তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৪ অক্টোবর ২০১৮

তথ্যবিবরণী ৪ অক্টোবর ২০১৮

Handout                                                                                                           Number : 2737

 

CTBTO Executive Secretary calls on Foreign Minister

 

Dhaka, October 4 : 

 

Executive Secretary  of the Comprehensive Nuclear-Test-Ban Treaty Organization (CTBTO) Dr. Lassina Zerbo has called on Foreign Minister A. H. Mahmood Ali at latter’s office today. Dr Zebro is currently on a four-day official visit to Bangladesh. It is the first ever visit by Mr. Zerbo after taking office of the Executive Secretary of CTBTO for the second term on 1 August 2013.

 

Foreign Minister welcomed the Executive Secretary and thanked him for undertaking the visit. Foreign Minister stated that Bangladesh has an impeccable non-proliferation record and we are committed to full compliance of the NPT and the CTBT. He also mentioned that the government of Prime Minister Sheikh Hasina strictly adheres to its constitutional obligation of general and complete disarmament in defining its national, regional and international engagements on disarmament and non-proliferation. He also referred to the special initiative of Prime Minister Sheikh Hasina (during her tenure in Office from 1996-2001) to play a constructive mediating role following the nuclear test by the neighboring countries India and Pakistan (1998). She also advocated for declaring South Asia as a Nuclear Weapons Free Zone to maintain peace and stability in the region.

 

Mr. Zerbo applauded Bangladesh’s commitment and role in disarmament issues and thanked the government for continuing to advocate for complete and general disarmament. He particularly thanked Bangladesh for its efforts towards contributing to regional stability by maintaining friendly relations with the neighboring countries.  

 

In the morning Mr. Zerbo visited the Bangabandhu Memorial Museum and paid tribute to the memory of Father of the Nation. In the afternoon, Mr. Zerbo gave a lecture at the Bangladesh Institute of International and Strategic Studies.

 

Mr. Zerbo will leave Dhaka on 6 October 2018.

 

#

 

Tohidul/Mahmud/Parvez/Salimuzzaman/2018/2040 Hrs

 

 

তথ্যবিবরণী                                                নম্বর : ২৭৩৬
 
৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডে নিয়োগ
কোটা বাতিলের পরিপত্র জারি
 
ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর) : 
 
৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডে সকল সরকারি দপ্তর, স্বায়ত্তশাসিত/ আধা-স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান ও কর্পোরেশনে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে বিদ্যমান সকল প্রকার কোটা বাতিল করে আজ পরিপত্র জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।
 
মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়েজ আহমেদ স্বাক্ষরিত এক পরিপত্রে বলা হয়, ৯ম গ্রেড (১ম শ্রেণি) ও ১০ম-১৩তম গ্রেড (২য় শ্রেণি) পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ প্রদান করা হবে এবং এসকল পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে বিদ্যমান কোটা পদ্ধতি বাতিল করা হলো। 
 
অবিলম্বে এই পরিপত্র কার্যকর হবে।
 
#
 
মাসুম/মাহমুদ/রফিকুল/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/২০৪৫ ঘণ্টা   
 
তথ্যবিবরণী                                                    নম্বর : ২৭৩৫
 
বিচার বিভাগে অবকাঠামো সংকট হবে না
                                                                      -- আইনমন্ত্রী 
 
দিনাজপুর, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর) : 
 
আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বিচার বিভাগে আগামী ৫০ বছরে যাতে অবকাঠামোর সংকট তৈরি  না হয় সে লক্ষ্য নিয়ে সরকার কাজ করছে। সেজন্য প্রতিটি জেলায় ১২তলা ভিত বিশিষ্ট ১০তলা আদালত ভবন তৈরি করা হচ্ছে। তিনি বলেন, বিগত সাড়ে নয় বছরে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। বাংলাদেশ বিশ্বে উন্নয়নের রোলমডেল হয়েছে।  
 
আজ দুপুরে দিনাজপুর জেলা জজ আদালত প্রাঙ্গণে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত  ভবন উদ্বোধন এবং দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতি ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে  প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি। 
 
