তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

তথ্যবিবরণী 28.2.2018

তথ্যবিবরণী                                                                                নম্বর : ৬৫৩
 
শিল্পকলায় পাটের ক্যানভাসে চিত্র কর্মশালা
 
ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৮ ফেব্রুয়ারি) : 
 জাতীয় পাট দিবস উপলক্ষে শিল্পকলা একাডেমীর চিত্রশালায় অনুষ্ঠিত হলো সোনালী আঁশে নন্দন-ভুবন শিরোনামে দুই দিনব্যাপী পাটের ক্যানভাসে চিত্র কর্মশালা। বরেণ্যশিল্পী হাশেম খান ও আনিসুজ্জামানের তত্ত্বাবধায়ানে কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম। 
কর্মশালায় ৩৫ চিত্রশিল্পী রঙতুলি দিয়ে তিন ফুট বাই তিন ফুট পাটের ক্যানভাসে ছবি আঁকেন।
অনুষ্ঠানে মির্জা আজম বলেন, সোনালী আঁশ পাটের গৌবর ফিরিয়ে আনতে সব ধরনের ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার। পাটের ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে শিল্পীসমাজকেও এগিয়ে আসাতে হবে।
#
 
সৈকত/মাহমুদ/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/২০৩০ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                        নম্বর :  ৬৫২

জাপানের রাষ্ট্রদূত-বাণিজ্যমন্ত্রী বৈঠক
জাপানকে একটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রদান করা হবে

ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৮ ফেব্রুয়ারি) :

    বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, জাপান বাংলাদেশের ঘনিষ্ঠ বন্ধুরাষ্ট্র ও উন্নয়ন সহযোগী। জাপান বাংলাদেশকে সবচেয়ে বেশি আর্থিক সহায়তা প্রদান করে আসছে। অনেক সহযোগিতা চুক্তি করা হয়েছে জাপানের সাথে। জাইকাসহ বেশকিছু সংস্থা বাংলাদেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। ইপিজেডসহ বিভিন্ন স্থানে জাপানের অনেক কোম্পানি বিনিয়োগ করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলের একটি জাপানকে প্রদান করা হবে। জাপানের বিনিয়োগকারীরা এখানে বিনিয়োগ করলে অধিক লাভজনক হবেন। এছাড়া উভয় দেশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে আলোচনা ও বাণিজ্য সুবিধা বৃদ্ধির মাধ্যমে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ বৃদ্ধি করা হবে।
 
    বাণিজ্যমন্ত্রী আজ সচিবালয়ে তাঁর কার্যালয়ে ঢাকায় জাপানের রাষ্ট্রদূত ঐরৎড়ুধংঁ ওুঁসর এর সাথে মতবিনিময় করে সাংবাদিকদের উদ্দেশে এসব কথা বলেন।
 
    সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ অচিরেই নি¤œআয়ের দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হতে যাচ্ছে। তখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জিএসপি সুবিধা প্রদান করা বা না করার বিষয় থাকবে না। ইউরোপীয় ইউনিয়ন বাংলাদেশকে জিএসপি সুবিধা প্রদান করে, সেখান থেকে জিএসপি প্লাস সুবিধা প্রাপ্তির জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দেয়া সকল শর্ত পূরণ করার পরও স্থগিতকৃত জিএসপি সুবিধা চালু করেনি। একটি শর্ত পূরণ করলে নতুন শর্ত দেয়া  হচ্ছে। এমতাবস্থায়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছে জিএসপি সুবিধা পাবার কোন সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না। বাংলাদেশ নতুন করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে জিএসপি সুবিধা চাইবে না। বর্তমানে প্রায় সাড়ে ১৬ শতাংশ শুল্ক দিয়ে বাংলাদেশের তৈরিপোশাক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে রপ্তানি করা হচ্ছে। তারপরও বাংলাদেশের মোট রপ্তানির প্রায় ১৬ দশমিক ৭৮ শতাংশ রপ্তানি হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের একটি বড় রপ্তানি বাজার। বাংলাদেশ বছরে প্রায় ৯০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার শুল্ক দেয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দেয়া জিএসপি সুবিধা স্থগিত বাংলাদেশের রপ্তানি বাণিজ্যে বাধার সৃষ্টি করেনি।
 
    বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব শুভাশীষ বসু এসময় উপস্থিত ছিলেন।

#

বকসী/মাহমুদ/সঞ্জীব/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/২০০০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                নম্বর : ৬৫১ 
 
দু’টি বিলে রাষ্ট্রপতির সম্মতি 
ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৮ ফেব্রুয়ারি) : 
রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ দশম জাতীয় সংসদের ১৯তম (২০১৮ খ্রিস্টাব্দের ১ম) অধিবেশনে জাতীয় সংসদ গৃহীত দু’টি বিলে আজ তাঁর সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন।
বিল দু’টি হচ্ছে :  প্রতিরক্ষা-বাহিনীসমূহের প্রধানদের (নিয়োগ, বেতন, ভাতা ও অন্যান্য সুবিধা) বিল, ২০১৮  এবং শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউট বিল, ২০১৮।
#
 
তারিক/মাহমুদ/ফারহানা/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৮/১৮২০ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                                নম্বর : ৬৫০
 
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক 
ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৮ ফেব্রুয়ারি) :
দশম জাতীয় সংসদের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ২১তম বৈঠক আজ কমিটির সভাপতি ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুর সভাপতিত্বে সংসদভবনে অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সদস্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী, বি এম মোজাম্মেল হক, মমতাজ বেগম, আবদুর রহমান বদি, মোঃ শফিকুল ইসলাম শিমুল এবং সৈয়দ আবু হোসেন বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। 
 
বিগত বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহের বাস্তবায়ন অগ্রগতি এবং দুর্যোগপ্রবণ দেশ হিসেবে বাংলাদেশের দুর্যোগ ও দুর্ঘটনা মোকাবিলায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অধীন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের কি ধরণের প্রস্তÍÍুতি ও সামর্থ্য রয়েছে সে বিষয়ে  বিস্তারিত আলোচনা হয় । ব্রিজ কালভার্ট নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নে অনিয়ম অভিযোগের প্রতিবেদনের বিষয়ে কমিটির পরবর্তী বৈঠকে আলোচনা করার সুপারিশ করা হয় । 
 
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন ১৩ হাজার ব্রিজ কালভাটের নির্মাণ কাজ ডিসেম্বরের মধ্যে সম্পন্ন করার জন্য মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সুপারিশ করা হয়। এছাড়া জনবল নিয়োগের লক্ষ্যে  আদালতে বিদ্যমান মামলাগুলো বিজ্ঞ আইনজীবী নিয়োগ করে মামলা নিষ্পত্তি ও জনবল নিয়োগের কার্যক্রম সম্পন্ন  করার বিষয়ে মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়।  
 
কক্সবাজার জেলার  উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলায় দুর্যোগ ও দুর্ঘটনা মোকাবিলায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর কর্র্তৃক ৪টি ছোট ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি  প্রদানের বিষয়ে কমিটি সুপারিশ করে । 
 
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের  সচিব, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহাপরিচালসহ মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট  কর্মকর্তাগণ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। 
#
 
এমাদুল/মাহমুদ/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৮১৫ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                        নম্বর : ৬৪৯

পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক

ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৮ ফেব্রুয়ারি) :

