তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৩ জুন ২০২০

তথ্যবিবরণী ১২ জুন, ২০২০

তথ্যবিবরণী                                                                                                            নম্বর : ২১৩৭

 

সমস্ত সমালোচনাকে অসার প্রমাণিত করে এবারের বাজেটও বাস্তবায়িত হবে

                                                                             ---তথ্যমন্ত্রী

 

চট্টগ্রাম, ২৯ জ্যৈষ্ঠ (১২ জুন):

 

            তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, সমস্ত সমালোচনাকে অসার প্রমাণিত করে এবারের বাজেটও বাস্তবায়িত হবে। 

            আজ বিকেলে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে বাজেট প্রতিক্রিয়ায় সাংবাদিকদের একথা জানান তথ্যমন্ত্রী । চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ ও জেলা প্রশাসক
মোঃ ইলিয়াস হোসেন এ সময় বক্তব্য রাখেন। 

            মন্ত্রী বলেন, গত ১১ বছর একাধারে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাজেট বাস্তবায়িত হয়েছে। দেশ এগিয়ে গেছে। দরিদ্রতা কমে অর্ধেকে নেমেছে, মাথাপিছু আয় বেড়েছে সাড়ে তিনগুণ। পৃথিবীর অন্যতম সর্বোচ্চ জিডিপি প্রবৃদ্ধি হারের দেশে উন্নীত হয়েছে বাংলাদেশ। একইভাবে এবারের বাজেটও বাস্তবায়িত হবে। 

            ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, এই বাজেটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৮ দশমিক ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা স্থির করেছেন। পত্র-পত্রিকায় দেখলাম এ লক্ষ্যমাত্রাকে বেশি বলে সমালোচনা হচ্ছে। ক’দিন আগে আইএমএফ বলেছে, যদি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব সহসা কেটে যায় এবং বৈশ্বিক মন্দাও যদি সহসা দূর হয়, তাহলে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার ৯ শতাংশের বেশি হতে পারে। আইএমএফ এর প্রাক্কলন বিবেচনায় নিলে ৮ দশমিক
২ শতাংশ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা নিশ্চয়ই উচ্চাভিলাষ নয়।  ব্যক্তি জীবনে যেমন অভিলাষ না থাকলে সেই লক্ষ্যে পৌঁছানোর তাগাদা থাকে না, রাষ্ট্রীয় জীবনেও অভিলাষ থাকলেই জাতি এগিয়ে যায়, মন্তব্য করেন ড. হাছান।

            করোনা ভাইরাসের মহামারির মধ্যেও প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে অর্থমন্ত্রী একটি সাহসী বাজেট ঘোষণা করেছেন উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, পত্র-পত্রিকায় অনেক মন্তব্য ও বিশ্লেষণ আমরা দেখতে পাচ্ছি। কিছু চিহ্নিত বিশেষজ্ঞ আছেন, তারা সবসময় মতামত দেন। আমরা দেখেছি,  গত ১১ বছর ধরে যখনই বাজেট ঘোষণা হয়েছে, ততবারই সিপিডি কোনদিন বাজেটের প্রশংসা করতে পারেনি। প্রতিবারই তারা বলেছেন, বাজেট উচ্চাকাঙ্ক্ষী, বাস্তবায়নযোগ্য নয়। কিন্তু গত ১১ বছরের হিসেবে প্রতিবার বাজেট ৯৩ থেকে ৯৬ শতাংশ বাস্তবায়িত হয়েছে। বারবার ভ্রান্ত প্রমাণ হবার পরও তাদের সমালোচনায় একই ধারাবাহিকতাই বজায় রয়েছে। 

            ১১ বছরে বাজেটের অংক সাড়ে ৬ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ২০০৯ সালে আমরা যখন সরকার গঠন করি তখন দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় ছিল ৬’শ ডলার। আজকে মাথাপিছু আয় সাড়ে তিনগুণ বৃদ্ধি পেয়ে ২ হাজার ৮০ ডলারে উন্নীত হয়েছে। অর্থাৎ ঘোষিত বাজেট বাস্তবায়নের পর দেশের মানুষের জনপ্রতি উপার্জন হবে প্রতি বছর প্রায় দুই লাখ টাকা। 

            বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর বাজেটে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ রাখা হয়েছে এমন বক্তব্যের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, কালো টাকা সাদা করার সিস্টেম চালু করেছিলেন বিএনপির অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমান। তিনি নিজেও কালো টাকা সাদা করেছিলেন, তাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া নিজেও কালো টাকা সাদা করেছিলেন। অর্থনীতির স্বার্থে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে এই ধরণের অপ্রদর্শিত টাকাকে বৈধ করার সুযোগ দেয়া হয়। বিএনপি নেতা আমীর খসরু মাহমুদের উচিত সেই তথ্য ও উপাত্ত যাচাই বাছাই করা এবং আয়নায় নিজেদের চেহারাটাও একটু দেখা, বলেন তথ্যমন্ত্রী। 

            চট্টগ্রামের বেসরকারি হাসপাতালে রোগীদের ভর্তি করা হচ্ছে না এবং চিকিৎসা না দিয়ে পাঠিয়ে দেয়া হচ্ছে, এ বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রামে এ নিয়ে কয়েকটি সমন্বয় সভা হয়েছে। কয়েকটি হাসপাতাল চালু করা হয়েছে। তবে শুধু চট্টগ্রামে নয়, সারাদেশ এবং পৃথিবী জুড়েই আইসিইউ সঙ্কট আছে। ইতালি, নিউইয়র্কের মতো দেশে বহু বয়স্ক মানুষ আইসিইউ সেবা না পেয়ে মৃত্যুবরণ করেছে। তবে রোগী ফেরত দেওয়া কখনোই সমর্থনযোগ্য নয়। যে সমস্ত প্রতিষ্ঠান এভাবে রোগী ফেরত দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে সরকার ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। শনিবার থেকে প্রশাসন মোবাইল কোর্ট শুরু করবে। প্রয়োজনে তাদের লাইসেন্সও বাতিল হবে। 

            এ সময় সাইফ পাওয়ার টেকের উদ্যোগে কোভিড-১৯ মোকাবিলায় ১০০ অক্সিজেন সিলিন্ডার বিতরণ করেন তথ্যমন্ত্রী। চট্টগ্রাম বিভাগীয় ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. মোস্তফা খালেদ আহমদ, সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি, সাইফ পাওয়ার টেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তরফদার রুহুল আমিন এসময় উপস্থিত ছিলেন।

#

আকরাম/রাহাত/মোশারফ/আব্বাস/২০২০/২১০৫ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ২১৩৬

 

মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের

সহসভাপতি আলহাজ উস্তার আলীর মৃত্যুতে পরিবেশ মন্ত্রীর শোক


ঢাকা, ২৯ জ্যৈষ্ঠ (১২ জুন):

 

          মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আলহাজ উস্তার আলীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন ।

 

          মন্ত্রী আজ এক শোক বার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

 

         

#

দীপংকর/রাহাত/মোশারফ/আব্বাস/২০২০/২০৫৭ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ২১৩৫

 

সস্ত্রীক মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী করোনায় আক্রান্ত

দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা

 

ঢাকা, ১২ জুন (২৯ জ্যৈষ্ঠ):

 

          মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক  এবং তাঁর স্ত্রী লায়লা আরজুমান্দ বানুর কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে । এছাড়া মন্ত্রীর একান্ত সচিব হাবিবুর রহমানও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

 

          করোনা উপসর্গ থাকায় গতকাল তাঁদের টেস্ট করা হলে আজ তাঁদের দেহে কোভিড-১৯ পজিটিভ ফলাফল পাওয়া যায়। তাঁরা সবাই চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছেন।

 

          মন্ত্রী নিজের এবং আক্রান্তদের দ্রুত আরোগ্য লাভের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

 

 

#

মারুফ/রাহাত/মোশারফ/মিজান/২০২০/২০০৬ ঘন্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ২১৩৪

