তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৩rd জুলাই ২০১৯

তথ্যবিবরণী - 03/07/2019

তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ২৪৩৬
 
জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত
৫ জুলাই শুক্রবার থেকে যিলকদ মাস শুরু
 
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) :
বাংলাদেশের আকাশে আজ কোথাও ১৪৪০ হিজরি সনের পবিত্র যিলকদ মাসের চাঁদ দেখা যাওয়ার সংবাদ পাওয়া যায়নি। ফলে আগামীকাল ৪ জুলাই বৃহস্পতিবার পবিত্র শাওয়াল মাস ৩০ দিন পূর্ণ হবে এবং আগামী ৫ জুলাই শুক্রবার থেকে পবিত্র যিলকদ মাস গণনা শুরু হবে। 
আজ সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মুকাররম সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি আলহাজ এডভোকেট শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ।
সভায় ধর্মসচিব মোঃ আনিছুর রহমান, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল, ওয়াকফ প্রশাসক মোঃ শহীদুল ইসলাম, তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ নূরুল করিম, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্মসচিব মোঃ সামসুল আরেফিন, বাংলাদেশ টেলিভিশনের পরিচালক মোঃ জহিরুল ইসলাম মিয়া, সরকারি মাদ্রাসা-ই-আলিয়ার অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ আলমগীর রহমান, তথ্য অধিদফতরের সিনিয়র উপপ্রধান তথ্য অফিসার 
মো. শাহেনুর মিয়া, ঢাকা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (জেনারেল) মোঃ শাহিদুজ্জামান, বাংলাদেশ মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠানের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা শাহ মোঃ মিজানুর রহমান, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ আজিজুর রহমান, বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, লালবাগ শাহী জামে মসজিদের খতিব মুফতি মুহাম্মদ নিয়ামতুল্লাহ ও চকবাজার শাহী মসজিদের খতিব মাওলানা শেখ নাঈম রেজওয়ান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 
#
 
আনোয়ার/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/২১১৫ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                   নম্বর : ২৪৩৫
 
সরকার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক প্রসারিত করতে আগ্রহী
                                                               -- কৃষিমন্ত্রী
 
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) :
 
কৃষিমন্ত্রী মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক প্রসারিত করতে অত্যন্ত আগ্রহী। অনেক বছর ধরে আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের গভীরতা এবং মাত্রা উন্নতি হয়েছে। গণতন্ত্র, মানবাধিকার, ধর্মনিরপেক্ষতা এবং বাক্ স্বাধীনতা সমৃদ্ধ করতে এবং বিশ্বব্যাপী শান্তি ও নিরাপত্তায় অবদান রাখতে সহায়তা করেছে এই সম্পর্ক।
 
মন্ত্রী আজ রাজধানীর বারিধারায় আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে আয়োজিত যুক্তরাষ্ট্রের ২৪৩তম স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। এ সময় যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার ও রাষ্ট্রদূত অফিসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
 
কৃষিমন্ত্রী বলেন, ঐতিহাসিক বীরত্বপূর্ণ এবং বিপ্লবী যুদ্ধের পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র স্বাধীন হয়েছে। বাংলাদেশ সরকার এবং আমি এ মহিমান্বিত দিনের এ উদ্যাপনকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই। রক্তাক্ত যুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা লাভ করে যুক্তরাষ্ট্র। বাংলাদেশের সরকার ও জনগণ এ রক্তের মূল্য ও তাৎপর্য অনুভব করতে পারে। 
 
বাংলাদেশ সোনার বাংলাদেশ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সঠিক দিকে যাচ্ছে - জাতির পিতা  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বপ্ন দেখেছিলেন সোনার বাংলার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল ও স্বপ্নদর্শী নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের উন্নয়নশীল দেশে পরিণত করতে, ২০৩০  সালের মধ্যে উচ্চ মধ্যম আয় এবং ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত দেশে পরিণত করতে অঙ্গীকারবদ্ধ। আমরা আশা করি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র হবে এ উন্নয়নের অংশীদার।
 
এর আগে স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভির ১৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে যোগদান করেন কৃষিমন্ত্রী। আজ রাজধানীর কাওরান বাজারস্থ প্রধান কার্যালয়ে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে এনটিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়। 
#
 