দশম জাতীয় সংসদের পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৪০তম বৈঠক কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ হাছান মাহমুদের সভাপতিত্বে  আজ সংসদ  ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সদস্য পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব,  নবী নেওয়াজ, মোঃ ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী, টিপু সুলতান এবং মোঃ ইয়াসিন আলী বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।
         মাছের প্রাকৃতিক প্রজননক্ষেত্র রক্ষার্থে হালদা নদী দূষণের বর্তমান অবস্থা ও দূষণ প্রতিরোধে করণীয়  সম্পর্কে বৈঠকে বিস্তারিত আলোচনা হয়। বৈঠকে জানানো হয়, দেশের একমাত্র মাছের প্রাকৃতিক প্রজননক্ষেত্র হালদা নদী নানাভাবে দূষিত হচ্ছে। এ সকল দূষণের মধ্যে কলকারখানার দূষণ নিয়ন্ত্রণ, বালু উত্তোলন সর্বনি¤œ পর্যায়ে নিয়ে আসা, যান্ত্রিক জলযান  চলাচল নিয়ন্ত্রণ এবং অপ্রয়োজনীয় স্লুইস গেট বন্ধ ও প্রয়োজনীয় স্লুইস গেট সচল রাখার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। কমিটি হালদা নদীকে ঊপড়ষড়মরপধষষু ঈৎরঃরপধষ অৎবধ ঘোষণা করার লক্ষ্যে মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে।

        এছাড়া বৈঠকে চট্টগ্রামের ভাটিয়ারী এলাকায় বোটানিক্যাল গার্ডেন নির্মাণ প্রকল্পের অসমাপ্ত কাজ সম্পর্কে আলোচনা হয় এবং বোটানিক্যাল গার্ডেন নির্মাণ প্রকল্পের কাজ স্থায়ী কমিটি সরেজমিন পরিদর্শনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।
         
        পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব, পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ মন্ত্রণালয়, অধিদপ্তর ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

#

আকরাম/মাহমুদ/রফিকুল/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৮১০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                নম্বর : ৬৪৮

 
ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক 
ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৮ ফেব্রুয়ারি) :
দশম জাতীয় সংসদের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৩৩তম বৈঠক আজ জাতীয় সংসদভবনে অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুন বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। কমিটির সদস্য সাধন চন্দ্র মজুমদার, সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভা-ারি, মোঃ মকবুল হোসেন এবং বেগম দিলারা বেগম বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।
বৈঠকে  ‘বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট বিল,২০১৮ এবং ‘খ্রিস্টান ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট বিল, ২০১৮ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। কিন্তু বিল দু’টির রিপোর্ট চূড়ান্ত করা সম্ভব হয়নি। এজন্য বিল দু’টি আরো পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পরীক্ষানিরীক্ষা করে রিপোর্ট চূড়ান্ত করার সুপারিশ করা হয়। 
ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ আনিছুর রহমানসহ মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তর এবং  বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের  সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।   
#
 
হুদা/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৭৪৫ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                                নম্বর : ৬৪৭
 
এএআরডিও’র ১৯ তম সাধারণ অধিবেশনে যোগদানের উদ্দেশে এলজিআরডি মন্ত্রীর ঢাকা ত্যাগ
 
ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৮ ফেব্রুয়ারি) :  
 