দিনাজপুরের জেলা ও দায়রা জজ আজিজ আহমদ ভুঞা’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান, জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম, সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল, নুরুল ইসলাম সুজন ও মোছাঃ সেলিনা জাহান লিটা, আইন সচিব এএসএসএম জহিরুল হক বক্তৃতা করেন। 
 
এর আগে মন্ত্রী বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে নবনির্মিত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ভবন  উদ্বোধন করেন।
 
এরপর বিকালে পঞ্চগড়ে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ভবন উদ্বোধন করে সেখান আয়োজিত সুধী সমাবেশে তিনি বলেন, বাংলাদেশের সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে জাতীয় সংসদ  নির্বাচন হবে। এতে কোন দল নির্বাচনে আসবে আর কোন দল নির্বাচনে আসবে  না সেটি তাদের ব্যাপার। 
 
#
 
রেজাউল/মাহমুদ/পারভেজ/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/২০৩০ ঘণ্টা   
 
তথ্যবিবরণী                                                      নম্বর : ২৭৩৪
 
বাঙালি চেতনাকে লালন করতে হবে
                                                        -- ড. বীরেন শিকদার 
 
মাগুরা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর) : 
 
           যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. বীরেন শিকদার বলেছেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রগতি ধরে রাখতে আবহমান বাংলার ইতিহাস, ঐতিহ্য, বাঙালির কৃষ্টি-সংস্কৃতি এবং বাঙালি চেতনাকে লালন করতে হবে।
 
           আজ মাগুরা জেলার মহম্মদপুর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা এবং জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে মধুমতী নদীর এলাংখালী ঘাটে ঐতিহাসিক বিহারীলাল শিকদার নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী একথা বলেন। 
 
          ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ খেলাধুলাকে ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে সরকার কান্ট্রি গেইম নামে নতুন একটি এসোসিয়েশনের অনুমোদন দিয়েছে। এ এসোসিয়েশনের মাধ্যমে সারা বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের গ্রামীণ খেলাধুলাকে তুলে ধরা হবে। 
 
           চতুর্থ বারের মতো আয়োজিত নৌকা বাইচ উপলক্ষে নদীর দু’ধারে মেলা বসে। নদীমাতৃক বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী এ প্রতিযোগিতা দেখার জন্য নদীর দু’পাড়ে বিপুল সংখ্যক লোকের সমাগম ঘটে। 
 
প্রতিযোগিতায় তেত্রিশটি বাইচ নৌকা অংশগ্রহণ করে। 
 
            উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবু সুফিয়ানের সভাপতিত্বে মাগুরার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, জেলা পুলিশ সুপার খান মোহাম্মদ রেজোয়ান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বাবু পংকজ কুন্ডু এবং জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ তানজেল হোসেন খানসহ আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ বক্তৃতা করেন। 
 
#
 
আকতারুল/মাহমুদ/পারভেজ/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/২০০০ ঘণ্টা   
 
তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ২৭৩৩
রাজশাহীতে উন্নয়ন মেলা শুরু
রাজশাহী, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর ) :
সারাদেশের ন্যায় রাজশাহীতেও তিন দিনব্যাপী ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলা আজ থেকে  শুরু হয়েছে। রাজশাহী জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে রাজশাহী কলেজ মাঠে এ মেলার আয়োজন করা হয়েছে। 
এ উপলক্ষে আজ সকাল নয়টায় নগরীর আলুপট্টি মোড় থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি শুরু হয়ে রাজশাহী কলেজ মাঠে গিয়ে শেষ হয়। 
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশব্যাপী ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলার  উদ্বোধন করেন। পরে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন প্রধান অতিথি হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে মেলার উদ্বোধন ও আলোচনা সভায় বক্তৃতা করেন। মেয়র বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। 
  সরকারের অর্থনৈতিক, সামাজিক এবং এমডিজি অর্জন সংক্রান্ত উন্নয়নের গতিশীল ধারা সম্পর্কে প্রান্তিক জনগোষ্ঠী ও তরুণ সমাজের কাছে এর বার্তা পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে এ মেলার আয়োজন করা হয়েছে। মেলায় ২০২১ সালের মধ্যে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নয়নের রূপকল্প বা উন্নত বাংলাদেশের প্রস্তাবনা সম্পর্কেও জনগণকে অবহিত করা হয়।  
অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য বেগম আখতার জাহান, সাবেক প্রতিমন্ত্রী জিনাতুন্নেছা তালুকদার, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী এবং বিশিষ্ট সমাজসেবী শাহীন আক্তার রেনীসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক এসএম আব্দুল কাদের সভাপতিত্ব করেন।
মেলায় আঞ্চলিক তথ্য অফিস রাজশাহীসহ ২০০টির বেশি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন বিষয়ক স্টল শোভা পায়। এছাড়া মেলায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের নিয়ে সরকারের সফলতা বিষয়ক রিয়েলিটি শো প্রদর্শন এবং মুক্তিযুদ্ধ ও সরকারের সফলতাকে উপজীব্য করে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। মেলায় যথেষ্ট নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। প্রতিদিন সকাল নয়টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত মেলা উন্মুক্ত থাকবে। 
#
 
