তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৯ অক্টোবর ২০১৮

তথ্যবিবরণী 9/10/2018

তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ২৭৯০
 
‘গুজব অবহিতকরণ সেল’ গঠন
                                                                                                                        
ঢাকা, ২৪ আশ্বিন (৯ অক্টোবর) :
তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, ‘ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব শনাক্ত করা এবং এ বিষয়ে জনগণকে সঠিক তথ্য দিতে গুজব অবহিতকরণ সেল গঠন করেছে সরকার। তথ্য অধিদফতরে এ  সেল গঠন করা হয়েছে। চলতি মাসেই এ সেলের কাজ শুরু হবে।’
প্রতিমন্ত্রী আজ তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ানো গুজব শনাক্ত করতে গঠিত সেল কীভাবে কাজ করবে এ লক্ষ্যে ‘গুজব অবহিতকরণ সেল’ এর কার্যক্রম নির্ধারণ ও সহযোগিতা বিষয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় সভাপতির বক্তৃতায় একথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, এ সেলের কাজ হবে কোন্টি গুজব সেটা শনাক্ত করে মিডিয়াকে জানানো। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে কেন্দ্র করে একটি চক্র প্রতিনিয়ত গুজবের কনটেন্ট ডেভেলপ করে সরকারবিরোধী প্রচারণার জন্য সক্রিয় রয়েছে। গুজবের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিট, একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম প্রত্যক্ষভাবে কাজ করছে। তথ্য মন্ত্রণালয়কেও এ বিষয়ে সম্পৃক্ত হতে হবে। তথ্য মন্ত্রণালয় কনটেন্ট ডেভেলপ বা কোন কিছু প্রচার করবে না, শুধু প্রকৃত তথ্য সরবরাহ করবে। মন্ত্রণালয় গুজব শনাক্ত করতে চায় এবং সে সম্পর্কে জনগণকে দ্রুততার সঙ্গে জানাতে চায়।
সভায় তথ্য সচিব আবদুল মালেক, প্রধান তথ্য অফিসার কামরুন নাহার, তথ্য মন্ত্রণালয়ের দপ্তর ও সংস্থার প্রধানসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও  সংস্থার প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।
#
এনায়েত/মাহমুদ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৮/২০৪৫ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ২৭৮৯
 
বাংলাদেশ-যুক্তরাজ্য সম্পর্ক ঘনিষ্ঠতর হবে
                               --- তথ্যমন্ত্রী                                                                                                                             
 
ঢাকা, ২৪ আশ্বিন (৯ অক্টোবর) :
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের চমৎকার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠ হবে।
আজ ঢাকায় সচিবালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার কানবার হোসেইন-বোর (কধহনধৎ ঐড়ংংবরহ-ইড়ৎ) এর সাথে বৈঠককালে মন্ত্রী একথা বলেন।
বৈঠকে তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাজ্যকে বাংলাদেশের উন্নয়নের একান্ত সহযোগী হিসেবে বর্ণনা করে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন, বাংলাদেশে গণমাধ্যমের যুগান্তকারী প্রসার, দেশের বিস্ময়কর উন্নয়ন অগ্রযাত্রা, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনসহ বিভিন্ন বিষয়ের ওপর আলোকপাত করেন। যুক্তরাজ্যের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার সরকারের উন্নয়ন কাজের প্রশংসা করেন এবং প্রণীত সকল আইন ও বিধি জনকল্যাণে প্রয়োগ হবে বলে আশা প্রকাশ করেন।
যুক্তরাজ্য হাইকমিশনের রাজনৈতিক বিশ্লেষক এজাজুর রহমান ও তথ্য মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন। 
#
আকরাম/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/২০১০ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ২৭৮৮
 
গবেষণায় প্রণোদনা অব্যাহত রাখা হবে
                      --- বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী                                                                                                                             
 