স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠিতব্য আফ্রো-এশিয়ান পল্লী দারিদ্র্যমোচন সংস্থা অভৎরপধহ-অংরধহ জঁৎধষ উবাবষড়ঢ়সবহঃ ঙৎমধহরুধঃরড়হ (অঅজউঙ)-এর ১৯ তম সাধারণ অধিবেশনে যোগদানের উদ্দেশে গত রাতে ঢাকা ত্যাগ করেন।
সাধারণ সভায় আফ্রিকা ও এশীয় অঞ্চলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ও নীতি নির্ধারকগণ অংশগ্রহণ করবেন। এ অঞ্চলসমূহের গ্রামীণ জনপদে দারিদ্র্যদূরীকরণে টেকসই কর্মপন্থা নিয়ে সভায় আলোচনা হবে বলে আশা করা হচ্ছে।
মন্ত্রী সম্মেলনে ৫ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। দলের অন্যান্য সদস্যগণ হলেন - পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মাফরূহা সুলতানা, বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমি (বার্ড), কুমিল্লার মহাপরিচালক ড. মিজানুর রহমান, স্থানীয় সরকার বিভাগের যুগ্মসচিব (মন্ত্রীর একান্ত সচিব) মুহম্মদ ইব্রাহিম এবং পল্লী উন্নয়ন একাডেমি (আরডিএ), বগুড়া’র মহাপরিচালক এম এ মতিন।
কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য দেশ হিসেবে এশিয়া ও আফ্রিকা অঞ্চলের মধ্যে বাংলাদেশ, তাইওয়ান, ভারত, লেবানন, মালয়েশিয়া, ওমান, মিশর, ঘানা, লিবিয়া, মরিশাস, নাইজেরিয়া, সুদান ও জাম্বিয়া অধিবেশনে অংশগ্রহণ করছে।
মন্ত্রী আগামী ৪ মার্চ দেশে ফিরবেন বলে আশা করা যাচ্ছে। 
 
#
 
জাকির/রিফাত/শহিদ/রফিকুল/শামীম/২০১৮/১৬১৫ ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ৬৪৬
 
অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক 
 
ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৮ ফেব্রুয়ারি) :   
অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ২৩তম বৈঠক আজ কমিটির সভাপতি ড. মো. আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সদস্য নাজমুল হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান, ফরহাদ হোসেন এবং আখতার জাহান বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।
বৈঠকে ২২তম সভার কার্যবিবরণী নিশ্চিতকরণ করা হয়। পঁচিশটি শীর্ষ ঋণখেলাপির তালিকা এবং খেলাপিঋণ আদায়ে করণীয়, কার্যকরী ও সুষ্ঠু শেয়ার বাজার গড়ে তোলার লক্ষ্যে অগ্রগতি এবং বিদ্যমান সমস্যাবলি থেকে উত্তরণের কৌশল সম্পর্কে আলোচনা হয়।
বৈঠকে জানানো হয়, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত ব্যাকিং খাতে শীর্ষ ২৫ ঋণখেলাপির নিকট বকেয়া ঋণের পরিমাণ ১০ হাজার ৬৩৫ কোটি টাকা এবং খেলাপি ঋণের পরিমাণ ৯ হাজার ৬৬৯ কোটি টাকা। বৈঠকে বিপুল পরিমাণ খেলাপি ঋণ আদায়ের ক্ষেত্রে কি কি প্রতিবন্ধকতা রয়েছে, কি উপায়ে সেগুলো দূর করা যায়, ঋণখেলাপি বন্ধে আইনের কি সংস্কার প্রয়োজন, উচ্চ আদালতের করণীয় ইত্যাদি বিষয়গুলো পর্যালোচনা করে বাংলাদেশ ব্যাংক এবং মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠন করে ৪৫ দিনের মধ্যে একটি বাস্তবভিত্তিক রিপোর্ট প্রদানের সুপারিশ করা হয়।
কার্যকরী ও সুষ্ঠু শেয়ার বাজার গড়ে তোলার লক্ষ্যে আধুনিক সার্ভেইলেন্স সিস্টেম সংযোজন এবং সুপারভিশন ও মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদার করার ফলে শেয়ার বাজারের বড় ধরণের বিপর্যয়ের সম্ভাবনা নেই বলে কমিটিকে জানানো হয়। সিকিউরিটিস এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে নতুন জনবল নিয়োগ প্রশাসনিক জটিলতায় আটকে থাকায় নিয়মিত পরিদর্শন কার্যক্রম পরিচালনা করা যাচ্ছেনা বিধায় জরুরিভিত্তিতে জনবল নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়।   
দেশের বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো নামে বেনামে নানা ধরণের সার্ভিস চার্জ আদায়, ক্রেডিট কার্ডে অতিরিক্ত সুদহার, সুপ্তচার্জ আদায়সহ গ্রাহকদের নানা ধরণের অভিযোগ খতিয়ে দেখে আগামী বৈঠকে প্রতিবেদন প্রদানের সুপারিশ করা হয়। বাজারে চালসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে মন্ত্রণালয়কে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের পরামর্শ দেয়া হয়।
বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্র্নর, অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিবসহ মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। 
#
মিজানুর/রিফাত/রফিকুল/আসমা/২০১৮/১৬৩০ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                                নম্বর : ৬৪৫
 