হালিম/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/২০০০ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                        নম্বর :  ২৭৩২
ইইউ-বাংলাদেশ বাণিজ্য বৈঠক 
২০২৭ সালের পর জিএসপি প্লাস বাণিজ্য সুবিধার আহ্বান জানালেন বাণিজ্যমন্ত্রী
ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর) : 
বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বাংলাদেশ ২০২৪ সালে এলডিসি থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তীর্ণ হবে এবং ২০২৭ সাল পর্যন্ত এলডিসির বাণিজ্য সুবিধা অব্যাহত থাকবে। এর পর বাংলাদেশকে জিএসপি প্লাস নামে বাণিজ্য সুবিধা প্রদানের জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় রপ্তানি বাজার। মোট রপ্তানির প্রায় ৫২ শতাংশ ইউরোপীয় ইউনিয়নে হয়ে থাকে। একইসাথে বাংলাদেশও বিনিয়োগের জন্য উপযুক্ত স্থান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতোমধ্যে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে ১০০টি স্পেশাল ইকোনমিক জোন গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছেন। বেশ কিছু জোনের উন্নয়ন কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নকে স্পেশাল ইকোনমিক জোনে বিনিয়োগের আহ্বান জানানো হয়েছে। তাঁরা বাংলাদেশে বাণিজ্য বৃদ্ধি এবং বিনিয়োগের বিষয়ে আগ্রহী।
বাণিজ্যমন্ত্রী আজ ঢাকায় বাংলাদেশ সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে “৪র্থ ইউরোপীয় ইউনিয়ন-বাংলাদেশ বিজনেস ক্লাইমেট ডায়ালগ” শেষে সাংবাদিকদের উদ্দেশে এসব কথা বলেন।
তোফায়েল আহমেদ বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্য সুবিধা বৃদ্ধি এবং সমস্যা চিহ্নিত করে তা সমাধানের জন্য কাস্টমস, ফার্মাসিউটিক্যাল, ট্যাক্স এবং বিনিয়োগ বিষয়ক ৫টি ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন করা হয়েছে। গ্রুপগুলো বাণিজ্য সমস্যা চিহ্নিত করে তা সমাধানে কাজ করছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাথে বাণিজ্য বৃদ্ধি এবং বাণিজ্য জটিলতা দূর করতে ২০১৬ সালে ইউরোপীয় ইউনিয়ন-বাংলাদেশ বিজনেস ক্লাইমেট ডায়ালগ চালু করা হয়। ফলে ইউরোপীয় ইউনিয়নে বাংলাদেশের রপ্তানি বাণিজ্য বাড়ছে। 
ইউরোপীয় ইউনিয়নের হেড অভ্ ডেলিগেশন এবং ইইউ এম্বাসেডর জবহংলব ঞববৎরহশ সাংবাদিকদের বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন এভ্রিথিংস বাট আর্মস এর আওতায় বাংলাদেশকে বাণিজ্য সুবিধা দিচ্ছে। এ সুবিধা আগামী দিনগুলোতেও অব্যাহত থাকবে। গঠিত ওয়ার্কিং গ্রুপগুলোর মাধ্যমে বাণিজ্য সমস্যাগুলো সমাধান করা হচ্ছে। এর ফলে বাণিজ্যের পরিধি বাড়ছে। আশা করি, পরবর্তী বিজনেস ক্লাইমেট ডায়ালগ আগামী বছর মার্চ মাসে অনুষ্ঠিত হবে। বিনিয়োগের বিষয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের বিনিয়োগকারীগণ আগ্রহী। তাঁরা বাংলাদেশ সফর করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।
ডায়ালগে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পক্ষে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত গধৎরব-অহহরপশ ইড়ঁৎফরহ, জার্মানির ডেপুটি হেড অভ্ মিশন গরপযধবষ ঝপযঁষঃযবরংং, নেদারল্যান্ডের এম্বাসেডর-ডেজিগনেট ঐধৎৎু ঠবৎবিরলউ, স্পেনের রাষ্ট্রদূত অষাধৎড় ফব ঝধষধং এষসবহবু ফব অুপধৎধঃব, ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত ডরহহরব ঊংঃৎঁঢ় চবঃবৎংবহ, সুইডেনের রাষ্ট্রদূত ঈযধৎষড়ঃঃধ ঝপযষুঃবৎ এবং ব্রিটিশ ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত  কযধহনধৎ ঐড়ংংবরহ-ইড়ৎ প্রমুখ।
বিজনেস ক্লাইমেট ডায়ালগে বাংলাদেশের পক্ষে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শুভাশীষ বসু, এনবিআর-এর চেয়ারম্যান মোঃ মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)-এর নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী আমিনুল হকসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। 
#
বকসী/মাহমুদ/মোশারফ/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৮০৫ ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ২৭৩১
 