ঢাকা, ২৪ আশ্বিন (৯ অক্টোবর) :
বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, গবেষণা কাজে গবেষকদের প্রণোদনা দেয়ার উদ্যোগ অব্যাহত রাখা হবে। নতুন নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টি হলেই ইনোভেশন বাড়বে ও টেকসই উন্নয়ন দ্রুত সম্ভব হবে। 
প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় বিদ্যুৎ ভবনে বাংলাদেশ জ্বালানি ও বিদ্যুৎ গবেষণা কাউন্সিল (ইপিআরসি) আয়োজিত “অহ ঙাবৎারবি ড়ভ  ঊচজঈ ঋঁহফবফ অঢ়ঢ়ষরবফ জবংবধৎপয চৎড়লবপঃং”  শীর্ষক সেমিনারে  প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। 
নসরুল হামিদ বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের  বা তেল শোধনাগারের সিমুলেশন থাকলে শিক্ষার্থীরা হাতে-কলমে অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারতো। এ বিষয়ে বিদ্যুৎ বিভাগ ও ইপিআরসিকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন। 
আজ ইপিআরসি কর্তৃক “ওহঃবৎমৎধঃবফ ঈড়হপবঢ়ঃ ভড়ৎ ঈড়হাবৎঃরহম ঝড়ষরফ ডধংঃব ঃড় ঊহবৎমু (ওহঈড়হঝড়ষঊ)-ডধংঃব ঃড় ইরপড়ধষ ভড়ৎ চড়বিৎ এবহবৎধঃরড়হ” ও “ঋঁঃঁৎব এৎরফ: উবসধহফ জবংঢ়ড়ংব ঊহধনধষবফ ঋঁঃঁৎব ঝসধৎঃ এৎরফ ঃড় গধীরসরুব ওহঃবৎসরঃঃবহঃ জঊ চবহবঃৎধঃরড়হ ধহফ জবফঁবব ঊষবপঃৎরপরঃু খড়ংং ধহফ ঞযবভঃ” শীর্ষক দু‘টি প্রকল্পে গবেষণার জন্য অর্থায়ন করা হয়। 
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বিদ্যুৎ সচিব ড. আহমদ কায়কাউস ও ইপিআরসি‘র চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ চৌধুরী বক্তব্য রাখেন।
#
আসলাম/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৯৪০ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ২৭৮৭
 
১ জানুয়ারি শিক্ষার্থীদের হাতে পাঠ্যপুস্তক তুলে দিতে প্রস্তুতি সম্পন্ন 
                                                         --- শিক্ষামন্ত্রী
 
ঢাকা, ২৪ আশ্বিন (৯ অক্টোবর) :
শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, জানুয়ারির ১ তারিখে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন পাঠ্যপুস্তক তুলে দিতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও প্রাক-প্রাথমিক থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের হাতে ২০১৯ সালের ১ জানুয়ারি বিনামূল্যের পাঠ্যপুস্তক তুলে দেয়া হবে। ২০১০ সাল থেকে নববর্ষের উপহার হিসেবে শিক্ষাবর্ষের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে নতুন বই দেয়া হচ্ছে। এবারও এর কোন ব্যত্যয় হবে না।
মন্ত্রী আজ রাজধানীর মাতুয়াইলে বিনামূল্যের পাঠ্যপুস্তক ছাপার কাজে নিয়োজিত বিভিন্ন বেসরকারি ছাপাখানা সরেজমিন পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এসব কথা বলেন। 
মন্ত্রী বলেন, ৩৫ কোটির বেশি পাঠ্যপুস্তক শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরণ করা হবে। প্রায় ১১ কোটি বই ইতোমধ্যে উপজেলা পর্যায়ে পৌঁছে দেয়া হয়েছে। প্রতিদিনই জেলা-উপজেলায় বই পাঠানো হচ্ছে। ১৪ ডিসেম্বরের মধ্যে সকল বই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পৌঁছে যাবে। এবার ৪ কোটির বেশি শিক্ষার্থীর মধ্যে নতুন বই বিতরণ করা হবে। তিনি বলেন, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য ব্রেইল বই এবং ৫টি নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের জন্য তাদের নিজ ভাষায় বই ছাপা হয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এবার বইয়ের ছাপার মান অনেক ভাল হয়েছে। বইয়ের মান প্রতিবছরই উন্নত হচ্ছে। ছাপার কাজ বাকি নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, নির্বাচনের বছর সত্ত্বেও শিক্ষার্থীরা ঠিক সময়ে বই পাবে। ১ জানুয়ারি বই দিতে কোনো সমস্যা হবে না। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, পাঠ্যক্রমের পরিবর্তন ও উন্নয়ন একটি ধারাবাহিক প্রক্রিয়া। প্রতিবছরই বইয়ের মান বাড়ানোর চেষ্টা অব্যাহত আছে। গতবছর ৯ম-১০ শ্রেণির ১২টি পাঠ্যপুস্তক নতুন আঙ্গিকে প্রকাশ করা হয়েছে। এ প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে।
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নাজমুল হক খান, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) এর চেয়ারম্যান প্রফেসর নারায়ণ চন্দ্র সাহা, সদস্য ড. মিয়া ইনামুল হক সিদ্দিকীসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, এনসিটিবি’র তত্ত্বাবধানে পাঠ্যপুস্তক ছাপা ও বিতরণের কাজ চলছে।
#
আফরাজুর/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৯২০ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ২৭৮৬ 
 
