ বছরে বিদ্যুৎ খাতেই প্রায় এক হাজার ইঞ্জিনিয়ার লাগবে। বাংলাদেশে খনিজ খাতেও সম্ভাবনা বাড়ছে।

                              

ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির উপাচার্য ভ্যানসেন্ট চ্যাং (Vincent Chang) এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব ডঃ জাফর উদ্দিন বিশেষ অতিথি হিসেবে, অগমেডিক্স এর কান্ট্রি ডাইরেক্টর রাশেদ রোমান ও ব্র্যাক ইনস্টিটিউট অভ্ ল্যাংগুয়েজেস এর সিনিয়র পরিচালক সৈয়দা সারওয়াত আবেদ বক্তব্য রাখেন।

 

#

আসলাম/ইসরাত/রাহাত/সঞ্জীব/আব্বাস/২০১৯/১৭২৯ ঘণ্টা

Todays handout (3).docx Todays handout (3).docx

Share with :

Facebook Facebook