তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১২ মার্চ ২০১৮

তথ্যবিবরণী ১১/০৩/২০১৮

তথ্যবিবরণী                                                                                  নম্বর : ৭৭২ 
বিসিএস উইমেন নেটওয়ার্কের আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদ্যাপন
ঢাকা, ২৭ ফাল্গুন ( ১১ মার্চ) :
বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বিসিএস) উইমেন নেটওয়ার্ক কর্তৃক আজ ঢাকায় বিদ্যুৎ ভবনের মুক্তি হলে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদ্যাপন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এবছরের নারী দিবসের মূল প্রতিপাদ্য ‘সময় এখন নারীর : উন্নয়নে তারা বদলে যাচ্ছে গ্রাম-শহরে কর্মজীবনধারা’ কে সাধুবাদ জানিয়ে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
বিসিএস উইমেন নেটওয়ার্কের সভাপতি সুরাইয়া বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান অতিথি তাঁর বক্তৃতায় বলেন, নারীর প্রতি বঞ্চনা পূর্বের তুলনায় অনেকাংশে হ্রাস পেয়েছে। ফলে আয়বর্ধক কর্মকা-ে নারীর অংশগ্রহণ উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। দেশের টেকসই উন্নয়নে নারীপুরুষ নির্বিশেষে সকলকে সহযাত্রী হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব মোঃ নজিবুর রহমান। এছাড়া মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম, বিসিএস উইমেন নেটওয়ার্কের মহাসচিব এবং জাতীয় পরিকল্পনা ও উন্নয়ন একাডেমির মহাপরিচালক নাছরিন আক্তার উপস্থিত ছিলেন। 
#
রিফাত/সেলিম/সঞ্জীব/আব্বাস/২০১৮/২০৩০ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                      নম্বর : ৭৭১
সামাজিক সূচক উন্নয়নে সংসদ সদস্যগণের
সম্পৃক্ততা টেকসই উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করবে
                                           --- স্পিকার
ঢাকা, ২৭ ফাল্গুন (১১ মার্চ ) : 
স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সামাজিক সূচক উন্নয়নে যে ব্যাপক উন্নয়ন কার্যক্রম চলছে তার সাথে সংসদ সদস্যগণ নিজ নিজ নির্বাচনি এলাকায় অধিক সম্পৃক্ত হলে টেকসই উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে।
স্পিকার আজ সংসদ ভবনে টঘঋচঅ আর্থিক সহায়তায় বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয় বাস্তবায়নাধীন ঝঃৎবহমঃযবহরহম চধৎষরধসবহঃ’ং ঈধঢ়ধপরঃু রহ চড়ঢ়ঁষধঃরড়হ ধহফ উবাবষড়ঢ়সবহঃ ওংংঁবং (ঝচঈচউ) প্রকল্পের আওতায় গঠিত ইধহমষধফবংয অংংড়পরধঃরড়হ ড়ভ চধৎষরধসবহঃধৎরধহং ড়হ চড়ঢ়ঁষধঃরড়হ ধহফ উবাবষড়ঢ়সবহঃ (ইঅচচউ) এর বৈঠকে সভাপতি’র বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন।
স্পিকার বলেন, বিএপিপিডি প্রকল্পের আওতায় সংসদ সদস্যগণ বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ, নিরাপদ প্রসব, মাতৃ ও শিশু মৃত্যুহ্রাস এবং যুব উন্নয়নে কার্যকরী ভূমিকা রাখছেন। সরকারের পাশাপাশি সংসদ সদস্যগণের এ ভূমিকা সরকারের উন্নয়ন লক্ষ্যে পৌঁছাতে সহায়তা করবে। 
বৈঠকে কমিটির সদস্য ও সংসদ সদস্য চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ, মোঃ শহীদুজ্জামান সরকার, মোছাঃ মাহবুব আরা গিনি, আ ফ ম রুহুল হক, মোঃ হাবিবে মিল্লাত, ফরহাদ হোসেন, এডভোকেট সানজিদা খানম, এডভোকেট উম্মে কুলসুম স্মৃতি, বেগম সেলিনা বেগম ও বেগম নূর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরী বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।
বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মোঃ আবদুর রব হাওলাদারের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে ইউএনএফপিএ’র কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ উৎ. অংধ  ইৎরঃঃধ ঞড়ৎশবষংংড়হ এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।
#
তারিক/সেলিম/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৯৫০ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                       নম্বর : ৭৭০
চার মূলনীতির ওপর সরকারের দৃঢ় অবস্থানই স্বল্পোন্নত থেকে উত্তরণের চাবিকাঠি
                                                                       --- তথ্যমন্ত্রী
