তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৬ ডিসেম্বর ২০১৬

তথ্যবিবরণী-২৬ ডিসেম্বর 2016

তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ৩৯৩৮

দুয়ারীপাড়া সরকারি মহাবিদ্যালয় নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করলেন শিক্ষামন্ত্রী

ঢাকা, ১২ পৌষ (২৬ ডিসেম্বর) :

    আজ রাজধানীর মিরপুরে দুয়ারীপাড়া সরকারি মহাবিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন নির্মাণের লক্ষ্যে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ প্রধান অতিথি হিসেবে নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন। ঢাকা মহানগরীতে ১১টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ৬টি সরকারি মহাবিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্পের আওতায় এ মহাবিদ্যালয়টি নির্মাণ করা হচ্ছে।
    অনষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শিক্ষামন্ত্রী বলেন, মিরপুরের এ এলাকায় জনসংখ্যা অনেক বেশি হলেও সেই তুলনায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা কম। ত্ইা এখানে একটি সরকারি স্কুল ও একটি সরকারি কলেজ নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে ৬ কোটি ৫ লাখ টাকা ব্যয়ে ৬ তলাবিশিষ্ট রূপনগর সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে। একই ক্যাম্পাসে আধুনিক সুযোগ-সুবিধাসম্পন্ন একটি সরকারি কলেজও নির্মাণ করা হচ্ছে। ফলে এ এলাকার শিক্ষার্থীরা, বিশেষ করে দরিদ্র পরিবারের ছেলেমেয়েরা উন্নত পরিবেশে সরকারি প্রতিষ্ঠানে পড়ালেখা করার সুযোগ পাবে। তিনি বলেন, এ কলেজটি নির্মাণে ৭ কোটি টাকার বেশি ব্যয় হবে।
 ৬ তলা বিশিষ্ট এ ভবনে কম্পিউটার ল্যাবসহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা থাকবে।
    মন্ত্রী বলেন, মিরপুর ও পল্লবীতে আরো একাধিক স্কুল ও কলেজ জাতীয়করণ করা হয়েছে। এ এলাকার সকল ছেলেমেয়েরা যাতে পড়ালেখা করার সুযোগ পায়, সেজন্যই এ উদ্যোগ। তিনি বলেন, মানসম্মত শিক্ষার জন্য অবকাঠামো এবং পরিবেশ উন্নয়নেরও প্রয়োজন রয়েছে। এ জন্য কলেজ ও স্কুলের মাঝে একটি মাঠ থাকবে। যাতে শুধু পড়ালেখা নয়, ছেলেমেয়েদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশও  ঘটতে পারে।
    অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে স্থানীয় সংসদ সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. এস এম ওয়াহিদুজ্জামান, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী দেওয়ান মোহাম্মদ হানজালা এবং ঢাকা মহানগরীতে ১১টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ৬টি সরকারি মহাবিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্পের পরিচালক স্বপন চন্দ্র পাল উপস্থিত ছিলেন।

#
আফরাজ/মাহমুদ/আলী/আব্বাস/২০১৬/২০০৫ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ৩৯৩৭

নির্বাচন কমিশন গঠনে রাষ্ট্রপতির সাথে জাসদের আলোচনা
 
ঢাকা, ১২ পৌষ (২৬ ডিসেম্বর) :

    রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদের সাথে আজ বিকেলে বঙ্গভবনে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ এর সভাপতি হাসানুল হক ইনু’র নেতৃত্বে ১২ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল নির্বাচন কমিশন গঠন সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।

    রাষ্ট্রপতি জাসদ প্রতিনিধিদলকে বঙ্গভবনে স্বাগত জানান। তিনি নির্বাচন কমিশন গঠনে জাসদের প্রস্তাবসমূহ মনোযোগ সহকারে শোনেন। রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সুচিন্তিত মতামত নির্বাচন কমিশন গঠনে সহায়ক ভূমিকা রাখবে এবং এর মাধ্যমে একটি শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠন সম্ভব হবে।