গিয়াস/ফারহানা/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৯/২০০০ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                   নম্বর : ২৪৩৪
 
মামলা-জট কমাতে সিঙ্গাপুরের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাতে চাই 
                                                   -- আইনমন্ত্রী
 
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) :
 
আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ‘মামলা-জট আমাদের একটি বড় সমস্যা। সমস্যাটা সিঙ্গাপুরেও ছিল এবং তারা অত্যন্ত সুচিন্তিতভাবে এর সমাধান করেছেন। আমরা সিঙ্গাপুরের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাতে পারি। তাদের অনেকগুলো পদক্ষেপই আমাদের দেশে গ্রহণ করা সম্ভব।  সিঙ্গাপুরের হাইকমিশনার জানিয়েছেন, তাঁদের মানবসম্পদের সমস্যা থাকার কারণে তাদের পক্ষে বাংলাদেশে এসে এক্সপার্টিজ শেয়ার করা কষ্টকর। তবে আমরা তাদের দেশে গিয়ে তাদের এক্সপার্টিজ গ্রহণ করতে পারি। এটা প্রশিক্ষণ হিসেবে গ্রহণ করা যেতে পারে।’ 
 
মন্ত্রী আজ রাজধানীর গুলশানে তাঁর আবাসিক অফিসে এক ব্রিফিংয়ে এসব কথা জানান। এর আগে বাংলাদেশে নিযুক্ত সিঙ্গাপুরের হাইকমিশনার ডেরেক লো (উবৎবশ খড়য) এর সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। বৈঠকে আইন এবং বিনিয়োগ সংক্রান্ত আলোচনা হয়।
 
মন্ত্রী বলেন, সিঙ্গাপুরের ব্যবসায়ী মহল আমাদের দেশে বিনিয়োগে আগ্রহী। হাইকমিশনার জানিয়েছেন, বাংলাদেশের বিনিয়োগ সম্পর্কিত আইন ও পরিবেশ তাদের দেশের বিনিয়োগকারীদের জন্য অনুকূলে। 
 
হাইকমিশনার ডেরেক লো বলেন, বাংলাদেশ ও সিঙ্গাপুর দুই দেশ নিজেদের অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা বিনিময় করতে পারে। বাংলাদেশের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করা নিয়ে সিঙ্গাপুর সন্তুষ্ট। বৈঠকে বিনিয়োগ, সম্পর্কোন্নয়নের বিভিন্ন উপাদান, বাংলাদেশ ও সিঙ্গাপুরের আইন সংক্রান্ত বিষয় এবং সেগুলোর আধুনিকায়ন, শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানান হাইকমিশনার।
 
#
 
রেজাউল/মাহমুদ/ইসরাত/রফিকুল/সেলিম/২০১৯/১৯৩০ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ২৪৩৩
 