ঢাকা, ২৭ ফাল্গুন (১১ মার্চ ) : 
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, সংবিধানের চার মূলনীতির ওপর দৃঢ় অবস্থান নিয়ে বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত থেকে উত্তরণ করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
আজ সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ‘বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত থেকে উত্তরণের ঘোষণাপত্র অর্জন উপলক্ষে তথ্য মন্ত্রণালয় পরিকল্পনা’ শীর্ষক সভায় সভাপতিত্বকালে তিনি একথা বলেন। তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, ভারপ্রাপ্ত তথ্যসচিব মোঃ নাসির উদ্দিন আহমেদ, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মনোয়ার আহমেদসহ তথ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাগণ সভায় অংশ নেন। 
মন্ত্রী বলেন, পঁচাত্তরের পরে সামরিক-স্বৈরশাসকেরা সংবিধান বহির্ভূত পথে দেশ পরিচালনার ফলে সেসময় বাংলাদেশ তার কাক্সিক্ষত লক্ষ্যে পৌঁছুতে পারেনি।  তিনি বলেন, শেখ হাসিনার দশ উদ্যোগসহ আন্তরিক ও ধারাবাহিক বহুমুখী প্রচেষ্টার ফলে মানুষের মাথাপিছু আয় বহুগুণে বেড়েছে, মাতৃ ও শিশু মৃত্যুর হার কমেছে, বেড়েছে জীবনযাত্রার মান ও গড়আয়ু।
শেখ হাসিনার সরকার আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে গণতন্ত্রকে সুসংহত করেছেন, সমাজতন্ত্র অনুসরণ করে সামাজিক উন্নয়নে রাষ্ট্রের ভূমিকা পুণঃনির্ধারণ করেছেন, ধর্মনিরপেক্ষতা বজায় রেখে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির পরিবেশ গড়ে জাতিকে বিস্ময়কর উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়েছেন, আজকের এ উত্তরণ তারই ফসল, বলেন হাসানুল হক ইনু।  
বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত থেকে উত্তরণ উপলক্ষে তথ্য মন্ত্রণালয় বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে উল্লেখ করে হাসানুল হক ইনু বলেন, এর মধ্যে রয়েছে ২২ মার্চ সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের উন্নয়ন কার্যক্রমের ছবির একটি সংকলন তথ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর। ঐ দিন দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ব্যানার, ফেস্টুন ও বাদ্যযন্ত্রসহ তথ্য মন্ত্রণালয় ও এর সকল সংস্থার কর্মকর্তা, কর্মচারীবৃন্দ, অভিনয় শিল্পী, কলাকুশলি ও গণমাধ্যমকর্মীর অংশগ্রহণ। এর আগে ঢাকায় কেন্দ্রীয়ভাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনেও তথ্য মন্ত্রণালয় অংশ নেবে বলে জানান ইনু।
এছাড়া, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক গণমাধ্যমে এ বিষয়ে প্রচারের জন্য তথ্য অধিদফতর কাজ করছে, বাংলাদেশ টেলিভিশন, বাংলাদেশ বেতার ও গণযোগাযোগ অধিদপ্তর প্রচারণা কার্যক্রম হাতে নিয়েছে এবং চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর প্রকাশিত সরকারের উন্নয়ন বিষয়ক দুই ধরণের ৬ লাখ পোস্টার গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের মাধ্যমে দেশব্যাপী বিরতণ করছে বলেও সভায় জানান সংশ্লিষ্ট দপ্তর প্রধানগণ।
#
আকরাম/সেলিম/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৯১০ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                       নম্বর : ৭৬৯ 
কৃষিই সমৃদ্ধি
    --কৃষিমন্ত্রী
 ঢাকা, ২৭ ফাল্গুন (১১ মার্চ ) : 
উৎপাদনশীলতা ও আয় বৃদ্ধি এবং গ্রামীণ কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে এ দেশের বিশাল জনগোষ্ঠির সমৃদ্ধির জন্য কৃষির ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। দেশের জিডিপিতে বৃহৎ কৃষিখাত ফসল, মৎস্য, প্রাণিসম্পদ এবং বনের অবদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং প্রায় ৪২ দশমিক ৭ শতাংশ কর্মক্ষম শ্রমশক্তি এ খাতে নিয়োজিত। দেশের বৃহৎ ৩টি খাতের মধ্যে কৃষিখাতের প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়িয়েছে ২ দশমিক ৯৭ শতাংশে, যা গত অর্থবছরে ছিল ২ দমিক ৭৯ শতাংশ। বাংলাদেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করতে সার্বিক কৃষি ও পল্লী উন্নয়ন খাতকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার প্রদান করা হয়েছে। সরকারের কার্যকর পদক্ষেপের ফলে বিগত এক দশকে খাদ্যশস্যের উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে প্রায় ৩ গুণ এবং শাকসবজির উৎপাদন বেড়েছে প্রায় ৫ গুণ। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ জলাশয়ে মাছ আহরণের ক্ষেত্রে চতুর্থ এবং চাষের মাধ্যমে মাছ আহরণের ক্ষেত্রে পঞ্চম স্থানে রয়েছে। চাল উৎপাদনে বাংলাদেশ ঘাটতি থেকে উদ্বৃত্তের দেশে পরিণত হয়েছে।  
কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী আজ ঢাকায় বিএআরসি মিলনায়তনে ‘‘জাতীয় কৃষি নীতি ২০১৮ (খসড়া)’’ এর ওপর পর্যালোচনা কর্মশালায় এসব কথা বলেন।
মতিয়া চৌধুরী আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ, দূরদর্শী ও অগ্রসর নেতৃত্বের ফলে কৃষির আধুনিকায়নের ফলে বৃহৎ কৃষিখাতের মধ্যে কৃষি, বনজ ও মৎস্যসম্পদ খাতের প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধি পেয়েছে । এছাড়া সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়নের ফলেই এই সফলতা এসেছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সময় প্রণীত বাংলাদেশ সংবিধানে কৃষি বিপ্লবের লক্ষ্যে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ, জনগণের পুষ্টির স্তর উন্নয়ন ও জনস্বাস্থ্যের উন্নয়নকে রাষ্ট্রের অন্যতম কর্তব্য হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। স্বাধীনতার পর দীর্ঘসময় কৃষিখাতের উন্নয়ন কার্যক্রমের ধারাবাহিকতা বারবার ব্যাহত হয়েছে। সরকার কৃষক ও কৃষির সার্বিক উন্নয়নের দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা হিসেবে ‘জাতীয় কৃষি নীতি, ১৯৯৯ এবং পরবর্তী মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর ‘জাতীয় কৃষি নীতি, ২০১৩ প্রণয়ন করে।  ইতঃপূর্বে প্রণীত ‘জাতীয় কৃষি নীতি, ২০১৩’ পরিমার্জন ও সংশোধন করে সময়োপযোগী একটি নতুন ‘‘জাতীয় কৃষি নীতি ২০১৮ (খসড়া)” প্রণয়ন করা হয়েছে। 
কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন আব্দুল্লাহ্র সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য ড. আঃ রাজ্জাক ও আঃ মান্নান,  বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. মোঃ কবির ইকরামুল হক। মূল বিষয়বস্তু উপস্থাপন করেন কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ড. ওয়ায়েস কবীর। 
#
গিয়াস/সেলিম/সঞ্জীব/আব্বাস/২০১৮/১৮২৬ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                            নম্বর :  ৭৬৮
জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৬ প্রদান অনুষ্ঠান আয়োজনে কমিটি গঠন
ঢাকা, ২৭ ফাল্গুন (১১ মার্চ ) : 
জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৬ প্রদান অনুষ্ঠান আয়োজনের লক্ষ্যে কমিটি গঠন করা হয়েছে।
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু ও তথ্যপ্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম কমিটির উপদেষ্টা এবং তথ্যসচিব কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন। কমিটির অন্যান্য সদস্য হলেন- অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের একজন প্রতিনিধি, স¦রাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন প্রতিনিধি, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের একজন প্রতিনিধি, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের একজন প্রতিনিধি, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার ব্যবস্থাপনা পরিচালক, তথ্য অধিদফতরের প্রধান তথ্য অফিসার, তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক, তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন ও চলচ্চিত্র), তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন), তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সম্প্রচার), ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের পুলিশ কমিশনার,  জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক, বিএফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক, গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, বাংলাদেশ বেতারের মহাপরিচালক, বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভের মহাপরিচালক, চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক, তথ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব (প্রেস), তথ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব (তগ), তথ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব (প্রশাসন), তথ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব (প্রশাসন-২ অধিশাখা)। 
