তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৫ মার্চ ২০১৮

তথ্যবিবরণী ০৪/০৩/২০১৮

তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর : ৬৯৪
জাতীয় পাট দিবস উপলক্ষে জেডিপিসি’র বিজ্ঞাপন বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার
ঢাকা, ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) : 
বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়াধীন ‘জুট ডাইভারসিফিকেশন প্রমোশন সেন্টার’ (জেডিপিসি) ২০০২ সাল থেকে প্রচলিত পাটপণ্যের পাশাপাশি দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারের চাহিদামাফিক উচ্চমূল্য সংযোজিত এবং উন্নতমানের বহুমুখী পাটপণ্য সামগ্রী উৎপাদন ও বাজারজাতকরণে সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে কাজ করছে। 
বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে আগামী ৬ মার্চ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে ‘জাতীয় পাট দিবস-২০১৮’ উদ্যাপন উপলক্ষে পুরস্কার বিতরণ এবং পাটপণ্য মেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে জাতীয় পাট দিবস-২০১৮ ও পাটপণ্য মেলার’ উদ্বোধন করতে সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী মুহাঃ ইমাজ উদ্দিন প্রামাণিক।
আসন্ন পাটমেলায় ব্যাপক জনসমাগম করার জন্য প্রচারণা অত্যন্ত জরুরি। বহুমুখী পাটপণ্য উৎপাদনকারী উদ্যোক্তাগণ পরিবেশবান্ধব নতুন নতুন ডিজাইন সমৃদ্ধ ও আকর্ষণীয় ২৩২ ধরনের পাটের তৈরি বিভিন্ন পণ্য উৎপাদন করছে। এসব দেশীয় পাটপণ্যকে জনগণের কাছে পরিচিত করা এবং এর ব্যবহার বৃদ্ধির লক্ষ্যে জেডিপিসি ব্যাপক কার্যক্রম গ্রহণ করেছে।
এ লক্ষ্যে জেডিপিসি থেকে প্রচারের উদ্দেশ্যে একটি বিজ্ঞাপন তৈরি করা হয়েছে। এর গুরুত্ব অনুধাবণ করে বিজ্ঞাপনটি বিটিভিসহ সকল বেসরকারি চ্যানেলে প্রচারের জন্য বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।
#
রীনা/সেলিম/আলী/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/২১৫০ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর : ৬৯৩
মানসম্পন্ন প্রযুক্তি ও যন্ত্রাংশ ব্যবহারের উদ্যোগ নিতে হবে
                                                                    ---- বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী
ঢাকা, ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) :
বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, গুণগত মানসম্পন্ন বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ী প্রযুক্তি ও যন্ত্রাংশ ব্যবহারে প্রণোদনার উদ্যোগ নিতে হবে। প্রক্রিয়াটি ¯্রডোকেই (টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ) শুরু করতে হবে। শিল্পকারখানায় কোজেনারেশনের মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ জ্বালানি সাশ্রয় করা সম্ভব। 
প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘৯ম আন্তর্জাতিক বাংলাদেশ ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইনোভেশন এন্ড ডেভলপমেন্ট (বিড) এক্সপো ও ডায়লগ’ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। 
নসরুল হামিদ বলেন, পরিবর্তন নিজের মধ্যে নিজেকেই আনতে হবে। প্রাথমিক বিনিয়োগ বেশি হলেও প্রকৃতপক্ষে নবায়নযোগ্য জ্বালানি লাভজনক। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট বিবেচনা করেই পরিকল্পনা ও নীতিমালা গ্রহণ করা হচ্ছে। তিনি বলেন, জাইকার অর্থায়নে ৫টি শিল্প কারখানাতে জ্বালানি সাশ্রয়ী প্রযুক্তি ও যন্ত্রাদি ব্যবহারে জন্য ৪ শতাংশ সুদে ৩ হাজার ৩৪৫ মিলিয়ন টাকা দেয়া হয়েছে। শিল্প কারখানার সংখ্যা এবং এ প্রক্রিয়ায় জনসম্পৃক্ততা বাড়ানোর উদ্যোগ অব্যাহত রাখতে হবে।
¯্রডোর সদস্য সিদ্দিক যোবায়েরের সঞ্চালনায় সমাপনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে ¯্রডোর চেয়ারম্যান মোঃ হেলাল উদ্দিন, ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের সিনিয়র এনার্জি বিশেষজ্ঞ ড. অশোক সরকার ও এডিবির ক্লিন এনার্জি এডভাইজার পিটার ডু পন্ট বক্তব্য রাখেন।
#
 