শ্রমিকদেরকে কর্মহীন করা হবে না
                       --- শিল্পমন্ত্রী
 
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) :
শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, শ্রমিকদেরকে কর্মহীন করা হবে না। তারা রাস্তায় বের হয়ে জনগণের ভোগান্তির কারণ হবেন না। তারা নিজেদের ও জনগণের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করবেন। শিল্পমন্ত্রী আজ রাজধানীর মতিঝিলে করিম চেম্বারে জুট ডাইভারসিফিকেশন প্রমোশন সেন্টার (জেডিপিসি)-এর উদ্যোগে পাঁচ দিনব্যাপী বহুমুখী পাটপণ্য মেলার উদ্বোধনকালে একথা বলেন।  
বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, জেডিপিসি-এর নির্বাহী পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব রীনা পারভীন, ক্রিয়েশন প্রাইভেট লিমিটেডের সত্ত্বাধিকারী রাশেদুল করিম মুন্না বক্তৃতা করেন। 
শিল্পমন্ত্রী বলেন, দেশে পাট ও পাটজাত পণ্যের বাজার অনেক ছোট, মাত্র ১ শতাংশ। পাটের স্থানীয় বাজার আরো সম্প্রসারিত করতে হবে। এজন্য বহুমুখী পাটপণ্যের নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টি করতে হবে। আগ্রহী নতুন উদ্যোক্তাদেরকে নরসিংদী পাটকল, বিসিক শিল্পনগরীসহ অন্যান্য স্থানে প্লট প্রদান করা হবে। তিনি বলেন, দেশে পাটপণ্যের বাজার সম্প্রসারণে শুধু নির্দিষ্ট দিনে নির্দিষ্ট স্থানে নয়, পাটপণ্যের মেলা বছর জুড়ে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে স্থায়ীভাবে আয়োজন করতে হবে। সেই সঙ্গে ঢাকার বাইরে সকল জেলাতেও নিয়মিত মেলার আয়োজন করতে হবে। পাটপণ্যের মূল্য যাতে সাধারণ জনগণের সাধ্যের মধ্যে থাকে সে বিষয়ে সজাগ থাকার জন্য উদ্যোক্তাদের প্রতি শিল্পমন্ত্রী আহ্বান জানান।
শিল্পমন্ত্রী আরো বলেন, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় থাকায় বিদেশি বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করার জন্য প্রস্তাব নিয়ে প্রতিদিন আসছেন। সেই সঙ্গে বিভিন্ন সম্ভাবনাময় খাতে স্থানীয় উদ্যোক্তাদেরও বিনিয়োগের আগ্রহ দিন দিন বাড়ছে। বিশেষ করে নারী উদ্যোক্তাদের এগিয়ে আসার হার প্রশংসনীয়। সরকার চায় আরো অধিক সংখ্যক নারী উদ্যোক্তা দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখুক। এজন্য তাদের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করা হবে। 
পরে শিল্পমন্ত্রী পাঁচ দিনব্যাপী বহুমুখী পাটপণ্য মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন। বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, ভারপ্রাপ্ত সচিব, জেডিপিসি নির্বাহী পরিচালক প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
#
 
মাসুম/মাহমুদ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/২০০০ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                   নম্বর : ২৪৩২
 
প্রকল্পের গুণগত অর্জনের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে 
                                     -- শিক্ষামন্ত্রী
 
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) :
 
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি প্রকল্পের অভীষ্ঠ লক্ষ্য অর্জনে পারদর্শী ব্যক্তিকে প্রকল্প পরিচালক হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ প্রদান করেছেন। এছাড়া তিনি শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে মনিটরিং ও ইভালুয়েশনের প্রতিবেদনে শুধু সংখ্যাগত অর্জন বা সংখ্যাগত প্রতিবেদন না দিয়ে গুণগত অর্জনের ওপর গুরুত্ব দিতে নির্দেশ প্রদান করেন।
 
মন্ত্রী আজ রাজধানীর ধানমন্ডিতে নায়েম মিলনায়তনে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মনিটরিং এন্ড ইভালুয়েশন উইং এর আয়োজনে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রকল্পসমূহের জুলাই ২০১৮ থেকে ডিসেম্বর ২০১৮ সময়ের মূল্যায়ন প্রতিবেদনের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ নির্দেশ প্রদান করেন। 
 
মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মোঃ গোলাম ফারুকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব সোহরাব হোসাইন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন উইংয়ের পরিচালক প্রফেসর মোঃ আমির হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
 
মহিবুল হাসান চৌধুরী ব্যক্তিস্বার্থের ঊর্ধ্বে উঠে সর্বোচ্চ দেশপ্রেম ও সততা নিয়ে প্রকল্পের অভীষ্ঠ লক্ষ্য বাস্তবায়নে কাজ করতে প্রকল্প পরিচালকদের নির্দেশ প্রদান করেন।
 
#
 
খায়ের/মাহমুদ/রফিকুল/সেলিম/২০১৯/১৯০০ ঘণ্টা
 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                 নম্বর : ২৪৩১
 
চলমান উন্নয়ন কর্মকা-ই বাংলাদেশকে উন্নত দেশে পরিণত করবে
                                                                      --- বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী
 
