তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১১ মার্চ ২০১৮

তথ্যবিবরণী ১০/০৩/২০১৮

তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর : ৭৬২
বর্তমান সরকার শিক্ষাকে অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ করছে
---বীর বাহাদুর উশৈসিং
বান্দরবান, ২৬ ফাল্গুন (১০ মার্চ ) : 
বান্দরবানের লামা উপজেলায় লামা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের অগ্রযাত্রার ‘৫০ বছরপূর্তি উৎসব’ বর্ণাঢ্য আয়োজনে উদ্যাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষে আজ বর্তমান প্রাক্তন সহ¯্রাধিক ছাত্রছাত্রীর সমন্বয়ে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা উপজেলা শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণশেষে বিদ্যালয় মাঠে এসে শেষ হয়।
এ উপলক্ষে আলোচনা সভায় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষাবান্ধব সরকার। স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের নিয়েই সরকার ২০২১ সালে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদ্যাপনের লক্ষ্য নির্ধারণ করে এগিয়ে যাচ্ছে। সরকারের এই মহতী লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে সর্বস্তরের ছাত্র-শিক্ষক ও অভিভাবকের সর্বাত্মক সহায়তা প্রয়োজন। শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, বর্তমান সরকার দেশের শিক্ষাকে অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ করছে। তাই আমাদের সন্তানদেরকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিথি তংচঙ্গার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং। এতে নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, জাতীয় শিক্ষাব্যবস্থা একাডেমির পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ) ড. মোস্তফা কামাল, বান্দরবান জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন, মোঃ মাহাবুবুর রহমান, পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 
শেষে প্রতিমন্ত্রী কলেজের ৬তলাবিশিষ্ট নতুন একাডেমিক ভবন, ১০০ শয্যাবিশিষ্ট হোস্টেল ও 
ছাত্র-শিক্ষক অডিটোরিয়াম নির্মাণের ঘোষণা দেন এবং ‘সুবর্ণ জয়ন্তী’ আয়োজনে ২ লাখ টাকা অনুদান প্রদান করেন।
পরে বিদ্যালয় মাঠে ছাত্র-শিক্ষক স্মৃতিচারণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
#
জুলফিকার/নাইচ/মোশারফ/আব্বাস/২০১৮/২১১৪ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর :৭৬১ 
বর্তমান সরকার প্রায় তিন কোটি লোককে সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় এনেছে
                                                 ---গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী
চট্টগ্রাম (মিরসরাই), ২৬ ফাল্গুন (১০ মার্চ ) : 
বর্তমান সরকার সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতা এবং ভাতার পরিমাণ বৃদ্ধি করেছে। এর ফলে অতিদরিদ্র জনগোষ্ঠীসহ প্রায় তিন কোটি লোক সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় এসেছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার দেশের সকল মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে।
 
আজ চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের মিঠানালা ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির সুবিধাভোগীদের সাথে এক মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এ কথা বলেন। 
 
শেখ হাসিনার সরকার বিধবাভাতা, বয়স্কভাতা, মাতৃকালীন ভাতাসহ বিভিন্ন ভাতার ব্যবস্থা চালু করেছে। একটি জনকল্যাণমূলক সরকারের পক্ষেই সম্ভব এমন সব নতুন নতুন কর্মসূচি গ্রহণ করা। সরকার দেশের সকল মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থা উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে এবং শীঘ্রই আমরা মধ্যমআয়ের দেশে উন্নীত হতে যাচ্ছি। 
 
মন্ত্রী বলেন, এ বছরের মধ্যেই মিরসরাই উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতের আওতায় আসবে। এ উপজেলায় কোনো বাড়িঘর বিদ্যুৎবিহীন থাকবে না। উপজেলায় কোনো রাস্তা কাঁচা থাকবে না। মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের শিল্পকারখানা চালু হলে এ উপজেলায় কোনো যুবক বেকার থাকবে না। মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে প্রায় ৫০ লাখ লোকের কর্মসংস্থান হবে।
#
 
