তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২nd জুন ২০১৮

তথ্যবিবরণী 2/6/2018

তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ১৬৪৬
 
সকল জরাজীর্ণ ভূমি অফিসকে আধুনিক ভবনে রূপান্তর করা হবে 
                                                        -- ভূমিমন্ত্রী
 
আটঘরিয়া (পাবনা), ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) : 
 
ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ বলেছেন, বাংলাদেশের কোনো ভূমি অফিস ভবন আর জরাজীর্ণ থাকবে না। সরকার সারাদেশের সাড়ে ৩ হাজারের অধিক জরাজীর্ণ পুরাতন ভূমি অফিসকে নতুন ভবনে রূপান্তরের নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন করছে। মন্ত্রী আরও বলেন, ইউনিয়ন ভূমি অফিসগুলোকে ডিজিটাল ল্যান্ড ম্যানেজমেন্ট এর আওতায় আনারও কাজ চলছে। অনলাইনের মাধ্যমে যে কেউ যে কোনো প্রান্ত থেকে নিজের জমির হিসাব নিতে পারবেন। 
 
আজ বিকালে আটঘরিয়া উপজেলার চাঁদভা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় চত্বরে চাঁদভা ইউনিয়ন ভূমি অফিস ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমি মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
 
ভূমিমন্ত্রী বলেন, ভূমি অফিসে এলাকার সকল ভূমি মালিকদের জমির খতিয়ান, দলিল, পর্চা ইত্যাদির তথ্য সংরক্ষণ করা থাকে। তিনি বলেন, ২০১৪ সালে দুষ্কৃতকারীরা নাশকতা চালিয়ে অনেক জরাজীর্ণ ভূমি অফিসে আগুন দিয়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র পুড়িয়ে ফেলেছিল। এখন থেকে এধরনের নাশকতা বন্ধ হবে। মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ উন্নয়নের রাজনীতিতে বিশ^াসী। ৩৬ লাখ ৬২ হাজার ৫০০ টাকা ব্যয়ে চলতি বছরের অক্টোবরের মধ্যেই চাঁদভা ইউনিয়ন ভূমি অফিস নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।
 
চাঁদভা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আশরাফুল আলম এর সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যের মধ্যে বাংলাদেশের ইউনিয়ন ভূমি অফিস অফিস নির্মাণ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক যুগ্ম সচিব মাহবুব শাহীন, আটঘরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আকরাম আলী, ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল ইসলাম কামাল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। 
 
এর আগে মন্ত্রী ঈশ^রদী ও আটঘরিয়া উপজেলার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিগত পর্যায়ে স্বেচ্ছাধীন তহবিলের দশ লাখ টাকা বিতরণ করেন। 
#
 
রেজুয়ান/সেলিম/মোশারফ/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/২২০০ ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                     নম্বর : ১৬৪৫
 
বাংলাদেশবিরোধী ব্যক্তিরা রাজনীতির ব্যানারে ষড়যন্ত্র করছে 
                                              -- প্রতিমন্ত্রী রাঙ্গাঁ
 
ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) : 
 
পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ বলেছেন, অন্তর্ভুক্তিমূলক ও পরিবেশবান্ধব প্রবৃদ্ধি অর্জন এর সীমিত সম্পদের মাধ্যমে দারিদ্র্যবিমোচন করে। বাংলাদেশ আজ বিশ্বব্যাপী উন্নয়নের রোলমডেল। তিনি আজ রাজধানীর হোটেল অর্নেটে স্বদেশ বাংলা সাংস্কৃতিক সংগঠন আয়োজিত বর্তমান সরকারের উন্নয়ন ও অগ্রগতি বিষয়ে এক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। 
 
স্বদেশ বাংলা সাংস্কৃতিক সংগঠনের উপদেষ্টা রেজাউল করিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট শিল্পপতি মোঃ জাহাঙ্গীর সেলিম, বীর মুক্তিযোদ্ধা জহুরুল ইসলাম খান, অভি চৌধুরী, মোঃ রুহুল আমিন ও মোঃ রাসেল আহমেদ।
 
প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতীয় মাথাপিছু আয়, গড় আয়ু, খাদ্য উৎপন্ন বৃদ্ধি ও কর্মসংস্থানসহ সব সূচকে এগিয়ে গিয়েছে দেশ। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, স্যানিটেশন, নারীর সামাজিক ক্ষমতায়নে বিশ্বে অন্যতম প্রথম সারিতে বাংলাদেশ।  তিনি বলেন, এসব অর্জন থামিয়ে দিতে বাংলাদেশবিরোধী ব্যক্তিরা রাজনীতির ব্যানারে ষড়যন্ত্র করছে। এদের নীলনকশা রুখে দিতে স্বদেশ বাংলা সাংস্কৃতিক সংগঠনের মতো স্বাধীন ও মুক্তচিন্তার সংগঠনগুলোকে সুপরিকল্পিত ভূমিকা রাখতে হবে। তিনি সংগঠনটির সমাজ সচেতনতামূলক কর্মকা-ের প্রশংসা করে এটিকে সার্বিক সহায়তার আশ্বাস দেন। 
 