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) :
বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, চলমান উন্নয়ন কর্মকা-ই দ্রুত বাংলাদেশকে উন্নত দেশে পরিণত করবে। এসব কার্যক্রম নির্ধারিত সময়ে সম্পন্ন করতে প্রচুর বিনিয়োগ প্রয়োজন। চীনের ‘ঞযব ইবষঃ ধহফ জড়ধফ ওহরঃরধঃরাব’ উদ্যোগটি এ বিনিয়োগের একটি প্লাটফরম হতে পারে। অবশ্য এ উদ্যোগটি  জাপান, ভারত, যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেক দেশকেই বাংলাদেশের দিকে আকৃষ্ট করছে। 
প্রতিমন্ত্রী আজ চীনের ডালিয়ানে ডড়ৎষফ ঊপড়হড়সরপ ঋড়ৎঁস এর ‘ঞযব ঋঁঃঁৎব ড়ভ ঃযব ইবষঃ ধহফ জড়ধফ ওহরঃরধঃরাব’ শীর্ষক প্যানেল আলোচনায় এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, চীনের এ উদ্যোগ বাংলাদেশের জন্য ভালো। তবে অ্যাকশন প্ল্যান, প্রযুক্তি হস্তান্তর, সাংস্কৃতিক ঐক্য, স্বচ্ছতা ও যথাযথ প্রচার এ উদ্যোগকে আরো বাস্তবমুখী করবে। জাপান বাংলাদেশে শুধু বিদ্যুৎ খাতের একটি প্রকল্পে ৬৫ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের পূর্বে বিদ্যুৎ খাতের মাস্টার প্ল্যান করেছিল। চীনও দৃশ্যমান এসব অ্যাকশন প্ল্যান নিয়ে এগুতে পারে।
  প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে চীনের বিনিয়োগের প্রচুর সুযোগ রয়েছে। নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতের প্রযুক্তি হস্তান্তরসহ নানা খাতে বিনিয়োগের সম্ভাবনা রয়েছে। ইতিমধ্যে চীনা ইসিএ অর্থায়নে বাস্তবায়নাধীন প্রকল্প রয়েছে ৫টি, যৌথ উদ্যোগে বাস্তবায়নাধীন প্রকল্প ও প্রতিষ্ঠান রয়েছে ৬টি, বিদ্যুৎ বিভাগের বিভিন্ন সংস্থা কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ৩১টি প্রকল্প ও কাজের সাথে চীনা ঠিকাদার নিয়োজিত রয়েছে এবং চীন সরকারের সাথে জিটুজি ভিত্তিতে বাস্তবায়নের জন্য প্রস্তাবিত প্রকল্পের সংখ্যা ৭টি যার মধ্যে ২টি অনুমোদিত। 
চায়না গ্লোবাল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক (সিজিটিএন)-এর তাইয়ন উই (ঞরধহ ডবর)-এর সঞ্চালনায় প্যানেল আলোচনায় চীনের রেনমিন বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র ফেলো ব্রোনো মাকাস (ইৎঁহড় গধপধবং), চীনের জাতীয় বিল্ডিং মেটেরিয়াল গ্রুপের চেয়ারম্যান সং ঝিপিং (ঝড়হম তযরঢ়রহম) ও জতিসংঘের ইউরোপ বিষয়ক অর্থনৈতিক কমিশনের নির্বাহী সচিব ওলগা আলগায়েরোভা (ঙষমধ অষমধুবৎড়াধ) বক্তব্য রাখেন।
#
আসলাম/মাহমুদ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/১৯১০ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                   নম্বর : ২৪৩০ 


দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করা হবে
                         -- জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী


ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) :

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, দেশের সকল পর্যায়ে দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি কঠোরভাবে অনুসরণ করা হবে। 

প্রতিমন্ত্রী আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সম্মেলন কক্ষে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের শুদ্ধাচার পুরস্কার ২০১৭-১৮ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকারের অন্যতম নির্বাচনি অঙ্গীকার ছিল একটি দুর্নীতিমুক্ত দেশ গঠন। সে অঙ্গীকার পূরণে দেশের সকল পর্যায়ে দুর্নীতি দূরীকরণে সরকার বদ্ধপরিকর। তিনি বলেন, দুর্নীতির পাশাপাশি জঙ্গিবাদ ও মাদকদ্রব্যের প্রসার দেশের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধেও সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। বর্তমান সরকারের আমলে জনপ্রশাসনে দক্ষতা বৃদ্ধি, দুর্নীতি দমন ও শুদ্ধাচার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়িত হয়েছে। জনপ্রশাসনে নিযুক্ত কর্মচারীরা যাতে স্বচ্ছতা ও  নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে নাগরিকদের সেবা প্রদান করতে সক্ষম হয় তা নিশ্চিত করাও জরুরি। সে লক্ষ্যে জনপ্রশাসনের আইন-কানুন ও বিধি-বিধানের পরিবর্তন ও সংস্কার করে একে অধিকতর যুগোপযোগী করার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।          
                                                                                          