কিবরিয়া/নাইচ/মোশারফ/আব্বাস/২০১৮/১৯৪৪ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর :  ৭৬০
ন্যায়ভিত্তিক ও বৈষম্যমুক্ত সমাজ গঠনে বিচারবিভাগের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ
                                                                 -- স্পিকার
ঢাকা, ২৬ ফাল্গুন (১০ মার্চ ) : 
স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, সকলের জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করা, সংবিধানের আলোকে প্রতিটি মানুষের বিচার পাওয়ার অধিকার সুনিশ্চিত করা এবং আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার মধ্যদিয়ে ন্যায় ও সমতাভিত্তিক সমাজ গড়ে তোলার ক্ষেত্রে বিচারবিভাগের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। 
তিনি আজ ঢাকায় বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে বাংলাদেশ মহিলা জজ এসোসিয়েশন আয়োজিত বাংলাদেশের নবনিযুক্ত প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন। 
বাংলাদেশ সংবিধানের প্রস্তাবনায় বর্ণিত রাষ্ট্রের অন্যতম মূললক্ষ্য গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠা ও সকল নাগরিকের জন্য আইনের শাসন, মানবাধিকার এবং রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক সাম্য, স্বাধীনতা ও সুবিচার নিশ্চিতকরণের বিষয়টি উল্লেখ করে স্পিকার বলেন, এই লক্ষ্য অর্জন ও বাস্তবায়নে রাষ্ট্রের তিনটি অঙ্গ নির্বাহী বিভাগ, আইনসভা ও বিচারবিভাগকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে। 
নারীদের জন্য অনুকূল কর্ম পরিবেশ, নারীদের অধিকার প্রতিষ্ঠা, নারীদের প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ ও তাদের সুরক্ষা নিশ্চিতকরণে আইনের যথাযথ প্রয়োগের মাধ্যমে বিচার বিভাগকে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান স্পিকার।  
স্পিকার বলেন, বিচারপ্রার্থী জনগণের জন্য বিচারের সুযোগ নিশ্চিত করতে হবে। প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জন্য বিচারের দ্বার উন্মুক্ত করতে হবে। তাহলেই দেশে ন্যায়বিচার ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা পাবে। 
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদানের প্রশংসা করে স্পিকার বলেন, বাংলাদেশের নারীরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা নির্মাণে কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশে নারীবান্ধব আইন ও নীতি প্রণয়নের ফলে নারী উন্নয়ন এবং ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ আজ বিশ্বের কাছে রোলমডেল। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে নারীরা জাতীয় উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় স্বমহিমায় উদ্ভাসিত। তারা সমাজ ও রাষ্ট্রের সকলক্ষেত্রে তাদের যোগ্যতার প্রমাণ করেছে। এ অগ্রযাত্রায় নারীদের পিছনে থাকার সুযোগ নেই। তিনি আরো বলেন, দৃঢ মনোবল ও প্রত্যয় নিয়ে নারীরা এগিয়ে গেলে- এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ। তিনি উন্নয়নের সকলক্ষেত্রে নারীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
স্পিকার বলেন,  বাংলাদেশ মহিলা জজ  এসোসিয়েশন  ওহঃবৎহধঃরড়হধষ ডড়সবহ ঔঁফমবং অংংড়পরধঃরড়হ এর সাথে সম্পৃক্ত থাকায় তাঁদের মাধ্যমে বাংলাদেশের  নারী বিজ্ঞ বিচারকদের সফলতা ও  অর্জনগুলো আন্তর্জাতিক পরিম-লে তুলে ধরা সম্ভব হয়েছে। ফলে নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ যে একটি উজ্জ¦ল দৃষ্টান্ত এটি বিশ্বব্যাপী প্রতিভাত হয়েছে। তিনি  বিচারকগণকে দক্ষতা, সততা, মেধা ও প্রজ্ঞা দিয়ে নিষ্ঠার সাথে কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান।  
বাংলাদেশ মহিলা জজ এসোসিয়েশনের সভাপতি ও নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল, ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ তানজীনা ইসমাইলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে জজ এসোসিয়েশনের  উপদেষ্টা বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানা, বিচারপতি জিনাত আরা, বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী, জজ এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জেসমিন আরা বেগম এবং প্রধান বিচারপতির সহধর্মিনী সামিনা খালেদ বক্তৃতা করেন। এসময় সুপ্রীম কোর্টের রেজিস্ট্রারসহ আইন মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং জেলা জজ, যুগ্ম জেলা জজ ও সহকারী  জজগণ উপস্থিত ছিলেন।  
#
নূরুল/নাইচ/সঞ্জীব/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৯২০ ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর :  ৭৫৯
 
