তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৭ August ২০১৯

তথ্যবিবরণী - 27/8/2019

তথ্যবিবরণী                                                                                             নম্বর :  ৩২২৪

 

দেশকে এগিয়ে নিতে জাতির পিতার আদর্শকে ধারণ করার আহ্বান জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রীর

 

ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :

 

          জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে হলে জাতির পিতার আদর্শকে ধারণ করে কাজ করতে হবে।

 

          প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় মতিঝিল মহিলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র মিলনায়তনে বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০১৯ উপলক্ষে আলোচনা সভায় একথা বলেন।

 

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু কখনো মিথ্যা, অনিয়ম, দুর্নীতি আর অন্যায়ের সাথে আপস করেননি। দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের জন্য সকলকে অন্যায় ও দুর্নীতির বিষয়ে আপসহীন হতে হবে। দুর্নীতিকে, জঙ্গিবাদকে প্রশ্রয় দেয়া যাবে না। সকলেই জাতির পিতার আদর্শকে ধারণ করে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে পারলেই দেশকে উন্নত, সমৃদ্ধ বাংলাদেশে পরিণত করা সম্ভব।

 

          প্রতিমন্ত্রী এ সময় অসত্য ও বিতর্কিত বিষয়ে বিভ্রান্ত না হয়ে সকলকে সচেতন থাকারও আহ্বান জানান। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তিই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে।

 

          বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক সত্যব্রত সাহার সভাপতিত্বে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়েজ আহম্মদ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন। শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. রফিকউল্লাহ খান প্রধান আলোচক হিসেবে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।

 

#

 

শিবলী/নাইচ/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৯/২২৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                   নম্বর :  ৩২২৩

 

বাঙালি জাতির অস্তিত্বের উৎস হিসেবে শেখ হাসিনার মাঝে বঙ্গবন্ধুকে আমরা দ্বিতীয়বার পেয়েছি

                                                                            -- গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী

 

ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :

 

গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, ‘বাঙালি জাতির অস্তিত্বের উৎস হিসেবে শেখ হাসিনার মাঝে বঙ্গবন্ধুকে আমরা দ্বিতীয়বার পেয়েছি। শেখ হাসিনার মাঝে আমরা খুঁজে পাই বঙ্গবন্ধুর প্রতিচ্ছবি, খুঁজে পাই বাঙালি জাতির অস্তিত্বের উৎস। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও ত্যাগ না থাকলে বাংলাদেশ হতো না। জাতিকে পরিত্রাণ দেয়ার জন্য, ৩০ লাখ শহিদের স্বপ্নকে সার্থক করার জন্য, বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত বিপ্লব সুখী, সমৃদ্ধ সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার জন্য ষড়যন্ত্র, আক্রমণ, আঘাত সবকিছু থেকে শেখ হাসিনা রক্ষা পেয়েছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্ব পাওয়া আমাদের জাতির জন্য গৌরবের’।

 

আজ রাজধানীর সেগুনবাগিচায় গণপূর্ত অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে গণপূর্ত অধিদপ্তর আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০১৯ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

 

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রকে যারা মেনে নেয়নি, তারা স্বাধীন বাংলাদেশকে মেনে নেয়নি, স্বাধীন বাংলাদেশের ¯্রষ্টাকেও মেনে নিতে পারেনি। তারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশকে ধ্বংস করার চেষ্টা করেছে। তিনি বলেন, সমকালীন বিশ্বে সবচেয়ে বিপ্লবী নেতা ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, যিনি জাদুকর হিসেবে সারা দুনিয়ায় নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন।

 

শ ম রেজাউল করিম বলেন, বর্তমান সরকার মানবতাবিরোধী যুদ্ধাপরাধীদের অপরাধের বিচার করে এবং বিচারের রায় কার্যকর করে বাঙালি জাতিকে ১৯৭১ সালের কলঙ্ক থেকে মুক্ত করেছেন। একইভাবে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার শেষ করে হত্যাকারীদের দাম্ভিকতাকে চূর্ণ করে বাঙালি জাতিকে পরিত্রাণ দিয়েছেন। একটি দেশ কখনোই খুনিদের নিয়ে সমঝোতা করে চলতে পারে না।