আসলাম/সেলিম/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/২১০০ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর : ৬৯২
 
ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালকে দেখতে সিএমএইচে তথ্যমন্ত্রী
 
ঢাকা, ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) :
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, দেশের জঙ্গি সন্ত্রাসীরা পিছু হটলেও এখনো হাল ছাড়েনি। শিক্ষক এবং জনপ্রিয় লেখক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের উপর চালানো আক্রমণ সেটিই প্রমাণ করেছে।
মন্ত্রী আজ রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালকে দেখার পর উপস্থিত সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।
হাসানুল হক ইনু বলেন, এই আক্রমণ এটাই প্রমাণ করল যে তারা এখনো চক্রান্ত করেই যাচ্ছে। সুতরাং জঙ্গি সন্ত্রাসী ও তাদের পৃষ্ঠপোষকদের প্রশ্নে কোনো ছাড় দেয়া যায় না।
এ ব্যাপারে জাতির ঐক্যবদ্ধ থাকা উচিত এবং জঙ্গি সন্ত্রাসী ও তাদের পৃষ্ঠপোষকদের সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস করা উচিত বলেন হাসানুল হক ইনু।
#
 
আকরাম/সেলিম/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/২০৪৫ঘণ্টা    
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর : ৬৯১
 
সেপ্টেম্বরে নতুন রোয়েদাদ 
              --- তথ্যমন্ত্রী
ঢাকা, ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) :
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, এবছর সেপ্টেম্বর মাসে অষ্টম ওয়েজ বোর্ডের মেয়াদান্তে নতুন ওয়েজ বোর্ডের রোয়েদাদ কার্যকর করতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হবে। মন্ত্রী আজ রাজধানীর কাকরাইলে বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট (পিআইবি) সেমিনার হলে নবম সংবাদপত্র মজুরিবোর্ডের প্রথম সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদানশেষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে একথা বলেন। 
৯ম ওয়েজ বোর্ডের চেয়ারম্যান বিচারপতি মোঃ নিজামুল হকের সভাপতিত্বে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, তথ্য মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মোঃ নাসির উদ্দিন আহমেদ, পিআইবি’র মহাপরিচালক মো. শাহ আলমগীর ও ওয়েজ বোর্ড সদস্যদের মধ্যে নিউজপেপার ওনার্স এসোসিয়েশন অভ্ বাংলাদেশ এর সভাপতি মতিউর রহমান, বাংলাদেশ সংবাদপত্র কর্মচারী ফেডারেশন সভাপতি মোঃ মতিউর রহমান তালুকদার এবং বাংলাদেশ ফেডারেশন ইউনিয়ন অভ্ নিউজপেপার প্রেস ওয়ার্কার্স সভাপতি মাঃ আলমগীর হোসেন খান সভায় অংশ নেন।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘নতুন ওয়েজ বোর্ডের কার্যকারীতা বৃদ্ধির জন্য বোর্ডে ঐকমত্যের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেবার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। সেইসাথে অংশীজনদের সাথে আলোচনার ভিত্তিতে ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমকর্মীদের ওয়েজ বোর্ডে অন্তর্ভুক্তির বিষয়টিও এগিয়ে নেবে নবম ওয়েজ বোর্ড।   
নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ড এর সচিব তথ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব (প্রেস) মোঃ মিজান-উল-আলমসহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাগণ সভায় উপস্থিত ছিলেন। 
#
 
