তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২২nd সেপ্টেম্বর ২০১৮

তথ্যবিবরণী 22/9/2018

তথ্যবিবরণী                                                                       নম্বর : ২৬০৩
 
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১
মোঃ ওসমান গণির মৃত্যুতে এলজিআরডি মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীর শোক
 
ঢাকা, ৭ আশ্বিন (২২ সেপ্টেম্বর) :
 
স্থানীয় সরকার, পল্ল¬ী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ মোঃ ওসমান গণির মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।
 
আজ এক শোকবাণীতে মন্ত্রী বলেন, মোঃ ওসমান গণি’র মৃত্যুতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন একজন নিবেদিত প্রাণ জনপ্রতিনিধিকে হারালো। তিনি মরহুমের শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান এবং বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।
 
অপর এক শোকবার্তায় পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মশিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, 
মোঃ ওসমান গণি’র প্রয়াণে  ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন একজন অভিভাবককে হারালো। ব্যক্তি জীবনে অত্যন্ত সজ্জন এ রাজনীতিবিদ আমৃত্যু জনগণের জন্য কাজ করে গেছেন। একটি আধুনিক ও বাসযোগ্য ঢাকা গড়ে তুলতে তিনি প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের যোগ্য উত্তরসূরি ছিলেন। তিনি মরহুমের শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান এবং বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।
 
 
#
আহসান/নাইচ/মোশারফ/আব্বাস/২০১৮/২১২২ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                           নম্বর : ২৬০২
 
কিশোর-কিশোরী ক্লাবের কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন মেহের আফরোজ চুমকি
 
ঢাকা, ৭ আশ্বিন (২২ সেপ্টেম্বর) :
আজ বাংলাদেশ শিশু একাডেমি থেকে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি ‘কিশোর-কিশোরী ক্লাবের কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন। এই কার্যক্রমের আওতায় সারা দেশে  ৪ হাজার ৫৫৩টি ইউনিয়ন ও ৩৩০ টি পৌরসভায় মোট ৪ হাজার ৮৮৩ টি কিশোর-কিশোরী ক্লাব স্থাপন করা হয়েছে।  
  ইভটিজিং বন্ধ, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ, জেন্ডার বেইজড ভায়োলেন্স প্রতিরোধে ঝবীঁধষ ্ জবঢ়ৎড়ফঁপঃরাব ঐবধষঃয ধহফ জরমযঃং (ঝজঐজ), জন্মনিবদ্ধন, বিবাহ নিবন্ধন, যৌতুক প্রতিরোধ, শিশু অধিকার, নারী অধিকার, জেন্ডারভিত্তিক বৈষম্য দূর, যৌন নির্যাতন ও নিপীড়ন প্রতিরোধসহ ব্যক্তিগত নিরাপত্তা বিয়য়ে ক্লাবগুলোতে  প্রশিক্ষণের মাধ্যমে  কিশোর-কিশোরীদের সচেতন করা হবে। প্রতিটি ক্লাবের সদস্য সংখ্যা ৩০ জন। এর মধ্যে ২০ জন মেয়ে এবং ১০ জন ছেলে। তাছাড়া সকল ক্লাবের সদস্যরা বিভিন্ন দিবস উদযাপন, খেলাধুলা, 
বই-ম্যাগাজিন, সংগীত, আবৃত্তি, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা, মুক্ত আলোচনা, আন্তঃকøাব প্রতিযোগিতা ও কারাতে প্রশিক্ষণ নিতে পারবে।
এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন দেশের জনসংখ্যার একটি বৃহৎ অংশ কিশোর-কিশোরী। বর্তমানে কিশোর-কিশোরীর সংখ্যা ৩ কোটি ৬৩ লাখ ৮০ হাজার যা মোট জনসংখ্যার ২১ দশমিক ৪  শতাংশ। দেশের এই ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সঠিকভাবে গড়ে তুলতে তাদেরকে মূল ধারায় সম্পৃক্ত করা প্রয়োজন। পারস্পরিক সহমর্মিতার সম্পর্ক গড়ে তোলার মধ্য দিয়ে ইতিবাচক পরিবর্তন ঘটানোর লক্ষ্যে কিশোর-কিশোরী ক্লাব প্রকল্প স্থাপন করা হয়েছে। তিনি বলেন সামাজিক সমস্যা দূর করতে হলে মানসিকতার পরিবর্তন করতে হবে। কিশোর-কিশোরীদের  বয়ঃসন্ধিকাল মানসিক বিকাশের উপযুক্ত সময়। 
মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী রওশন আক্তারের সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম এনডিসি, বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর চেয়ারম্যান কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন এবং কিশোর-কিশোরী ক্লাব স্থাপন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক বিকাশ চন্দ্র সিকদার।
#
 