এয়ারলাইন্সগুলো মনিটরিং করতে মন্ত্রণালয়ে একটি সেল গঠন করা হবে
                                                      -- বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী
 
ঢাকা, ২৬ ফাল্গুন (১০ মার্চ ) : 
 
এভিয়েশন খাতে আরো উন্নয়নের জন্য বেসরকারি এয়ারলাইন্সগুলো মনিটরিং করতে মন্ত্রণালয়ে একটি সেল গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল। তিনি আরো বলেন, কক্সবাজার বিমানবন্দরকে শীঘ্রই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে রূপান্তর করা হবে। রানওয়ে ১০ হাজার ফিটে উন্নীত করা হবে। তখন ৭৭৭ এয়ারক্রাফট অবতরণ করতে পারবে।
 
মন্ত্রী আজ পর্যটন নগরী কক্সবাজারের একটি হোটেলে ইউএস বাংলা আয়োজিত ২য় বিজনেস সাকসেস সামিটে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউএস বাংলার ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুন।
 
#
মাহবুবুর/নাইচ/সঞ্জীব/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৯১০ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর :  ৭৫৮
 
দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টির ওপর সরকারের গুরুত্বারোপ
বগুড়া, ২৬ ফাল্গুন (১০ মার্চ ) : 
একটি জাতির উন্নয়নের চাবিকাঠি হচ্ছে শিক্ষা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীনতা অর্জনের পরপরই দেশে যুগোপযোগী আধুনিক শিক্ষাব্যবস্থা গড়ে তোলার উদ্যোগ গ্রহণ করেন।
 
জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক আজ  বগুড়া সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে একশত পঞ্চাশ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।
 
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোসাম্মৎ রাবেয়া খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন অর্থ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আরফিন আরা বেগম, বগুড়ার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ নুরে আলম সিদ্দিকী, বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল জলিল এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের উপপরিচালক ড. শারমিন ফেরদাউস চৌধুরী।
 
প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি মধ্যমআয়ের দেশে পরিণত করতে নিরলসভাবে কাজ করছে। এ লক্ষ্য অর্জনে দেশে উন্নয়নের টেকসই ও শক্তিশালী ধারা সৃষ্টি 
করতে একটি শিক্ষিত ও দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টির ওপর সরকার সর্বাধিক গুরুত্বারোপ করেছে। তিনি বলেন, কন্যাসন্তানকে সৃজনশীল করে গড়ে তুলতে হবে, নিজের একটি পরিচয় সৃষ্টি করার মতো যোগ্য করে বড় করতে হবে।
 
#
 
মাসুম/নাইচ/সঞ্জীব/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৮৫০ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর :  ৭৫৭
 
বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ হাজার বছরের মধ্যে শ্রেষ্ঠ ভাষণ 
                                                    -- ভূমিমন্ত্রী
 
ঈশ্বরদী, ২৬ ফাল্গুন (১০ মার্চ ) : 
 
ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ভাষণ পৃথিবীতে শুধু অন্যতম ভাষণই নয়, পৃথিবীর হাজার বছরের ইতিহাসে সকল নেতার দেওয়া ভাষণগুলোর মধ্যে অন্যতম। 
 