যশোরে উন্নয়ন মেলায় জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী
সকল ক্ষেত্রে নজিরবিহীন উন্নতি হয়েছে
 
যশোর, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর ) :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব ও দিক নির্দেশনায় জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার পথে অনেক সাফল্য অর্জিত হয়েছে। কৃষি, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, অবকাঠামোসহ সকল ক্ষেত্রে নজিরবিহীন অগ্রগতি সাধিত হয়েছে।
জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক আজ যশোরের টাউন হল মাঠে ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলা ২০১৮ এর উদ্বোধন  উপলক্ষে যশোর জেলা প্রশাসন আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন। যশোর জেলা প্রশাসক মোঃ আবদুল আওয়াল অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। অনুষ্ঠানে সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ, আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধের মূল লক্ষ্য ছিলো একটি শোষণ-বঞ্চনাহীন, ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠন করা। সেই লক্ষ্য বাস্তবায়নে কাজ করছে সরকার। তিনি বলেন, স্বাধীনতার পর জাতির পিতা দেশের জনগণের আর্থসামাজিক উন্নয়নে বিস্তারিত পরিকল্পনা গ্রহণ করেন। সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়ক ধরে অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে চলছে।
#
 
মাসুম/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৯১৫ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                নম্বর :  ২৭৩০
 
বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ-২০১৮ এর কর্মসূচি 
 
ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর) : 
 
আগামী ৭ অক্টোবর রবিবার  বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ-২০১৮ এর উদ্বোধন করা হবে। এবারের  প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘গড়তে শিশুর ভবিষ্যৎ, স্কুল হবে নিরাপদ’। দিবসটি উপলক্ষে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ শিশু একাডেমি ৭ থেকে ১৩ অক্টোবর ৬ দিন ব্যাপী নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। দিবসটি উপলক্ষে জাতীয় প্রত্রিকায় ক্রোড়পত্র প্রকাশ করা হবে।  
 
মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি  আগামী ৭ অক্টোবর সকাল ১০টায় বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তনে বিশ্ব শিশু দিবসের কর্মসূচির উদ্বোধন করবেন। 
 