 

গণপূর্ত অধিদপ্তরের চেয়ারম্যান মোঃ সাহাদাত হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ শহীদ উল্লা খন্দকার, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ আখতার হোসেন, জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোঃ রাশিদুল ইসলাম, স্থাপত্য অধিদপ্তরের প্রধান স্থপতি কাজী গোলাম নাসির, নগর উন্নয়ন অধিদপ্তরের পরিচালক ড. খুরশিদ জাবিন হোসেন তৌফিক প্রমুখ বক্তব্য প্রদান করেন।

 

#

 

ইফতেখার/নাইচ/রফিকুল/সেলিম/২০১৯/২১৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                         নম্বর :  ৩২২২

 

বঙ্গবন্ধু বিশ্ব রাজনৈতিক ইতিহাসের কিংবদন্তি

-- মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

 

ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :

 

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ব রাজনৈতিক ইতিহাসের এক কিংবদন্তি। স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রতিটি স্তরে হাজারো বাধা বিপত্তি এলেও তিনি দমে যাননি। নিজের সহজাত আপসহীনতা, প্রজ্ঞা, ধৈর্য ও দূরদর্শিতা দিয়ে তিনি সকল বাধা সফলভাবে অতিক্রম করেছেন। ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ অনেকেই তাঁকে সরাসরি স্বাধীনতার ঘোষণা দেয়ার পরামর্শ দিলেও তিনি তা করেননি। কারণ সেক্ষেত্রে তিনি বিশ্বের কাছে একজন বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতায় পরিগণিত হতেন। ২৫ মার্চের কাল রাতে পাকিস্তানি বর্বর হানাদারবাহিনী গণহত্যা শুরু করলে ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরেই তিনি স্বাধীনতার ঘোষণা করলে বিশ্বের তাবত মানবতাবাদী ও স্বাধীনতাকামী মানুষ তাঁকে স্বাগত জানান।

 

মন্ত্রী আজ বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে জাতির পিতার শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

 

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর ব্যক্তিত্ব ছিলো হিমালয়ের মতো দৃঢ় ও সুউচ্চ এবং হৃদয় ছিলো প্রশান্ত মহাসাগরের মতো গভীর। পৃথিবীর ইতিহাসে খুবই কম নজির আছে মিত্রবাহিনীর সদস্যদের দেশে ফিরে যাওয়ার। অথচ বঙ্গবন্ধু তাঁর ব্যক্তিত্বের যাদুতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীকে অনুরোধ করে দেশ স্বাধীন হওয়ার মাত্র তিন মাসের মধ্যেই মিত্রবাহিনীর সদস্যদের ভারতে ফেরত নেওয়ার ব্যবস্থা করেছিলেন।

 

বক্তব্যের শুরুতে মন্ত্রী ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট নিহত সকল শহিদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

 

বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদের সভাপতি সেলিনা খালেকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলে চেয়ারম্যান বিচারপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদ এর সাধারণ সম্পাদক মনিরুল আলম, পরিষদের সাবেক সহসভাপতি ডা. মাকদুবা নার্গিস, সহসভাপতি স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের অধিনায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা জাকারিয়া পিন্টু প্রমুখ ।

 

আলোচনা সভার পর দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

 

#

 

দীপংকর/মাহমুদ/রফিকুল/সেলিম/২০১৯/২১২০ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                                                     নম্বর : ৩২২১