 #
 
আহসান/সেলিম/মোশারফ/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/২১২০ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                     নম্বর : ১৬৪৪

বর্তমান সরকার কৃষি উন্নয়নবান্ধব
           -- বীর বাহাদুর উশৈসিং

বান্দরবান, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) : 

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং বলেছেন, বর্তমান সরকার কৃষি উন্নয়নবান্ধব। সরকার কৃষকদের সার্বিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আজ বান্দরবান সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন কেন্দ্রের অফিস ভবনের উদ্বোধনকালে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

এসময় প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, কৃষকদের ভাগ্যোন্নয়নে প্রতিটি এলাকায় প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের উদ্যোগে গরু, ছাগল, ভেড়াসহ বিভিন্ন প্রকার প্রাণী বিতরণের উদ্যোগ হাতে নিয়েছে বর্তমান সরকার। এই সরকারের আমলে পাহাড়ের ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকা- সাধিত হচ্ছে যার ফলে এ এলাকার মানুষের  জীবনমানের উন্নতি হচ্ছে। 

উল্লেখ্য, মৎস্য ও  প্রানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের ইউএলডিসি প্রকল্পের আওতায় ১ কোটি ২ লাখ টাকা ব্যয়ে সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন কেন্দ্রটি তৈরি করা হয়।

#

জুলফিকার/সেলিম/মোশারফ/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/২০২০ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                     নম্বর : ১৬৪৩

স্বাধীনতার চেতনায় ফুটবলে জোয়ার আনতে হবে
                                      -- তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) : 

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘দেশের ইতিহাস ও স্বাধীনতার সাথে ফুটবল ক্রীড়াঙ্গন একাত্ম হয়ে মিশে রয়েছে। একাত্তরে স্বাধীন বাংলা ফুটবল দল ভারতে ম্যাচ খেলে মুক্তিযুদ্ধে অর্থযোগান দিয়েছিল।  স্বাধীনতার মন্ত্রে উজ্জীবিত হয়েই আমাদের ফুটবলে নতুন করে জোয়ার আনতে হবে।’

আজ রাজধানীর ডিআইটি এভিনিউয়ে বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন মিলনায়তনে ক্রীড়াসাংবাদিক মাসুদ আলমের ‘ফুটবলের গল্প, ফুটবলারদের গল্প’ গ্রন্থের রঙিন দ্বিতীয় সংস্করণ  প্রকাশনা উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী একথা বলেন।

সাবেক স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের কৃতী অধিনায়ক জাকারিয়া পিন্টু, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিনসহ ক্রীড়াঙ্গন প্রতিনিধিদের এদিনের আসরে মন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশের সকলে যার যার জায়গা থেকে স্বাধীনতা সংগ্রামে অংশ নিয়েছে।’

‘শিক্ষক তার ক্লাসে, কবি তার কলমে, গেরিলাযোদ্ধা তার আক্রমণে,  ফুটবলার তার খেলায়, কৃষক তার জমিতে, বৈমানিক তার বিমানে, নাবিক তার জাহাজে -এমন করে দেশের সকল মানুষ স্বাধীনতা আর মুক্তিযুদ্ধে তাদের অবদান রেখেছে’ উল্লেখ করে মুক্তিযুদ্ধে দশ হাজার গেরিলাযোদ্ধার প্রশিক্ষক হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘সেই ইতিহাস জড়ানো সকল বিষয়ই যতেœর দাবিদার। ফুটবলও এর অংশ।’

‘সবচেয়ে কম খরচে যে অনন্য ক্রীড়া সারা দেশের মানুষের জনপ্রিয়, তা ফুটবল। তাই ফুটবলে মন্দাভাব থাকা যাবে না, উত্তরণে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে’, বলেন সাবেক কৃতী ফুটবলার ইনু।

বইটির লেখক দৈনিক প্রথম আলোর বিশেষ সংবাদদাতা মাসুদ আলমের প্রশংসা করে মন্ত্রী বিগত ছয় দশকের একশ’ ফুটবলারের ডায়েরিস্বরূপ এ গ্রন্থটি সকলকে পড়ে দেখার অনুরোধ জানান।