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযু্ক্তি বিভাগের প্রতিবেদন

ই-নথি ব্যবস্থাপনায় শীর্ষে শিল্প মন্ত্রণালয়

 

ঢাকা, ১২ জুন (২৯ জ্যৈষ্ঠ):

 

          তথ্য ও যোগাযোগ প্রযু্ক্তি বিভাগের এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) প্রোগ্রাম প্রকাশিত মূল্যায়ন প্রতিবেদনে এপ্রিল, ২০২০ সময়ে মধ্যম ক্যাটাগরির ১৫ টি মন্ত্রণালয়ের মধ্যে ই-নথি ব্যবস্থাপনায় শীর্ষস্থান অধিকার করেছে শিল্প মন্ত্রণালয়।

 

          প্রতিবেদন পর্যালোচনায় দেখা যায়, শুধু মধ্যম ক্যাটাগরি নয়, সকল ক্যাটাগরির মোট ৫৮টি মন্ত্রণালয়  ও বিভাগের মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ে ই-নথিতে সর্বোচ্চ কার্যক্রম হয়েছে। পাশাপাশি ই-নথি ব্যবস্থাপনায় ছোট ক্যাটাগরির ১৮৫ টি সরকারি দপ্তর ও সংস্থার মধ্যে এপ্রিল, ২০২০ মাসে প্রথম স্থানে রয়েছে শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন দপ্তর প্রধান, বয়লার পরিদর্শকের কার্যালয়।

 

          উল্লেখ্য, জানুয়ারি, ২০২০ এবং মার্চ, ২০২০ মাসেও ই-নথি ব্যবস্থাপনায় শিল্প মন্ত্রণালয় মধ্যম ক্যাটাগরির ১৫টি মন্ত্রণালয়ের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেছিল।

 

          ডিজিটাল পদ্ধতিতে সেবাদান প্রক্রিয়ায় শিল্প মন্ত্রণালয় শুরু থেকে এগিয়ে রয়েছে। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও এ মন্ত্রণালয়ে ই-ফাইলিং এর মাধ্যমে দৈনন্দিন কর্মকাণ্ড ও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। সরকারি ছুটিকালীন শিল্প মন্ত্রণালয় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মোট ৩২টি সভা ও ৪টি অভ্যন্তরীণ প্রশিক্ষণ কার্যক্রম আয়োজন করেছে। এর ফলে মন্ত্রণালয়ের সার্বিক সেবাদান প্রক্রিয়া গতিশীল হয়েছে এবং কাজের পরিমাণ বেড়েছে। ফলশ্রুতিতে সেবা গ্রহীতারাও এখন দ্রুত কাঙ্ক্ষিত সেবা পাচ্ছেন।

 

#

জলিল/রাহাত/মোশারফ/মিজান/২০২০/ ২০০০ ঘন্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ২১৩৩

বিশিষ্ট নজরুল গবেষক অধ্যাপক মোহাম্মদ আব্দুল কাইয়ুম এর

মৃত্যুতে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী ও সচিবের শোক


ঢাকা, ২৯ জ্যৈষ্ঠ (১২ জুন)

 

          কবি নজরুল ইনস্টিটিউট ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন অধ্যাপক বিশিষ্ট নজরুল গবেষক ড. মোহাম্মদ আব্দুল কাইয়ুম এর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোঃ আবু হেনা মোস্তফা কামাল ।

 

          আজ পৃথক শোকবার্তায় তাঁরা মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং মরহুমের শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

 

          উল্লেখ্য, নজরুল গবেষণায় অন্যতম পথিকৃৎ অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আব্দুল কাইয়ুম (৮৭) আজ রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরীস্থ নিজ বাসভবনে বার্ধক্যজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি ত্রিশটির অধিক গ্রন্থ রচনা করেছেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও দুই মেয়ে-সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

 

#

ফয়সল/রাহাত/মোশারফ/আব্বাস/২০২০/১৯৩৬ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ২১৩২

 