 
বাংলাদেশের যা দরকার বঙ্গবন্ধু তার সবই করেছেন
          --- পররাষ্ট্রমন্ত্রী 
 
ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, বাঙালি জাতি ভাগ্যবান, কারণ বঙ্গবন্ধুর মতো একজন মহান নেতাকে পেয়েছে। পৃথিবীর মধ্যে খুব কম সংখ্যক ব্যক্তি আছেন দেশের জন্য যাদের ত্যাগ এত বেশি। তাঁর জন্যই আমরা স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশকে প্রতিষ্ঠা করতে পেরেছি। তিনি বাংলাদেশের জন্য যা যা দরকার সবই করেছেন। 
মন্ত্রী আজ ঢাকার সিরডাপ মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে এসব কথা বলেন। 
মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা লাভের মাত্র দুই মাসের মধ্যে বিদেশি সৈন্যদের দেশে পাঠাতে সক্ষম হয়েছিলেন। তিনি ছিলেন পৃথিবীর বিখ্যাত কূটনীতিক। পৃথিবীতে খুব কম সংখ্যক দেশ বাংলাদেশের মতো এত কম সময়ে অধিক সংখ্যক দেশের স্বীকৃতি পেয়েছিল। এটা সম্ভব হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে।
পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়র সচিব কবির বিন আনোয়ারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক ও পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম।
#
 
তৌহিদুল/মাহমুদ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/২১৩০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                              নম্বর : ৩২২০

 

সবাইকে আওয়ামী লীগের নৌকায় নেবার প্রয়োজন নেই

-- তথ্যমন্ত্রী

 

ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :

          তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, ‘সবাইকে আওয়ামী লীগের নৌকায় নেবার প্রয়োজন নেই। আমাদেরকে দেখতে হবে কারা দুঃসময়ে দলের সাথে ছিল, শেখ হাসিনার সাথে ছিল, তাদেরকেই নেতৃত্বে রাখতে হবে, তাদেরকে নিয়েই পথ চলতে হবে’।

          আজ বিকেলে ঢাকায় সচিবালয়ে বাংলাদেশ সচিবালয় কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্যপরিষদ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

          শোক দিবস উদ্যাপন কমিটির আহ্বায়ক মোহাম্মদ মঈনুল ইসলামের সভাপতিত্বে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি এবং স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম, পানিসম্পদ উপ-মন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম ও স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বিশেষ অতিথি হিসেবে সভায় যোগ দেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আজকের সময়ের দাবি হচ্ছে যারা বঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলব ছিল তাদের বিচার। জাতির দাবি হচ্ছে, শতবর্ষ পরের প্রজন্মকে সত্য জানানোর স্বার্থে তাদের মুখোশ উন্মোচন করা, যারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে রাষ্ট্রকে হত্যা করতে চেয়েছিল। এজন্য আজকে জনগণের দাবি হচ্ছে একটি কমিশন গঠন করে তাদের বিচার করা’।

‘বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশকে একটি উন্নত রাষ্ট্রে রূপান্তরিত করার স্বপ্ন এঁকেছিলেন’ উল্লেখ করে ড. হাছান বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে যখন হত্যা করা হয় ১৯৭৫ সালে তখন বাংলাদেশে যে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ছিল বঙ্গবন্ধুর হত্যাকা-ের ৪২ বছর পর পর্যন্ত আমরা অতিক্রম করতে পারিনি। ২০১৬-১৭ অর্থবছরের বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা সেটি অতিক্রম করতে পেরেছেন। বঙ্গবন্ধুকে যখন ১৯৭৫ সালে হত্যা করা হয় সেই বছর ২৬ হাজার মেট্রিক টন চাল উদ্বৃত্ত। বঙ্গবন্ধু ক’দিন পরেই ঘোষণা করতেন বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। অর্থাৎ বঙ্গবন্ধু একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশকে পুনর্গঠিত করে যখন বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাংলাদেশকে একটি সমৃদ্ধিশালী রাষ্ট্রে রূপান্তরিত করার স্বপ্ন, সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছিলেন তখন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়’।