আকরাম/সেলিম/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/২০৪০ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                                নম্বর : ৬৯০
 
খোলা ভোজ্যতেল বিক্রির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার তাগিদ 
ঢাকা, ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) :
 
ড্রামজাত খোলা ভোজ্যতেল বাজারজাতকারীদের বিরুদ্ধে ‘ভোজ্যতেল সমৃদ্ধকরণ আইন-২০১৩’ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার তাগিদ দিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পুষ্টিখাতের বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেন, দেশে ব্যবহৃত  মোট ভোজ্যতেলের শতকরা ৬৫ ভাগ ড্রামজাত খোলাতেল। এসব খোলাতেলের ৬০ শতাংশ ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধকরণ ছাড়াই বাজারজাত করা হচ্ছে। এর ফলে তৃণমূল পর্যায়ে মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরির সম্ভাবনা রয়েছে। যেসব ড্রামে এ তেল বিক্রি হচ্ছে সেগুলোও স্বাস্থ্যসম্মত নয় বলে তারা মন্তব্য করেন। 
 
খোলা ভোজ্যতেলে  ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধকরণ নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের নিয়ে আয়োজিত জাতীয় কর্মশালায় আজ বক্তারা এ তাগিদ দেন। গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ইম্প্রুভড্ নিউট্রেশন (এঅওঘ) এর সহায়তায় শিল্প মন্ত্রণালয় বাস্তবায়নাধীন ‘ফর্টিফিকেশন অভ্ এডিবল অয়েল ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় রাজধানীর একটি হোটেলে এ সেমিনার আয়োজন করা হয়।  
 
প্রকল্পের পরিচালক ও মন্ত্রণালয়ের যুগ্মপ্রধান মোহাম্মদ তাসারফ হোসেন ফরাজীর সভাপতিত্বে কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ দাবিরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আইসিডিডিআরবি’র ঊর্ধ্বতন পরিচালক ডা. তাহমিদ আহমেদ। অনুষ্ঠানে বিএসটিআই’র মহাপরিচালক সরদার আবুল কালাম, বাংলাদেশে নিযুক্ত নেদারল্যান্ডসের ডেপুটি হেড অভ্ মিশন ঔবৎড়বহ ঝঃববমযং এবং গেইন বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর উৎ. জঁফধনধ কযড়হফধশধৎ বক্তব্য রাখেন। 
 
#
 
জলিল/সেলিম/রফিকুল/আব্বাস/২০১৮/২০২৭ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর : ৬৮৯
 
মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান ও সুযোগসুবিধা নিশ্চিত করা হবে
                               --- মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী 
 
ঢাকা, ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) :
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, উন্নতদেশে বীরযোদ্ধাদের যেভাবে সম্মান ও সুযোগ সুবিধা দেয়া হয় বাংলাদেশের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সেভাবে সম্মানিত করার লক্ষ্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় কাজ করছে।
মন্ত্রী আজ লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার আমানতুল্যা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে পাটগ্রাম উপজেলার ৬নং সেক্টরের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
মোজাম্মেল হক বলেন, মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি স্থায়ীভাবে ধরে রাখার জন্য সকল বধ্যভূমি ও ঐতিহাসিক স্থান সংরক্ষণ, স্মৃতিসৌধ নির্মাণ ও মুক্তিযোদ্ধাদের কবর সংরক্ষণ হচ্ছে। এছাড়া ডিজিটাল সিকিউরিটিসমৃদ্ধ স্থায়ী সনদ ও আইডি কার্ড দেয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।
সকল মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে দেয়া হয়েছে বলে মন্ত্রী জানান। ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তালিকা দেখেই মুক্তিযোদ্ধা পোষ্যকোটায় চাকুরিতে নিয়োগপ্রাপ্তদের নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ নিয়োগ দিতে পারবে। এজন্য মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ বা সার্টিফিকেটের হার্ডকপি দেখানোর প্রয়োজন নেই বলে তিনি জানান।
মন্ত্রী বলেন, বাঙালি জাতির আত্মপরিচয়ের ঠিকানা হচ্ছে মহান মুক্তিযুদ্ধ। তাই আত্মবিশ্বাসী নতুন প্রজন্ম গড়ে তুলতে মহান মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নতুন প্রজন্ম গড়ে তুলতে পাঠ্যপুস্তকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস অন্তর্ভুক্ত করা হবে। 
অনুষ্ঠানে সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ, স্থানীয় সংসদ সদস্য মোঃ মোতাহার হোসেন, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য সফুরা বেগম রুমি এবং রুপালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক 
মোঃ আতাউর রহমান প্রধানসহ স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
#
 