আজ ঈশ্বরদী বাঁশেরবাদা উচ্চ বিদ্যালয়ের শতবর্ষ উদ্যাপন উপলক্ষে দু’দিনব্যাপী আয়োজিত উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
 
ভূমিমন্ত্রী বলেন, আধুনিক প্রযুক্তি জ্ঞানসম্পন্ন জাতি গঠনে সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক থাকতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এদেশের পিছিয়ে পড়া শিক্ষাব্যবস্থাকে আধুনিকভাবে গড়ে তোলা হচ্ছে। মন্ত্রী সরকারের রূপকল্প বাস্তবায়নে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে সাতহাজার দর্শক উপস্থিত হন। পরে মন্ত্রী বাঁশেরবাদা উচ্চ বিদ্যালয়ের শতবর্ষ উদযাপন অনুষ্ঠান উপলক্ষে বিদ্যালয়ের একটি স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন করেন এবং মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক পরিবেশনা উপভোগ করেন।
 
বাঁশেরবাদা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি বশির আহমেদ বকুলের সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যের মধ্যে সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স এবং পাবনা জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন বক্তব্য রাখেন।
 
#
 
রেজুয়ান/নাইচ/সঞ্জীব/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৬৪৫ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর :  ৭৫৬
 
অগ্রণী ব্যাংক-শিশু একাডেমি শিশুসাহিত্য পুরস্কার প্রদান
 
ঢাকা, ২৬ ফাল্গুন (১০ মার্চ ) : 
 
আজ ঢাকায় শিশু একাডেমি মিলনায়তনে প্রধান অতিথি হিসেবে পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে ক্রেস্ট ও সম্মাননাপত্র তুলে দেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। 
 
অর্থমন্ত্রী তাঁর নিজের জীবনের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বলেন, অল্পবয়সে বই লিখে স্কুল থেকে পুরস্কার পেয়েছিলাম। সেটা ছিল আমার জীবনের পরমপাওয়া এবং পরবর্তী জীবনে এটা আমাকে বেশ অনুপ্রাণিত করেছে।
 
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি।
 
বাংলাদেশ শিশু একাডেমির চেয়ারম্যান কথা সাহিত্যিক সেলিনা হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক সচিব  নাছিমা বেগম, অগ্রণী ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. জায়েদ বখত ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ শামস উল ইসলাম এবং শিশু একাডেমির পরিচালক আনজীর লিটন।
 
উল্লেখ্য, ১৯৮১ সালে অগ্রণী ব্যাংক-শিশু সাহিত্য পুরস্কার প্রবর্তিত হয়। ২০০৭ সাল থেকে এটি ‘অগ্রণী ব্যাংক-শিশু সাহিত্য পুরস্কার’ নামে দেয়া হতো। ২০০৮ সাল থেকে এর নাম করা হয় ‘অগ্রণী ব্যাংক-শিশু একাডেমি শিশুসাহিত্য পুরস্কার’। বাংলা বছর অনুযায়ী প্রকাশিত বইয়ের ওপর ভিত্তি করে এই পুরস্কারের আয়োজন করা হয়। প্রতিবছর ৭টি শাখায় পুরস্কার দেয়া হয় যার মধ্যে কবিতা-ছড়া-গান, গল্প-উপন্যাস-রূপকথা, অনুবাদ-ভ্রমণকাহিনী, বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ এবং অন্যান্য জীবনী প্রবন্ধ, স্বাস্থ্য-বিজ্ঞান-প্রযুক্তি, নাটক ও বই অলংকরণ ইত্যাদি।
 
এর আগে অর্থমন্ত্রী ইউনিভার্সেল প্রেস লিমিটেডের (ইউপিএল) এর ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে ঢাকায় বাংলা একাডেমিতে আয়োজিত ইউপিএল এক্সিলেন্স এওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করেন।
 
পরে মন্ত্রী ঢাকায় জাতীয় জাদুঘরে এমিরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উদ্যাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দেন।
 
#
 
শাহেদ/নাইচ/সঞ্জীব/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৬২৫ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর :  ৭৫৫
 