ফরহাদ হোসেন এ সময় সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলা এবং রাষ্ট্রীয় ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানসমূহে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করতে রাষ্ট্রের সকল পর্যায়ে শুদ্ধাচার প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করে বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করতে হলে সকলকে শুদ্ধাচার চর্চা করতে হবে। জনগণকে দ্রুততম সময়ে মানসম্মত সেবা প্রদানের লক্ষ্যে সরকারি কর্মচারীদের নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি। 

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়েজ আহম্মদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের রেক্টর ড. এম আসলাম আলম বক্তব্য প্রদান করেন।

#

শিবলী/মাহমুদ/ইসরাত/রফিকুল/সেলিম/২০১৯/১৮০০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ২৪২৯
 
 বেগম রোকেয়া পদকের জন্য আবেদন ও মনোনয়ন আহ্বান
 
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) :
 
প্রতি বছরের ন্যায় এবারো ৯ ডিসেম্বর দেশব্যাপী ‘বেগম রোকেয়া দিবস’ উদ্যাপন এবং ‘বেগম রোকেয়া পদক’ প্রদান করা হবে। দিবসটি পালন উপলক্ষে নারী শিক্ষা নারী অধিকার, নারীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন, সাহিত্য ও সংস্কৃতির মাধ্যমে নারী জাগরণ এবং পল্লী উন্নয়ন - এসব বিষয়ে সর্বোচ্চ অবদানের স¦ীকৃতিস¦রূপ পাঁচজন বাংলাদেশি মহিলাকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আনুষ্ঠানিকভাবে বেগম রোকেয়া পদক প্রদান করবেন।
‘বেগম রোকেয়া পদক নীতিমালা ২০১৭’ মোতাবেক উল্লিখিত যে কোনো ক্ষেত্রে অবদান রেখেছেন এমন বাংলাদেশি মহিলাকে পদক প্রাপ্তির ক্ষেত্র উল্লেখপূর্বক মনোনয়ন আগামী ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে প্রেরণের জন্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে। 
এক্ষেত্রে সফ্ট কপি ই-মেইল ংধংধফসহ২@মসধরষ.পড়স এ প্রেরণ করা যাবে। মনোনীত প্রার্থীকে সংযুক্ত ‘ছক’ পূরণপূর্বক আবেদন করতে হবে। আবেদনপত্র ‘ছক’ মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট িি.িসড়পিধ.মড়া.নফ এ অথবা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট িি.িফধি.মড়া.নফ থেকে সংগ্রহ করা যাবে। নির্ধারিত এই ‘ছক’ ব্যতীত অন্য কোনো ‘ছক’ এ আবেদন বা মনোনয়ন গ্রহণ করা হবে না।
#
 
আফরোজা/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/১৮৫৫ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                                 নম্বর : ২৪২৮
 