নিজাম/সেলিম/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/২০২৫ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ৬৮৮
অবহেলার জন্য টার্মিনালে নিয়োজিত সংশ্লিষ্টদের প্রত্যাহারে নৌপরিবহন মন্ত্রীর নির্দেশ
ঢাকা, ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) :
ঢাকা সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল হকারমুক্ত করার কাজে অবহেলার জন্য সদরঘাট টার্মিনালে নিয়োজিত পুলিশ, আনসার ও সংশ্লিষ্টদের প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়েছেন নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান। 
মন্ত্রী আজ ঢাকা সদরঘাটে নিরাপদ ও দুর্ঘটনামুক্ত নৌযান চলাচল নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে ঈদপূর্ব এক প্রস্তুতি সভায় এ নির্দেশ দেন। 
বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মোঃ আবদুস সামাদ, বিআইডব্লিউটি’র চেয়ারম্যান কমডোর এম মোজাম্মেল হক, নৌপরিবহন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কমডোর সৈয়দ আরিফুল ইসলাম, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ চলাচল (যাত্রী পরিবহণ) সংস্থার চেয়ারম্যান মাহবুবউদ্দিন আহমেদ বীরবিক্রম এবং লঞ্চ মালিক সমিতির সহসভাপতি মোঃ শহীদ ভূইয়া ও সাইদুর রহমান রিন্টু উপস্থিত ছিলেন। 
মন্ত্রী বলেন, লঞ্চযাত্রীদের সেবার বিষয়ে কোনো ধরণের ছাড় দেয়া হবেনা। যাত্রী হয়রানি বন্ধ, ব্যাগ চুরি ও ঘাটে লেবারদের লাগেজ টানাটানি বন্ধ করতে হবে। যাত্রীদের দুর্ভোগে না ফেলতে তিনি সংশ্লিষ্টদের আরো কঠোর হওয়ার নির্দেশ দেন।  
শাজাহান খান বলেন, যাত্রীদের দুর্ভোগ লাঘবে নতুন টার্মিনাল ভবন করা হয়েছে। লঞ্চঘাটে জেটি ও পন্টুন বৃদ্ধি করা হয়েছে। সদরঘাটকে আধুনিকায়ন করা হয়েছে। তিনি বলেন, সদরঘাটে যাত্রীদের চাপ কমানোর লক্ষ্যে পোস্তগোলাস্থ শ্মশানঘাট সংলগ্ন এলাকায় আরেকটি টার্মিনাল ভবন নির্মাণ করা হবে। এ লক্ষ্যে সদরঘাট থেকে শ্মশানঘাট পর্যন্ত আড়াই কিলোমিটার রাস্তা পাকা করা হয়েছে। 
লঞ্চ থেকে যাত্রীরা যাতে কোনো ময়লা আবর্জনা সরাসরি নদীতে না ফেলে সে লক্ষ্যে প্রতিটি লঞ্চে ডাস্টবিনের ব্যবস্থা থাকবে। লঞ্চে রোটেশন প্রথা, ওভারলোডিং বন্ধ, সিঁড়িতে প্রটেকশনের ব্যবস্থা করতে হবে মর্মে সভায় সিদ্ধান্ত হয়।
#
জাহাঙ্গীর/সেলিম/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৯৫৫ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর : ৬৮৭
এক হাজার দশ জন কওমি আলেম এর সরকারি চাকুরিতে যোগদান 
ঢাকা, ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) :
কওমি সনদের সরকারি স্বীকৃতির পর আগামীকাল এক সাথে ১ হাজার ১০ জন কওমি আলেম সরকারি চাকুরিতে যোগদান করবেন। ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাস্তবায়নাধীন মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম প্রকল্পের দারুল আরকাম ইবতেদায়ি মাদ্রাসায় কওমি নেসাবের শিক্ষক হিসেবে তারা যোগদান করবেন। বাংলাদেশের ইতিহাসে একসাথে এত কওমি আলেমের সরকারি চাকুরিতে যোগদানের ঘটনা এটাই প্রথম।
 যোগদানশেষে সকল শিক্ষকের জন্য ৩ দিনব্যাপী ওরিয়েন্টেশন প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে। আগামীকাল বেলা ২.৩০ টায় বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের পূর্ব সাহানে উক্ত কর্মশালার উদ্বোধন করবেন ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পাবর্ত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, ধর্মসচিব মোঃ আনিছুর রহমান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বোর্ড অভ্ গভর্নরস এর গভর্নর মিছবাহুর রহমান চৌধুরী। সভাপতিত্ব করবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল।
#
নিজাম/সেলিম/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৯০০ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর : ৬৮৬
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক
ঢাকা, ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) :
দশম জাতীয় সংসদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠক কমিটির সভাপতি টিপু মুনশির সভাপতিত্বে আজ জাতীয় সংসদভবনে অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সদস্য ও মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন, মোঃ শামসুল হক টুকু, ওমর ফারুক চৌধুরী, মোঃ ফরিদুল হক খান এবং বেগম কামরুন নাহার চৌধুরী বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে বৈঠকে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক উপস্থিত ছিলেন।
 বৈঠকে ‘গাজীপুর মহানগরী পুলিশ বিল, ২০১৮’ এবং ‘রংপুর মহানগরী পুলিশ বিল, ২০১৮’ সর্ম্পকে বিস্তারিত আলোচনা হয় এবং পুঙ্খানুপুঙ্খ পরীক্ষানিরীক্ষাপূর্বক প্রয়োজনীয় সংশোধনীসহ সংসদে উপস্থাপনের সুপারিশ করা হয়।
লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হক, জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দীন, অতিরিক্ত মহাপুলিশ পরির্দশক মোঃ মোখলেসুর রহমান, ডিএমপি কমিশনার মোঃ আছাদুজ্জামান মিয়াসহ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।
#
নুরুল আবছার/সেলিম/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৮৫০ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                               নম্বর : ৬৮৫
সমবায় আন্দোলন দেশে উন্নয়ন ও দারিদ্র্যমোচনে কার্যকর ভূমিকা রাখছে
                                                        --- প্রতিমন্ত্রী রাঙ্গাঁ
                                      