টেকসই ব্যবস্থাপনার ফলে গতবছরে ৫টি বড় দুর্যোগে কেউ না খেয়ে কষ্ট পায়নি 
-- দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী 
ঢাকা, ২৬ ফাল্গুন (১০ মার্চ ) : 
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, বীরবিক্রম বলেছেন, সরকারের টেকসই ব্যবস্থাপনার ফলে ২০১৭ সালে ঘটে যাওয়া ৫টি বড় দুর্যোগে কেউ না খেয়ে কষ্ট পায়নি। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে প্রত্যেকটি দুর্যোগে পরিকল্পিতভাবে আগাম বার্তা প্রদান, উদ্ধার অভিযান, ত্রাণ বিতরণ ও পুনর্বাসন করা হয়েছে।
মন্ত্রী আজ ঢাকায় ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস ২০১৮ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ শাহ্ কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সৈয়দ আবুল হোসেন বাবলা, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এজাজুল বারী, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোঃ রিয়াজ আহম্মদ, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী আহম্মদ খান,  বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির মহাসচিব ফিরোজ সালাউদ্দিন, সাইক্লোন প্রিপেয়ার্ডনেস প্রোগ্রাম (সিপিপি) এর পরিচালক আহমেদুল হক প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। 
এবছর দিবসটির প্রতিপাদ্য হলো ‘জানবে বিশ^ জানবে দেশ, দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রস্তুত বাংলাদেশ।’ এসময় দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের প্রস্তুতি প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, বর্তমানে সরকার বন্যা আসার পূর্বেই প্রস্তুতি সভা, আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত, বরাদ্দ প্রদান ও আগামবার্তা দিয়ে থাকে। বন্যা ও ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখন ৫দিন পূর্বেই আগামবার্তা প্রদানের সক্ষমতা অর্জন করেছে। ঘূর্ণিঝড়ের পূর্বেই গভীর সমুদ্রের মানুষদের সতর্ক করার জন্য এসএমএস পাঠানো হচ্ছে, তাদের উদ্ধারের জন্য উপযোগী জাহাজ ক্রয়করা হয়েছে। তিনি বলেন, গতবছরে হাওর এলাকায় সংঘঠিত পাহাড়ি ঢল ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩ লাখ ৮০ হাজার কৃষক ও জেলেকে আগামী এপ্রিল পর্যন্ত সময়ের জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ২২৮ কোটি টাকা ও ১ লাখ ৩৬ হাজার টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। মায়া চৌধুরী বলেন, তীব্র শৈত্যপ্রবাহে গরিব মানুষদের রক্ষার জন্য ৩০ লাখ কম্বল ও ৯৮ হাজার প্যাকেট খাদ্য বিতরণ করা হয়েছে। সরকারের পাশাপাশি, দলীয় নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবকগণ দুর্যোগকালে ব্যাপক সাড়া প্রদান করায় দুর্যোগ মোকাবিলা সহজ হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। শহর ও উপকূলীয় এলাকায় দুর্যোগ মোকাবিলায় স্বেচ্ছাসেবকের প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করে ত্রাণমন্ত্রী বলেন, উপকূলীয় এলাকার জন্য ৫৫ হাজার স্বেচ্ছাসেবক ও শহর এলাকার জন্য ৩২ হাজার স্বেচ্ছাসেবককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেকটি দুর্যোগে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা সরেজমিন উপস্থিত থেকে ত্রাণ বিতরণ, উদ্ধার ও পুনর্বাসন করায় মন্ত্রী ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। 
অনুষ্ঠানে মন্ত্রী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়বস্তুর ওপর আয়োজিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণ  এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংশ্লিষ্ট বিষয়ের ওপর নির্মিত স্টল পরিদর্শন করেন।
#
দেওয়ান/নাইচ/সঞ্জীব/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৭৩০ ঘণ্টা 
 
Todays handout (4) (1).docx Todays handout (4) (1).docx

Share with :

Facebook Facebook