বাল্যবিবাহ নারীর ক্ষমতায়নের প্রধান অন্তরায়
                    --- মেহের আফরোজ চুমকি  
 
ঢাকা, ২৪ আশ্বিন (৯ অক্টোবর) :
মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেছেন, বাল্যবিবাহ নারীর ক্ষমতায়নের প্রধান অন্তরায়। কারণ মানুষকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হতে হলে কর্মক্ষেত্রে ঢোকার জন্য তাকে যোগ্য করে গড়ে তুলতে হয়। আর বাল্যবিবাহের কারণে নারীরা সে সুযোগ  থেকে বঞ্চিত হয়। যে সময় বই নিয়ে ব্যস্ত থাকার কথা ঐ সময় তারা সংসার নিয়ে ব্যস্ত থাকে। ফলে তারা কর্মক্ষেত্রে ঢুকতেই পারে না। লেখাপড়া করে নিজেকে গড়ে তোলার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হয়। এছাড়া বাল্যবিবাহ নারীর স্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ। বাল্যবিবাহের অভিশাপ থেকে মুক্ত হতে সকলকে সচেতন হতে হবে। 
প্রতিমন্ত্রী আজ মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। 
এসময় উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান অধ্যাপক মমতাজ বেগম অ্যাডভোকেট ও জাতীয় মহিলা সংস্থার নির্বাহী পরিচালক বেগম জাহানারা পারভীন, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী রওশন আক্তার, নারী নির্যাতন প্রতিরোধকল্পে মাল্টিসেক্টরাল প্রোগ্রামের প্রকল্প পরিচালক ড. আবুল হোসেন প্রমুখ।
এর আগে প্রতিমন্ত্রী কন্যাশিশু দিবস উপলক্ষে এক র‌্যালির নেতৃত্ব দেন। র‌্যালিটি শিশু একাডেমি থেকে  শুরু হয়ে  জাতীয় প্রেস কøাবে এসে  শেষ হয়। 
#
রেজাউল/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৮৪০ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ২৭৮৫
 
কুষ্টিয়ার সাব-রেজিস্ট্রারকে কুপিয়ে হত্যা
জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে বিচারের মুখোমুখি করা হবে
                                                 --- আইনমন্ত্রী
 