    বঙ্গভবনে আলাচনায় আমন্ত্রণ জানানোর জন্য জাসদ সভাপতি রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। এ সময় জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার নির্বাচন কমিশন গঠনে জাসদের ৭ দফা প্রস্তাব তুলে ধরেন। জাসদ সভাপতি বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠনে রাষ্ট্রপতির আলোচনা একটি সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত। তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও সংবিধানের মূলনীতিতে আস্থাশীল ব্যক্তিদের নিয়ে সার্চ কমিটি গঠনের প্রস্তাব করেন। এছাড়া নির্বাচন কমিশন গঠনে একটি স্থায়ী পদ্ধতি প্রচলনের জন্যও রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ জানান। সার্চ কমিটি এবং নির্বাচন কমিশনে নারী প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করতেও রাষ্ট্রপতির কাছে প্রস্তাব রাখেন।

    আলোচনাকালে জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, কার্যকরী সভাপতি এড. রবিউল আলম, সহ-সভাপতি মীর হোসাইন আখতার, ইকবাল হোসেন খান, এড. হাবিবুর রহমান শওকত, এড. শাহ জিকরুল আহমেদ, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আনোয়ার হোসেন, নুরুল আখতার, নাদের চৌধুরী, মোশাররফ হোসেন এবং উপদেষ্টা ম-লীর সদস্য প্রফেসর ডা. এম এ করিম উপস্থিত ছিলেন।  

    রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়–য়া, রাষ্ট্রপতির সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মো. সরোয়ার হোসেন এবং রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।


#
হাসান/মাহমুদ/আলী/আব্বাস/২০১৬/১৯০৫ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                            নম্বর : ৩৯৩৬
সংস্কৃতিমন্ত্রীর সাথে কাতারের আমিরি দিওয়ানের উপদেষ্টার সাক্ষাৎ
 
ঢাকা, ১২ পৌষ (২৬ ডিসেম্বর) :
    সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের সাথে আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে তাঁর অফিস কক্ষে বাংলাদেশে সফররত কাতারের আমিরি দেওয়ানের  উপদেষ্টা এবং কাতারের সাবেক সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য বিষয়ক মন্ত্রী ঐধসধফ ইরহ অনফঁষধুরু অষ-কধধিৎর সাক্ষাৎ করেন। এসময় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব আক্তারী মমতাজ, বাংলাদেশে কাতারের রাষ্ট্রদূত অযসবফ গড়যধসবফ অষ-উবযধরসর এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সংস্কৃতিক উপদেষ্টা (উপসচিব) মো. মাহবুবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।
    অসরৎর উরধিহ- আমিরি দেওয়ান হলো কাতারস্থ সরকারি কমপ্লেক্স যেখানে কাতারের আমির, ক্রাউন প্রিন্স, প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রীদের অফিস অবস্থিত। এটি কাতারের প্রশাসনিক কেন্দ্রবিন্দু।
    কাতারের মনোনীত প্রতিনিধি হিসেবে ঐধসধফ ইরহ অনফঁষধুরু অষ-কধধিৎর ২০১৭-২০২১ মেয়াদে টঘঊঝঈঙ এর মহাপরিচালক হিসেবে নির্বাচনের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এ নির্বাচনের প্রচার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এবং বাংলাদেশের সমর্থন আদায়ের লক্ষ্যে তিনি বর্তমানে বাংলাদেশ সফর করছেন।
    সাক্ষাতে কাতারের আমিরি দিওয়ানের উপদেষ্টা বলেন, ইউনেস্কোর মহাপরিচালক পদে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য কাতার সরকার তাঁকে মনোনীত করেছে। এ নির্বাচনের প্রচার কাজে এবং সমর্থন আদায়ের জন্য তিনি ইউরোপ, আফ্রিকাসহ বিভিন্ন দেশ সফর করেছেন। এখন সফর করছেন  এশিয়া। তিনি এ কাজে সর্বপ্রথম বাংলাদেশকেই বেছে নিয়েছেন। ইউনেস্কোর এ পদে জয়লাভের জন্য তিনি বাংলাদেশ সরকারের সমর্থন প্রত্যাশা করেন।
    কাতারের আমিরি দেওয়ানের উপদেষ্টাকে বাংলাদেশে স্বাগত জানিয়ে সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও কাতার মুসলিম ভ্রাতৃপ্রতিম দেশ। দীর্ঘদিন ধরে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন ইস্যুসহ দ্বিপক্ষীয় ইস্যুগুলোতে দু’দেশ পরস্পরের সাথে আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে। সহযোগিতার এ ক্ষেত্র ভবিষ্যতে আরো বিস্তৃত হবে বলে তিনি সাক্ষাতে আশা ব্যক্ত করেন।
    ইউনেস্কোর মহাপরিচালকের পদ অত্যন্ত মর্যাদাসম্পন্ন উল্লেখ করে সংস্কৃতিমন্ত্রী কাতারের আমিরি দিওয়ানের উপদেষ্টাকে প্রচার কাজের অংশ হিসেবে এশিয়ার মধ্যে সর্বপ্রথম বাংলাদেশকে বেছে নেওয়া জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি উল্লিখিত পদে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বিতার প্রশংসা করেন এবং তাঁকে শুভ কামনা জানান।
    আসাদুজ্জামান নূর বলেন, বাংলাদেশের সাথে মধ্যপ্রাচ্যসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের সাংস্কৃতিক চুক্তি ও সাংস্কৃতিক বিনিময় কার্যক্রম চালু রয়েছে। কিন্তু কাতারের সাথে নেই। দু’দেশের মধ্যে এ বিনিময়  কার্যক্রম চালু হলে তা ভ্রাতৃত্বের বন্ধনকে আরো দৃঢ় করবে বলে মন্তব্য করে তিনি কাতারের উপদেষ্টাকে এ ব্যাপারে সহযোগিতার আহ্বান জানান।
    মন্ত্রী ১৭তম এশিয় দ্বি-বার্ষিক চারুকলা প্রদর্শনীতে কাতারের অংশগ্রহণকে সাধুবাদ জানান।
#
কুতুব/মাহমুদ/আলী/আব্বাস/২০১৬/১৮৩০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ৩৯৩৪
প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক

ঢাকা, ১২ পৌষ (২৬ ডিসেম্বর) :
দশম জাতীয় সংসদের ‘প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি’র ২৩তম বৈঠক আজ জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ সুবিদ আলী ভূঁইয়া এর সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য মুহাম্মদ ফারুক খান, মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এবং হোসনে আরা বেগম অংশগ্রহণ করেন।
বৈঠকে গুপ্তসংকেত পরিদপ্তর (সাইফার)-কে আধুনিকায়নের পদক্ষেপসমূহ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।
কমিটি গুপ্তসংকেত পরিদপ্তরের আধুনিক মুদ্রণ যন্ত্রপাতি পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য মুদ্রণ সংশ্লিষ্ট জনবলকে (অফসেট প্রিন্টিং মেশিন অপারেটর, ড্রাফটসম্যান, প্রুফ রিডার, পোর্টার, কাটিং ও বাইন্ডিং মেশিন অপারেটর এবং ইলেক্ট্রোমেকানিক্যাল মেইনটেন্যান্স ইঞ্জিনিয়ার ইত্যাদি) সাংগঠনিক কাঠামোভুক্ত করার সুপারিশ করে।
বৈঠকে গুপ্তসংকেত পরিদপ্তরের দাপ্তরিক কর্মকা-কে আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির সাথে সামঞ্জস্য বিধান, গবেষণা এবং ঈৎুঢ়ঃড় ঝড়ভঃধিৎব উদ্ভাবন ও উন্নয়নের লক্ষ্যে আইসিটি সেল গঠনের জন্য আইসিটি বিষয়ক জনবল (সিস্টেম এনালিস্ট, প্রোগ্রামার, সহকারী প্রোগ্রামার, ডাটা এন্ট্রি অপারেটর ইত্যাদি) সাংগঠনিক কাঠামোভুক্ত করার সুপারিশ করা হয়। এছাড়াও প্রশাসনিক কর্মকা-ে গতিশীলতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদসমূহকে (নিরীক্ষা ও বাজেট অফিসার, হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা, প্রশাসনিক কর্মকর্তা, লাইব্রেরিয়ান, স্টোর কিপার, ক্যাশিয়ার, অভ্যর্থনাকারী, ডেসপাচ রাইডার, প্লেইন পেপার কপিয়ার, লোডার, কেয়ারটেকার, দপ্তরী ইত্যাদি) সাংগঠনিক কাঠামোভুক্ত করারও সুপারিশ করা হয়।  
কমিটি সাইফার যোগাযোগের বিষয়ে মাঠ ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাস্তব অভিজ্ঞতা ও ব্যবহারিক জ্ঞান অর্জনের জন্য বিভিন্ন বৈদেশিক শান্তি মিশনে অংশগ্রহণের ব্যবস্থা গ্রহণ, দপ্তরের পরিচালক ও উপ-পরিচালক পদের বর্তমান গ্রেডের মানোন্নয়ন, দপ্তরের সকল কর্মচারীদের জীবনমান উন্নয়নে সাশ্রয়ী মূল্যে খাদ্য উপকরণ প্রাপ্তির জন্য রেশন ব্যবস্থা, সকল কর্মচারীর সুচিকিৎসা নিশ্চিত করা এবং সাইফার ব্যবস্থার আধুনিকায়নের সুপারিশ করে।
এছাড়া বৈঠকে প্রশিক্ষণ ও প্রশাসনিক কাজের স্থান সংকট দূরীকরণের লক্ষ্যে নতুন ভবন নির্মাণের সুপারিশ করা হয়।  
বৈঠকে সেনা, বিমান, নৌবাহিনী’র ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
#