বিশ্ব চিন্তা দিবস উদযাপিত
ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৮ ফেব্রুয়ারি) :  
ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এদেশে শতভাগ নারীশিক্ষা ও নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, ভাষা আন্দোলন ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে সকল তরুণ, তরুণীদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।
আজ বাংলাদেশ গার্ল গাইডস্ এসোসিয়েশন-এর উদ্যোগে বেইলী রোডে জাতীয় কার্যালয়ের গাইড অডিটোরিয়ামে ‘বিশ্ব চিন্তা দিবস’ উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
বিশ্ব গার্ল গাইডস্ ও গার্ল স্কাউটস সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা লর্ড বেডেন পাওয়েল ও বিশ্ব চিফ গাইড লেডি  ওলেভ বেডেন পাওয়েল-এর যুগ্ম জন্মদিবস ২২ ফেব্রুয়ারি। বিশ্বব্যাপী গাইড সদস্যবৃন্দ তাঁদের জন্ম দিবসকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য ‘বিশ্ব চিন্তা দিবস’ উদ্যাপন করে। দিবসটির এবারের থিম হচ্ছে : ‘ওসঢ়ধপঃ’।
ভূমিমন্ত্রী শরীফ আরো বলেন, চিন্তা মানে সুচিন্তা। যে চিন্তার ফলাফল আমাদের ব্যক্তি জীবনকে সূচি, শুভ্র ও সুন্দর করবে, যে চিন্তা পারিবারিক জীবনে পরিবারকে সমৃদ্ধ করবে।  
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভূমি সংস্কার বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. মাহ্ফুজুর রহমান। গার্ল গাইডস এসোসিয়েশনের জাতীয় কমিশনার সৈয়দা রেহানা ইমামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন ডেপুটি জাতীয় কমিশনার প্রফেসর ড. ইয়াসমিন আহমেদ, আঞ্চলিক কমিশনার রওশন ইসলাম।
বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হলদে পাখি, গাইড ও রেঞ্জাররা সঙ্গীত, নৃত্য ও নাটিকা পরিবেশন করে। রাজধানীর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হলদেপাখি, গাইড, রেঞ্জার, গাইডার, গাইড সদস্য ও জাতীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যসহ প্রায় ৭০০ জন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
 
#
 
রেজুয়ান/রিফাত/শহিদ/শামীম/২০১৮/১৬০০ ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                নম্বর : ৬৪৪
 
আগামীকাল রাত ৮টা ৫০ মিনিটে সকল টেলিভিশন ও রেডিওতে 
একযোগে মাদকবিরোধী তথ্য অভিযান
 
ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৮ ফেব্রুয়ারি) :  
সরকার মাদকের বিস্তার রোধে জনসচেতনতা গড়ে তোলার লক্ষ্যে আগামীকাল ১ মার্চ  থেকে সারাদেশে মাদকবিরোধী ‘তথ্য অভিযান’ শুরু করতে যাচ্ছে। এর অংশ হিসেবে আগামীকাল রাত ৮টা ৫০ মিনিটে ‘জীবনকে ভালোবাসুন মাদক থেকে দূরে থাকুন’  স্লোগানটি দেশের সকল টিভি চ্যানেল ও রেডিওতে একযোগে প্রচার করা হবে। 
 
তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমের সভাপতিত্বে সম্প্রতি তথ্য মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। 
 
সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মাদকের বিস্তার রোধে জনসচেতনতা গড়ে তোলার লক্ষ্যে টিভি চ্যানেলসমূহে প্রচারের জন্য তথ্যমন্ত্রণালয় তৈরিকৃত ১.৫৮ ও ১.২৮ মিনিটের ২টি টেলিভিশন কমার্শিয়াল (টিভিসি) ইতোমধ্যে সরবরাহ করা হয়েছে। এ ২টি টিভিসি একযোগে আগামীকাল রাত ৮টা ৫০ মিনিটে বিটিভিসহ সকল টিভি চ্যানেল ও রেডিওতে প্রচার করা হবে। আগামীকাল থেকে নির্ধারিত মাদকবিরোধী তথ্য অভিযান উপলক্ষে প্রমো প্রচারের জন্য সকল টিভি চ্যানেল ও রেডিওর প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। 
 
জেলা পর্যায়ে সকল জেলা তথ্য অফিসার মাদকের বিস্তার রোধে গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে স্ব স্ব অফিসে আগামীকাল সকাল ১১ টায় একযোগে প্রেস বিফ্রিং আয়োজন করবেন। এছাড়া, জেলা তথ্য অফিসার ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর সরবরাহকৃত মাদকবিরোধী ফিলার জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদসহ জনবহুল স্থানে প্রচারের ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। 
 
#
 
এনায়েত/রিফাত/শহিদ/শামীম/২০১৮/১৪৪৪ ঘণ্টা 

 

 
তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ৬৪৩ 
বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর বাণী
ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৮ ফেব্রুয়ারি) :    
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার উপলক্ষে নিম্নোক্ত বাণী প্রদান করেছেন : 
“কৃষি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার ১৪২৩’ প্রদান উপলক্ষে আমি সংশ্লিষ্ট সকলকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। পুরস্কারপ্রাপ্ত সকল ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে আমি আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি।  
সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার পর যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশের পুনর্গঠনে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছিলেন। তিনি ১৯৭৩ সালে কৃষি উন্নয়নে অনুপ্রেরণা যোগাতে কৃষিক্ষেত্রে অবদানের জন্য ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার’ প্রবর্তন করেন। তাঁর সরকার কৃষকদের কল্যাণে পঁচিশ বিঘা পর্যন্ত জমির মালিকদের খাজনা মওকুফ করে দিয়েছিলেন। তিনি উন্নত পদ্ধতিতে চাষাবদ, উন্নতবীজ, সার, সেচ ও অন্যান্য কৃষি উপকরণ সরবরাহ করে কৃষিক্ষেত্রে উৎপাদনশীলতা ও উৎপাদন বৃদ্ধির মাধ্যমে খাদ্যে স্বয়ম্ভরতা অর্জনের পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। 
আওয়ামী লীগ সরকার ২০০৯ সাল থেকে কৃষির সার্বিক উন্নয়নে কৃষিবান্ধব নীতি ও সময়োপযোগী বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। সার, বীজসহ সকল কৃষি উপকরণের মূল্যহ্রাস, কৃষকদের সহজশর্তে ও স্বল্পসুদে ঋণ সুবিধা প্রদান, ১০ টাকায় ব্যাংক একাউন্ট খোলার সুযোগসহ তাঁদের নগদ সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। আমরা কৃষকদের মধ্যে কৃষি উপকরণ কার্ড বিতরণ করেছি। কৃষিতে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার বৃদ্ধি করা হয়েছে। ফলে আমরা খাদ্য উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছি। কৃষির উৎপাদন বৃদ্ধির পাশাপাশি বন্যা, খরা ও লবণাক্ততা সহিষ্ণু ফসলের জাত উদ্ভাবনসহ জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় ভাসমান চাষ, বৈচিত্র্যময় ফসল উৎপাদন, ট্রান্সজেনিক জাত উদ্ভাবন, পাটের জেনোম সিকুয়েন্স উন্মোচন ও মেধাসত্ব অর্জন করা হয়েছে। হাওর, পাহাড়সমৃদ্ধ ভৌগোলিক প্রতিকূল এলাকাসহ দক্ষিণাঞ্চলে কৃষি উন্নয়নের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। কৃষির আধুনিকায়ন ঘটছে। আন্তর্জাতিক পরিম-লে বাংলাদেশের কৃষি সমাদৃত হচ্ছে।       
বাংলাদেশের কৃষির এ অগ্রযাত্রায় দেশের কৃষক, কৃষিকর্মী, সম্প্রসারণবিদ, বিজ্ঞানী ও কৃষি উদ্যোক্তাগণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছেন। এঁদের মধ্যে যাঁরা অনুকরণীয় সাফল্য অর্জন করেছেন তাঁদেরই ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার ১৪২৩’ প্রদান করা হচ্ছে।   
আমি আশা করি, সকলের ঐকান্তিক প্রচেষ্টার মাধ্যমে আমরা অপুষ্টি-ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত অর্থনৈতিকভাবে উন্নত সমৃদ্ধ জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সক্ষম হব।
আমি ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার ১৪২৩’-এর সার্বিক সাফল্য কামনা করছি।
জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু
বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।” 
#
ইমরুল/রিফাত/শহিদ/আসমা/২০১৮/১০৩০ ঘন্টা 
 