মতিঝিলে বহুমুখী পাটপণ্যের প্রদর্শনী ও বিক্রয় কেন্দ্র উদ্বোধন
 
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) : 
শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, সোনালি আঁশ নামে খ্যাত বাংলাদেশের অন্যতম অর্থকরী ফসল পাট। দেশের চার কোটিরও বেশি মানুষ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে পাট শিল্পের সঙ্গে জড়িত। কাঁচা পাট ও পাটজাত পণ্যের উৎপাদন ও রপ্তানি বৃদ্ধি, দেশের অভ্যন্তরে পাটপণ্যের বহুমুখী ব্যবহার বৃদ্ধি, পাটের ন্যায্যমূল্য নির্ধারণ এবং পরিবেশ রক্ষায় কাজ করছে বর্তমান সরকার। 
মন্ত্রী আজ রাজধানীর মতিঝিলে বহুমুখী পাটপণ্যের প্রদর্শনী ও বিক্রয় কেন্দ্র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 
মন্ত্রী বলেন, দেশি উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত বহুমুখী পাটপণ্য এক জায়গা থেকে প্রদর্শন ও বিক্রির উদ্দেশ্যে এ  কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। এ কেন্দ্রের মাধ্যমে দেশি-বিদেশি ক্রেতারা একই জায়গা থেকে পছন্দমতো বহুমুখী পাটপণ্য সম্পর্কে ধারণা নিতে এবং তা ক্রয় করতে পারবেন। পাটের হারানো গৌরব ফিরে পেতে এ বহুমুখী প্রদর্শনী ও বিক্রয় কেন্দ্র গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
মন্ত্রী আরো বলেন, পরিবেশবান্ধব পাটের ব্যবহার বহুমুখীকরণ ও উচ্চমূল্য সংযোজিত পাটপণ্য উৎপাদন, বাজারজাতকরণ ও ব্যবহার বৃদ্ধি ছাড়া শুধু সনাতনী পণ্য উৎপাদনের মাধ্যমে পাটকে বাঁচিয়ে রাখা সম্ভব হবে না। এ উপলব্ধি থেকে বহুমুখী পাটশিল্প বিকাশের লক্ষ্যে ২০০২ সালে জুট ডাইভারসিফিকেশন প্রমোশন সেন্টার (জেডিপিসি) প্রতিষ্ঠা করা হয়। প্রতিষ্ঠানটি পাটের ব্যবহার বহুমুখীকরণের মাধ্যমে উচ্চমূল্য সংযোজিত বহুমুখী পাটপণ্য উৎপাদন, বাজারজাতকরণ ও বিপণনের সুযোগ সৃষ্টি করেছে। ফলে দেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক অবস্থা উন্নয়নে প্রতিষ্ঠানটি গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে সক্ষম হয়েছে। 
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, বীরপ্রতীক এবং বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন। এছাড়া পাট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শামসুল আলম, জেডিপিসির নির্বাহী পরিচালক রীনা পারভীন, বাংলাদেশ জুট ডাইভারসিফায়েড প্রোডাক্ট ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের আহ্বায়ক মোঃ রাশেদুল করিম মুন্নাসহ বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় ও জেডিপিসির কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
#
 
সৈকত/মাহমুদ/অনসূয়া/রবি/সঞ্জীব/শামীম/জয়নুল/২০১৯/১৮৪০ ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী             নম্বর : ২৪২৭ 
অনলাইন গণমাধ্যম নিবন্ধন আবেদনের সময় ১৫ জুলাই পর্যন্ত বৃদ্ধি 
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) :
অনলাইন গণমাধ্যমসমূহের নিবন্ধনে আবেদন গ্রহণের সময়সীমা আগামী ১৫ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। 
গত ৩০ জুন তথ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব নাসরিন পারভীন স্বাক্ষরিত এক স্মারকের মাধ্যমে এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়। 
উল্লেখ্য, এর আগে অনলাইন নিবন্ধনের আবেদনপত্র গ্রহণের কার্যক্রম ৩০ জুনের মধ্যে সম্পন্ন করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছিল। 
#
নাসরিন/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/রেজ্জাকুল/আসমা/২০১৯/১৬১৫ ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                     নম্বর : ২৪২৬ 
অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত কমিটির বৈঠক
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) :
জাতীয় সংসদের ‘অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত কমিটি’র ৩য় বৈঠক কমিটির সভাপতি মোঃ আব্দুস শহীদ এর সভাপতিত্বে আজ সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সদস্য চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী, ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন, ফজলে হোসেন বাদশা, আহসান আদেলুর রহমান এবং ওয়াসিকা আয়শা খান বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।
বৈঠকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের ২০১৭-১৮ ও ২০১৮-১৯ অর্থবছরের চলমান প্রকল্পের ওপর বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।
কমিটি মাতৃভাষার জন্য আত্মত্যাগকারী শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহিদমিনার স্থাপনের প্রকল্প গ্রহণের জন্য সুপারিশ করে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিল্ডিং নির্মাণ কাজের গুণগত মান বাড়াতে এবং কাজের স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের অধীন জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে জনবল বাড়াতে কমিটি সুপারিশ করে।
কমিটি প্রকল্পের কাজের গতি ও গুণগত মান বাড়াতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে এবং অভ্যন্তরীণ অডিট ব্যবস্থা চালু করতেও সুপারিশ করে।
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের মহাপরিচালকসহ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।
#
সাব্বির/অনসূয়া/রেজ্জাকুল/আসমা/২০১৯/১৫৩০ ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ২৪২৫
 