‘আজকে বঙ্গবন্ধুর কন্যার নেতৃত্বে দেশ আবার এগিয়ে চলছে’ উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশের অগ্রগতির ঘূর্ণায়মান চাকাকে আবার ধাবমান চাকায় রূপান্তরিত করেছেন। বাংলাদেশ আজকে পৃথিবীর সামনে উন্নয়নের মহাসড়কে অদম্য গতিতে এগিয়ে চলছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এটি পৃথিবীর সামনে উদাহরণ। বাংলাদেশ আজকে যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে এজন্য পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী, বুদ্ধিজীবীরা আক্ষেপ করে বলে- সমস্ত সামাজিক সূচকে, অর্থনৈতিক সূচকে, মানব উন্নয়ন সূচকে আমরা পাকিস্তানকে পেছনে ফেলে বহু দূর এগিয়ে গেছি’।

#

আকরাম/মাহমুদ/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৯/২১০০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                                         নম্বর : ৩২১৯
 
১৫ আগস্ট পৃথিবীর ইতিহাসে নিকৃষ্ট হত্যাকা-
         --- কৃষিমন্ত্রী
 
ঢাকা (সাভার), ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :
কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, পৃথিবীর ইতিহাসে নিকৃষ্ট হত্যাকা- ১৫ আগস্ট। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মূল উদ্দেশ্য ছিল মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করে ধর্মভিত্তিক রাষ্ট্র পরিচালনা করা। দীর্ঘ ২১ বছর সামরিক আইনে, কখনোবা গণতন্ত্রের লেবাসে গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে। 
আজ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যায়ের জহির রায়হান সেমিনার হলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতর্বাষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 
মন্ত্রী আরো বলেন, শোক দিবসের আলোচনা তখনই সফল হবে যখন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ অনুসারে তাঁর দেখানো পথে আমরা চলবো। এ লক্ষ্যে বর্তমান প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সত্যিকারের ইতিহাস জানাতে হবে। তাদেরকে উন্নত রাষ্ট্রের উপযোগী নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। 
অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম। বিশেষে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রো-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. মোঃ নুরুল আলম, প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন) ড. মোঃ আমির হোসেন ও কোষাধ্যক্ষ শেখ মোঃ মনজুরুল হক। 
#
 
গিয়াস/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/২১১০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                             নম্বর :  ৩২১৮

খুনিরা দেশকে পাকিস্তানে পরিণত করতে চেয়েছিল

                                            -- মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :

মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেছেন, ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে খুনিরা স্বাধীনতার মূল্যবোধ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধুলিস্যাৎ করতে চেয়েছিল। খুনিদের ধারণা ছিল বঙ্গবন্ধুকে যদি সপরিবারে হত্যা করা হয় তাহলে বঙ্গবন্ধুর পরিবারের কোনো সদস্যের নেতৃত্বে এদেশে আর স্বাধীনতার মূল্যবোধ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ফিরে আসবে না। তারা দেশকে পাকিস্তানে পরিণত করতে চেয়েছিল।

 প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকার বেইলি রোডে জাতীয় মহিলা সংস্থার বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব অডিটোরিয়ামে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা বলেন, ১৫ আগস্টের হত্যাকারী ও পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর ও এই নির্মম হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে যারা ছিল তাদের খুঁজে বের করে বিচার করতে হবে।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তৃতা করেন সংসদ সদস্য এরোমা দত্ত, নার্গিস রহমান, হোসনে আরা ও জান্নাতুল বাকিয়া। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান অধ্যাপক মমতাজ বেগম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুন নাহার।

এছাড়া প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় ইডেন মহিলা কলেজে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। ইডেন মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ বেগম শামসুন নাহারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য মেরিনা জাহান ও পারভীন জামান কল্পনা।

#

আলমগীর/মাহমুদ/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৯/২০৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                                                            নম্বর : ৩২১৭

 
বঙ্গবন্ধুর রচিত পথ ধরেই বাংলাদেশ মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে
            --- অর্থমন্ত্রী
 
ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স¥রণ করে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, বাংলাদেশ আজ বঙ্গবন্ধুর রচিত পথ ধরেই বিশ্বসভায় মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে। বঙ্গবন্ধু চেতনার বাতিঘর হয়ে বেঁচে থাকবেন যতদিন এই পৃথিবী থাকবে। তিনি আমাদের মাঝে থাকবেন সূর্যের মতো দেদীপ্যমান। 
মন্ত্রী আজ অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু দেশ পরিচালনার জন্য স্বল্প সময়ে যে যুগান্তকারী পদক্ষেপগুলো গ্রহণ করেছিলেন তা এখনো অত্যন্ত সময়োপযোগী এবং ভবিষ্যতেও এর প্রয়োজনীয়তা ফুরাবে না। আমাদের আগামীর পরিকল্পনা, শহর গ্রামের ভেদাভেদ থাকবে না, ধনী দরিদ্রের ভেদাভেদ থাকবে না, উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় সকল শ্রেণিকে সম্পৃক্ত করতে হবে, এই ধরনের সকল নির্দেশনা তিনি আগেই দিয়েছেন। 
সভায় অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব মনোয়ার আহমেদ সভাপতিত্ব করেন। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিভাগের সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।
 
#
 
তৌহিদুল/মাহমুদ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৯/২০২০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                   নম্বর :  ৩২১৬

শেখ হাসিনা দেশকে বাঁচিয়ে দিয়েছেন

-- আইনমন্ত্রী

ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বাংলাদেশকে ধ্বংস করে দিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করা হয়েছে।  কারণ ঘাতকরা বুঝেছিল, এই দেশকে ধ্বংস করতে হলে শুধু বঙ্গবন্ধু নয়, বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সকলকে মেরে ফেলতে হবে। এমনকি ১০ বছরের শিশু শেখ রাসেলকেও। তার কারণ হচ্ছে এরা বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ বেঁচে থাকবে। বঙ্গবন্ধুর রক্তের ধারা শেখ হাসিনা ক্ষমতা গ্রহণ করে দেশকে বাঁচিয়ে দিয়েছেন।

আজ ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে সম্প্রীতি বাংলাদেশ আয়োজিত শোকের মাস, ষড়যন্ত্রের মাস আগস্ট শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার হবে না, এমন ব্যবস্থা করা হয়েছিল। আগামী প্রজন্ম জানতে চায়, কেন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিল ? তাঁর হত্যার বিচারের জন্য কেন ২১ বছর দেশকে অপেক্ষা করতে হয়েছে? কেন নেপথ্যের মানুষদের এখনও পর্যন্ত বিচার হয়নি ? এজন্য অবশ্যই একটি কমিশন গঠিত হবে। অনেকেই বলছেন যে, এই কমিশনকে দিয়ে অন্যান্য যে হত্যাকাণ্ড হয়েছে সেগুলোরও তদন্ত করতে হবে। আমি মনে করি, এই কমিশনকে শুধু বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্যের লোকজনকে চিহ্নিত করতে কাজ করার সুযোগ দেয়া উচিত হবে’।

মন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর কাছে সকল প্রজন্মের ঋণ আছে। এই ঋণ কিছুটা হলেও শোধ করতে হবে। এই ঋণ হচ্ছে তিনি আমাদের একটি দেশ, একটি পতাকা, একটি সংবিধান ও একটি স্বপ্ন দিয়ে গেছেন। তাঁর এই ঋণ শোধ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশে থেকে তাঁর হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। শেখ হাসিনার ভিশন-২০২১, ভিশন-২০৪১ এবং ভিশন-২১০০ বাস্তবায়ন করতে পারলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা হবে। বঙ্গবন্ধুর কাছে যে ঋণ তা কিছুটা হলেও শোধ হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ মুরাদ হাসান বলেন, বাঙালি জাতি বঙ্গবন্ধুকে হত্যার কলঙ্কমুক্ত হওয়ার দিন গুণছে। তাই যারা এ হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যে রয়েছে তাদের চিহ্নিত করতে হবে।

সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহ্বায়ক পীযুষ বন্দোপাধ্যায়ের সভাপতিত্বে  বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান, সাবেক রাষ্ট্রদূত আতিকুর রহমান, সাবেক সচিব নাসির উদ্দিন, মেজর জেনারেল (অব.) মোহাম্মদ আলী শিকদার, সংগঠনের সদস্য সচিব প্রফেসর ডা. মামুন আল মাহতাব প্রমুখ সভায় আলোচনা করেন।