হালিম/মাহমুদ/আলী/আব্বাস/২০১৬/১৮০২ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ৩৯৩৫
বিআইডব্লিউটিসি’র রিজার্ভ ৬৭০ কোটি টাকা                                                                                                                                                                 ----নৌপরিবহণ মন্ত্রী

ঢাকা, ১২ পৌষ (২৬ ডিসেম্বর) :
    বিআইডব্লিউটিসি’র কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য শ্রান্তিবিনোদন ভাতা এবং তাদের সন্তানদের জন্য বৃত্তির ব্যবস্থা করা হয়েছে। ২০০৯ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত বিআইডব্লিউটিসি’র কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ৫৮২ জন কৃতী সন্তানকে ১৯ লাখ ৬৫ হাজার টাকার বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটি বেতন-ভাতাসহ অন্যান্য দায় পরিশোধ করার পরও এর তহবিলে ৬৭০ কোটি টাকার রিজার্ভ রয়েছে।

    নৌপরিবহণ মন্ত্রী শাজাহান খান আজ ঢাকায় বাংলা মটরস্থ বিআইডব্লিউটিসি ফেয়ারলি হাউজে বিআইডব্লিউটিসি’র কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কৃতী সন্তানদের বৃত্তি ও অভিনন্দনপত্র প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।

    বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহণ কর্পোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের সচিব অশোক মাধব রায়, পরিচালক (প্রশাসন) মো. শহিদুল ইসলাম, অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. আশিকুজ্জামান এবং কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মো. মহসিন ভূঁইয়া।

    মন্ত্রী মাদকের নেশায় আসক্ত না হয়ে মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, শিশুদের মধ্যে সুপ্ত প্রতিভা রয়েছে। দেশকে এগিয়ে নিতে মানুষের মতো মানুষ  হিসাবে শিশুদের গড়ে তুলতে হবে।
    আজ ২০১৫ সালের এসএসসি ও এইচএসসি’র কৃতী ৭৩ জন শিক্ষার্থীর মাঝে ২ লাখ ৮১ হাজার ৬০০ টাকার বৃত্তি ও অভিনন্দনপত্র বিতরণ করা হয়।
#

জাহাঙ্গীর/মাহমুদ/আলী/আব্বাস/২০১৬/১৮০৫ ঘণ্টা

 

 

Todays handout (3).docx Todays handout (3).docx

Share with :