জোন ভিত্তিক লকডাউন বাস্তবায়ন

জেলা-উপজেলা-ইউনিয়ন পর্যায়ে গঠিত কমিটি সক্রিয় করার আহ্বান স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর


ঢাকা, ২৯ জ্যৈষ্ঠ (১২ জুন)

 

          দেশে করোনা ভাইরাস মোকাবিলার জন্য জোন ভিত্তিক লকডাউন ঘোষণা করা হলে তা বাস্তবায়নে স্থানীয় সরকার বিভাগের জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের কমিটিকে সক্রিয় করার আহ্বান জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম।

          মন্ত্রী আজ করোনা মহামারীর সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এলাকাভিত্তিক লকডাউন বাস্তবায়নের অগ্রগতি পর্যালোচনা নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের এক অনলাইন ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দিয়ে এই আহ্বান জানান।

          স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেকের সভাপতিত্বে কনফারেন্সে আরো অংশ নেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, তথ্য ও যোগাযোগ  প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী  ফরহাদ হোসেন, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এবং প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস-সহ সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

          স্থানীয় সরকার মন্ত্রী এ সময় বলেন, ত্রাণ বিতরণ-সহ বিভিন্ন সময়ে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এবং সদস্যদের নিয়ে উপজেলা পর্যায়ে যে সব কমিটি গঠন করা হয়েছে সেই কমিটিগুলোকে সক্রিয় করে লকডাউন এর বিধি-বিধান বাস্তবায়নের দায়িত্ব দিলে তা অধিক কার্যকর হবে।

          জোনভিত্তিক এলাকাগুলোতে অন্যান্য জরুরি সেবা প্রদানের পাশাপাশি স্বাস্থ্য সেবার ওপর বিশেষ গুরুত্বারোপ করে মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন, এসব এলাকায় গুরুতর অসুস্থ রোগীদের দ্রুত হাসপাতালে নেওয়ার জন্য অ্যাম্বুলেন্স সেল করে তাৎক্ষণিক সেবা দেওয়ার জন্য প্রস্তুত রাখতে হবে। এ সময় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসার জন্য কিছু সংখ্যক হাসপাতাল রাখা যেতে পারে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

 

 #

হায়দার/রাহাত/মোশারফ/আব্বাস/২০২০/১৮২৭ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                   নম্বর : ২১৩১

কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

ঢাকা, ২৯ জ্যৈষ্ঠ (১২ জুন) :

          ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স কো-অর্ডিনেশন সেন্টার (এনডিআরসিসি) থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য ৬৪ জেলায় ইতোমধ্যে ২ লাখ ১১ হাজার ১৭ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ করা হয়েছে। এছাড়া শিশু খাদ্য-সহ অন্যান্য সামগ্রী ক্রয়ের জন্য ১২২ কোটি ৯৭ লাখ ৭২ হাজার ২৬৪ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বরাদ্দকৃত এ সাহায্য দেশের সকল জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে বিতরণ করা হচ্ছে । ‌

          স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী আজ দেশে নতুন করে আরো ৩ হাজার ৪৭১ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৮১ হাজার ৫২৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৬ জন-সহ এ পর্যন্ত ১ হাজার ৯৫ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৫ হাজার ৯৯০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

          এখন পর্যন্ত সর্বমোট ২৫ লাখ ৯ হাজার ১৪২টি পিপিই সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে মোট বিতরণ করা হয়েছে ২২ লাখ ৯৮ হাজার ৮৭৫টি এবং মজুদ আছে ২ লাখ ১০ হাজার ২৬৭টি।

          সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে ৬২৯টি প্রতিষ্ঠান এবং এর মাধ্যমে তাৎক্ষণিকভাবে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের সেবা প্রদান করা যাবে ৩১ হাজার ৯৯১ জনকে।

#

তাসমীন/রাহাত/মোশারফ/মিজান/২০২০/ ১৮৩০ ঘন্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ২১৩০

 

বিচারকদের করোনাসহ বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা দেবে ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ 


ঢাকা, ২৯ জ্যৈষ্ঠ (১২ জুন)