এছাড়া সদস্যদের মধ্যে আরো রয়েছেন, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু, অভিনেতা আকবর হোসেন পাঠান (ফারুক), অভিনেতা এম এ আলমগীর, চলচ্চিত্র পরিচালক মোরশেদুল ইসলাম, চলচ্চিত্র পরিচালক মুশফিকুর রহমান গুলজার, অভিনেত্রী রওশন আরা রোজিনা, অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন, অভিনেতা রিয়াজ আহমেদ, অভিনেতা জায়েদ খান, অভিনেতা ফেরদৌস আহমেদ ও অভিনেত্রী আরিফা পারভীন জামান মৌসুমী এবং সদস্য সচিব উপসচিব (চলচ্চিত্র)।
#
শাহীন/সেলিম/সঞ্জীব/আব্বাস/২০১৮/১৯০০ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                           নম্বর : ৭৬৭
স্পিকারের সাথে ইউএনএফপিএ’র কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভের সাক্ষাৎ
ঢাকা, ২৭ ফাল্গুন (১১ মার্চ ) : 
স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সাথে ইউএনএফপিএ’র কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ 
উৎ. অংধ  ইৎরঃঃধ ঞড়ৎশবষংংড়হ  আজ তাঁর কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাৎকালে তাঁরা সংসদীয় কার্যক্রম, নারীর ক্ষমতায়ন ও নারী দিবসের গুরুত্বসহ  বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।  
 এসময় স্পিকার  বলেন, ইউএনএফপিএ বাংলাদেশে বিভিন্ন কার্যক্রম করে যাচ্ছে যা প্রশংসনীয়। জাতীয় সংসদের সাথেও ইউএনএফপি’র প্রকল্প রয়েছে। যেখানে সংসদ সদস্যগণ সম্পৃক্ত হয়ে কাজ করছেন। তিনি সামাজিক ও স্বাস্থ্য সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে দেশে মাতৃ ও শিশু মৃত্যুহার হ্রাস এবং বাল্যবিবাহরোধে ইউএনএফপিএ’র ভূমিকার প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, মাতৃ ও শিশু স্বাস্থ্যসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ইউএনএফপিএ-এর অব্যাহত সহযোগিতা জাতীয় উন্নয়নে ইতিবাচক অবদান রাখছে। তিনি ভবিষ্যতে ইউএনএফপিএ’র সহযোগিতা আরো বৃদ্ধি পাবে বলে আশা প্রকাশ করেন।
 জয়িতা প্রকল্পের উল্লেখ করে স্পিকার বলেন, জয়িতার মাধ্যমে নারীরা সক্ষমতা অর্জন করছে। কর্মসংস্থানের পাশাপাশি পণ্যসামগ্রী তৈরি ও বাজারজাতকরণে সরকারি সহায়তায় এ প্রকল্প ইতোমধ্যে সারাদেশে সাড়া জাগিয়েছে। স্পিকার বাংলাদেশের নারী উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠানসমূহে সহযোগিতার জন্য ইউএনএফপিএ প্রতিনিধিকে আহ্বান জানান।
ড. অশা বৃত্ত টরকেলসন স্পিকারকে নারী নেতৃত্বের অনন্য প্রতীক উল্লেখ করে বলেন, সুযোগ তৈরি করে দিলেই নারীরা এগিয়ে আসবে, সক্ষমতা অর্জন করবে। নারী ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ অনুকরণীয়। জয়িতা প্রকল্পের প্রশংসা করে তিনি বলেন, নারী স্বাস্থ্য ও নারীদের সৃজনশীলতা বৃদ্ধিতে ইউএনএফপিএ বাংলাদেশের পাশে থাকবে। তিনি মাতৃ ও শিশু স্বাস্থ্য সুরক্ষা, মাতৃমৃত্যু হার হ্রাস এবং বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ বিষয়ে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সাথে যৌথ কার্যক্রম আরো জোরদার করারও আগ্রহ প্রকাশ করেন।
#
তারিক/সেলিম/রফিকুল/আব্বাস/২০১৮/১৭৪২ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ৭৬৬ 
যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরে মাদক ও জঙ্গিবাদবিরোধী সেমিনারে 
ঢাকা, ২৭ ফাল্গুন (১১ মার্চ) :   
যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর আয়োজিত ‘মাদকের অপব্যবহার রোধ, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী কর্মকা-ে যুবদের ভূমিকা’ শীর্ষক সেমিনার আজ ঢাকায় যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. শ্রী বীরেন শিকদার সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। 