তথ্যবিবরণী                                                                                               নম্বর : ৬৪২ 

বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার উপলক্ষে রাষ্ট্রপতির বাণী

ঢাকা, ১৬ ফাল্গুন (২৮ ফেব্রুয়ারি) :   

রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার উপলক্ষে নিম্নোক্ত বাণী প্রদান করেছেন :     

"কৃষিক্ষেত্রে অসামান্য সাফল্যের স্বীকৃতিস্বরূপ ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার-১৪২৩’ প্রদান করা হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত।

কৃষি বাংলাদেশের অর্থনীতির অন্যতম প্রধান চালিকাশক্তি। আবহমানকাল থেকে বাঙালির প্রাত্যহিক জীবন জীবিকার পাশাপাশি কৃষি আমাদের সংস্কৃতির সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে। তাই কৃষির উন্নয়ন মানে দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন। জনসংখ্যা বৃদ্ধি, ক্রমহ্রাসমান কৃষিজমি, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত বিরূপ প্রভাবসহ নানা কারণে দেশের বিশাল জনগোষ্ঠীর খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এক বিরাট চ্যালেঞ্জ। এ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিভিত্তিক কৃষি আজ ছড়িয়ে পড়েছে তৃণমূলে। কৃষি ও কৃষকের সাফল্যগাথার এ ধারা অব্যাহত রাখতে শস্যের বহুমুখীকরণ ও ভূমির সর্বোত্তম ব্যবহার, কৃষি আধুনিকীকরণ, প্রতিকূলতাসহিষ্ণু নতুন নতুন জাত ও প্রযুক্তি উদ্ভাবন ও ব্যবহারে কৃষিবিজ্ঞানী, কৃষক, সম্প্রসারণবিদ এবং সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গের নিরলস প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে।

কৃষিক্ষেত্রে অনন্যসাধারণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ যে সকল ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার-১৪২৩’ এ ভূষিত হয়েছেন, আমি তাঁদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। এ পুরস্কার কৃষি কর্মকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে আগামীতে আরো উৎসাহিত ও অনুপ্রাণিত করবে বলে আমার দৃঢ়বিশ্বাস।

আমি ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার-১৪২৩’ প্রদান কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করি। 

খোদা হাফেজ, বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।"

#

হাসান/রিফাত/শহিদ/আসমা/২০১৮/১০৩০ ঘণ্টা

 

Todays handout (6).docx Todays handout (6).docx

Share with :

Facebook Facebook