#

রেজাউল/মাহমুদ/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৯/১৯০০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                                                          নম্বর : ৩২১৫

 
জাতির পিতার আদর্শ ধারণ করে কাজ করতে হবে
        --- জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী
 
ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :
জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে হলে জাতির পিতার আদর্শকে ধারণ করে কাজ করতে হবে।
আজ ঢাকায় মতিঝিল মহিলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র মিলনায়তনে বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০১৯ উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু কখনো মিথ্যা, অনিয়ম, দুর্নীতি আর অন্যায়ের সাথে আপস করেননি। তাঁর পদাঙ্ক অনুসরণ করে দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের জন্য সকলকে অন্যায় ও দুর্নীতির বিষয়ে আপসহীন হতে হবে। জাতির পিতার আদর্শকে ধারণ করে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে পারলেই দেশকে উন্নত, সমৃদ্ধ বাংলাদেশে পরিণত করা সম্ভব। প্রতিমন্ত্রী এ সময় অসত্য ও বিতর্কিত বিষয়ে বিভ্রান্ত না হয়ে সকলকে সচেতন থাকারও আহ্বান জানান।
বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক সত্যব্রত সাহার সভাপতিত্বে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়েজ আহম্মদ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন। শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. রফিকউল্লাহ খান প্রধান আলোচক হিসেবে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।
#
 
শিবলী/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/১৮৪০ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ৩২১৪

 

অক্টোবরে ঢাকায় রেডিও এশিয়া কনফারেন্স রেডিও সং ফেস্টিভ্যাল

 

ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :      

          আগামী ২৯ থেকে ৩১ অক্টোবর ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে ‘এশিয়া প্যাসিফিক ব্রডকাস্টিং ইউনিয়ন (এবিইউ) রেডিও এশিয়া কনফারেন্স ও রেডিও সং ফেস্টিভ্যাল-২০১৯’। তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের সহযোগিতায় এবিইউ এই উৎসবের আয়োজন করবে।

 

          আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এই সম্মেলনের সার্বিক ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সভাপতি তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে তথ্যসচিব আবদুল মালেক, বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক এস এম হারুন-অর-রশিদ এবং তথ্য অধিদপ্তরের প্রধান তথ্য অফিসার সুরথ কুমার সরকার-সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি ও কমিটির সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

          সম্মেলনটি সফলভাবে আয়োজনের লক্ষ্যে গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ সম্পর্কে সভায় বিস্তারিত আলোচনা হয়। সম্মেলন ও উৎসব বাস্তবায়নে গঠিত সকল উপ-কমিটিকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের জন্য আহ্বান জানান প্রতিমন্ত্রী।

 

          বর্তমানে ৭৬টি দেশের ২৭২টি সম্প্রচার প্রতিষ্ঠান এবিইউ’র সদস্য। ১৯৬৪ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে এই ইউনিয়ন আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতামূলক বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চল-সহ সারা বিশ্বের সম্প্রচার মাধ্যমের বিকাশের লক্ষ্যে কাজ করে চলেছে।

 

#

 

পরীক্ষিৎ/মাহমুদ/রফিকুল/রেজাউল/২০১৯/১৮৩৪ ঘণ্টা

 

 

 

 
তথ্যবিবরণী                                                                                    নম্বর :  ৩২১৩

 

ভূমিকম্প সহনীয় ভবন নির্মাণ করা হবে

                               -- ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :

          দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ এনামুর রহমান বলেছেন, জাপান সরকার ও জাইকার সহযোগিতায় বাংলাদেশে ভূমিকম্প সহনীয় ভবন নির্মাণ করা হবে। পুরাতন ভবনগুলো সংস্কার করে ভূমিকম্প সহনীয় করে গড়ে তোলা হবে।  এ লক্ষ্যে কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে যা শীঘ্রই দৃশ্যমান হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

          প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় হোটেল সোনারগাঁওয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় এবং বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি (WFP) এর যৌথ আয়োজনে Simulation Based Logistics Gap Analysis Workshop শীর্ষক ৩ দিনব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. শাহ্ কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন WFP প্রতিনিধি Richard Ragan.  