ঢাকা, ২৪ আশ্বিন (৯ অক্টোবর) :
কুষ্টিয়া সদর উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার নূর মোহাম্মদ শাহকে কুপিয়ে হত্যার তীব্র নিন্দা জানিয়ে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, এ হত্যার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে বিচারের মুখোমুখি করা হবে, জড়িতদের কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।
মন্ত্রী নূর মোহাম্মদ শাহের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।
উল্লেখ্য, সোমবার দিবাগত রাতে কুষ্টিয়া শহরের বাবর আলী রোডের বাড়িতে ঢুকে নূর মোহাম্মদ শাহকে কুপিয়ে হত্যা করে একদল হামলাকারী।
#
রেজাউল/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৮২০ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ২৭৮৪ 
আগামীকাল জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা 
ঢাকা, ২৪ আশ্বিন (৯ অক্টোবর) : 
১৪৪০ হিজরি সনের পবিত্র সফর মাসের চাঁদ দেখার সংবাদ পর্যালোচনা এবং এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের লক্ষ্যে আগামীকাল ১০ অক্টোবর বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় বায়তুল মুকাররমে অবস্থিত ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হবে।  
সভায় সভাপতিত্ব করবেন ধর্মমন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ মতিউর রহমান।
বাংলাদেশের আকাশে কোথাও পবিত্র সফর মাসের চাঁদ দেখা গেলে তা নিম্নোক্ত টেলিফোন ও ফ্যাক্স নম্বরে অথবা অন্য কোনো উপায়ে জানানোর জন্য অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।
টেলিফোন নম্বর : ৯৫৫৯৪৯৩, ৯৫৫৯৬৪৩, ৯৫৫৫৯৪৭, ৯৫৫৬৪০৭ ও ৯৫৫৮৩৩৭।
ফ্যাক্স নম্বর : ৯৫৬৩৩৯৭ ও ৯৫৫৫৯৫১। 
#
নিজাম/অনসূয়া/সুবর্ণা/আসমা/২০১৮/১৪৪৫ ঘণ্টা 
 
তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ২৭৮৩ 
বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবসে প্রধানমন্ত্রীর বাণী
ঢাকা, ২৪ আশ্বিন (৯ অক্টোবর) : 
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১০ অক্টোবর বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে নি¤েœাক্ত বাণী প্রদান করেছেন :
“প্রতি বছরের মতো এবারও বাংলাদেশে যথাযথ মর্যাদায় ‘বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস ২০১৮’ পালিত হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত।
এবারের বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবসের প্রতিপাদ্য ‘পরিবর্তনশীল বিশ্বে তরুণদের মানসিক স্বাস্থ্য’ (ণড়ঁহম চবড়ঢ়ষব ধহফ গবহঃধষ ঐবধষঃয রহ ধ ঈযধহমরহম ডড়ৎষফ) যথাযথ হয়েছে বলে আমি মনে করি।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার ২০০১ সালে ঢাকায় জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করে যা ছিল মানসিক স্বাস্থ্যসেবার অগ্রগতিতে একটি মাইলফলক। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে এ প্রতিষ্ঠানটি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে মানসিক রোগ চিকিৎসা ও গবেষণার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। বাংলাদেশে মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞের সংখ্যা অপ্রতুল হলেও দেশের সার্বিক স্বাস্থ্যসেবায় তাদের ভূমিকা প্রশংসনীয়।
বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার মানসিক স্বাস্থ্যসেবাসহ সকল ধরনের স্বাস্থ্যসেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে এবং মানসিক রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির অধিকার ও সুযোগের সমতা বিধানে বদ্ধপরিকর। এলক্ষ্যে সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। এক্ষেত্রে আমি মানসিক রোগবিশেষজ্ঞদের আরও সক্রিয় হতে আহ্বান জানাচ্ছি।
মাদকাসক্তি, ঝুঁকিপূর্ণ আচরণ এবং মানসিক চাপ পরিহার করে বাংলাদেশের তরুণ সমাজ সুস্থ শরীরে সুস্থ মন নিয়ে দেশের অগ্রগতিতে ভূমিকা রেখে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ায় সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করবেন, এ আমার ঐকান্তিক প্রত্যাশা।
আমি ‘বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস ২০১৮’ উপলক্ষে গৃহীত সকল কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করি।   
জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু
বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।”
#
ইমরুল/অনসূয়া/সেলিনা/রেজ্জাকুল/আসমা/২০১৮/১০৩০ ঘণ্টা 
 