            বাংলাদেশের অধস্তন আদালতের বিচারকদের কোভিড-১৯ সহ বিভিন্ন  রোগের চিকিৎসা সেবা দিতে বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিস এসোসিয়েশনের সাথে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল ।

            আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হকের সহযোগিতায় গতকাল আইন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে ।

            আইন ও বিচার বিভাগের  সচিব  মোঃ গোলাম সারওয়ারের উপস্থিতিতে বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিস এসোসিয়েশনের সভাপতি  মোঃ হেলাল চৌধুরী ও মহাসচিব বিকাশ কুমার সাহা এবং ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. আশীষ কুমার চক্রবর্তী চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

            এ সময় আইন ও বিচার বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।


 #

রেজাউল/রাহাত/মোশারফ/আব্বাস/২০২০/১৬৪৩ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ২১২৯  

টিভি স্ক্রলে প্রচারের অনুরোধ

করোনা অ্যাপ ব্যবহার সংক্রান্ত

 

ঢাকা, ২৯ জ্যৈষ্ঠ (১২ জুন)

মূল বার্তা :

 

  • CoronaTracerBD অ্যাপ ব্যবহার করে সতর্কবার্তা গ্রহণ করুন। নিজের ও অন্যের সুরক্ষা নিশ্চিত 
    করুন। ডাউনলোড: 
    https://bit.ly/coronatracerbd

 

  • করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখতে আপনার স্মার্টফোনই এখন সতর্ক করবে। ডাউনলোড: https://bit.ly/coronatracerbd

 

  • আপনার স্মার্টফোনের ব্লুটুথ ও লোকেশন অপশন অন রেখে CoronaTracerBD অ্যাপ ব্যবহার করুন।

 ডাউনলোড: https://bit.ly/coronatracerbd

 

 #

 

পূরবী/জুলফিকার/সজিব/২০২০/১৫২০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ২১২৮ 

অস্ট্রেলিয়াকে বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহবান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

ঢাকা, ২৯ জ্যৈষ্ঠ (১২ জুন)

          বাংলাদেশে বিনিয়োগের আকর্ষণীয় ও অনুকুল পরিবেশ উল্লেখ করে অস্ট্রেলিয়ার কোম্পানিগুলোকে বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহবান জানালেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন। অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিনেটর মারিসে আন পেইনির (Marise Ann Payne) সাথে গতকাল ফোনে আলাপকালে তিনি এ আহবান জানান।

          এসময় ড. মোমেন বলেন, এ অঞ্চলের যেকোন দেশের তুলনায় বাংলাদেশে বিনিয়োগ লাভজনক। বাংলাদেশে বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ বিদ্যমান। অন্য দেশ থেকে কোন কোম্পানি এদেশে বিনিয়োগ স্থানান্তর করতে চাইলেও বাংলাদেশ স্বাগত জানাবে। তিনি বলেন, করোনা মহামারির কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে বাংলদেশ সরকার দেশে কর্মসংস্থান বৃদ্ধি করতে চায়। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ১০০টি অথনৈতিক অঞ্চল সৃষ্টি করছে যেখানে অস্ট্রেলিয়ার বিনিয়োগকারীরা বিনিয়োগ করলে তারা যেমন লাভবান হবে, বাংলাদেশিদেরও কর্মসংস্থান হবে। এছাড়া বাংলাদেশে ২৮টি হাইটেক পার্ক এবং তথ্যপ্রযুক্তিতে  বিপুল সংখ্যক দক্ষ জনগোষ্ঠী রয়েছে।

          বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে অস্ট্রেলিয়ার সহায়তা কামনা করেন। তিনি উল্লেখ করেন, রোহিঙ্গারা নিজ ভূমি মিয়ানমারে ফিরে গেলেই কেবল তাদের ভবিষ্যৎ নিশ্চিত হতে পারে। অনুকুল পরিবেশ সৃষ্টি করে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে ফিরিয়ে নেওয়ার ওপর গুরুত্বারোপ করেন ড.  মোমেন। তিনি বলেন, রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের নাগরিক নয়। সম্পূর্ণ মানবিক কারণে বাংলাদেশ সাময়িকভাবে তাদের আশ্রয় দিয়েছে। মিয়ানমারে নির্যাতিত হয়ে রোহিঙ্গারা গভীর সমুদ্রে আশ্রয় নিলেও কোন দেশ তাদের উদ্ধারে এগিয়ে আসে না। অন্যান্য দেশেরও উচিত তাদের দায়িত্ব নেওয়া। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী  উল্লেখ করেন, মানবিক কারণে সমুদ্র থেকে উদ্ধার করা কিছু সংখ্যক রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে রাখা হয়েছে। সাইক্লোন আম্ফানে সারাদেশে ব্যাপক ক্ষতি হলেও ভাসানচরে এর কোন প্রভাব পড়েনি। তিনি বলেন,সেখানকার রোহিঙ্গারা কিছু অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে নিজেদের সম্পৃক্ত করতে পারবে।

          ৪৮টি দেশের সংগঠন ‘ক্লাইমেট ভারনানেবল ফোরাম’ এর সভাপতি হিসেবে বাংলাদেশ দায়িত্ব গ্রহণ করেছে। পৃথিবীর তাপমাত্রা যাতে ১.৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের বেশী বৃদ্ধি না পায় সে বিষয়ে এ ফোরামের উদ্যোগের বিষয়ে তিনি অস্ট্রেলিয়ার সহায়তা কামনা করেন।

          এসময় ড. মোমেন করোনা মহামারি অবস্থায় অস্ট্রেলিয়ায় অধ্যয়নরত ছাত্রসহ সেদেশে বসবাসরত বাংলাদেশিদের সহযোগিতার জন্য অস্ট্রেলিয়ার সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

 #

তৌহিদুল/জুলফিকার/সজিব/২০২০/১৩২০

 

 

ঘণ্টাতথ্যবিবরণী                                                                                                 নম্বর : ২১২৭

‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍করোনা পরিস্থিতিতে ‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍‍ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত


ঢাকা, ২৯ জ্যৈষ্ঠ (১২ জুন)


       করোনা পরিস্থিতিতে সৃষ্ট দুর্যোগে সারাদেশের সাধারণ মানুষের কষ্ট লাঘবে মানবিক সহায়তা হিসেবে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রেখেছে সরকার । এ পর্যন্ত সারা দেশে   প্রায় দেড় কোটি পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয়েছে।


         ৬৪ জেলা প্রশাসন থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী ১১ জুন পর্যন্ত সারাদেশে  চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে দুই লাখ ১১ হাজার ১৭ মেট্রিক টন এবং বিতরণ করা হয়েছে এক লাখ ৭১ হাজার ৭৮১ মেট্রিক টন । এতেউপকারভোগী পরিবার সংখ্যা প্রায় দেড় কোটি ।


         শিশুখাদ্য সহ অন্যান্য সামগ্রী ক্রয়ের জন্য নগদ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে প্রায় ১২৩ কোটি  টাকা । এরমধ্যে সাধারণ ত্রাণ হিসেবে নগদ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ৯৫ কোটি ৮৪ লাখ টাকা এবং বিতরণ করা হয়েছে ৮০ কোটি ৭৪ লাখ টাকা । শিশু খাদ্য সহায়ক হিসেবে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে  ২৭ কোটি ১৪ লাখ এবং এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে ২১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। এতে উপকারভোগী পরিবার সংখ্যা ছয় লাখ ৯০ হাজার ৯৪৬ টি এবং উপকারভোগী লোকসংখ্যা ১৪ লাখ ৪৯ হাজার ২০১ জন ।

 

#

সেলিম/জুলফিকার/সজিব/২০২০/১১২০ ঘণ্টা

 

 

2020-06-13-13-16-bc70272edba647130e41f8add4b97ef1.docx 2020-06-13-13-16-bc70272edba647130e41f8add4b97ef1.docx

Share with :

Facebook Facebook