হাতিবান্ধা, (লালমনিরহাট) ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) :
পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে সমবায় আন্দোলন দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়ন ও দারিদ্র্যমোচনে কার্যকর ভূমিকা রাখছে। তাঁরই উত্তরাধিকারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বহুমুখী সমবায় কার্যক্রমের মাধ্যমে বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধিশালী দেশের কাতারে নিয়ে যেতে বিভিন্ন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছেন।
প্রতিমন্ত্রী আজ লালমনিরহাট জেলার হাতিবান্ধ উপজেলার ভেলাগুড়িতে সমবায় সমিতির সদস্যদের মাঝে বিভিন্ন জাতের গাভি পালনের জন্য ঋণের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন। 
প্রতিমন্ত্রী বলেন, গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর দারিদ্র্যদূরীকরণ ও তাদের  স্বাবলম্বী করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নপ্রসূত একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এ প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে দেশের দারিদ্র্যমোচন, সুষ্ঠু কর্মসংস্থান ও বেকারত্ব বিমোচন সম্ভব হবে। তিনি বলেন, দুগ্ধ ঘাটতি ও মাংসের চাহিদা মেটাতে ৫০টি উপজেলায় দুগ্ধ কার্যক্রম সম্প্রসারণ করা হয়েছে। রংপুর জেলার গংগাচড়া উপজেলায় ডেইরি সমবায়ের কার্যক্রম সম্প্রসারণ করা হয়েছে।
পরে প্রতিমন্ত্রী সমবায় সমিতির সদস্যদের মাঝে গাভি পালনে ঋণের চেক বিতরণ করেন।  
#
আহসান/সেলিম/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৮৪৫ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                   নম্বর : ৬৮৪
জাপানের আইটি খাতে দক্ষ জনশক্তির ঘাটতিকে কাজে লাগাবে বাংলাদেশ
                                                        ---প্রতিমন্ত্রী পলক
ঢাকা, ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) :
তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিশ্বের মধ্যে ৩য় বৃহত্তম বাজার ও ৩য় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ জাপান এই খাতে প্রয়োজনীয় কর্মক্ষম মানুষের সংকটে ভুগছে। অপরদিকে বাংলাদেশে রয়েছে দক্ষ জনশক্তি। বাংলাদেশ সেই সুযোগটাই গ্রহণ করতে চায়। ২০২১ সালের মধ্যে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে ২০ লাখ তরুণতরুণীর কর্মসংস্থান ও ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করার যে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে, সেই লক্ষ্য অর্জনে জাপানি বাজারের যুথোপযোক্ত সুযোগ গ্রহণ করতে চায় বাংলাদেশ। 
 