সংসদীয় কূটনীতির মাধ্যমে সমতাভিত্তিক বিশ্ব প্রতিষ্ঠায় স্পিকারের আহ্বান 
মস্কো, ৩ জুলাই :
স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, জনগণের অধিকার সুরক্ষায় বিশ্বের সকল রাজনীতিবিদের সমান সোচ্চার হতে হবে যে রাজনীতির অভিন্ন রূপ হতে হবে অন্তর্ভূক্তিমূলক, সমতা ও শান্তির ভিত্তিতে কল্যাণময় বিশ্ব প্রতিষ্ঠা করা। এসময় তিনি সংসদীয় কূটনীতির মাধ্যমে সমতাভিত্তিক বিশ্ব প্রতিষ্ঠায় সংসদ সদস্যদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
তিনি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাশিয়ার মস্কোয় ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে দ্য স্টেট দুমা অভ দ্য ফেডারেল এসেম্বলি অভ দ্য রাশিয়ান ফেডারেশন আয়োজিত দ্য সেকেন্ড ইন্টারন্যাশনাল ফোরাম ‘ডেভেলপমেন্ট অব পার্লামেন্টারিজম-২০১৯’ এর দুই দিনব্যাপী কনফারেন্সে ‘ইন্টার-পার্লামেন্টারি কো-অপারেশন: প্রিন্সিপালস, ট্রেন্ডস এন্ড ইনস্টিটিউট’ শীর্ষক সেশনে বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন।
স্পিকার বলেন, অর্থনীতি, কারিগরি ও উন্নয়নের ক্ষেত্রে বৈশ্বিক পরিবর্তন লক্ষণীয়। বৈশ্বিক পরিবর্তনের ধারায় ইতিবাচক ফলাফল আনয়নে সকল সংসদ সদস্যগণের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। গণতন্ত্রের সুফল ও ইতিবাচক মূল্যবোধ হতে হবে ‘সমাজে কেউ পিছিয়ে থাকবেনা’ তবেই গণতন্ত্র টেকসই হবে। দারিদ্রতা দূরীকরণ, খাদ্য নিরাপত্তা, শরণার্থী, অভিবাসন সমস্যা ও জলবায়ু পরিবর্তনসহ নানা সমস্যা পৃথক পৃথক রাষ্ট্রীয় সীমারেখায় আবদ্ধ। এসকল সমস্যা সমাধানে সংসদীয় কূটনীতি একটি শক্তিশালী মাধ্যম বলে তিনি উল্লেখ করেন।
ড. শিরীন শারমিন বলেন, স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা, পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ ও সহনশীলতার মাধ্যমে দায়িত্বশীল ও শক্তিশালী সংসদ গড়ে তোলা সম্ভব। ১৯৭১ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা লাভের পরপরই বাংলাদেশ আইপিইউ, সিপিএ, পিইউআইসিসহ আন্তঃসংসদীয় বিভিন্ন ফোরামের সদস্য হিসেবে কার্যকর ভূমিকা রাখছে।
স্পিকার আরো বলেন, সমতাভিত্তিক অন্তর্ভূক্তিমূলক সমাজ গড়ার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সংসদীয় গণতন্ত্রের অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা, মৌলিক স্বাধীনতা ও মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করে যাচ্ছে। এর মূল উদ্দেশ্য হলো দারিদ্রমুক্ত রাষ্ট্র বিনির্মাণ যেখানে অর্থনৈতিক, সামাজিক ও রাজনৈতিক ন্যায্য হিস্যা নিশ্চিত থাকে যা ছিল বঙ্গবন্ধুর আজন্ম লালিত স্বপ্ন।
দ্য স্টেট দুমা অভ দ্য ফেডারেল এসেম্বলি অভ দ্য রাশিয়ান ফেডারেশন এর চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেশনে মরক্কো, কোরিয়া, ইরানসহ অন্যান্য দেশের পার্লামেন্টের স্পিকারগণও বক্তৃতা করেন।
সেশনে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের সদস্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ শামসুল হক টুকু, মোঃ জিল্লুল হাকিম উপস্থিত ছিলেন।
#
 