খায়ের/সেলিম/মোশারফ/শামীম/২০১৮/২০৪৮ ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                           নম্বর : ২৬০১
 
রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের শাস্তি দেওয়ার জন্যই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন
                                                                   - প্রতিমন্ত্রী রাঙ্গা
 
ঢাকা, ৭ আশ্বিন (২২ সেপ্টেম্বর) :
পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেছেন, সাংবাদিক ও মুক্তমনা দেশপ্রেমিক গণমাধ্যম ব্যক্তিদের কণ্ঠ রোধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রণয়ন করা হয়নি; বরং যারা সমাজে বিভ্রান্তি ও সহিংসতা ছড়ায়, অপপ্রচার করে দেশ ও রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে তাদের শাস্তি দেওয়ার জন্যই এ জনবান্ধব আইন।
প্রতিমন্ত্রী আজ রাজধানীর ডিআরইউ মিলনায়তনে সার্চ নিউজ আয়োজিত বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণ বিষয়ক এক আলোচনা সভা ও দেশের দুঃস্থ ক্যান্সার রোগীদের অর্থ সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
ডা. আবু রায়হানের সভাপতিত্বে এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্যের আয়েশা মেমোরিয়াল ট্রাস্টের চেয়ারম্যান এম এ চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের সভাপতি লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল, আওয়ামী লীগ নেতা রাশেদ রহমান, হেলেনা জাহাঙ্গীর, ডা. আসাদুজ্জামান, সাংবাদিক রাব্বি চৌধুরী ও মোস্তফা আল মাহমুদ। 
প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তান কারাগার হতে মুক্ত হয়ে যুদ্ধবিধ্বস্ত ও অর্থনীতি পশ্চাৎপদ বাংলাদেশের নেতৃত্ব গ্রহণ করেন। অল্প সময়ে উপহার দেন আধুনিক একটি সংবিধান। তিনি মাত্র সাড়ে তিন বছরে দেশটির পুনর্বাসন ও পুনর্গঠনের কাজ সুসম্পন্ন করেন। 
পরে প্রতিমন্ত্রী সার্চ নিউজের পক্ষ থেকে দেশের দুঃস্থ ক্যান্সার রোগীদের হাতে নগদ অর্থ তুলে দেন।
#
 
আহসান/সেলিম/মোশারফ/শামীম/২০১৮/২০৩০ ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                                    নম্বর :২৬০০ 
 
মতলব ডিগ্রী কলেজকে সরকারিকরণ উপলক্ষে
আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
 
 
মতলব দক্ষিণ (চাঁদপুর),, ৭ আশ্বিন (২২ সেপ্টেম্বর) :
মতলব ডিগ্রী কলেজকে সরকারিকরণ উপলক্ষে আজ কলেজ প্রাঙ্গণে এক আনন্দ শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। শোভাযাত্রায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া নেতৃত্ব দেন। এ সময় মতলব সরকারি ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আবুল কালাম আল আজাদসহ কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক, মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট রুহুল আমিন, সেক্রেটারি এমএ কুদ্দুস, মতলব দক্ষিণ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম গিয়াস উদ্দিন, সেক্রেটারি বিএইচ কবির আহমেদ, মতলব উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল মোস্তফা তালুকদার, পৌর মেয়র আওলাদ হোসেন লিটনসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এ সময় তিনি কলেজ প্রাঙ্গণে কলেজ সরকারিকরণের উদ্বোধনী ফলক উম্মোচন করেন।
 