তথ্যমন্ত্রী এসময় স্বাধীনতাপূর্ব জাতীয় ফুটবল দলে গোলরক্ষক হিসেবে নিজের খেলাকালের স্মৃতিচারণ করে স্টপার ও মধ্যমাঠের খেলোয়াড় জাকারিয়া পিন্টুর দুর্দান্ত দক্ষতার কথা ও কাজী মোঃ সালাউদ্দিনের জনপ্রিয়তার কথাও স্মরণ করেন।

#

আকরাম/সেলিম/সঞ্জীব/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৯৩০ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                     নম্বর : ১৬৪২

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনারের সাথে বৈঠকে আইনমন্ত্রী
চলমান মাদক বিরোধী অভিযান একটি সাময়িক ব্যবস্থা

ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) : 

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার জেইদ রাদ আল হোসেইনকে আশ্বস্ত করে বলেছেন, বাংলাদেশে মাদক নিয়ন্ত্রণের জন্য চলমান অভিযান একটি সাময়িক ব্যবস্থা এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসামাত্র এই অভিযান শেষ করা হবে। আইনমন্ত্রী বলেন, মাদক বিরোধী অভিযানে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কর্তৃক অবৈধ বল প্রয়োগের কোন অভিযোগ পেলে সরকার তা তদন্ত করবে এবং প্রমাণিত হলে অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনা হবে। 

গতকাল সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনারের  সঙ্গে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে আইনমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় তারা বাংলাদেশ ও বিশ্ব মানবাধিকার সম্প্রসারণ ও সুরক্ষা আরো নিশ্চিত করার উপায় ও পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করেন।

বৈঠকে আইনমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ার ফলে বাংলাদেশ যেসব সমস্যা মোকাবিলা করছে তা তুলে ধরেন। পাশাপাশি মাদক পাচার ও এর ব্যবহার সংশ্লিষ্ট ক্রমবর্ধমান সাম্প্রতিক সমস্যা তুলে ধরেন তিনি। আইনমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের যুব সমাজ মাদকদ্রব্যের ক্ষতিকর প্রভাবের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তাই দেশব্যাপী চলমান মাদক বিরোধী অভিযান চালাতে সরকার বাধ্য হয়েছে। এর ফলে অনেক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার হয়েছে এবং দুর্ভাগ্যবশত মাদক বিক্রেতাদের সশস্ত্র প্রতিরোধের কারণে বেশ কিছু মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছে। 

বৈঠকে হাইকমিশনার মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের প্রতি বাংলাদেশের চলমান উদারতা পশ্চিমা বিশ্বসহ অন্যান্য অনেক দেশের কাছে একটি প্রকৃত উদাহরণ হয়ে থাকবে বলে উল্লেখ করেন। এসময় তিনি জাতিসংঘের মানবাধিকার ব্যবস্থার সাথে বাংলাদেশের সক্রিয় ও প্রতিক্রিয়াশীল অংশগ্রহণের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

#

রেজাউল/সেলিম/সঞ্জীব/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৭০০ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                       নম্বর : ১৬৪১

জেনেভায় আইএলও মহাপরিচালকের সাথে আইনমন্ত্রীর বৈঠক

ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) : 

আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার (আইএলও) মহাপরিচালক গাই রাইডারের সাথে গতকাল শুক্রবার সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অনুষ্ঠিত ১০৭তম আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে যোগদানের পাশাপাশি আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বৈঠক করেন। বৈঠকে তিনি বাংলাদেশে শ্রমিক অধিকার সুরক্ষায় বর্তমান সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন এবং আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার শুনানির তালিকা থেকে বাংলাদেশের নাম বাদ দেওয়ায় আইএলও মহাপরিচালককে ধন্যবাদ জানান।

বৈঠকে শ্রম প্রতিমন্ত্রী মোঃ মুজিবুল হক, আইন মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হক, শ্রম সচিব আফরোজা খান, জেনেভায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শামীম আহমেদসহ শ্রম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির প্রতিনিধি এবং ব্যবসায়িক ও শ্রমিক সংগঠনের প্রতিনিধিগণও উপস্থিত ছিলেন। 

#

রেজাউল/সেলিম/সঞ্জীব/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৭১০ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                           নম্বর : ১৬৪০
 
মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ
 
ঢাকা, ১৯ জ্যৈষ্ঠ (২ জুন) : 
 
মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোঃ বিল্লাল হোসেনের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। 
 
শিক্ষামন্ত্রী আজ কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ আলমগীরকে মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ তদন্তের জন্য একটি কমিটি গঠন এবং কমিটিকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন।
 
সম্প্রতি একটি দৈনিকে প্রকাশিত সংবাদের প্রেক্ষিতে এ নির্দেশ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। 
 
#
আফরাজ/সেলিম/সঞ্জীব/আব্বাস/২০১৮/১৭০৭ ঘণ্টা  
Todays handout (4).docx Todays handout (4).docx

Share with :

Facebook Facebook