৯ অক্টোবর সকাল ১০টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের  জগন্নাথ হল খেলার মাঠে পথশিশু সমাবেশ, বিভিন্ন প্রতিযোগিতা ও খেলাধুলার উদ্বোধন করা হবে। বাংলাদেশ শিশু একাডেমিতে পথশিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া দুপুর ১২টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ  দিবস উপলক্ষে মানব বন্ধনের আয়োজন করা হবে। 
 
১০ তারিখ  সকাল ৯টায়  জাতীয় কন্যা শিশু  দিবস উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে  র‌্যালি বের করা হবে। কন্যা শিশু দিবসের  প্রতিপাদ্য ‘থাকলে কন্যা সুরক্ষিত, দেশ হবে আলোকিত’।  
 
এছাড়া প্রতিদিন  বিকাল ৩টায় শিশু একাডেমি মিলনায়তনে  ‘আমার কথা শুন’ শিরোনামে একটি  অনুষ্ঠান করা হবে।  সেখানে শিশুরা বলবে বড়রা শুনবে।  প্রতিদিন  বিকাল ৩টা থেকে  সন্ধ্যা ৮টা পর্যন্ত  শিশু একাডেমি  প্রাঙ্গণে শিশুদের খেলনা মেলা চলবে। 
 
#
 
খায়ের/মাহমুদ/রফিকুল/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৮২৫ ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ২৭২৯
 
মুক্তিযোদ্ধাদের বারডেম হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসা সুবিধা দেওয়া হবে
 
ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর ) :
মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বিনামূল্যে বা স্বল্পমূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং বারডেম জেনারেল হাসপাতালের মধ্যে আজ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক সমঝোতা স্বারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। 
সমঝোতা স্বারকের আওতায় উপজেলা, জেলা এবং বিভাগীয় পর্যায় থেকে রেফার্ড হয়ে আসা মুক্তিযোদ্ধাকে উন্নত চিকিৎসা প্রদানের জন্য বারডেম জেনারেল হাসপাতাল ভর্তি, প্রয়োজনীয় ঔষধ সরবরাহসহ সর্বোত্তম চিকিৎসা, পরামর্শ, শল্য চিকিৎসা, বেড, পথ্য এবং নার্সিং সেবা প্রদানসহ অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাকে সম্পূর্ণ বিনা খরচে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হবে।
মন্ত্রণালয়ের পক্ষে অতিরিক্ত সচিব শেখ মিজানুর রহমান এবং বারডেম জেনারেল হাসপাতালের পক্ষে সংস্থার মহাপরিচালক প্রফেসর জাফর আহমেদ লতিফ সমঝোতা স্বারকে স্বাক্ষর করেন। এসময় মন্ত্রণালয় ও বারডেম হাসপাতালের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
#
 
আলমগীর/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৯০০ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ২৭২৮
 
জাতীয় সংসদের অধিবেশন আহ্বান
 
ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর ) :
রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ আগামী ২১ অক্টোবর রোববার বিকাল ৪.৩০টায় ঢাকার শেরে বাংলা নগরে অবস্থিত জাতীয় সংসদ ভবনের সংসদ কক্ষে দশম জাতীয় সংসদের ২৩তম (২০১৮ খ্রিস্টাব্দের ৫ম) অধিবেশন আহ্বান করেছেন।
রাষ্ট্রপতি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ৭২ অনুচ্ছেদের (১) দফায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ আহ্বান জানিয়েছেন।
#
 
তারিক/মাহমুদ/মোশারফ/জয়নুল/২০১৮/১৮৪৫ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                    নম্বর : ২৭২৭
যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাকসেলারেন্স বিদেশি বাজারে 
বাংলাদেশি সফটওয়্যারের বিক্রি বৃদ্ধিতে সহযোগিতা করবে
 
ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর) : 
যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বৈশ্বিক সফটওয়্যার আউটসোর্সিং প্রতিষ্ঠান অ্যাকসেলারেন্স যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়াসহ ইংরেজিভাষী দেশের বাজারে বাংলাদেশের সফটওয়্যারের বিক্রি বৃদ্ধিতে সহায়তা দেবে।
আজ ঢাকায় আগারগাঁওয়ে আইসিটি টাওয়ারে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রীর অফিস কক্ষে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) এবং অ্যাকসেলারেন্সের মধ্যে এ বিষয়ে এক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। বিসিসি’র লিভারেজিং আইসিটি ফর গ্রোথ, এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড গভর্নেন্স (এলআইসিটি) প্রকল্পের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক তারেক এম বরকতউল্লাহ এবং অ্যাকসেলারেন্সের প্রেসিডেন্ট অ্যান্ডি হিলিয়ার্ড স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, বিসিসি’র নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব, এলআইসিটি প্রকল্পের কম্পোনেন্ট টিম লিডার সামি আহমেদ, অ্যাকসেলারেন্সের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিউ মরগান এবং চিফ ডেলিভারি কর্মকর্তা জিম মারাসিও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী অ্যাকসেলারেন্স যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়াসহ ইংরেজিভাষী দেশের বাজারে বাংলাদেশের বিভিন্ন কোম্পানির উন্নয়নকৃত সফটওয়্যার সেবার বাণিজ্যিকীকরণ ও বিক্রি বৃদ্ধিতে সহযোগিতা করবে। অ্যাকসেলারেন্স বাংলাদেশি কোম্পানিগুলোর সফটওয়্যার উন্নয়নে কারিগরি দুর্বলতাগুলো চিহ্নিত করবে এবং তা দূর করায় প্রশিক্ষণ প্রদান করবে।  
এ উপলক্ষে মোস্তাফা জব্বার বলনে, ডজিটিাল বাংলাদশেরে দৃষ্টভিঙ্গরি সাথে সঙ্গতি রখেে সরকার দশেরে আইসটিি খাতরে উন্নয়নের জন্য একটি আইটি ইকোসস্টিমে তরৈি করছ।ে অপটক্যিাল ফাইবার সংযোগ স্থাপনরে মাধ্যমে দশেরে দুর্গম ও দূরর্বতী এলাকায় ইন্টারনটে সংযোগরে আওতায় আনা হচ্ছে এবং র্বতমানে দশেরে ১৪০ মলিয়িন মানুষ মোবাইল ফোন ব্যবহার করছনে। মোবাইল ব্যাংকংি ক্রমর্বধমান জনপ্রয়ি হয়ে উঠছে উল্লখে করে মন্ত্রী বলনে, গড়ে প্রতদিনি ১,০০০ কোটি টাকা লনেদনে হচ্ছ।ে তনিি বলনে, গ্রামীণ এলাকাগুলরি বশেরি ভাগ ব্যাংকহীন পরসিবো মোবাইল ব্যাংকংিয়রে  মাধ্যমে সম্পন্ন হচ্ছ।ে
মন্ত্রী বলনে, প্রতদিনিই প্রযুক্তরি পরর্বিতন হচ্ছে এবং এই দ্রুত পরর্বিতনশীল প্রযুক্তি মোকাবিলায় বাংলাদশে সরকার বভিন্নি র্কাযকর পদক্ষপে গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছ।ে তনিি বলনে, নীতমিালাসহ সরকাররে বভিন্নি উদ্যোগরে কারণে গত কয়কে বছরে র্হাডওয়্যার ও সফটওয়্যার সক্টেররে র্কাযক্রম ইতবিাচকভাবে বৃদ্ধি পয়েছে।ে
#
শহিদুল/মাহমুদ/রফিকুল/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৮০৫ ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                                                    নম্বর : ২৭২৬
 