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ এখন বিশ্বে রোল মডেল। বন্যা, ঘূর্ণিঝড় ও অগ্নিকাণ্ডের মতো দুর্যোগসমূহ বাংলাদেশ সফলভাবে মোকাবিলা করে এ সুনাম অর্জন করেছে।

#

সেলিম/মাহমুদ/রফিকুল/সেলিমুজ্জামান/২০১৯/১৭৩০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                                                                                    নম্বর : ৩২১২
 
ভূমি কর্মকর্তাদের মধ্যে যোগাযোগ বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে
 
ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :
ভূমি মন্ত্রণালয় থেকে ইউনিয়ন ভূমি অফিস পর্যায় পর্যন্ত কর্মরত বিভিন্ন স্তরের ভূমি কর্মকর্তাদের মধ্যে যোগাযোগ বাড়াতে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। আজ ভূমি মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত আগস্ট/২০১৯ মাসের সমন্বয় সভায় ভূমি সচিব মোঃ মাক্ছুদুর রহমান পাটওয়ারী এ কথা বলেন। 
যোগাযোগ বৃদ্ধির অংশ হিসেবে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে বিভাগীয় সঞ্জীবনী কর্মশালার পাশাপাশি ইতোমধ্যে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছে। সিলেটেও কিছু দিন পর আয়োজন করা হবে। মতবিনিময় সভায় স্থানীয় ভূমি অফিসের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, গণমাধ্যম কর্মী-সহ বিভিন্ন স্ট্যেকহোল্ডাররা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ভূমি মন্ত্রণালয়ে কর্মরত কর্মকর্তাবৃন্দ নিয়মিত মাঠ পর্যায়ের ভূমি অফিস পরিদর্শন কিংবা আকস্মিক পরিদর্শন করছেন ও প্রতিবেদন দাখিল করছেন। 
সমন্বয় সভায় প্রধানমন্ত্রীর পরিদর্শন নির্দেশনা বাস্তবায়ন, ভূমিমন্ত্রীর দিক নির্দেশনা মোতাবেক করণীয় কার্যক্রমসমূহ-সহ শূন্য পদে নিয়োগের অগ্রগতি বিষয়ে আলোচনা করা হয়। সভায় মনিটরিং বাড়ানোর ওপর জোর দেওয়া হয়।
মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দ ছাড়াও সমন্বয় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন ভূমি মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিভিন্ন সংস্থার প্রধান ও বিভিন্ন প্রকল্পের পরিচালকগণ।
#
 
নাহিয়ান/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৯/১৮২০ঘণ্টা
 
তথ্যবিবরণী                                                                            নম্বর : ৩২১১

কমিশন গঠন করে বঙ্গবন্ধু হত্যার পরিকল্পনাকারীদের চিহ্নিত করতে হবে 

                                                 - মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

ঢাকা, ১২ ভাদ্র (২৭ আগস্ট) :

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, জাতির পিতার হত্যাকাণ্ডের খুনিদের বিচার হলেও এর মূল পরিকল্পনাকারীদের এখনো চিহ্নিত করা হয়নি । বিশেষ কমিশন গঠন করে এ ঘৃণ্য হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনাকারীদের চিহ্নিত করা এখন গণদাবি। এই খুনিরা শুধু বঙ্গবন্ধুকে নয়, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে নস্যাৎ এবং বাঙালি জাতীয়তাবাদকে হত্যা করার জন্য এই ঘৃণ্য ঘটনা সংঘটিত করেছিল ।

মন্ত্রী আজ জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতির পিতার শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ সেক্টর কমান্ডার্স ফো

Todays handout (19).docx Todays handout (19).docx

Share with :

Facebook Facebook