আজ বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল(বিসিসি) ও জাপান ইন্টারন্যাশনাল কোঅপারেশন (জাইকা) আয়োজিত বাংলাদেশ-জাপান আইসিটি ইঞ্জিনিয়ারস ট্রেনিং প্রোগ্রাম (বি-জেট) এ অংশগ্রহণকারীদের মাঝে সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক একথা বলেন।
 
জাপানের রাষ্ট্রদূত ও জাইকা’র প্রতিনিধির কাছে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতে জাপানি কোম্পানির বিনিয়োগ বাড়াতে একান্ত সহযোগিতা কামনা করে প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, জাপান এক্সটারনাল ট্রেড অর্গনাইজেশন পরিচালিত জরিপ অনুসারেই বাংলাদেশ বিনিয়োগের জন্য সবচেয়ে আকর্ষণীয় স্থান। বাংলাদেশি কর্মীদের তুলনামূলক বেতন, বিদ্যুতের নিম্নমূল্য ও সস্তা উৎপাদন খরচের ফলে বাংলাদেশ জাপানি কোম্পানিগুলোর জন্য বিনিয়োগের আদর্শ জায়গা হতে পারে। বিনিয়োগের সার্বিক চিত্র নিয়ে এশিয়া ও ওশেনিয়া অঞ্চলের ২০ দেশের ওপর পরিচালিত সেই জরিপে উৎপাদনমুখী ও সেবা উভয় খাতেই বাংলাদেশ শীর্ষস্থান দখল করেছে।
 