 
তথ্যববিরণী                                                                                                     নম্বর : ২৭৮২ 
বশ্বি মানসকি স্বাস্থ্য দবিসে রাষ্ট্রপতরি বাণী  
ঢাকা, ২৪ আশ্বনি (৯ অক্টোবর) :   
রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামদি বশ্বি মানসকি স্বাস্থ্য দবিস উপলক্ষে নম্নিোক্ত বাণী প্রদান করছেনে :   
"বশ্বিরে অন্যান্য দশেরে ন্যায় বাংলাদশেওে ‘বশ্বি মানসকি স্বাস্থ্য দবিস’ উদ্‌যাপনরে উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাই। 
স্বাস্থ্য একটি সমন্বতি বষিয় এবং মানসকি স্বাস্থ্য ব্যতীত সুস্বাস্থ্য অসর্ম্পূণ। তাই শরীররে মত মনরে যত্ন নয়োও আবশ্যক। মানসকি রোগে আক্রান্ত ব্যক্তরি চকিৎিসা অন্য সাধারণ রোগীর চয়েে ভন্নি ধারার এবং চকিৎিসার পাশাপাশি পারবিারকি ও সামাজকি সর্মথনও এক্ষত্রেে অত্যন্ত জরুর।ি র্বতমানে বশ্বিরে অন্যান্য দশেরে মতো বাংলাদশেওে মানসকি রোগরে প্রকোপ বৃদ্ধি পয়েছে।ে বশিষে করে মাদকাসক্ত,ি পারপর্িাশ্বকি পরবিশে, নগরায়ণসহ পারবিারকি ও সামাজকি নানা অস্থরিতা তরুণ সমাজরে মানসকি স্বাস্থ্যরে ওপর বরিূপ প্রভাব ফলেছ।ে একটি জাতরি র্বতমান ও ভবষ্যিৎ গড়ে উঠে তারুণ্যকে নর্ভির কর।ে তাই এ বছর বশ্বি মানসকি স্বাস্থ্য দবিসরে প্রতপিাদ্য 'পরর্বিতনশীল বশ্বিে তরুণদরে মানসকি স্বাস্থ্য' (ণড়ঁহম চবড়ঢ়ষব ধহফ গবহঃধষ ঐবধষঃয রহ ধ ঈযধহমরহম ডড়ৎষফ) এ প্রক্ষোপটে যর্থাথ হয়ছেে বলে আমি মনে কর।ি
তরুণ সমাজরে মানসকি স্বাস্থ্য সুরক্ষায় অভভিাবকসহ সংশ্লষ্টি সকলরে অংশগ্রহণ খুবই জরুর।ি তরুণদরে মানসকি সুস্থতা নশ্চিতি করতে না পারলে জাতীয় উন্নয়ন ব্যাহত হব।ে এ ক্ষত্রেে সরকার-িবসেরকারি হাসপাতাল, স্বাস্থ্যকন্দ্রেরে পাশাপাশি শক্ষিাপ্রতষ্ঠিানগুলোতওে মানসকি স্বাস্থ্য বষিয়ে সচতেনতামূলক র্কাযক্রম গ্রহণ করতে হব।ে অন্যান্য রোগরে মতো মানসকি রোগরেও বজ্ঞিানসম্মত চকিৎিসার ব্যবস্থা রয়ছে।ে তাই ঝাড়ফুঁক বা অবজ্ঞৈানকি চকিৎিসাপদ্ধতি পরহিারে জনগণরে মাঝে সচতেনতা সৃষ্টি করতে হব।ে আগামী প্রজন্মকে সুস্থ ও সুন্দরভাবে গড়ে তুলতে সকলরে সম্মলিতি প্রয়াস অব্যাহত থাকব-ে এ প্রত্যাশা কর।ি 
আমি ‘বশ্বি মানসকি স্বাস্থ্য দবিস ২০১৮’ উপলক্ষে গৃহীত সকল র্কমসূচরি র্সাবকি সফলতা কামনা করছ।ি
খোদা হাফজে, বাংলাদশে চরিজীবী হোক।"
#
হাসান/অনসূয়া/সলেনিা/রজ্জোকুল/আসমা/২০১৮/১০৩০ ঘণ্টা 
 
Todays handout (6).docx Todays handout (6).docx

Share with :

Facebook Facebook