প্রতিমন্ত্রী বলেন, যুবদের সার্বিক কল্যাণার্থে জাতীয় যুবনীতি ২০১৭ এর আলোকে বর্তমানে অ্যাকশন প্ল্যান প্রণয়নের কাজ শুরু হয়েছে। এই অ্যাকশন প্ল্যানে মাদকের অপব্যবহার রোধ, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী কার্যক্রমে যুবদের সক্রিয় অংশগ্রহণের লক্ষ্যে তাদেরকে ক্ষমতায়িত করার বিষয়টি প্রাধান্য দেয়া হয়েছে। যুবদের প্রশিক্ষণ প্রদান ও ঋণ সহায়তা প্রদানে তাদের আত্মকর্মী হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে। এছাড়া তালিকাভুক্ত ১৮ হাজারের অধিক যুব সংগঠনের অংশগ্রহণে জেলা-উপজেলায় জঙ্গি ও সন্ত্রাসবিরোধী কার্যক্রম ও মাদকের অপব্যবহাররোধে বিভিন্ন কর্মসূচি পরিচালনা করা হচ্ছে।
যুব অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে যুবসচিব মো. আসাদুল ইসলাম, যুগ্মসচিব মো. মোফাজ্জল হোসেন, মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক সঞ্জয় কুমার চৌধুরীসহ  মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন।
#
শফিকুল/অনসূয়া/সুবর্ণা/রেজ্জাকুল/আসমা/২০১৮/১৬২০ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                                    নম্বর : ৭৬৫ 
সেতুমন্ত্রীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ
ঢাকা, ২৭ ফাল্গুন (১১ মার্চ ) : 
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এর মাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় যাঁরা সরাসরি টেলিফোন, খুদেবার্তা বা সশরীরে এসে খোঁজখবর নিয়েছেন ও মৃত্যুর পরে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন এবং কুলখানিতে অংশ নিয়েছেন তাদের সবাইকে পরিবারের পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন মন্ত্রী।
উল্লেখ্য, বেগম ফজিলাতুন্নেসা (৯২) গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ দিবাগত রাত ১০টা ৩৫ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ইন্তেকাল করেন।
#
ফয়েজ/অনসূয়া/সুবর্ণা/শামীম/২০১৮/১৫১৬ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                                       নম্বর :  ৭৬৪
পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি’র বৈঠক 
 ঢাকা, ২৭ ফাল্গুন (১১ মার্চ ) : 
পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি’র ৪২তম বৈঠক কমিটির সভাপতি রমেশ চন্দ্র সেনের সভাপতিত্বে আজ জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সদস্য এ কে এম ফজলুল হক, মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী এবং অনুপম শাহজাহান জয় বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। পানি সম্পদ মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন এবং প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।
বৈঠকে নদী ড্রেজিং নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয় এবং বিগত সাতবছরে ৯শত কি. মি নদী ড্রেজিং করা হয়েছে মর্মে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে কমিটিকে অবহিত করা হয়। কমিটি সারাবছর ড্রেজিং কার্যক্রম অব্যাহত রাখার সুপারিশ করে। আগামী মাসে খুলনায় পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রম সরেজমিনে পরিদর্শনের জন্য মন্ত্রণালয়কে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে।
প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত কপোতাক্ষ নদের জলাবদ্ধতা দূরীকরণ প্রকল্প ইতোমধ্যে বাস্তবায়িত হয়েছে এবং পদ্মা নদীর ভাঙ্গন হতে রাজশাহী মহানগরীর সোনাকান্দি হতে বুলনপুর পর্যন্ত এলাকা রক্ষা প্রকল্পের কাজ জুন/২০১৮ এর মধ্যে সম্পন্ন করা হবে মর্মে মন্ত্রণালয়ের প্রকল্প পরিচালক কমিটিকে অবহিত করেন। কমিটি নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে প্রকল্প কার্যক্রম সম্পন্ন করার জন্য মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে।
পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক, মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।
#
নুরুল/অনসূয়া/রেজ্জাকুল/শামীম/২০১৮/১৫০৯ ঘণ্টা 
             
Todays handout (10).docx Todays handout (10).docx

Share with :

Facebook Facebook