এ সময় শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের মাঝে বেশ উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা যায়। আনন্দ শোভাযাত্রাটি কলেজ প্রাঙ্গণ থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে কলেজ প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়।
 
শোভাযাত্রা শেষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় মায়া চৌধুরী বলেন, সরকারের শাসনামলের বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও কলেজের সরকারিকরণ হয়। এতে গ্রাম থেকে শহর পর্যন্ত সকল শিক্ষার্থীর শিক্ষার সমান সুযোগ নিশ্চিত হয়। তিনি বলেন, শীঘ্রই দেশব্যাপী উপযুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর এমপিওভুক্ত করা হবে। লেখাপড়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের সহশিক্ষা ও শারীরিক শিক্ষার উপর মন্ত্রী গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আগামী প্রজন্ম গড়ে তুলতে হবে। সমাজ থেকে মাদক, বাল্যবিবাহ, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মোকাবিলায় শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের সবিশেষ সচেতন থাকার অনুরোধ করেন মন্ত্রী। 
 
#
ফারুক/সেলিম/পারভেজ/আব্বাস/২০১৮/১৯১২ ঘণ্টা 

Handout                                                                                                        Number: 2598

  

Condolence message from the President of Bangladesh

 

Dhaka, 21 September:

 

            President Md. Abdul Hamid has given the following Condolence message over the demise of Vietnamese President Nam Tran Dai Quang on 21 September 2018.

 

''Her Excellency

Madame Dang Thi Ngoc Thinh

Acting State President of the Socialist Republic of Vietnam

 

Excellency,

 

            I am extremely saddened to learn about the untimely demise of the Politburo member of the Communist Party of Vietnam and the State President of the Socialist Republic of Vietnam H.E. Nam Tran Dai Quang yesterday.  It is an irrevocable loss for the people and the Communist Party of Vietnam.

.

            On behalf of the people and the Government of Bangladesh and my own behalf, I convey deepest sympathy and condolences to the people and the Government of Vietnam and to the mourning family members of the deceased President.

 

            Late President Nam Tran Dai Quang will always remain in the hearts of the people of Bangladesh for his keenness and personal initiatives to further strengthen the bilateral relationship between our two nations. I had the privilege to have a comprehensive interaction with the visionary leader during his visit to Bangladesh in March this year.

 

            May the departed soul of the great leader rest in eternal peace and the bereaved family and the people of Vietnam bestowed with requisite strength to withstand such an immense loss and overwhelming grief. 

 

            Please accept, Excellency, the assurances of the highest consideration."

 

                                                                                   

#

Kamruzzaman/Selim/Pervez/Abbas/2018/1853 Hours

তথ্যবিবরণী                                                                           নম্বর : ২৫৯৭
 
 বর্তমান সরকারের আমলে বাংলাদেশ অবিশ্বাস্য উন্নয়নের পথে এগিয়ে গেছে                             
                                                               -সমাজকল্যাণ মন্ত্রী 
 
ঢাকা, ৭ আশ্বিন (২২ সেপ্টেম্বর) :
 
সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেছেন, বর্তমান সরকারের আমলে বাংলাদেশ অবিশ্বাস্য উন্নয়নের পথে এগিয়ে গেছে। বাংলাদেশ এ বছর স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। জাতীয় প্রবৃদ্ধি পরপর গত দু’বছর ৭ শতাংশের কোটা ছাড়িয়ে গেছে। দেশের জিডিপি বেড়েছে কয়েকগুণ। দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়ে এখন দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৭৫২ ডলারে। দারিদ্র্য কমে নেমে এসেছে ২২ শতাংশে। রেমিটেন্স বেড়েছে, বেড়েছে রপ্তানি আয়। 
মন্ত্রী আজ শনিবার রাজধানীর শাহজাহানপুর এলাকার স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি, সম্পাদক, শিক্ষকবৃন্দ, মসজিদ কমিটির সদস্যবৃন্দ, ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের সাথে দেশের চলমান উন্নয়ন কার্যক্রম নিয়ে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 
মন্ত্রী আরো বলেন, খাদ্যশস্য উৎপাদনে বাংলাদেশ এখন নিজের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানির কথা ভাবতে পারছে। মৎস্যচাষে বাংলাদেশ পৃথিবীর চতুর্থ ও সবজি উৎপাদনে তৃতীয়, গার্মেন্টস রপ্তানিতে দ্বিতীয়। এর সাথে ঔষধ, সিমেন্ট, চামড়াজাত দ্রব্য, চিংড়ি, কাকড়া, কচ্ছপ ও কুটির শিল্পপণ্য ব্যাপক হারে বিদেশে রপ্তানি করছে। অভ্যন্তরীণ ক্ষেত্রে সরকার পদ্মা সেতু নির্মাণের পাশাপাশি আরো বহু সেতু নির্মাণ, রেলপথ, মেট্রোরেল, এক্সপ্রেসওয়ে, গ্রামে গ্রামে কমিউনিটি হাসপাতাল, কৃষি, স্বাস্থ্য ও অর্থনীতি বিষয় জানতে প্রতি ইউনিয়নে ডিজিটাল তথ্যকেন্দ্র ও সর্বোপরি বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের মাধ্যমে বাংলাদেশকে মহাকাশের সাথে সংযুক্ত করার বিশাল কর্মযজ্ঞ সম্পন্ন করেছে ও করে যাচ্ছে। তিনি আরো বলেন, এই সরকারের সময়কালে নারীর ক্ষমতায়ন, নারী শিক্ষার বিস্তার, বাল্যবিবাহ রোধ, স্বাস্থ্যসেবা প্রভৃতি ক্ষেত্রে বাংলাদেশ কেবল আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিই পায় নাই, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা ও দেশের কাছ থেকে বিরল সম্মাননাও পেয়েছেন। 
 
#
 
মাইদুল/সেলিম/পারভেজ/শামীম/২০১৮/১৮৩০ ঘণ্টা   
 

 

 

 

 

 

 

Handout                                                                                                        Number: 2599

 

Condolence message from the Prime Minister of Bangladesh

 

Dhaka, 21 September:

 

            Prime Minister Sheikh Hasina has given the following Condolence message over the demise of Vietnamese President Nam Tran Dai Quang on 21 September 2018.

 

 

''His Excellency

Mr. Nguyen Xuan Phuc

Prime Minister of the Socialist Republic of Vietnam

 

Excellency,

 

            I am profusely saddened to learn about the premature demise of the Politburo member of the Communist Party of Vietnam and the State President of the Socialist Republic of Vietnam H.E. Nam Tran Dai Quang last morning. 

.

            In this hour of grief, the people and the Government of Bangladesh join me to express deepest condolences to the people and the Government of Vietnam and to the family and friends of the deceased leader. The untimely demise of H.E Nam Tran Dai Quang is an immense loss for the people and the Communist Party of Vietnam.

 

            The people of Bangladesh will always remember the late President for his invaluable contributions in taking our bilateral relationship to a new height. I recall with gratitude his recent visit to Bangladesh in March this year, which provided an opportunity to jointly chart the future course of our bilateral relations for the materialization of the common aspiration of our two peoples.

 

            May the departed soul of H.E Nam Tran Dai Quang rest in eternal peace. May the bereaved family and the people of Vietnam bequeathed with divine strength to endure this great loss and intense grief.

 

            Please accept, Excellency, the assurances of the highest consideration."

 

                                                                                                           

#

Kamruzzaman/Selim/Pervez/Abbas/2018/1853 Hours

 

 

 

 

Todays handout (7).docx Todays handout (7).docx

Share with :

Facebook Facebook