জাপানের রাষ্ট্রদূত হিরোইয়াসু ইজুমা বলেন, জাপান-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক সবসময়ই অনন্য। তেমনিভাবে এই বি-জেট প্রশিক্ষণের মাধ্যমে যারা জাপানের আইটি খাতে কর্মসংস্থান নিশ্চিত করেছে, তারাও জাপানের আইটি খাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। 
#
নাছের/সেলিম/রফিকুল/আব্বাস/২০১৮/১৯১৬ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                                নম্বর : ৬৮৩
বাগেরহাটে খানজাহান আলী বিমানবন্দর নির্মাণে সহযোগিতা করতে আগ্রহী ভারত
ঢাকা, ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) :
বাগেরহাটে খান জাহান আলী বিমানবন্দর নির্মাণ এবং সৈয়দপুর বিমানবন্দর উন্নয়নের সহযোগিতা করতে আগ্রহী ভারত। বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা আজ সচিবালয়ে বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামালের সাথে সাক্ষাৎকালে এ আগ্রহের কথা জানান। 
হাইকমিশনার বলেন, বিমান চলাচল বৃদ্ধি, বিমানবন্দরের উন্নয়ন এবং পর্যটনশিল্পে সহযোগিতার ক্ষেত্রে দুই দেশ একসাথে কাজ করার সুযোগ আছে। এছাড়া হাইকমিশনার ১৯৬০ সালের স্বাক্ষরিত দুই দেশের এয়ার সার্ভিস এগ্রিমেন্ট (এএসএ) নবায়নের ব্যাপারে গুরুত্বারোপ করেন। 
হাইকমিশনারকে ধন্যবাদ জানিয়ে মন্ত্রী এসময় মহান মুক্তিযুদ্ধে ভারতের অবদানের কথা স্মরণ করে বলেন, ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্কের ভিত্তিই হলো মহান মুক্তিযুদ্ধ। ভবিষ্যতে এসম্পর্ক অটুট থাকবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
#
তুহিন/সেলিম/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৮৪০ঘণ্টা   
তথ্যবিবরণী                                                                                নম্বর : ৬৮২
 
অবহেলার কারণে নবজাতকের মৃত্যু মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন
                             --- মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী
ঢাকা, ২০ ফাল্গুন (৪ মার্চ ) :
মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেছেন, ডাক্তারের অবহেলার কারণে নবজাতকের মৃত্যুর ঘটনা প্রায়ই সংবাদের শিরোনাম হয়। অবহেলা বা সতর্কতার অভাবে কোনো নবজাতকের মৃত্যু হলে তা মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন। যে নবজাতকের মৃত্যু রোধ করা সম্ভব কিন্তু তা করা হয়নি, এটাও এক ধরণের সহিংসতা। নবজাতকরা অতিমাত্রায় নাজুক তাই নবজাতকের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। 
প্রতিমন্ত্রী আজ রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে বাংলাদেশ নিওনেটোল ফোরাম আয়োজিত ৫ম আন্তর্জাতিক সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
বাংলাদেশ নিওনেটোল ফোরাম আয়োজিত ৫ম সম্মেলনে দেশের এবং ইউরোপ, আমেরিকা, কানাডা, সিঙ্গাপুর, ফিলিপাইন, থাইল্যান্ড ও ইন্ডিয়া থেকে আগত নামকরা নবজাতক বিশেষজ্ঞগণ বিভিন্ন বিষয়ে বৈজ্ঞানিক বার্তা প্রদান করেন। ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলা থেকে আগত ৭ শত এর অধিক চিকিৎসক এই বৈজ্ঞানিক সম্মেলন অংশগ্রহণ করেন। এই সম্মেলনের শিরোনাম হলো ঊহংঁৎব ছঁধষরঃু ঈধৎব: ঊহফ চৎবাবহঃধনষব  ঘবনিড়ৎহ উবধঃয.
বিএনএফ’র সভাপতি অধ্যাপক ডা. সুফিয়া খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিএনএফ’র মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এম এ মান্নান, বিশেষ অতিথি অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সহিদুল্লা, অধ্যাপক ডা. নাজমুন নাহার, অধ্যাপক ডা. এমকিউকে তালুকদার এবং মোঃ আবিদ হোসেইন মোল্লা।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশের নবজাতকের সেবা নিশ্চিত করতে ১৯৯৮ সালে এ ফোরাম যাত্রা শুরু করে। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে এই ফোরাম বাংলাদেশ সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এবং দাতা সংস্থার (ইউএসএআইডি, ইউনিসেফ, ব্র্যাক, সেভ দ্য চিল্ড্রেন) পারস্পরিক সহযোগিতায় নবজাতকের সেবা নিশ্চিত করতে বিভিন্ন কর্মকা-ে নিয়োজিত আছে। 
#
খায়ের/সেলিম/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/১৮৩০ঘণ্টা 
Todays handout (10).docx Todays handout (10).docx

Share with :

Facebook Facebook