শিক্ষার উন্নয়নে বাংলাদেশ অনুকরণীয়
                            --- শিক্ষামন্ত্রী
ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর ) :
শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, বিশ্বমানের শিক্ষা বাস্তবায়ন ও গুণগত মানোন্নয়নে সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। বিগত ১০ বছরে ব্যাপক অবকাঠামোগত উন্নয়ন সম্পন্ন হয়েছে। আইসিটি শিক্ষার কার্যক্রম সহজতর করা হয়েছে। শিক্ষাক্ষেত্রে ব্যাপকভাবে প্রযুক্তির ব্যবহার করা হয়েছে। ২০০৯ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৩০ হাজার ৭৭১টি ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। এর মধ্যে কিছু ভবনের কাজ চলমান রয়েছে। 
মন্ত্রী আজ রাজধানীর মিরপুরে সরকারি বাঙলা কলেজের বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন শেষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে  প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।  
মন্ত্রী বলেন, বিশ্বের সাথে প্রতিযোগিতা করতে পারে এমন বিশ্বমানের নাগরিক আমাদের তৈরি করতে হবে। এজন্য শিক্ষা ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন প্রয়োজন। নতুন প্রজন্মকে উন্নত বাংলাদেশের নির্মাতা দক্ষ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। সার্টিফিকেট-সর্বস্ব শিক্ষায় বেকারত্ব বাড়বে।  দক্ষতা না থাকলে বড় সার্টিফিকেট অর্থহীন। এজন্য সরকার কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা গ্রহণে উৎসাহিত করছে। 
শিক্ষাক্ষেত্রে বিগত ১০ বছরে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় নেতৃত্বে এবং সকলের সহযোগিতায়  সীমিত সময়ে দেশে এত উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে। শিক্ষাক্ষেত্রে বাংলাদেশ আজ একটি অনুকরণীয় দেশ। যেসব উন্নয়নশীল দেশ শিক্ষাক্ষেত্রে পিছিয়ে আছে, তারা আজ বাংলাদেশ থেকে জানতে চায়। তিনি বলেন, এসময়ে প্রত্যেকটি শিক্ষার্থীকে বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক দেয়া হয়েছে। ফলে এনরোলমেন্ট বেড়েছে। এমডিজি অর্জন হয়েছে নির্ধারিত সময়ের তিন বছর আগে। মাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত ছেলেমেয়েদের সমতা অর্জিত হয়েছে। নারীর ক্ষমতায়ন দৃশ্যমান হয়েছে। 
সরকারি বাঙলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ ইমাম হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য মোঃ আসলামুল হক, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত মহাপরিচালক প্রফেসর মোহাম্মদ শামছুল হুদা, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী দেওয়ান মোহাম্মদ হানজালা এবং কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর হাসমৎ আরা আল-জলিলা।
মন্ত্রী সরকারি বাঙলা কলেজের নির্মিতব্য ১০-তলা ভিত বিশিষ্ট একাডেমিক কাম-এক্সামিনেশন হল ভবন, ১০-তলা ভিত বিশিষ্ট মাল্টিপারপাস ভবন ও নতুন ছাত্রাবাসের ভিত্তিপ্রস্তরের ফলক উন্মোাচন করেন এবং নবনির্মিত শহিদ মিনারের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।
উন্নয়ন মেলায় শিক্ষামন্ত্রী
পরে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাণিজ্য মেলা প্রাঙ্গণে ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং মন্ত্রণালয়ের দু’টি বিভাগ ও এর আওতাধীন অধিদপ্তর, দপ্তর ও সংস্থার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন। তিনি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিগত ১০ বছরের বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রমের প্রদর্শনী ও প্রকাশনা সামগ্রীও প্রত্যক্ষ করেন। এসময় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. মোঃ মাহামুদ-উল-হক ও মাহমুদুল ইসলাম, কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব এ কে এম জাকির হোসেন ভূঞা, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী দেওয়ান মোহাম্মদ হানজালা এবং বিভিন্ন দপ্তর/সংস্থার কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
#
আফরাজুর/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৮৪৫ঘণ্টা
তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ২৭২৫
 
৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অংশগ্রহণ
 
ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর ) :
রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলা ২০১৮ উপলক্ষে আজ মেলা প্রাঙ্গণে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আয়োজিত র‌্যালিতে মন্ত্রণালয়ের সচিব (এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয়) মাহবুবুজ্জামানের নেতৃত্বে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করে। 
মেলায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের স্টলে মন্ত্রণালয়ের সার্বিক উন্নয়ন কার্যক্রম ডিজিটাল ও আধুনিক পদ্ধতিতে প্রদর্শনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া ডিজিটাল ডিসপ্লে বোর্ডে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর স্থিরচিত্র ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বিভিন্ন অর্জন ও পুরস্কারপ্রাপ্তির ছবি প্রদর্শিত হচ্ছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে “বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী” এর বিদেশি বিভিন্ন ভাষায় অনুদিত কপি এবং মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন প্রকাশনাসমূহ যেমন- ঈবষবনৎধঃরহম ইধহমষধফবংয, ঋৎরবহফং ড়ভ খরনবৎধৎঃরড়হ ডধৎ, ঋড়ৎবরমহ ঙভভরপব ঈড়ষষবপঃরড়হং, ইধহমষধফবংয ইবপশড়হ ইত্যাদি প্রদর্শনের জন্য স্টলে রাখা হয়েছে। এর পাশাপাশি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অগ্রগতি ও উন্নয়ন বিষয়ক বিভিন্ন পুস্তিকা, চধসঢ়যষবঃ ও ইৎড়পযঁৎব দর্শনার্থীদের বিনামূল্যে প্রদানের জন্য স্টলে পর্যাপ্ত সংখ্যক রাখা হয়েছে। 
এছাড়া সেবা প্রদানের অংশ হিসেবে ঈড়হংঁষধৎ ঈড়হংঁষঃধঃরড়হ কর্নার খোলা হয়েছে যেখানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কনস্যুলার সেবা সম্পর্কিত তথ্যাদি পাওয়া যাবে। 
#
 
তৌহিদুল/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৮৪০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ২৭২৪

দেশব্যাপী শুরু হলো ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলা 

ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর ) :
দেশব্যাপী ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলা আজ শুরু হলো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে একযোগে আয়োজিত এ উন্নয়ন মেলা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করেন। 
উন্নয়ন মেলা ৪-৬ অক্টোবর পর্যন্ত চলমান থাকবে। ঢাকায় আগারগাঁও-এ বাণিজ্য মেলার মাঠে উন্নয়ন মেলার আয়োজন করা হচ্ছে। সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়সহ সরকারি বিভিন্ন সংস্থা মেলা উপলক্ষে ৩৩০টি স্টল দিয়েছে। সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকা- সম্পর্কে সাধারণ জনগণকে জানানো হচ্ছে মেলায়। প্রচুর লোক সমাগমে মেলায় উৎসবমুখর এবং আনন্দঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। স্কুল, কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও সাধারণ জনগণ  আগ্রহভরে বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখছেন।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল সকালে বেলুন উড়িয়ে ঢাকার উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করেন। এবারের মেলার প্রতিপাদ্য ‘উন্নয়নের অভিযাত্রায় অদম্য বাংলাদেশ’। ঢাকা জেলা প্রশাসক আবু সালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খানের সভাপতিত্বে ঢাকা বিভাগের কমিশনার  কে এম আলী আজম ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার এবং বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ, অধিদপ্তর, পরিদপ্তর ও সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন। 
#
রিফাত/মাহমুদ/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৮০০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ২৭২৩
 
চট্টগ্রামেও চতুর্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলা শুরু
 
চট্টগ্রাম,  ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর ):
সারা দেশের ন্যায় আজ চট্টগ্রামেও শুরু হয়েছে তিন দিনব্যাপী ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলা।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারের মাধ্যমে গণভবন থেকে এ মেলা উদ্বোধন করেন । 
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম প্রান্তে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব ড. আহমদ কায়কাউস। এসময় অন্যান্যের মধ্যে বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. মাহবুবর রহমান, ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন, পুলিশ সুপার নূরেআলম মিনা, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. শাহাবুদ্দিন প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। 
প্রধান অতিথি এসময় ‘জেলা ব্র্যান্ড বুক’ ও ‘উন্নয়ন বুলেটিন’ এর মোড়ক উন্মোচন এবং বেলুন উড়িয়ে মেলার শুভ সূচনা করেন। পরে তিনি বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন। 
নগরীর জিমনেশিয়াম মাঠে আয়োজিত এ মেলায় সরকারি প্রতিষ্ঠান, বেসরকারি সংস্থা, সেবা সংস্থা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ১৭০টির বেশি স্টলে সরকারের বিগত ১০ বছরের উন্নয়ন কর্মকা- প্রদর্শন ও সে
Todays handout (11).docx Todays handout (11).docx

Share with :

Facebook Facebook