তারিক/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/নাছির/শামীম/২০১৯/১৪৪৮ ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                                 নম্বর : ২৪২৪
 
মিয়ানমার নাগরিকদের ফেরত পাঠাতে সুইডেনের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে
                                                        --- সুইডিশ রাষ্ট্রদূত
 
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) : 
মিয়ানমারের নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকারের ওপর চাপ তৈরিতে ও এ বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারকে সহযোগিতা দিতে সুইডেনের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবে। 
আজ মন্ত্রণালয়ের অফিস কক্ষে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সাথে এক সৌজন্য সাক্ষাতের সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইডেনের রাষ্ট্রদূত শারলোটা স্লাইটার (ঈযধৎষড়ঃঃধ ঝপযষুঃবৎ) এ কথা জানান।
এ সময় রাষ্ট্রদূত জানান, আগামী ফেব্রুয়ারিতে জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রসমূহের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হবে ‘থার্ড গ্লোবাল মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্স অন রোড সেফটি’। সুইডেনের স্টকহোমে অনুষ্ঠিতব্য এ সম্মেলনে যোগদানের জন্য সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীকে তিনি আমন্ত্রণ জানান।
সাক্ষাৎকালে রাষ্ট্রদূত ঢাকা মহানগরীতে গণপরিবহনের সক্ষমতা বাড়াতে মানসম্পন্ন সুইডিশ বাস সরবরাহে আগ্রহ প্রকাশ করেন।
#
 
নাছের/মাহমুদ/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/নাছির/রবি/সঞ্জীব/শামীম/জয়নুল/২০১৯/১৭২০ ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                                               নম্বর: ২৪২৩
 রথযাত্রা উৎসব উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর বাণী
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই): 
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৪ জুলাই রথযাত্রা উৎসব ২০১৯ উপলক্ষে নিম্নোক্ত বাণী প্রদান করেছেন:
“শ্রীশ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা ২০১৯ উপলক্ষে আমি দেশের সনাতন ধর্মাবলম্বীদের আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।
বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। আবহমানকাল থেকে বিভিন্ন ধর্মের অনুসারীগণ পাশাপাশি বসবাস করে সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির অনুপম দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছেন। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুৃ শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা-উত্তর বাংলাদেশে ধর্মীয় স্বাধীনতা নিশ্চিত করেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় এদেশের সকল ধর্ম-বর্ণের মানুষ নিজ নিজ ধর্ম ও ধর্মীয় উৎসব স্বাধীনভাবে পালন করছে।
ধর্মীয় উৎসব মানবিক উদারতা এবং পারস্পরিক সম্প্রীতি ও ঐক্যের বন্ধন প্রসারের শিক্ষা দেয়। ‘রথযাত্রা’ সনাতন ধর্মাবলম্বী হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম বড় উৎসব।
আমি আশা করি, এ রথযাত্রা উৎসব জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকল সম্প্রদায়ের মধ্যে পারস্পরিক আস্থা ও সৌভ্রাতৃত্ব গড়ে তুলতে ভূমিকা রাখবে। 
আমি রথযাত্রা উৎসব ২০১৯ এর সার্বিক সাফল্য কামনা করছি।
জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু
বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।”
#
ইমরুল/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/রেজ্জাকুল/শামীম/২০১৯/১২১৭ ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                                       নম্বর : ২৪২২
রথযাত্রা উৎসব উপলক্ষে রাষ্ট্রপতির বাণী    
ঢাকা, ১৯ আষাঢ় (৩ জুলাই) : 
রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ৪ জুলাই রথযাত্রা উৎসব উপলক্ষে নি¤েœাক্ত বাণী প্রদান করেছেন :  
“শ্রীশ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উপলক্ষে আমি সকল সনাতন ধর্মাবলম্বীদের জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভ
Todays handout (7).docx Todays handout (7).docx

Share with :

Facebook Facebook